স্বর্ণের দাম কমেছে



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
স্বর্ণের দাম কমেছে

স্বর্ণের দাম কমেছে

  • Font increase
  • Font Decrease

দেশের বাজারে ভালোমানের সোনা (২২ ক্যারেট) প্রতি ভরিতে ১ হাজার ৫০ টাকা কমিয়ে ৮১ হাজার ২৯৮ টাকা দাম নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)।

মঙ্গলবার থেকে এ দাম কার্যকর হবে।

সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান এম এ হান্নান আজাদ স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

চট্টগ্রামে ২৯ প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, চট্টগ্রাম
চট্টগ্রামে ২৯ প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

চট্টগ্রামে ২৯ প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • Font increase
  • Font Decrease

চট্টগ্রামের পলোগ্রাউন্ড জনসভার মাঠ থেকে ২৯টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে তিনি নতুন করে ৪টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তরও স্থাপন করেন।

রোববার (৪ ডিসেম্বর) বেলা ৩টা ১০ মিনিটে নগরের সিআরবি হয়ে পলোগ্রাউন্ডে মাঠে আসেন প্রধানমন্ত্রী। মাঠে এসেই ২৯টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন এবং চার প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন তিনি।

প্রকল্প সংশ্লিষ্ট বিভাগ ও মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে উদ্বোধন হওয়া প্রকল্পগুলো হল-জেলার ফটিকছড়ি ও হাটহাজারী উপজেলায় হালদা নদী ও ধুরং খালের তীর সংরক্ষণ ও বন্যা নিয়ন্ত্রণ প্রকল্প, সন্দ্বীপ উপজেলার ৭২ নং পোল্ডারের ভাঙন প্রবণ এলাকায় স্লোপ প্রতিরক্ষা কাজের মাধ্যমে পূনর্বাসন (১ম সংশোধিত) প্রকল্প ও বাঁশখালী উপজেলার ৬৪/১এ, ৬৪/১বি এবং ৬৪/১সি পোল্ডারের সমন্বয়ে ক্ষতিগ্রস্ত অংশের স্থায়ী পুনর্বাসন প্রকল্প (২য় সংশোধিত)।
কারিগরী ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের অধীনে সীতাকুন্ড টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ, ফটিকছড়ি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ এবং রাউজান টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ উদ্বোধন করা হয়।

এছাড়া, কোতয়ালী থানাধীন দারুল উলুম আলীয়া মাদ্রাসার একটি ৬ তলা ভবন এবং সীতাকুন্ড টেকনিক্যাল স্কুলে একটি ৫ তলা ভবন ও একটি ৪ তলা প্রশাসনিক ভবন, ওয়ার্কশপ, একতলা সার্ভিস এরিয়া ও বৃষ্টির পানি সংরক্ষণসহ ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অধীনে কোতয়ালী থানাধীন গুল-এ জার বেগম সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ তলা ভবন, কাপাসগোলা সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ তলা ভবন, চট্টগ্রাম সরকারি কলেজে ১০ তলা একাডেমিক ভবন, কুসুমকুমারী সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ তলা ভবন, পূর্ব বাকলিয়া সিটি কর্পোরেশন উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ তলা ভবন, মিরসরাই উপজেলার করেরহাট কে.এম. উচ্চ বিদ্যালয়ের ৪ তলা ভবন, পাঁচলাইশ থানাধীন বন গবেষণাগার উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ তলা ভবন, বোয়ালমারী উপজেলাধীন হাজী মোহাম্মদ জানে আলম উচ্চ বিদ্যালয়ের ৪ তলা ভবন, পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৪ তলা ভবন, সন্দ্বীপের সন্তোষপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৪ তলা ভবন এবং ডবলমুরিং থানাধীন সরকারি সিটি কলেজে ১০ তলা একাডেমিক ভবনের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করা হয়।

পলোগ্রাউ- বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের একটি ভবন সম্প্রসারণ, সরকারী মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয়ের লালদিঘী মাঠের ৬ দফা মঞ্চ নির্মাণসহ সংস্কার কাজ এবং খুলশী থানাধীন সিএমপি উচ্চ বিদ্যালয়ের একটি ভবনের সম্প্রসারণ কাজ উদ্বোধন করা হয়।

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অধীনে উদ্বোধন হওয়া প্রকল্পগুলো হলো- মীরসরাইয়ে হিংগুলি ১০ শয্যা বিশিষ্ট মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র এবং লোহাগড়ায় চুনতি ১০ শয্যা বিশিষ্ট মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের নির্মাণ কাজ। শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীনে বিটাক চট্টগ্রাম কেন্দ্রের নারী হোস্টেল নির্মাণকাজও উদ্বোধন হতে যাচ্ছে। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীনে নাসিরাবাদ শিক্ষানবিসি প্রশিক্ষণ দপ্তর সংস্কার ও আধুনিকায়ন কাজ।

উদ্বোধনের তালিকায় থাকা অন্যান্য প্রকল্প হচ্ছে কৃষি মন্ত্রণালয়ের অধীনে দেওয়ানহাটে হর্টিকালচার সেন্টারে একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও অফিস, নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের অধীনে ‘দুইটি উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন (প্রতিটি ৫০০০ বিএইচপি/ ৭০ টন বোলার্ড পুল) টাগবোট সংগ্রহ’ শীর্ষক প্রকল্প ও ‘চট্টগ্রাম বন্দরের বিভিন্ন ইয়ার্ড এবং টার্মিনালের জন্য প্রয়োজনীয় ইক্যুইপমেন্ট সংগ্রহ শীর্ষক প্রকল্প।

এসব প্রকল্পের বাইরে আরও চারটি প্রকল্পের ভিত্তি স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেগুলো হচ্ছে- নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের অধীনে চট্টগ্রামের মিরসরাই ও সন্দ্বীপ অংশে জেটিসহ আনুষাঙ্গিক স্থাপনাদি নির্মাণ, আনোয়ারায় বাংলাদেশ মেরিন একাডেমির আধুনিকরণ, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীনে পাঁচলাইশ আবাসিক এলাকায় আধুনিক সুযোগ সুবিধা সম্পন্ন জাতিসংঘ সবুজ উদ্যান স্থাপন এবং বিদ্যুৎ বিভাগের অধীনে চট্টগ্রামস্থ বিপিসি ভবন নির্মাণ কাজের।

 

;

রাস্তার কাজ না করেই টাকা আত্মসাৎ



আরিফুল ইসলাম, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেট, বার্তা২৪.কম, টাঙ্গাইল
রাস্তার কাজ না করেই টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

রাস্তার কাজ না করেই টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

  • Font increase
  • Font Decrease

টাঙ্গাইলের বাসাইল পৌরসভার ৫, ৯ নং ওয়ার্ডে ২০২১-২০২২ অর্থবছরের টি আর কর্মসূচির ২টি প্রকল্পের গ্রামীণ রাস্তা সংস্কারের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে সাইফুল ইসলাম ও এইচ এম এরশাদ আলমের বিরুদ্ধে।

জানা যায়, বাসাইল পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের ২০২১-২২ অর্থবছরে টি আর কর্মসূচির আওতায় অবকাঠামো উন্নয়নে বালিনা বাবু মন্ডলের বাড়ির উত্তর পাশ হতে সফিক মিয়ার বাড়ি পর্যন্ত মাটির রাস্তা মেরামতের জন্য ৪৮ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয় এবং ৯ নং ওয়ার্ডের বাসাইল নলুয়া রাস্তা হতে বিকাশের বাড়ি পর্যন্ত মাটি ভরাট ও তালগাছ রোপণের জন্য ৪৮ হাজার টাকার বরাদ্দ দেয়া হয়। এ টাকা উত্তোলন করা হলেও সরেজমিনে কোনো ধরনের কাজ না করে আত্মসাত করেন ৫নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম ও ৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এইচ এম এরশাদ আলম।

অভিযোগ উঠেছে, এই রাস্তার কাজে কোনো টাকা ব্যয় করা হয়নি। এলাকাবাসীরা অভিযোগ করেন বাসাইল পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম ও ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এইচ এম এরশাদ আলম সম্পূর্ণ টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

এ ব্যাপারে বিকাশ চন্দ্র সরকার বলেন, কেউ কোনো টাকাও দেয় নাই, তালগাছও রোপণ করে নাই। আমাদের নিজস্ব টাকা দিয়ে নিজেরাই মাটি ভরাট করেছি। এই রাস্তার মাটি ভরাটের জন্য দেড় লাখ টাকার মতো লেগেছে। সরকারি কোনো অনুদান পাইনি।

বিকাশের বাবা নিবারণ চন্দ্র সরকার বলেন, আমার নিজের রাস্তা নিজের টাকা দিয়েই করছি। এই রাস্তার জন্য সরকারি কোন অনুদান নাই, কেউ কোনো টাকা দেয় নাই।

প্রকল্পের সভাপতি কাউন্সিলর এইচ এম এরশাদ আলম মুঠোফোনে বলেন, আমি আপনার সাথে সরাসরি কথা বলি বলে ফোন কেটে দেন।

এ ব্যাপারে সফিক মিয়া বলেন, গত পাঁচ বছরে এই রাস্তায় কোন মাটি তো দূরের কথা এক চিমটি বালিও পরে নাই।

স্থানীয় বাসিন্দা উমর আলী বলেন, বালিনা বাবু মন্ডলের বাড়ির উত্তর পাশ হতে সফিক মিয়ার বাড়ি পর্যন্ত রাস্তায় ৪-৫ বছরে এক কোদাল মাটিও পরে নাই। প্রতিনিয়ত এই রাস্তা দিয়েই আমি বাজারে যায়।

প্রকল্পের সভাপতি কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম মুঠোফোনে বলেন, বন্যার আগে মাটি দিয়ে রাস্তা মেরামত করেছিলাম পানিতে ধুয়ে গেছে। টি আরের কাজ তো আর সবসময় হয় না আপনারা তো বোঝেন।

এ ব্যাপারে বাসাইল পৌরসভার মেয়র আব্দুর রহিম আহমেদ বলেন, ৫, ৯ নং ওয়ার্ডে টি আর প্রকল্পের কাজের সভাপতি সাইফুল ও এরশাদ। ওরা দুইজন বলতে পারবে মাটি কতটুকু ফেলছে। পৌরসভা ঐ ভাবে প্রকল্পের কাজ গুলো দেখে না, টি আর প্রকল্পের কাজ গুলো দেখে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস। প্রকল্পের লেনদেন কাজ বুঝে নেওয়ার দায়িত্ব হলো উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সাখাওয়াত হোসেনের মুঠোফোনে কল দিলে মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

;

কেএসআরএম অষ্টম গলফ টুর্নামেন্ট সম্পন্ন



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, চট্টগ্রাম
কেএসআরএম অষ্টম গলফ টুর্নামেন্ট সম্পন্ন

কেএসআরএম অষ্টম গলফ টুর্নামেন্ট সম্পন্ন

  • Font increase
  • Font Decrease

চট্টগ্রামের ভাটিয়ারি গলফ অ্যান্ড কান্ট্রি ক্লাবে শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) অষ্টম গলফ টুর্নামেন্ট সম্পন্ন হয়েছে। টুর্নামেন্টের আয়োজন করে দেশের অন্যতম বৃহৎ ইস্পাত শিল্প প্রতিষ্ঠান কেএসআরএম।

সকালে প্রধান অতিথি ভাটিয়ারি গলফ অ্যান্ড কান্ট্রি ক্লাবের প্রেসিডেন্ট ও ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল মিজানুর রহমান শামীম টুর্নামেন্টের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। সাথে ছিলেন কেএসআরএমের জ্যেষ্ঠ মহাব্যবস্থাপক (বিক্রয় ও বিপণন) মো. জসিম উদ্দিন, বিজনেস রিচার্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট উইংয়ের মহাব্যবস্থাপক কর্নেল (অব.) মো. আশফাকুল ইসলাম, মহাব্যবস্থাপক (মানবসম্পদ ও প্রশাসন) সৈয়দ নজরুল আলম, মিডিয়া অ্যাডভাইজার মিজানুল ইসলাম ও ভাটিয়ারি গলফ অ্যান্ড কান্ট্রি ক্লাব ভাইস প্রেসিডেন্ট (এডমিন অ্যান্ড ফিনেন্স) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কাজী ইফতেখারুল আলম।

সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি মেজর জেনারেল মিজানুর রহমান শামীম বলেন, প্রতিবছর আমরা কেএসআরএমের সহযোগিতায় এ টুর্নামেন্টের আয়োজন করে থাকি। যা অত্যন্ত আনন্দের ও দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ধারাবাহিকতা। এজন্য কেএসআরএম কর্তৃপক্ষের প্রতি আমাদের আন্তরিক ধন্যবাদ। আমরা আশা করছি কেএসআরএমের সাথে আমাদের ধারাবাহিক এ সম্পর্ক আগামীতেও অব্যাহত থাকবে। আঞ্চলিক পর্যায়ের এসব গলফ টুর্নামেন্ট জাতীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন জিওসি মিজানুর রহমান শামীম। এ সময় তিনি কেএসআরএমের উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি ও টুর্নামেন্ট আয়োজনের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান।

কেএসআরএমের মহাব্যবস্থাপক কর্নেল (অব.) মো. আশফাকুল ইসলাম বলেন, এই টুর্নামেন্ট আমাদের পারস্পরিক সম্পর্কের অংশ। অতীতের মতো ভবিষ্যতেও গলফ টুর্নামেন্টে আমাদের সহযোগিতা থাকবে। এতে করে গলফারদের সাথে কেএসআরএমের আত্মিক নিবিড় সম্পর্ক গড়ে ওঠবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কেএসআরএমের জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক (ব্রান্ড) শাহেদ পারভেজ, উপ ব্যবস্থাপক মনিরুজ্জামান রিয়াদ, সহকারী ব্যবস্থাপক ডেনিয়েল দেওয়ান, জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা মিজান উল হক, মিথুন বড়ুয়া প্রমুখ।

শেষে গলফ টুর্নামেন্টে ১৭০ প্রতিযোগি গলফারের মধ্যে বিজয়ীদের পুরষ্কার বিতরণ ও র্যাফেল ড্র'র মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

;

ছেলে হত্যার দায়ে খুনিদের ফাঁসি চান মা



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, টাঙ্গাইল
মানববন্ধনে খুনিদের ফাঁসি চান মা

মানববন্ধনে খুনিদের ফাঁসি চান মা

  • Font increase
  • Font Decrease

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হাতুড়ি পেটায় আব্দুল হামিদ (৪৫) নিহতের ঘটনায় খুনিদের ফাঁসি ও পলাতক আসামিদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।

রোববার (৪ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টায় উপজেলার অলোয়া ইউনিয়নের খড়ক বাজারে ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

নিহতের বৃদ্ধা মা হামিদা বলেন, ‘সাঈদ তার স্ত্রী আনোয়ারা বেগম ও আজিজুলসহ আরও খুনিরা আমার ছেলের উপর প্রকাশ্যে হাতুড়ি পেটা ও হামলা চালিয়ে হত্যা করেছে। হত্যাকারীদের মধ্যে প্রধান আসামি সাঈদসহ অন্যান্য আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং ভয়ভীতি ও প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। ছেলে হত্যাকারী বাকি আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার, বিচার ও ফাঁসির দাবি জানাচ্ছি’।

মানববন্ধনে অংশ নেয়া এলাকাবাসী বলেন, ‘অভিযুক্তরা জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে আব্দুল হামিদ খুন করে। খুনের ঘটনায় তার স্ত্রী শাহিনা ও তার চাচাতো ভাই আব্দুর রাজ্জাকসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। হামিদের পরিবার ঘটনার পর থানায় মামলা করলে পলাতক আসামিরা প্রাণনাশের হুমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে’।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, লোকমান হোসেন, নূরুল ইসলাম প্রধান, হাবিবুর রহমান, মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল, রিয়াজ উদ্দিন, আব্দুর রশিদ, হামিদের আহত স্ত্রী শাহিনা বেগম ও তার বোন হাজেরা বেগম প্রমুখ। মানববন্ধনে এলাকার নানা শ্রেণী পেশার ৪ শতাধিক লোকজন অংশ নেন।


এ ব্যাপারে ভূঞাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম জানান, মামলার পর অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তদের মধ্যে চারজনকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠানো হয় এবং অন্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তিনি আরও জানান, হামিদের পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় যাতে না ভুগে সে লক্ষে খড়ক এলাকায় নিয়মিত পুলিশ টহল দিচ্ছে।

প্রসঙ্গত- গত ২৫ নভেম্বর উপজেলার খড়ক গ্রামে অভিযুক্তরা জমি সংক্রান্ত নিয়ে বিরোধের জেরে নিহতের চাচাতো ভাই রাজ্জাকের উপর হামলা চালায়। ঘটনা দেখে হামিদ এগিয়ে গেলে তার উপরেও হামলা করে। এতে গুরুত্বর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান। এ ঘটনায় ২৬ নভেম্বর রাতে নিহতের স্ত্রী শাহিনা বেগম বাদী হয়ে ১৯ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ১৫-২০ জনকে অভিযুক্ত করে ভূঞাপুর থানায় মামলা দায়ের করে। ওইদিন রাতেই ৪ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

;