এবার ব্রাজিলকে হারাল মরক্কো



স্পোর্টস ডেস্ক
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বিশ্ব ফুটবলের প্রথাগত বড় শক্তি নয় মরক্কো। তবে গত বিশ্বকাপ তারা ছিল আলোচিত এক দল। গোটা বিশ্বকে চমকে দিয়ে আফ্রিকার প্রথম দল হিসেবে তারা জায়গা করে নেয় সেমি-ফাইনালে। এদিকে কাতার বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বাদ পড়ার পর প্রথমবারের মতো মাঠে নামে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ কাতার বিশ্বকাপে চমক দেওয়া মরক্কো।

বিশ্বকাপের সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখলো মরক্কো। এবার উত্তর আফ্রিকার দলটি ইতিহাস গড়ে হারিয়ে দিল পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ও হেভিওয়েট ব্রাজিলকে। রোববার (২৬ মার্চ) ভোররাতে ঘরের মাঠ ইবনে বতুতা স্টেডিয়ামে ২-১ গোলে জয় তুলে নিয়েছে মরক্কানরা। লাতিন জায়ান্টদের বিপক্ষে এটাই তাদের প্রথম জয়। বিশ্বকাপে রূপকথার গল্প লেখা নায়কদের দেখতে ৬৫ হাজার দর্শক গ্যালারিতে ছিলেন। তাদের সামনে উজ্জীবিত পারফরম্যান্স করে মরক্কো।

এদিকে প্রীতি ম্যাচ হলেও, পূর্ণশক্তির দল নিয়েই মাঠে নামে মরক্কো। ম্যাচের শুরু থেকেই একের পর এক আক্রমণে ব্রাজিল রক্ষণভাগকে ব্যস্ত রাখে এটলাস লায়ন্সরা। ম্যাচের দশম মিনিটে সুফিয়ান বৌফালের বাড়ানো বলে হাকিম জিয়াচের বাঁ পায়ের জোরালো শট ঠেকিয়ে দেয় ব্রাজিলের রক্ষণভাগ। ম্যাচের ১৩তম মিনিটে গোলের সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছিল ব্রাজিল। তবে লুকাস পাকেতার বাড়ানো বলে নবাগত রনির ডান পায়ের শট বারের ওপর দিয়ে চলে গেলে গোল বঞ্চিত হয় ব্রাজিল। এরপর ম্যাচের ২৪তম মিনিটে ফের একবার রনির শট ঠেকিয়ে দেন মরক্কোর গোলরক্ষক ইয়াসিন বুনো। একই মিনিটে আন্দ্রে সান্তোসের ডান‌ পায়ের শট রুখে দিয়ে জাল অক্ষত রাখেন বুনো। তবে প্রথমার্ধের সবচেয়ে বড় চমক দেয় মরক্কো। ব্রাজিল না পারলেও ম্যাচের ২৯ তম মিনিটে গোল করে বসে স্বাগতিকরা। বিলাল আল খানাউসের বাড়ানো বলে ডি বক্সের মাঝামাঝি অবস্থান থেকে বৌফালের জোরালো শট জালে জড়ালে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় মরক্কো।

এরপর ম্যাচের ৩৫তম মিনিটেও ভালো সুযোগ পেয়েছিল ব্রাজিল। তবে রনির অ্যাসিস্ট করা বলে রদ্রিগোর ডান পায়ের শট বারের ওপর দিয়ে চলে যায়। এরপর বাকি সময়ে আর তেমন কোনো জোরালো আক্রমণ করতে না পারায় ১-০ গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে যায় মরক্কো। প্রথমার্ধের মতো দ্বিতীয়ার্ধেও একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে ব্রাজিল। ম্যাচের ৪৮ তম মিনিটে রদ্রিগের শট ঠেকিয়ে দেয় মরক্কোর রক্ষণভাগ। ৫৪তম মিনিটে ফের একবার এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল মরক্কো। তবে ব্রাজিল রক্ষণভাগের দৃঢ়তায় সে যাত্রায় বেঁচে যায় সেলেসাওরা। এরপর ম্যাচের ৫৬তম মিনিটে কাসেমিরোর ক্রস থেকে ডি বক্সের বাইরে থেকে ভিনিসিয়াস জুনিয়রের শট রুখে দেয় মরক্কো। তবে ব্রাজিলকে বেশিক্ষণ আটকে রাখতে পারেনি মরক্কোর রক্ষণভাগ। ম্যাচের ৬৭তম মিনিটে সমতায় ফেরে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। লুকাস পাকেতার বাড়ানো বলে কাসেমিরোর ডান পায়ের শট জালে জড়ালে ১-১ গোলে সমতায় ফেরে সেলেসাওরা।

তবে ব্রাজিলকে খুব বেশিক্ষণ স্বস্তিতে থাকতে দেয়নি মরক্কোও। ম্যাচের ৭৯তম মিনিটে ব্যবধান ২-১ করে আবদেল হামিদ সাবেরি। ডি বক্সের মাঝামাঝি অবস্থান থেকে তার ডান পায়ের শট জালে জড়ালে হতাশ হতে হয় সেলেসাওদের। এরপর ম্যাচের বাকি সময়ে আর তেমন কোনো জোরালো আক্রমণ করতে না পারায় ২-১ গোলে হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় ব্রাজিলকে।

   

টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠাল নেপাল



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নেপালের বিপক্ষে আজ ঈদ উল আজহার দিনে মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ। এই ম্যাচে টসে জিততে পারেননি বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। টস ভাগ্যটা গেছে নেপাল অধিনায়ক রোহিত পোড়েলের সঙ্গে। তিনি নিয়েছেন টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত।
নেপালের বিপক্ষে বাংলাদেশের ডু অর ডাই ম্যাচ আজ। জিতলেই সুপার এইট নিশ্চিত। হারলে নিজেদের ভাগ্য ঝুলে যাবে আরও এক ঘণ্টার জন্য।
নিজেদের আগের ম্যাচে বাংলাদেশ যে একাদশ নিয়ে নেমেছিল মাঠে, তাদের ওপরই ভরসা রেখেছে টিম ম্যানেজমেন্ট। কোনো পরিবর্তন আসেনি একাদশে। ফলে টানা তিন ম্যাচে একই একাদশ নিয়ে খেলছে বাংলাদেশ।
বাংলাদেশ একাদশ–
তানজিদ হাসান তামিম, লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), তাওহিদ হৃদয়, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ, জাকের আলী অনিক, রিশাদ হোসেন, তাসকিন আহমেদ, মোস্তাফিজুর রহমান ও তানজিম হাসান সাকিব।

;

জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শেষ পাকিস্তানের

  ক্রিকেট কার্নিভাল



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বিশ্বকাপে নিজেদের সবশেষ ম্যাচে জয় পাক, সেটা হয়তো চেয়েছিলেন পাকিস্তানের সবাই। কিন্তু এভাবে হোক, তা নিশ্চয়ই কেউ চাননি! দুই গ্রুপের বৈতরণী পার হয়ে গেলে জয় দিয়ে শেষ করার সুযোগ তো একমাত্র চ্যাম্পিয়ন দলেরই থাকে! কিন্তু বাবর আজমের দল হলো তার ঠিক উল্টোটা। বনে গেল গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়া ১২ দলের একটা। শেষ ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের ৩ উইকেটের জয়টাকে তাই সান্ত্বনার জয় ছাড়া আর কিছুই বলা যাচ্ছে না।
পাকিস্তানের শুরুটা অবশ্য দুর্দান্ত হয়েছিল। দ্বিতীয় ওভারেই পাকিস্তান তুলে নিয়েছিল আইরিশদের ৩ উইকেট, দলের রান ছিল তখন মোটে ৪। এরপর শীর্ষ পাঁচ ব্যাটারের কেউই ২ অঙ্কে যেতে পারেননি। তবু আয়ারল্যান্ড ১০৬ পর্যন্ত গেছে গ্যারেথ ডেলানির ১৯ বলে ৩১ আর জশ লিটলের ২২ রানে ভর করে।
জবাবে পাকিস্তান শুরু করেছিল ভালোই। তবে পঞ্চাশ পেরোনোর পরই দশ রানের ব্যবধানে ৪ উইকেট খুইয়ে কাঁপতে থাকে বাবর আজমের দল। সেখান থেকে দলকে রক্ষা করলেন বাবর নিজেই। ৩২ রানের অপরাজিত ইনিংসটা হয়তো তার সেরা নয়, কিন্তু পরিস্থিতি বিচারে তিনি একে মনে রাখবেন অনেক দিন। শেষ দিকে পরিস্থিতিটা আরও কঠিন হতে দেননি শাহিন আফ্রিদি। দুই ছক্কায় ম্যাচটা শেষ করেন ৭ বল বাকি থাকতেই।
আইরিশদেরও বিশ্বকাপ বহু আগে শেষ হয়ে গিয়েছিল। পাকিস্তান নিজেদের অন্তত এই বলে সান্ত্বনা দিতে পারে যে, তারা তো শেষ ম্যাচে জয় পেয়েছে, আইরিশরা যে এই সান্ত্বনাটাও নিজেদের দিতে পারছে না!

;

সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চাইলেন ম্যাথিউস

  ক্রিকেট কার্নিভাল



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে শ্রীলঙ্কার। গ্রুপপর্ব থেকে বাদ পড়ায় বেশ হতাশ হয়েছেন দলের খেলোয়াড়, ম্যানেজমেন্ট এবং সমর্থকরাও। এমন পরিস্থিতিতে দেশবাসি ও লঙ্কান ক্রিকেট দলের ভক্তদের কাছে ক্ষমা চাইলেন দলের অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস।

ম্যাথিউস বলেন, ‘আমরা পুরো দেশকে হতাশ করেছি। আমরা সত্যিই দুঃখিত কারণ আমরা নিজেদেরকেও হতাশ করেছি। আমরা কখনও এমনটা আশা করিনি। আমাদের অনেক চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়েছে। তবে সেগুলো দুর্ভাবনার কিছু নয়। এটি খুবই দুর্ভাগ্যজনক যে আমরা দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে পারিনি।’

সোমবার সকাল সাড়ে ৬টায় নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে গ্রুপপর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলতে মাঠে নামবে শ্রীলঙ্কা। ডাচরা যথেষ্ট শক্তিশালী দল কারণ তারা দক্ষিণ আফ্রিকা ও বাংলাদেশের বিপক্ষে ভালো পারফর্ম করেছে। তাই তাদেরকে গুরুত্বের সঙ্গেই দেখছেন ম্যাথিউস।

লঙ্কান এই অলরাউন্ডার বলেছেন, ‘আমরা কোনো দলকে হালকাভাবে নিতে পারি না। নেপাল কীভাবে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে দিচ্ছিল আমরা দেখেছি। এটি দুর্ভাগ্যজনক যে নেপালের বিপক্ষে আমাদের ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেসে গেছে। তবে যা হওয়ার হয়ে গেছে। টুর্নামেন্টে আমাদের আর একটি ম্যাচ বাকি। আমরা নিজেদের সম্মানের জন্য খেলব।’

বেশ দুঃখ নিয়েই ম্যাথিউস শেষে বলেন, ‘নিজেদের প্রতি সুবিচার করতে পারিনি আমরা। বিশেষ করে প্রথম দুই ম্যাচ যেভাবে খেলেছি, খুবই দুর্ভাগ্যজনক। আমরা হতাশ। নিজেদের মধ্যে আমরা অনেক কষ্ট পাচ্ছি। আগামীকাল নতুন দিন এবং নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে আমাদের খেলতে হবে। তারা খুব, খুব বিপজ্জনক দল। তাই আমরা ভালো খেলে তাদের হারাতে চাই।’

;

আমরা আমাদের শতভাগ ও সেরাটা দিব: সাকিব

  ক্রিকেট কার্নিভাল



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ সময় সোমবার ভোর সাড়ে ৫টায় নেপালের মুখোমুখি হবে টাইগাররা। চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার এইটে জায়গা করে নিতে হলে এই ম্যাচে জয় পাওয়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বাংলাদেশের জন্য। তাই নিজেদের সর্বোচ্চ শক্তি নিয়েই মাঠে নামছেন শান্ত-সাকিবরা।

টাইগার পেসার শরিফুল ইসলামের ইনজুরির ফলে বাংলাদেশের একাদশে সুযোগ পান তানজিম সাকিব। সুযোগটি বেশ ভালোভাবেই কাজে লাগিয়েছেন এই তরুণ। দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের মাধ্যমে নিজের জায়গাটা একাদশে শক্তভাবে নিশ্চিত ও নিজের করে নিয়েছেন।

ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে সাকিব বলেছেন, ‘ম্যাচ খেলব কি খেলব না এটা নিয়ে ভাবি না। সুযোগ পেলে সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি। কম্বিনেশনের কারণে না খেলা হলে আলাদা ব্যাপার। আমি সবসময় প্রস্তুত থাকি। সুযোগ পেলে তিন বিভাগেই শতভাগ দেওয়ার চেষ্টা করি। আমার কাছ থেকে দল যেন সর্বোচ্চটা পায়। দলের জন্য আমি শতভাগ দিতে চাই মাঠে, এটাই আমার কাজ।’

নেপালকে একদমই হালকাভাবে নিচ্ছে না বাংলাদেশ, এমনটাই বলেছেন সাকিব। কারণ নিজেদের শেষ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে প্রায় হারিয়েই দিয়েছিল এই নেপাল।

এ প্রসঙ্গে টাইগার পেসার বলেছেন, ‘আমরা আমাদের শতভাগ দেবো, সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করব। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ছোট-বড় দল নেই। প্রত্যেককে সমানভাবে দেখার চেষ্টা করি। মাত্র ২০ ওভারের খেলা, কখন মোমেন্টাম বদলে যায়, কেউ বলতে পারে না। আমরা প্রত্যেক দলকেই সমানভাবে নেওয়ার চেষ্টা করি। প্রতিপক্ষ যে-ই হোক একইভাবে খেলার চেষ্টা করব।’

;