‘জাপান স্ট্রিট’ নামে বসুন্ধরা আবাসিকে রাস্তা



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
জাপানের নামে বসুন্ধরা আবাসিকে রাস্তা

জাপানের নামে বসুন্ধরা আবাসিকে রাস্তা

  • Font increase
  • Font Decrease

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় জাপানের নামে একটি রাস্তা উদ্বোধন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) ফিতা কেটে জাপান স্ট্রিট নামে এ রাস্তার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশে জাপানের রাষ্ট্রদূত নাও‌কি ই‌তো এবং বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান।

বসুন্ধরা আবাসিকের আই ব্লকে নির্মাণাধীন জাপানের ‘জেসিএক্স বিসনেজ টাওয়ারের’ সামনের রাস্তার এ নাম রাখা হয়েছে।

জাপানের রাষ্ট্রদূত নাও‌কি ই‌তো বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশে সুষ্ঠু বিনিয়ো্গ পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। আমি আর এ বিষয়ে কিছু বলতে চাই না।

বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান বলেন, সরকার সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারিকে ঋণ দিচ্ছে। জাপানের উন্নয়ন সংস্থা জাইকাকে অনুরোধ করব, ২/৩ শতাংশ ঋণ দিয়ে আবাসন খাতে যেন ব্যবসা করে। এতে বাংলাদেশের আবাসন খাতের উন্নতি ঘটবে।

জেসিএক্স বিজনেজ টাওয়ারের প্রস্তাবিত নকশা

জাপানের স্থাপত্য নকশায় তৈরি জেসিএক্স বিজনেস টাওয়ার। রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার আই ব্লকে এই টাওয়ারটির তিনটি তলার নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে। আরো দুটি তলার কাজ চলছে। ২০২০ সালের জুন মাসে ১৩ তলার এই টাওয়ারটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে বলে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

জাপানের গ্রিড গ্রুপ ও বাংলাদেশের জেসম গ্রুপের যৌথ উদ্যোগে এই বাণিজ্যিক টাওয়ারটিতে ৩৫০০ থেকে ১৯,৮০০ বর্গফুটের অফিস ও দোকানের জায়গা বিক্রি করা হবে। বসুন্ধরার আই ব্লকে ১১৩৬/এ, সোনিয়া সোবহান পঞ্চম এভিনিউতে এই স্থাপনার নিরাপত্তা ব্যবস্থায় বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হবে।

বসুন্ধরায় জাপান স্ট্রিট নামে রাস্তা

জেসিএক্স ডেভেলপমেন্ট লিমিটেডের কর্মকর্তা জানান, বিল্ডিংটিতে সেন্ট্রাল এয়ারকন্ডিশন থাকবে, যেখানে রয়েছে ভিআরএস এয়ারকন্ডিশন সিস্টেম। তিনটি বেজমেন্টে গাড়ি পার্কিং সুবিধাসহ স্থাপিত হবে সাতটি লিফট ও একজোড়া এস্কেলেটর। এটি দেশের বিল্ডিং কোড মেনে ভূমিকম্প সহনীয় স্থাপনা হিসেবে গড়ে উঠছে। দৃষ্টিনন্দন এই স্থাপনাটির অন্যান্য সুবিধার মধ্যে রয়েছে সোয়্যারেজ ট্রিটমেন্ট প্লান্ট, স্মোক ডিটেক্ট উইথ ফায়ার ফাইটিং, ন্যানো টেকনোলোজি এসটিপি।

   

লক্ষ্মীপুরে ১৫ হাসপাতাল-ডায়াগনস্টিক বন্ধের নির্দেশ



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, লক্ষ্মীপুর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ঘোষিত ১০ দফা নির্দেশনা মানতে লক্ষ্মীপুর শহরের বেসরকারি হাসপাতাল-ক্লিনিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) শহরের বিভিন্ন স্থানে পৃথক অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে ৩টি প্রতিষ্ঠানকে ৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের লাইসেন্স, পরিবেশ ছাড়পত্রসহ বিভিন্ন কাগজপত্র না থাকায় ১৫টি প্রতিষ্ঠানকে বন্ধের নির্দেশনা দেওয়া হয়।

দণ্ডপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে নিরাময় হাসপাতাল (প্রা:) ৫ হাজার টাকা, নিউ নিরাময় ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ২ হাজার টাকা ও ভূঁইয়া মেডিকেলের ১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অমিত কুমার বিশ্বাস ও জেলা সিভিল সার্জন ডা. আহাম্মদ কবীর জানান, স্বাস্থ্য অধিপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ী অভিযান চলছে। অবৈধভাবে হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক পরিচালনা করায় ১৫টি প্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া আরও ৩টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়েছে। এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. আহাম্মদ কবীর, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অমিত কুমার বিশ্বাস ও পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. হারুন অর রশিদ।

;

নদী ভাঙনে হুমকির মুখে আব্দুল কাদির স্মৃতিসৌধ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রংপুর
ছবি: বার্তা ২৪.কম

ছবি: বার্তা ২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

নদী ভাঙনে হুমকির মুখে পড়েছে রংপুরের বদরগঞ্জের দামোদরপুর ইউনিয়নে চিকলী নদীর পাশে দেড় একর জমিতে লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. আব্দুল কাদির স্মৃতিসৌধ। ২০২২ সালে ৮ জানুয়ারি মাসে স্মৃতিসৌধটি উদ্বোধন করা হয়।

বর্তমানে স্মৃতিসৌধটি দেখতে অনেক দর্শনার্থীরা আসলেও দূর থেকে দেখে ফিরে যেতে বাধ্য হচ্ছেন। কারণ স্মৃতিসৌধের স্থানটির আশেপাশে ২০০মিটার সংযোগ সড়ক নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। এছাড়াও সড়কের কিছু অংশ ভেঙে যাওয়ায় স্মৃতিসৌধ গুরুত্ব হারাচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

ওই স্মৃতিসৌধ ব্যবস্থাপনা কমিটির তিনজন সদস্য ও এলাকার লোকজনের সাথে আলাপকালে জানা গেছে, মুক্তিযুদ্ধে জীবন উৎসর্গকারী আব্দুল কাদের'র অবদানের স্মৃতি ধরে রাখতে ব্যক্তিগত উদ্যোগে ওই স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী ও স্থানীয় বাসিন্দা মোস্তাফিজুর রহমান মিঠু বলেন, স্মৃতিসৌধে পৌঁছানোর সড়কটি চিকলী নদীর ভাঙনের কারণে এর গুরুত্ব হারাচ্ছে। স্মৃতিসৌধ দেখতে দর্শকনার্থীরা যেন খুব সহজে যেতে পারে সে জন্য টেকসই বাঁধ ও সড়কটি পাকাকরণ করার জন্য প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করছি।

মোস্তফাপুর মন্ডলপাড়া জামে মসজিদ মুয়াজ্জিন সাইফুল ইসলাম বলেন, যেভাবে চিকলী ভাঙনে সড়ক ধসে যাচ্ছে মনে হয় না প্রশাসনের উদ্যোগ ছাড়া স্মৃতিস্তম্ভটি রক্ষা করা সম্ভব।

ইউপি সদস্য হিরু চন্দ্র রায় বলেন, স্মৃতিসৌধে যাওয়ার সড়কটি মেরামত করার জন্য আমি ইউনিয়ন চেয়ারম্যানকে বলেছি। এছাড়াও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিষয়টি জানিয়েছি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকতা নাজির হোসেন বলেন, বিষয়টি আমি জানতাম না যে ওখানে একটি স্মৃতিসৌধ রয়েছে। এখন জানলাম তাই দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কার্যকরী ব্যবস্থা ভূমিকা রাখা হবে।

;

বর্তমানে দেশে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৩০ লাখ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী অধ্যাপক ডা. সামন্ত লাল সেন

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী অধ্যাপক ডা. সামন্ত লাল সেন

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশে এখন প্রায় ১ কোটি ৩০ লাখ ডায়াবেটিস রোগী আছে। ২০৩৫ সাল নাগাদ দেশে ২ কোটি ২০ লাখ হতে পারে ডায়াবেটিস রোগী। এর বাইরে, বর্তমানে দেশে ৫০ ভাগ মানুষ জানেই না তাদের ডায়াবেটিস হয়েছে। 

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) শাহবাগে বারডেম হাসপাতালে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী অধ্যাপক ডা. সামন্ত লাল সেন এসব কথা বলেন।

আলোচনা সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীব্যাপী ডায়াবেটিস দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতি বছর ৭ মিলিয়ন করে নতুন রোগী তৈরি হচ্ছে। বাংলাদেশেও ডায়াবেটিস রোগীর হার দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে। 

তিনি বলেন, ইদানিং গ্রামের মানুষদেরও ডায়াবেটিস হচ্ছে যা আমাদের ভাবনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই মুহূর্তে সবার আগে প্রয়োজন সচেতনতা বৃদ্ধি করা। আমাদের সবাইকে সচেতন হতে হবে, শারীরিক পরিশ্রম বাড়াতে হবে, স্বাস্থ্যকর জীবন-যাপনের অভ্যাস করতে হবে।

বাংলাদেশ ডায়াবেটিস সমিতির সভাপতি ও জাতীয় অধ্যাপক এ কে আজাদের সভাপতিত্বে সভায় বাংলাদেশ ডায়াবেটিস সমিতির মহাসচিব অধ্যাপক মো. সাইফুদ্দিন, ডা. অরূপ রতন সহ অন্যান্য বক্তারা বক্তব্য রাখেন। সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক ডা. মো. ফারুক পাঠান।

;

রোগীদের ভালো চিকিৎসা সেবা দিতে চিকিৎসকদের প্রতি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আহ্বান



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
রোগীদের ভালো চিকিৎসা সেবা দিতে চিকিৎসকদের প্রতি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আহ্বান

রোগীদের ভালো চিকিৎসা সেবা দিতে চিকিৎসকদের প্রতি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আহ্বান

  • Font increase
  • Font Decrease

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী অধ্যাপক ডা. সামন্ত লাল সেন রোগীদের ভালো চিকিৎসা সেবা দিতে চিকিৎসকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, "আপনাদের সুরক্ষা দেওয়ার দায়িত্ব আমার। তবে, আপনাদেরকে রোগীর জন্য ভালো চিকিৎসা সেবা দেবার দায়িত্ব নিতে হবে।

তিনি বলেন, আমার যেমন চিকিৎসকদের প্রতি দায়িত্ব আছে, তেমনি রোগীদের প্রতিও সমান দায়িত্ব আছে। এই দুই দায়িত্বই আমি নিচ্ছি তবে, হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা থেকে কোন রোগী যেন বঞ্চিত না হয় সেটিও নিশ্চিত করতে হবে।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা মেডিকেল কলেজের ডা. শহীদ মিলন অডিটোরিয়াম হলে নর্থ আমেরিকা মেডিকেল এসোসিয়েশন ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ এর যৌথ আয়োজনে "ডোনেশন অব মডার্ণ হেলথ কেয়ার ইকুইপমেন্ট এন্ড হ্যান্ডস অন ট্রেইনিং" শীর্ষক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ণ এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটের বেড সংখ্যা বৃদ্ধি প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর হাত দিয়ে ৫ বেডের বার্ন ইউনিট শুরু করেছিলাম, তার মেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত দিয়ে ৫০০ বেডে উন্নীত করেছি। চেষ্টা থাকলে সবই করা সম্ভব। এভাবে, সবার সহোযোগিতা পেলে আমরা বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবার মান অবশ্যই উন্নত করতে পারবো।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে, নর্থ আমেরিকা মেডিকেল এসোসিয়েশন এর পক্ষ থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও ব্যক্তি পর্যায়ে চিকিৎসা সামগ্রী প্রদান করা হয়।

 

;