মোটর সাইকেল-ইজিবাইক সংঘর্ষ: নিহত ১ আহত-৪



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

গাইবান্ধার ফুলছড়িতে মোটর সাইকেল-ইজিবাইক সংঘর্ষে শ্রী পিয়াল (১৫) নামের স্কুল শিক্ষার্থীর নিহত হয়েছে। এসময় আহত হয়েছে আরো ৪ জন। তাদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

শনিবার (২ ডিসেম্বর) রাত ৯টার দিকে উপজেলার উদাখালী ইউনিয়নের উদাখালী হাসপাতাল মোড়ে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত কিশোর পিয়াল ওই ইউনিয়নের সিংড়িয়া গ্রামের হরিশ চন্দ্রের ছেলে এবং স্থানীয় একটি কিন্ডারগার্ডেনের নবম শ্রেণির ছাত্র। সে মোটর সাইকেল চালক ছিলেন।
এছাড়া গুরুতর আহতরা হলেন, সিংড়িয়া গ্রামের ময়েজ উদ্দিনের ছেলে বাবু মিয়া (১৭), একই গ্রামের শরিফুল ইসলামের ছেলে সাকিবুল ইসলাম (১৬) ও মধ্য উড়িয়া গ্রামের মামুদের ছেলে বাছের আলী (৬৫)। আহতরা সকলেই ইজিবাইকের যাত্রী ছিলেন। অপরজনের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন ফুলছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. রাকিবুল হাসান। স্থানীয় ও আহতদের স্বজনদের সূত্রে তিনি বলেন, নিহত পিয়াল মোটরসাইকেল যোগে বাদিয়াখালির দিকে যাচ্ছিলেন এবং ইজিবাইকটি বাদিয়াখালির দিক থেকে কালির বাজারের দিকে আসছিলেন। এসময় তাদের মধ্যে উদাখালী ইউনিয়নের হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে গুরুতর আহত হয় পাঁচজন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উদাখালী (ফুলছড়ি) স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

এসময় তিনি আরো বলেন, আমরা পিয়ালকে মৃত অবস্থায় পাই। এছাড়া আহত চারজনের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। একজনের অবস্থা ভাল।

 

   

রাজধানীতে চার হাসপাতালে দালালচক্রের ৪২ জন গ্রেফতার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা ২৪.কম

ছবি: বার্তা ২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীর সরকাারি হাসপাতাল কেন্দ্রীক গড়ে ওঠা দালালচক্র নির্মূলের অভিযানে নেমেছে র‍‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍‍্যাব)। বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে রাজধানীর শেরে বাংলা নগর থানা এলাকায় ৪টি হাসপাতালে শুরু হওয়া অভিযানে নারী ও পুরুষ মিলিয়ে মোট ৪২ জন দালালকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

অভিযান শেষে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এক ব্রিফিংয়ে র‌্যাব-২ এর উপ-অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ নাজমুল্লাহেল ওয়াদুদ এ তথ্য জানান।

মেজর মোহাম্মদ নাজমুল্লাহেল ওয়াদুদ জানান, অভিযানে সর্বোচ্চ এক মাসের জেল ও সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

বিস্তারিত আসছে..

;

সুন্দর সমাজ গড়তে ইসলামিক দলের ঐক্যের বিকল্প নেই: মাইজভান্ডারী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুষ্টিয়া
সুন্দর সমাজ গড়তে ইসলামিক দলের ঐক্যের কোন বিকল্প নাই

সুন্দর সমাজ গড়তে ইসলামিক দলের ঐক্যের কোন বিকল্প নাই

  • Font increase
  • Font Decrease

সুন্দর সমাজ, শান্তি, সুশাসন ও ক্ষমতার ভারসাম্য বজায় রাখার জন্য দেশে সব ইসলামিক দলের ঐক্যের কোনো বিকল্প নেই বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ তরীকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার বাহিরমাদী রাহমানিয়া দরবার শরিফে আয়োজিত তরীকত সম্মেলনে প্রধান অথিতির বক্তব্যে তিনি এসব বলেন।

তিনি বলেন, বিগত দিনে আমাদেরও ভুল হয়েছে৷ তাই প্রয়োজনে আলোচনা করে, সব ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটিয়ে, কোরআন সুন্নাহর ভিত্তিতে ঐক্য করতে হবে। তরীকত ফেডারেশন দিনে দিনে আরও শক্তিশালী হচ্ছে এবং আগের মতো সামনেও রাজনীতিতে বড় ভূমিকা পালন করবে। আজকের এই বিশাল জনসভা তার একটি ছোট উদাহরণ।

তিনি আরও বলেন, তরীকত ফেডারেশন ইসলামিক ঐক্যের জন্য কাজ করে যাচ্ছে, এইটাই সময়ের দাবি।

তরীকত সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ তরীকত ফেডারেশন রাজশাহী বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাহমানিয়া দরবারের প্রতিষ্ঠাতা হাফেজ মৌলানা মোখলেসুর রহমান বাঙালি।

আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ তরীকত ফেডারেশনের মুখপাত্র ও যুগ্ম মহাসচিব মোহাম্মদ আলী ফারুকী, বাঘা পৌরসভার মেয়র আক্কাস আলী, তরীকত ফেডারেশন কুষ্টিয়া জেলা কমিটির সভাপতি আমিরুল ইসলাম বাবলু, কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের প্রভাষক শাহরিয়ার হোসেন সাজুসহ এলাকার মুক্তিযোদ্ধা ও আলেম-উলামা বৃন্দ।

;

ঠাকুরগাঁওয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতি নিয়ে নির্মিত ‘আত্মকথন’



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট বার্তা২৪.কম, ঠাকুরগাঁও
ছবি: বার্তা ২৪.কম

ছবি: বার্তা ২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ঠাকুরগাঁও জেলার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের যুদ্ধকালীন ঘটনা ও স্মৃতি নিয়ে নির্মিত ‘আত্মকথন’ শীর্ষক ভিডিও চিত্রের উদ্বোধন করা হয়েছে।

বুধবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে প্রধান অতিথি হিসেবে এই ভিডিও চিত্র সংকলনের উদ্বোধন করেন রংপুর বিভাগীয় কমিশনার হাবিবুর রহমান।

জেলা প্রশাসক মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লিজা আক্তার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সোলোমান আলীসহ জেলা উপজেলার বিভিন্ন মুক্তিযোদ্ধাগণ ।

জেলা প্রশাসকের উদ্যোগে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি ও ইতিহাস নতুন প্রজন্মের মাঝে ধরে রাখতেই এই কার্যক্রম শুরু করা হয়। জেলার ৭৮৫ জন বীর মুক্তিযোদ্ধার ৬১৫টি খণ্ড নির্মিত হয়েছে। খণ্ড চিত্রের মাধ্যমে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ, প্রশিক্ষণ গ্রহণ, রণকৌশল ও গেরিলা যুদ্ধসহ যুদ্ধকালীন বিভিন্ন ঘটনা, অভিযান, স্মৃতি স্বতস্ফুর্তভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়।

 

;

পুলিশ সদস্যদের মাদক সেবনের প্রমাণ পেলে চাকরি যাবে: আইজিপি



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

পুলিশ সদস্যদের মাদক সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) পুলিশ সপ্তাহের দ্বিতীয় দিনে রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সের প্যারেড গ্র্যাউন্ডে ‘আইজিপি’স এক্সেমপ্ল্যারি গুড সার্ভিসেস ব্যাজ (আইজি’জ ব্যাজ) ও বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিজয়ী ইউনিটদের পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, আমাদের কোন সদস্য যদি মাদকের সঙ্গে জড়িত থাকে তাহলে সাধারণ মানুষের চেয়েও বেশি ব্যবস্থা নেওয়া হয়। সাধারণ মানুষের সঙ্গে মাদকের সংশ্লিষ্টতা থাকলে শুধু মামলা দেওয়া হয়। আর পুলিশ সদস্যদের মাদক খাওয়ার প্রমাণ পেলে চাকরিও যাবে মামলাও হবে।

তিনি বলেন, নিয়োগের সময় আমরা প্রতিটি সদস্যকে ডোপ টেস্টের মাধ্যমে নিয়োগ দিয়ে থাকি। যারা মাদকাসক্ত তাদেরকে সতর্ক করে দিচ্ছি, মাদকাসক্ত হলে কেউ চাকরি পাবেন না।

পুলিশ প্রধান বলেন, মাদক ও দুর্নীতি সমাজের নীরব ঘাতক। মাদক বিরোধী অভিযানে বাংলাদেশ পুলিশ জয়ী হবে। জঙ্গি-সন্ত্রাস যেভাবে নিয়ন্ত্রণে এনেছি, সেভাবে মাদক নিয়ন্ত্রণেও সফল হতে হবে। সকলকে এ বিষয়ে এগিয়ে আসার আহ্বান জানাচ্ছি। জঙ্গি-মাদক ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমাদের শূন্য সহিষ্ণুতা নীতি রয়েছে। যে কোন ঘটনা ঘটলে দ্রুততম সময়ে আমরা অপরাধীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসছি।

স্মার্ট বাংলাদেশের উপযুক্ত পুলিশ গড়ে তুলতে কাজ করার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, পুলিশকে জনবান্ধব বাহিনী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে আমরা কাজ করছি। থানাকে প্রতিটি মানুষের আস্থা ও ভরসার কেন্দ্র হিসেবে প্রতিষ্ঠাত করতে চাই। যাতে সবাই নির্ভয়ে থানায় আসতে পারেন সেই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে এবং প্রতিনিয়ত মনিটরিং করা হচ্ছে। বেশিরভাগ থানাতেই সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে, যা রেঞ্জ ডিআইজি অফিস থেকে মনিটরিং করা হচ্ছে। পুলিশের প্রত্যেকটি সদস্য সেবা দিতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। যে কোন পরিস্থিতিতে নিজের জীবন দিয়ে পুলিশ সদস্যরা সেটি প্রমাণ করেছে।

তিনি আরও বলেন, পুলিশের নিয়োগ ও পদোন্নতিতে স্বচ্ছতা সর্বক্ষেত্রে প্রশংশিত হচ্ছে। আমরা নিয়োগ প্রক্রিয়ার অধিকাংশ কাজ স্মার্ট পদ্ধতিতে সম্পন্ন করছি। ঘরে বসে আবেদন করতে পারছে, কোথায় পরীক্ষা সেটা জানতে পারছে, ফলাফলও ঘরে বসে পেয়ে যাচ্ছে। কোন দালাল বা ফরিয়া এরমধ্যে নেই। ইতোমধ্যে দেশবাসী এর সুফল ভোগ করছে।

চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের 'সোনার বাংলা' তথা প্রধানমন্ত্রীর 'স্মার্ট বাংলাদেশে' মাদক, জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদের কোনো স্থান নেই।

পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনাদের প্রযুক্তিনির্ভর, গণমুখী, সেবামুখী, জনবান্ধব তথা নারী ও শিশুবান্ধব বাহিনী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে হবে।

;