যৌন হয়রানি প্রতিরোধ ও সুরক্ষা আইনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা ২৪.কম

ছবি: বার্তা ২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

নারী ও কন্যাশিশুদের প্রতি নির্যাতন বন্ধে যৌন হয়রানি প্রতিরোধ ও সুরক্ষা আইন করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম এবং এডুকো বাংলাদেশ।

মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে এই সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে একটি জরিপ উপস্থাপন করা হয়েছে। জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম এডুকো বাংলাদেশের সহায়তায় ৭০টি জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকা এবং ২৮টি ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া থেকে তথ্য সংগ্রহ করছে। সংগ্রহীত তথ্যে দেখা যায়, ২০২৩ সালের জানুয়ারি থেকে অক্টোবর এই ১০ মাসে ৬৯৫ জন নারী ও কন্যাশিশুকে হত্যা করা হয়েছে, এদের মধ্যে নারী ৫০২জন এবং ১৯৩জন কন্যাশিশু। আত্মহত্যা করেছে ৫৯০জন- ৩৪৭ জন নারী এবং ২৪৩ জন কন্যাশিশু, গৃহের অভ্যন্তরে সহিংসতার শিকার হয়েছে ১৭৯ জন নারী এবং ২০ জন কন্যাশিশু। পাচার এবং কিডন্যাপের শিকার ৩২ জন নারী এবং ১৩৬ জন কন্যাশিশু, ধর্ষণের শিকার হয়েছেন মোট ১০২২জন, এদের মধ্যে ৩৬২ জন নারী এবং ৬৬০ জন কন্যাশিশু এবং ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছিল আরো ৫৩ জন নারী এবং ১৩৬ জন কন্যাশিশুকে। ধর্ষণ পরবর্তী হত্যার শিকার হয়েছেন ১৩ জন নারী এবং ৩৪ জন কন্যাশিশু। যৌন হয়রানীর শিকার হয়েছেন মোট ৩৫২ জন, যার মধ্যে ৯৬ জন নারী এবং ২৫৬ জন কন্যাশিশু।

সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরামের সম্পাদক নাছিমা আক্তার জলি লিখিত বক্তব্যে বলেছেন, আমরা মনে করি, সহিংসতা, যৌন হয়রানীর ঘটনার এই ভয়াবহ বাস্তবতার পেছনে যথাযথ বিচার না হওয়ার বিষয়টি বড় ভূমিকা রাখে। যৌন হয়রানীর ঘটনার বিচারের জন্য সুনির্দিষ্ট আইন না থাকা ন্যায় বিচার পাওয়ার পথে একটি বড় প্রতিবন্ধক। এই সমস্যার কার্যকর সমাধানের জন্য প্রয়োজন একটি যথাযথ আইন। এই বাস্তবতায় দাঁড়িয়ে আমরা দেশের সকল রাজনৈতিক দলের কাছে যৌন হয়রানী প্রতিরোধ ও সুরক্ষা আইন প্রণয়ন ও বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানাই।

তিনি আরও বলেন, ২০২৪ সালের শুরুতে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এরকম একটি প্রেক্ষাপটে জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম মনে করে, সংসদ নির্বাচনের পূর্বে সকল রাজনৈতিক দলসমূহের নিকট নারী ও কন্যাশিশুদের সমস্যার ব্যাপকতা তুলে ধরা প্রয়োজন, যাতে দলসমূহ তাদের নিজ নিজ নির্বাচনী ইশতেহারে নারী ও কন্যাশিশুদের কল্যাণে প্রয়োজনীয় প্রতিশ্রুতি ও পদক্ষেপ তুলে ধরে এবং বিজয়ী দল সেগুলো বাস্তবায়ন করতে পারে।

চাইল্ড রাইটস স্পেশাইজড এন্ড এ্যক্টিভিস্ট টনি মাইকেল গোমেজ এর সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরামের সহসভাপতি এবং নারী মৈত্রীর নির্বাহী পরিচালক শাহীন আক্তার ডলি, জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরামের সহ সম্পাদক এবং অপরাজেয় বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক ওয়াহিদা বানু, এডুকো বাংলাদেশের ডিরেক্টর অফ প্রোগ্রামস ফারজানা খান, গুডনেইনারস বাংলাদেশের হেড অব এডুকেশন এন্ড হেলথ রাজিয়া সুলতানা প্রমুখ।

   

অফশোর ব্যাংকিং আইনের খসড়া নীতিগত অনুমোদন



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

অনিবাসী কোন ব্যক্তি বা কোম্পানি এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবে। অনিবাসীর পক্ষে কোন নিবাসী এই হিসাব খুলতে পারবে। এই হিসাবের সুদের ওপর কোন শুল্ক আরোপ করা হবে না। এমন শর্ত রেখে অফশোর ব্যাংকিং আইন ২০২৪ এর খসড়া নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সকালে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে বিকেলে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন।

সচিব জানান, অফশোর ব্যাংকিংয়ের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের মাধ্যমে লাইসেন্স গ্রহণ করবে ব্যাংকগুলো। তারা আমানত গ্রহণ ও ঋণ প্রদান করতে পারবে। অনিবাসীর পক্ষে হিসাব খুলতে পারবে নিবাসী। এই হিসাব ইউএস ডলার, বৃটিশ পাউন্ড, ইউরো, জাপানি ও চীনা মুদ্রায় লেনদেন করা যাবে।

তিনি বলেন, অফশোর ব্যাংকিং ইতিবাচক। পৃথিবীর বহুদেশে এ ব্যবস্থা চালু রয়েছে। আমরা অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হবো। কারেন্ট একাউন্ট কোন সুদ দেওয়া হয় না, অফশোর ব্যাংকিং ব্যাংক রেটে সুদ পাবেন। এই হিসাবে লেনদেনের ওপর কোন শুল্ক আরোপ থাকবে না।

বৈঠকে বাংলাদেশ ও নেদারল্যান্ডসের মধ্যে বিদ্যমান দ্বৈত্ব করারোপ পরিহার ও রাজস্ব ফাঁকি রোধ সংক্রান্ত চুক্তি সংশোধনপূর্বক নতুন চুক্তি স্বাক্ষরের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়।

এছাড়া পররাষ্ট্রমন্ত্রীর জোট নিরপেক্ষ আন্দোলনের (ন্যাম) ১৯তম শীর্ষ সম্মেলন ও ঘানা সফর সম্পর্কে মন্ত্রিসভাকে অবগত করা হয়।

;

দিনের তাপমাত্রা বাড়ার আভাস



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আজ সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে। এছাড়া রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং দেশের অন্যত্র তা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে একথা জানানো হয়েছে।

এছাড়া অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে।

আবহাওয়ার সিনপটিক অবস্থা সম্পর্কে বলা হয়েছে, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

আজ সকাল ৬টায় ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৭৩ শতাংশ।

গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রাঙ্গামাটিতে ৩২ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং আজ সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় তেঁতুলিয়ায় ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় আজ সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৬টায় এবং আগামীকাল বৃহস্পতিবার ঢাকায় সূর্যোদয় ভোর ৬টা ২১ মিনিটে।

;

বাসে মোবাইল ফোন টানা পার্টির সদস্য আটক



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, চট্টগ্রাম
বাসে মোবাইল টানা পার্টির সদস্য আটক

বাসে মোবাইল টানা পার্টির সদস্য আটক

  • Font increase
  • Font Decrease

চট্টগ্রামের কোতোয়ালি থেকে বাসে মোবাইল ফোন টানা পার্টি সাহাবুদ্দিন গ্রুপের সক্রিয় সদস্য মো: ইব্রাহিম প্রকাশ জিসান প্রকাশ দিশানকে (২২) আটক করেছে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে ৭টি চোরাই মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে নগরীর স্টেশন রোডস্থ ফুটওভার ব্রিজের দক্ষিণ পাশে ৭ নম্বর বাস পার্কিং সংলগ্ন ফুটপাতের উপর অভিযান পরিচালনা তাকে আটক করা হয়।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবায়দুল হক জানান, আটকের পর আসামি জিসানের হেফাজত হতে ৭টি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের চোরাই মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। তাকে আজ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

;

জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ ১১-১৭ মার্চ পর্যন্ত



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আগামী ১১ মার্চ থেকে ১৭ মার্চ পর্যন্ত জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ উদযাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মো. আব্দুর রহমান। এবারের স্লোগান হচ্ছে- ‘ইলিশ হলো মাছের রাজা, জাটকা ধরলে হবে সাজা।’  

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে মৎস্য অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রীর সভাপতিত্বে জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ উদযাপনের লক্ষ্যে ‘ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন সংক্রান্ত জাতীয় টাস্কফোর্স কমিটি’র সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

মন্ত্রী বলেন, প্রতি বছরের মতো এবছরও জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ উপলক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে। কর্মসূচির মধ্যে থাকবে ঢাকার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র, মাছের আড়ৎ, বাজারসহ জনাকীর্ণ স্থানে জাটকা সংরক্ষণের গুরুত্ব ও এ সংক্রান্ত আইন বিষয়ে প্রচার কার্যক্রম, গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ভিডিও চিত্র প্রদর্শন, জাটকা সংরক্ষণে হাট-বাজার ও আড়তে মোবাইল কোর্ট ও অভিযান পরিচালনা।

এছাড়া জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে নৌকা বাইচ, হাডুডু, সাঁতার ইত্যাদি ক্রীড়া প্রতিযোগিতা আয়োজন, জাটকা সমৃদ্ধ এলাকায় ভিডিও চিত্র প্রদর্শন ও ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা, মৎস্যজীবী ও জেলে পল্লীতে সচেতনতা ও উদ্বুদ্ধকরণে পথ নাটক, আঞ্চলিক ও লোক সংগীত পরিবেশন এবং জাটকা রক্ষায় জেলা-উপজেলা টাস্কফোর্স কমিটির মাধ্যমে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে জানান মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী।

উল্লেখ্য, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মো. আব্দুর রহমান আগামী ১১ মার্চ চাঁদপুর সদর উপজেলা, চাঁদপুরে জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহর উদ্বোধন করবেন।

সভায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব সেলিম উদ্দিন, মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সৈয়দ মো. আলমগীর, মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মো. জুলফিকার আলী, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

;