Alexa

ঈদের আগাম টিকিট বিক্রি

তৃতীয় দিনে ভিড় বেড়েছে বিমানবন্দর রেল স্টেশনে

তৃতীয় দিনে ভিড় বেড়েছে বিমানবন্দর রেল স্টেশনে

টিকিট নিতে স্টেশনে যাত্রীদের ভিড় / ছবি: বার্তা২৪

তৃতীয় দিনের মতো বিক্রি হচ্ছে ঈদের আগাম টিকিট। শুক্রবার (২৪ মে) ভোররাত থেকে যাত্রীরা ভিড় জমিয়েছেন রাজধানীর বিমানবন্দর রেল স্টেশনে। এদিন দেওয়া হচ্ছে ২ জুনের টিকিট।

সকালে রাজধানীর বিমানবন্দর রেল স্টেশনে গিয়ে দেখা যায়, টিকিটের জন্য কাউন্টারের সামনে এলোপাতাড়িভাবে অপেক্ষা করছেন যাত্রীরা। কেউ পড়ছেন পত্রিকা, কেউ ফেসবুক। কেউবা আবার গল্পগুজবে সময় পার করছেন। স্টেশনের চারটি কাউন্টারের তিনটিতে দীর্ঘ সারি রয়েছে। তবে নারী যাত্রীর উপস্থিতি খুবই কম।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/24/1558667841667.jpg

ঘড়ির কাঁটা ৯টা। প্রচার মাইক থেকে ঘোষণা আসে, কিছুক্ষণের মধ্যেই টিকিট বিক্রি শুরু হবে। আপনারা সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে যান। ঘোষণার পরপরই লাইনে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে যায় যাত্রীরা।

জানতে চাইলে উপস্থিত যাত্রীদের একজন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী মোশাররফ বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘ঈদের টিকিট নিতে সেহেরি খেয়ে বের হয়েছি। ৪-৫ ঘণ্টা অপেক্ষার পর টিকিট বিক্রি শুরু হলো। ঈদের টিকিট হাতে পাব, এমন প্রত‍্যাশা সবারই।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/24/1558668306123.jpg

নাবিস্কো থেকে এসেছেন আকাশ। টিকিট হাতে পেয়ে বেজায় খুশি। বার্তা২৪.কমকে জানান, বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে এসে লাইনে সিরিয়াল ধরেছেন তিনি। তার সামনে আরও পাঁচজন পূর্বেই অপেক্ষা করছিলেন টিকিটের জন্য। টিকিট হাতে পেয়েছেন। তাই কোনো ধরনের ভোগান্তি ছাড়া বাড়ি ফিরে ঈদের ছুটি কাটাবেন এমনটাই প্রত্যাশা তার।

বিমানবন্দর রেল স্টেশন থেকে এসি/নন-এসি মিলিয়ে সুবর্ণ এক্সপ্রেসে ২৩৫টি, নোয়াখালীগামী উপকূল এক্সপ্রেসে ১৫৫টি, চট্টগ্রামগামী মহানগর প্রভাতী এক্সপ্রেসে ১০৪টি, চট্টগ্রামগামী তূর্ণা এক্সপ্রেসে ১০০টি, চট্টগ্রামগামী মহানগর এক্সপ্রেসে ৬৫টি, চট্টগ্রামগামী চট্রলা এক্সপ্রেসে ১১৪টি এবং চট্টগ্রামগামী সোনার বাংলা এক্সপ্রেসে ১০০টি আসন রয়েছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/24/1558667870926.jpg

এর আগে গত দু’দিন ঈদের আগাম টিকিট বিক্রি হলেও যাত্রীর চাপ ছিল কম। ঈদের সময় যত ঘনিয়ে আসছে ততই বাড়ছে যাত্রীর চাপ।

আপনার মতামত লিখুন :