খুলে গেল স্বপ্ন সেতুর দ্বার, নবযুগের ‘টার্নিং পয়েন্টে’ বাংলাদেশ

  ‘স্বপ্ন ছুঁয়েছে’ পদ্মার এপার-ওপার



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
খুলে গেল স্বপ্ন সেতুর দ্বার, নবযুগের ‘টার্নিং পয়েন্টে’ বাংলাদেশ

খুলে গেল স্বপ্ন সেতুর দ্বার, নবযুগের ‘টার্নিং পয়েন্টে’ বাংলাদেশ

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলার, বাঙালির ইতিহাসে যুক্ত হলো লাল হরফের গৌরবময় দিন। স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে নবযুগের 'টার্নিং পয়েন্ট' স্পর্শ করলো বাংলাদেশ। পদ্মা সেতুর আনুষ্ঠানিক যাত্রারথে সংযোগ, গতি, উন্নয়ন, জনমৈত্রী আর বাঙালির ক্ষমতায়নের শিখরস্পর্শী প্রত্যাশা খুঁজে পেলো বাস্তবের দিশা।    

শনিবার (২৫ জুন) প্রমত্তা নদীর সেতুবন্ধনে লক্ষ-কোটি মানুষের হর্ষ ও আনন্দধ্বনিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করেন ঐতিহাসিক পদ্মা সেতু।

ঘড়িতে যখন ১২টা, মাওয়া পয়েন্টে একজন যাত্রী হিসেবে টোল পরিশোধের পর উদ্বোধনী ফলক ও ম্যুরাল-১ উন্মোচনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে মাওয়া পয়েন্টে প্রধানমন্ত্রী স্মারক ডাকটিকিট, স্যুভেনির শিট, উদ্বোধনী খাম এবং বিশেষ সিলমোহর উন্মোচন করেন।


তিনি সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে হেলিকপ্টারযোগে ঢাকার তেজগাঁও বিমানবন্দর থেকে মাওয়া পয়েন্টে পৌঁছান। সেখানে তিনি সুধী সমাবেশে যোগ দেন কর্মসূচিতে যোগ দেন।

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের সঙ্গে সঙ্গে খুলে গেলো স্বপ্নের দ্বার। পূরণ হলো দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের বহু যুগের লালিত স্বপ্ন। সেতুর উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে বিশ্ববাসী আরেকবার জানল বাংলাদেশের অহং, আবেগ ও আভিজাত্যের জৌলুশ।

পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোটি কোটি দেশবাসীর সঙ্গে আমিও আজ আনন্দিত, গর্বিত এবং উদ্বেলিত। অনেক বাধা-বিপত্তি উপেক্ষা করে আর ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে প্রমত্তা পদ্মার বুকে আজ বহু-কাঙ্ক্ষিত সেতু দাঁড়িয়ে গেছে। এই সেতু শুধু ইট-সিমেন্ট-স্টিল-লোহার কংক্রিটের একটি অবকাঠামো নয় এ সেতু আমাদের অহঙ্কার, আমাদের গর্ব, আমাদের সক্ষমতা আর মর্যাদার প্রতীক। এ সেতু বাংলাদেশের জনগণের।

শেখ হাসিনা বলেন, তারুণ্যের কবি, দ্রোহের কবি সুকান্ত ভট্টাচার্য্যের ভাষায় তাই বলতে চাই: সাবাস, বাংলাদেশ, এ পৃথিবী অবাক তাকিয়ে রয়ঃ জ্বলে পুড়ে মরে ছারখার, তবু মাথা নোয়াবার নয়।

মাওয়া প্রান্তের ফলক উন্মোচনের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাওয়া পয়েন্ট থেকে শরীয়তপুরের জাজিরা পয়েন্টের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করবেন। প্রধানমন্ত্রী বেলা ১১টা ৪৫ মিনিটে জাজিরা পয়েন্টে পৌঁছে সেতু ও ম্যুরাল ২-এর উদ্বোধনী ফলক উন্মোচন করবেন।

এদিকে, পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষ্যে আয়োজিত সুধী-সমাবেশে দেশি-বিদেশি কয়েক হাজার অতিথিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এরপর প্রধানমন্ত্রী শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্ত থেকে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়িতে যাবেন। সেখানে তিনি আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় যোগ দেবেন। আওয়ামী লীগ এ জনসভায় ১০ লাখ লোক জমায়েত করার ঘোষণা দিয়েছেন। জনসভায় যোগদান শেষে জাজিরা প্রান্তের সার্ভিস এরিয়া-২ তে যাবেন। সেখান থেকে তিনি হেলিকপ্টারযোগে ঢাকায় ফিরে আসবেন।

  ‘স্বপ্ন ছুঁয়েছে’ পদ্মার এপার-ওপার

নোয়াখালীতে আপত্তিকর অবস্থায় আইনজীবী গ্রেফতার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
নোয়াখালীতে আপত্তিকর অবস্থায় আইনজীবী গ্রেফতার

নোয়াখালীতে আপত্তিকর অবস্থায় আইনজীবী গ্রেফতার

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালীর মাইজদীর হাউজিং এস্টেটের স্বপ্নচূড়া আবাসিক ফ্ল্যাট থেকে আপত্তিকর অবস্থায় এক আইনজীবীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার মাছুম আরাফাত (৪০) নিজেকে জেলা জজ আদালতের আইনজীবী হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন। তার বাড়ি সুবর্ণচরে। থাকেন জেলা শহরের ল'ইয়ার্স কলোনিতে।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকালে আসামিকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে, বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে ওই ফ্ল্যাটের ৫ম তলার বি ব্লকের বাসা থেকে তাকে আটকের পর বিকেলে ৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠায় পুলিশ। পরে বিচারকের নির্দেশে তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, স্বপ্নচূড়া আবাসিক ফ্ল্যাটের ৫ম তলার বি ব্লকের এক নারীর সঙ্গে তার স্বামীর অনুপস্থিতিতে বাসায় অবস্থান করে আইনজীবী মাছুম আরাফাত। বিষয়টি স্থানীয়রা টের পেয়ে বাসাটি ঘিরে রেখে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ তাৎক্ষণিক মাছুম আরাফাতকে থানায় নিয়ে আসে।

সুধারাম মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান পাঠান জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয় মাছুম আরাফাতকে। আদালত পাঠানো হলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। পরে আসামিকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

  ‘স্বপ্ন ছুঁয়েছে’ পদ্মার এপার-ওপার

;

জেনে নিন কোথায় কখন লোডশেডিং



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

জ্বালানি সংকটের কারণে বিদ্যুৎ উৎপাদনের ঘাটতির জন্য দেশজুড়ে এলাকাভিত্তিক আজও লোডশেডিং শুরু হচ্ছে। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী শুক্রবারের (৩০ সেপ্টেম্বর) তালিকা প্রকাশ করেছে বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানিগুলো।

ঢাকা বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানি (ডিপিডিসি), ঢাকা ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি (ডেসকো), নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি (নেসকো), ওয়েস্টজোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউসন কোম্পানি (ওজোপাডিকো), বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) এবং বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিপিডিবি) এর ওয়েবাসাইটের নির্দিষ্ট লিংককে গিয়ে এই তালিকা দেখতে পারবেন গ্রাহকরা।

আজকে কোন এলাকায় কখন লোডশেডিং হবে, এর সূচি দেওয়া হয়েছে। দেখে নেওয়া যাক।

https://www.desco.org.bd/bangla/loadshed_b.php

http://www.wzpdcl.org.bd/

https://nesco.portal.gov.bd/site/page/13ccd456-1e1d-4b24-828d-5811a856f107

http://reb.portal.gov.bd/site/page/c65ac273-d051-416f-9a93-5cd300079047

https://bpdb.portal.gov.bd/site/page/cafea028-95e6-4fca-8fea-e4415aef9a60

https://www.desco.org.bd/bangla/loadshed_b.php

জ্বালানি সাশ্রয়ে উচ্চ ব্যয়ের ডিজেলচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ রাখার সরকারি সিদ্ধান্তের পর সরবরাহ সংকটে দেশজুড়ে প্রতিদিন সূচি ধরে কোথাও এক ঘণ্টা আবার কোথাও ২ ঘণ্টা করে লোডশেডিং করা শুরু হয় মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) থেকে।

এর আগে ১৮ জুলাই লোডশেডিংয়ের সিদ্ধান্ত সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বিদ্যুৎ ও জ্বালানিবিষয়ক সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

  ‘স্বপ্ন ছুঁয়েছে’ পদ্মার এপার-ওপার

;

হাতিয়ায় দুই ডাকাত গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ৩



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় দুই ডাকাত গ্রুপের সংঘর্ষে তিন ডাকাত নিহত হয়েছে। এ সময় কোস্টগার্ড ঘটনাস্থল থেকে তিনটি একনলা বন্দুক, দুই রাউন্ড তাজা গোলা এবং কিছু দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে।

নিহতর হলো ফখরুল গ্রুপের সদস্য কবির (৩৬), সাহারাজ (৩৭) এবং নবীর উদ্দিন ওরফে নূরনবী (৩৬)। তারা উপজেলার মেঘনা নদী সংলগ্ন চর ঘাসিয়ার বাসিন্দা।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়। শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকালে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।

এর আগে, হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন তিনটি মরদেহ উদ্ধার করার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার ভোররাত তিনটা থেকে সকাল নয়টা পর্যন্ত উপজেলার ঘাসিয়ার চর এলাকায় এ গোলাগুলি ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আগে চরের নিয়ন্ত্রণ ছিল ডাকাত খোকনের হাতে। একপর্যায়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে গ্রেফতার হয় সে। তারপর চর এলাকা নতুন করে নিয়ন্ত্রণ নেয় তার ভাই ফখরুল। কয়েক দিন আগে খোকন জামিন এসে আবার চরের নিয়ন্ত্রণ পেতে মরিয়া হয়ে উঠে। একপর্যায়ে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ডাকাত ফখরুলও খোকন বাহিনীর মধ্যে বুধবার দিনগত রাতে সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়। নিহত তিনজন ডাকাত ফখরুল গ্রুপের সদস্য।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হাতিয়া কোস্টগার্ডের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট সাফিউল কিঞ্জল বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে ৫ ডাকাতকে আটক করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে চলে আসার পর স্থানীয় সূত্র বলছে, ওই ঘটনায় তিন ডাকাত নিহত হয়েছে। তবে আমরা ঘটনাস্থলে থাকাকালীন তিন ডাকাত নিহত হওয়ার কোন আলামত দেখতে পাইনি।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়েছে বলে শুনেছেন।

  ‘স্বপ্ন ছুঁয়েছে’ পদ্মার এপার-ওপার

;

পরিবেশ সচেতনতায় আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেলেন সাংবাদিক শাহেদ শফিক



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
পরিবেশ সচেতনতায় আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেলেন সাংবাদিক শাহেদ শফিক

পরিবেশ সচেতনতায় আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেলেন সাংবাদিক শাহেদ শফিক

  • Font increase
  • Font Decrease

দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশের জলবায়ু, পরিবেশ ও উপকূল নিয়ে কাজ করায় আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছেন বাংলাদেশি সাংবাদিক শাহেদ শফিক।

পরিবেশ ও প্রকৃতি বিষয়ক আন্তর্জাতিক সংগঠন ‘উই ন্যাচারালিস্ট’ এ পুরস্কার দিয়েছে। তাদের ‘ক্লাইমেট চেঞ্জ ভয়েস অব দ্য ইয়ার’- এ ভূষিত হয়েছেন তিনি।

এ বছর তাকেসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মোট ১৬ জনকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে এ পুরস্কারে ভূষিত করা হয়।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে এ পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তরা প্রত্যেকে পাচ্ছেন এক হাজার ইউএস ডলার, ট্রফি ও সনদ।

শাহেদ শফিক ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) পাঁচবার বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড, ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) ‘অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা পুরস্কার-২০১৬’ ও ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) ‘অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা ফেলোশিপ-২০১৬’, ‘বাংলা ট্রিবিউন-ওমর ফারুক বর্ষসেরা পুরস্কার-২০১৯, ইউনিসেফ মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড-২০২১, রোটারি মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড-২০২১ ও গ্রিনম্যান অ্যাওয়ার্ড-২০২১ লাভ করেন। তিনি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন উপকূল বাঁচাও আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি।

  ‘স্বপ্ন ছুঁয়েছে’ পদ্মার এপার-ওপার

;