সাংস্কৃতিক বিনিময় বাংলাদেশ-ভারত বন্ধন আরও সুদৃঢ় করেছে: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
সাংস্কৃতিক বিনিময় বাংলাদেশ-ভারত বন্ধন আরও সুদৃঢ় করেছে: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

সাংস্কৃতিক বিনিময় বাংলাদেশ-ভারত বন্ধন আরও সুদৃঢ় করেছে: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

  • Font increase
  • Font Decrease

 

ভারত ও বাংলাদেশের সম্পর্ক ঐতিহাসিক, নিবিড়, আত্মিক ও রক্তের বন্ধনে আবদ্ধ। সাংস্কৃতিক বিনিময় এ বন্ধনকে আরও সুদৃঢ় করেছে বলে মন্তব্য করেছেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি।

শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে ‘লিভিং আর্ট' আয়োজিত 'ইন্দো-বাংলা বন্ধন গ্রুপ শিল্প প্রদর্শনী ২০২৩' এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এমন মন্তব্য করেন। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সহাযোগিতায় ভারত ও বাংলাদেশের শিল্পীদের অংশগ্রহণে 'লিভিং আর্ট' আয়োজিত চিত্রপ্রদর্শনীতে বাংলাদেশের ৭৬ জন ও ভারতের ১৬ জন সহ সর্বমোট ৯২ জন চিত্রশিল্পী অংশগ্রহণ করেছে।

তিনি বলেন, আগে আমাদের গ্রামে-গঞ্জে জারি, সারি, ভাটিয়ালি, মুর্শিদী, মারফতি, গাজীর গান প্রভৃতি শোনা যেত। তবে আধুনিকতার সংস্পর্শে আমাদের এসব লোকজ গান ও ঐতিহ্য হারিয়ে যেতে বসেছে। এখন আমাদের গান চর্চা হচ্ছে ফেসবুক ও ইউটিউবসহ বিভিন্ন সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মে। তবে সেটি খারাপ কিছু নয়। সেজন্য আমাদের আধুনিকতার সঙ্গে ঐতিহ্যের সমন্বয় সাধন করতে হবে।

'লিভিং আর্ট' এর পরিচালক ড. বিপ্লব গোস্বামী'র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহ আজম, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী ও বাংলাদেশ যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট ড. শামীম আল সাইফুল সোহাগ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিসিআর হিন্দি চেয়ার ড. পুনম গুপ্ত।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে প্রতিমন্ত্রী জাতীয় চিত্রশালা ভবনের ৬ নং গ্যালারিতে 'লিভিং আর্ট' আয়োজিত এ প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন। প্রতিমন্ত্রী পরে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে বাংলাদেশ-কোরিয়ার কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সহযোগিতায় ঢাকাস্থ দক্ষিণ কোরিয়া দূতাবাস আয়োজিত কোরিয়ান মিউজিক লাইভ কনসার্ট অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন।

   

খাল-নালা পরিস্কার থাকলে জলাবদ্ধতা কমবে: চসিক মেয়র



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, চট্টগ্রাম
ছবি: বার্তা ২৪.কম

ছবি: বার্তা ২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

খাল-নালায় জমে থাকা মাটি-পলিথিন পরিস্কার করতে পারলে বর্ষায় জলাবদ্ধতা কমবে বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে স্থানীয় সরকার দিবস উপলক্ষে অর্ধশতাধিক পরিচ্ছন্নকর্মী সঙ্গে নিয়ে প্রবর্তকের রূপালি গিটার চত্বরের পাশের নালা পরিচ্ছন্ন করেন মেয়র রেজাউল।

এ সময় নালায় বাথরুমের ভাঙা কমোড, পুরোনো লেপ তোষক এবং মেডিক্যাল বর্জ্যসহ বিভিন্ন অপচনশীল বর্জ্য দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করেন মেয়র।

মেয়র বলেন, নগরীকে পরিচ্ছন্ন রাখতে আমরা বছরব্যাপী বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়েছি। কিন্তু কিছু মানুষের অসচেতন আচরণ নগরীকে পরিচ্ছন্ন রাখার পেছনে বড় বাধা। এজন্য আমরা সচেতনতা বাড়াতে জোর দিচ্ছি।

'মানুষ সচেতন না হলে আমরা কখনোই এ শহর পরিস্কার রাখতে পারবো না। জনগণ যদি সচেতন হয় ভৌগোলিক কারণে বর্ষায় পানি উঠলেও দ্রুত নেমে যাবে। এরপরও কেউ অযথা নালায় ময়লা ফেললে যার প্রতিষ্ঠান-বাসার সামনে ময়লা পাবো তাকে আইনের আওতায় আনবো, জরিমানা করবো।'

জলাবদ্ধতা কমাতে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় আছে জানিয়ে তিনি বলেন, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের অধীনে নগরীর ৩৬টি খালে জলাবদ্ধতা নিরসনে উন্নয়ন কাজ চলছে। এতগুলো খালের মাটি উত্তোলন, রিটেইনিং ওয়াল, গাইড ওয়াল, স্লাব বসানো সময়সাপেক্ষ কাজ। তাই সিডিএ’কে জানিয়েছি যাতে বর্ষার আগে অন্তত চলমান প্রকল্পের অধীন নালা-খালগুলোর জমে থাকা মাটি যাতে সরিয়ে নেওয়া হয়। খাল-নালা পরিস্কার থাকলে জলাবদ্ধতা কমবে। নগরীর অভ্যন্তরীণ নালার দায়িত্ব আমাদের। আমরা এগুলো পরিস্কার করছি, মাটি উত্তোলন করছি। এটা চলমান থাকবে।

এ সময় চসিক কাউন্সিলর মো. নূর মোস্তফা টিনু, প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা কমান্ডার লতিফুল হক কাজমী, নির্বাহী প্রকৌশলী মীর্জা ফজলুল কাদের, উপ-প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা মোরশেদুল আলম চৌধুরী, ম্যালেরিয়া ও মশক নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা মো. শরফুল ইসলাম মাহিসহ পরিচ্ছন্ন বিভাগের কর্মীরা পরিচ্ছন্ন কার্যক্রমে অংশ নেন।

;

পুনাক'র বার্ষিক সমাবেশ ও আনন্দমেলা অনুষ্ঠিত



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা ২৪

ছবি: বার্তা ২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতি (পুনাক) এর বার্ষিক সমাবেশ ও আনন্দমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাজারবাগ পুলিশ লাইন অডিটোরিয়ামে জমকালো আয়োজনে এ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। 

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহামান্য রাষ্ট্রপতির সহধর্মিনী ফার্স্ট লেডি ড. রেবেকা সুলতানা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডা. তৈয়বা মুসারারাত জাঁহা চৌধুরী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ফার্স্ট লেডি বলেন, পুলিশ পরিবারের নারী সদস্যদের একটি কল্যাণধর্মী প্রতিষ্ঠান 'পুনাক'। সংসার সামলে নারীদের কল্যাণে ও উন্নয়নে তারা ‘পুনাক’কে দিয়েছেন একটি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ। পুনাক দীর্ঘ তিন দশকেরও বেশি সময়ের পুরনো একটি ঐতিহ্যবাহী সংগঠন। এই দীর্ঘ সময়ে পুলিশ পরিবারের নারীদের কল্যাণে নানামুখী কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে পুনাক। শুধু নারীদের নয়, শিশু-কিশোরদের সুপ্ত প্রতিভার সুষ্ঠু বিকাশেও সংগঠনটি ভূমিকা রাখছে। প্রথাগত বৃত্তের বাহিরে গিয়ে বৃহত্তর সমাজ ও সাধারণ মানুষের কল্যাণেও কাজ করে চলেছে পুনাক- যা অত্যন্ত প্ৰশংসনীয়৷

বাংলাদেশ পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতি (পুনাক) এবং স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান দৃষ্টি উন্নয়ন সংস্থা (ডাস) এর যৌথ উদ্যোগে চক্ষু বিষয়ক ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প আয়োজন করে আসছে। ‘পুনাক’ ও সাওল হার্ট সেন্টার বাংলাদেশ এর যৌথ উদ্যোগে বিনা তেলে রান্না প্রশিক্ষণ ও কর্মশালা আয়োজন এবং সাওলের ইয়োগা-মেডিটেশন ও ব্যায়াম প্রশিক্ষণ প্রদানও ব্যতিক্রমধর্মী ও প্রশংসনীয় উদ্যোগ।

এছাড়া দুস্থদের চিকিৎসা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন জেলায় স্বাস্থ্য ক্যাম্প আয়োজন, স্বাস্থ্য ও পরিবেশ সচেতনতা বৃদ্ধিতে আলোচনা, পরিবেশ রক্ষায় সচেতনতা বৃদ্ধিতে নিয়মিতভাবে র‍্যালি আয়োজন করছে পুনাক। পরিবেশ রক্ষায় বৃক্ষরোপনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ‘প্লাস্টিক, পলিথিন বর্জন করি পরিবেশবান্ধব জীবন গড়ি' শিরোনামে শোভাযাত্রার আয়োজন পুনাকের একটি সময়োপযোগী ও প্রশংসনীয় উদ্যোগ। নারী অধিকার রক্ষায় আইন, কিশোরী মেয়েদের নিরাপত্তা বিষয়ক কর্মশালা, প্রতিবন্ধী নারীদের সম্পদ বন্টনসহ বিভিন্ন আইনি জটিলতায় নারীর করণীয় বিষয়ে আলোচনা ও কর্মশালার আয়োজনের মাধ্যমে পুনাক দুস্থ ও অসহায় নারীদের আইনি সহযোগিতা প্রদানের ক্ষেত্রে
উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখছে।

বন্যাদুর্গত ও দুস্থদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ, দুস্থ ছেলেমেয়েদেরকে শিক্ষা উপকরণ প্রদানসহ ‘পুনাক’-এর সমাজহিতৈষী কর্মকাণ্ড আমাদের সামগ্রিক উন্নয়নে ইতিবাচক অবদান রাখছে। দুস্থ ও সমাজের অবহেলিত জনগোষ্ঠীর কল্যাণে কাজ করার জন্য আমি পুনাকের প্রাক্তন সভানেত্রীগণসহ সংগঠনটির সকল সদস্যকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমি আশা করি, পুনাকের বর্তমান সভানেত্রীর বলিষ্ঠ নেতৃত্বে মানবহিতৈষী এ সকল কার্যক্রম ভবিষ্যতে আরও সম্প্রসারিত হবে।

সভাপতির বক্তব্যে ডা. তৈয়বা মুসারারাত জাঁহা চৌধুরী বলেন, প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে পুলিশ পরিবারের সদস্যগণের সমন্বিত প্রয়াসের মাধ্যমে পুনাক নানা সামাজিক সচেতনমূলক ও উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করে আসছে। নারীর সক্ষমতা বৃদ্ধি, মানবিক কার্যক্রম ও শিশুর বিকাশে নানা কল্যাণকর পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে ঐতিহ্যবাহী পুনাক আজ স্বমহিমায় উদ্ভাসিত। আর্থ-সামাজিক কর্মকান্ডে পুনাকের সৃজনশীল, ব্যতিক্রমী ও স্বতঃস্ফুর্ত পদচারণা সুধী মহলে ব্যাপকভাবে প্রশাংসিত হয়েছে। দেশের কল্যাণে নিত্য নিবেদিত প্রাণ, উদ্যমী পুনাক সদস্যদের কার্যক্রমে অর্জিত সাফল্যের জন্য আমরা অত্যন্ত আনন্দিত ও গর্বিত, উদ্ভাবনী উদ্যোগ ও বহুমুখী কর্মকুমালতার মাধ্যমে আমরা এগিয়ে যেতে চাই বহুদূর।

তিনি আরও বলেন, অন্যান্য কর্মসূচীর পাশাপাশি সম্প্রতিককালে পুনাকের উদ্যোগে পিছিয়ে পড়া সাঁওতাল জনগোষ্ঠীর মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ ও ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদান করেছি। এছাড়া আমরা অবহেলিত, সামাজিকভাবে বিচ্ছিন্ন হিজড়া জনগোষ্ঠী, বৃদ্ধ, দুঃস্থ এবং প্রতিবন্ধীদের মাঝে শীতবস্ত্রসহ আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছি।

শিশুদের মেধা বিকাশে আমরা পুলিশ লাইন্স স্কুলগুলোতে শিক্ষাবৃত্তির সংখ্যা অনেক বাড়িয়ে নিয়েছি। আমরা চাই এই স্কুলগুলো থেকে আরও মেধাবী শিশুদের বিকাশ হউক এবং এসব মেধা দেশের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে সংযুক্ত হয়ে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার পদক্ষেপ হউক। বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য বিষয়ক কার্যক্রমের সাথে সমন্বয় করে আমরা জরায়ুমুখ ক্যান্সারের টিকা দেওয়ার কর্মসূচী সারাদেশব্যাপী পুনাক সদস্যসহ পরিবারের জন্য বাস্তবায়ন করছি।

সবশেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এর সমাপ্তি হয়।

;

ভিকারুননিসার ১৬৯ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ভর্তির ক্ষেত্রে বয়সের নীতিমালা না মানায় ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের স্কুল শাখার প্রথম শ্রেণির ১৬৯ জন শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল করেছে সরকার। তারা সবাই ২০২৪ সালে ভর্তি হয়েছিল।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) হাইকোর্টের একটি প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা অধিদফতর।

ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের একটি প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজ কর্তৃক ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে প্রথম শ্রেণিতে ভর্তির ঊর্ধ্বসীমা নির্ধারণ করে আবার তা অনুসরণ না করে ১ জানুয়ারি ২০১৭ সালের পূর্বে জন্মগ্রহণকারী (প্রতিষ্ঠান কর্তৃক প্রেরিত সংযুক্ত তালিকায় বর্ণিত) শিক্ষার্থীদের ভর্তি করাটা ছিল বিধি বহির্ভূত।

এমতাবস্থায়, ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজে ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে প্রথম শ্রেণিতে বিধি বহির্ভূত ১ জানুয়ারি ২০১৭ সালের পূর্বে জন্মগ্রহণকারী ভর্তিকৃত, প্রতিষ্ঠান কর্তৃক প্রেরিত সংযুক্ত তালিকায় বর্ণিত ২০১৫ সালে জন্মগ্রহণকারী ১০ জন এবং ২০১৬ সালে জন্মগ্রহণকারী ১৫৯ জনসহ মোট ১৬৯ (একশত উনসত্তর) জন শিক্ষার্থীদের ভর্তি বাতিল করতে জরুরি ভিত্তিতে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরকে অবহিত করার জন্য অনুরোধ করা হলো।

এ বিষয়ে মাউশি মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, ভর্তি নীতিমালা অনুযায়ী যে বয়সসীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে সে অনুযায়ী ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজ একটি বয়সসীমা নির্ধারণ করে দেয়। কিন্তু নীতিমালার বিষয়টি শেষ পর্যন্ত তারা মানেনি। যার কারণে আদালত থেকে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশনা আসে মাউশির কাছে। ওই নির্দেশনার পরিপ্রেক্ষিতে ১৬৯ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল করা হয়েছে।

;

রামেবির সিন্ডিকেট সদস্য হলেন রাজশাহীর ২ সংসদ সদস্য



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট বার্তা২৪.কম, রাজশাহী
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (রামেবি) সিন্ডিকেটে সদস্য মনোনীত হয়েছেন রাজশাহী-১ আসনের সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরী ও রাজশাহী-৫ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল ওয়াদুদ।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বিভাগে প্রকাশিত সিনিয়র সহকারী সচিব রেহানুল হকের স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানা যায়।

রাজশাহীর দুই সংসদ সদস্য ছাড়াও রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য মনোনীত হয়েছেন, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্পিকারের একান্ত সচিব, ডেপুটি স্পিকারের একান্ত সচিব, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ, সিনিয়র সচিব, অতিরিক্ত সচিব (মাস) এর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা, উপসচিব (মাস) এর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা।

;