ইসরায়েলের নতুন বসতি আন্তর্জাতিক আইনের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ : যুক্তরাষ্ট্র



আন্তর্জাতিক ডেস্ক বার্তা২৪.কম
ছবি : সংগৃহীত

ছবি : সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, অধিকৃত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে নতুন ইসরায়েলি বসতি অবৈধ এবং কার্যকরভাবে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসনের একটি নীতির বিপরীত।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন বলেছেন, ‘ইসরায়েলের অর্থমন্ত্রী বেজালেল স্মোট্রিচ অধিকৃত পশ্চিম তীরে ৩,৩০০টিরও বেশি নতুন ইসরায়েলি বসতি নির্মাণের যে ঘোষণা দিয়েছেন, তা হতাশাজনক।’

আর্জেন্টিনার বুয়েনস আইরেসে শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) এক সংবাদ সম্মেলনে ব্লিঙ্কেন বলেন, ‘এটি ডেমোক্র্যাটিক এবং রিপাবলিকান উভয় প্রশাসনের একটি দীর্ঘস্থায়ী নীতি ছিল যে, নতুন বসতি স্থায়ী শান্তি অর্জনের জন্য বিপরীতমুখী পদক্ষেপ। এটি আন্তর্জাতিক আইনের সঙ্গেও অসঙ্গতিপূর্ণ।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের প্রশাসন বসতি সম্প্রসারণের দৃঢ় বিরোধিতা করে। আমাদের বিচারে এটি ইসরায়েলের নিরাপত্তাকে শক্তিশালী করে না, বরং আরও বেশি দুর্বল করে।’

এদিকে, বৈশ্বিক সম্প্রদায়ের অধিকাংশই এই বসতিগুলোকে অবৈধ এবং ইসরায়েলি দখলদারিত্বের সম্প্রসারণ হিসেবে দেখছে।

হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তার মুখপাত্র জন কিরবি সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘ব্লিঙ্কেনের অবস্থান বিভিন্ন রিপাবলিকান এবং ডেমোক্র্যাটিক প্রশাসনের ক্ষেত্রে সামঞ্জস্যপূর্ণ।’

অধিকৃত পশ্চিম তীরে হাজার হাজার নতুন বসতি স্থাপনকারী বাড়ি নির্মাণের সর্বশেষ ইসরায়েলি পরিকল্পনার নিন্দা করেছে জার্মানি।

বার্লিনে একটি সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপ-মুখপাত্র ক্যাথরিন ডেসচওয়ার বলেছেন, ‘আপনি জনবসতি নির্মাণের ক্ষেত্রে আমাদের অবস্থান জানেন। এটি আন্তর্জাতিক আইনের পরিপন্থী।’

   

ইসরায়েল-ইরান উত্তেজনা: বিশ্ব বাজারে জ্বালানি তেলের দাম বেড়েছে



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইসরায়েল-ইরান উত্তেজনায় আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম বেড়েছে। শুক্রবার (১২ এপ্রিল) এ খবর জানিয়েছে সিএনবিসি।

গত বছরের ৭ অক্টোবর ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধ শুরু পর লোহিত সাগরে হুতিদের হামলার পর বিশ্বজুড়ে জ্বালানি তেলের দাম বেড়ে যায়।

গত ১ এপ্রিল সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে ইরানের কনস্যুলেট ভবনে হামলা করে ইসরায়েল। ওই হামলায় ইসলামিক রেভল্যুশনারি গার্ডের দুই জেনারেলসহ বেশ কয়েকজন কমান্ডার নিহত হন। এরপর রাজনৈতিক উত্তেজনা আরও বেড়ে যায়। এমন অস্থিরতার মধ্যেই আবারও বাড়ল জ্বালানি তেলের দাম।

জানা গেছে, আগামী মে মাসে ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট (ডব্লিউটিআই) জ্বালানি তেল সরবরাহ করবে সেটির দাম বেড়েছে। শুক্রবার (১২ এপ্রিল) প্রতি ব্যারেলের ১ দশমিক ১৪ ডলার বা ১ দশমিক ৩৪ শতাংশ বেড়ে ৮৬ দশমিক ১৫ মার্কিন ডলারে দাঁড়িয়েছে।

অন্যদিকে, পরের মাস জুনে যে ব্রেন্ট ক্রুড তেল সরবরাহ হবে, সেটির প্রতি ব্যারেলের দাম এদিন ১ দশমিক শূন্য ৪ ডলার বা ১ দশমিক ১৬ ডলার বেড়ে ৯০ দশমিক ৭৯ ডলারে উঠেছে।

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের র‌্যাপিডান এনার্জির প্রেসিডেন্ট বব ম্যাকন্যালি বলেন, ইরান ইসরায়েলে সরাসরি সামরিক হামলা চালালে আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি ব্যারেল ব্রেন্ট ক্রুড অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম বেড়ে ১০০ মার্কিন ডলারে উঠে যেতে পারে। আর এ হামলায় যদি হরমুজ প্রণালিতে সরবরাহ ব্যবস্থায় ব্যাঘাত ঘটে, তাহলে প্রতি ব্যারেল ১২০ থেকে ১৩০ ডলারেও উঠতে পারে।

;

‘ইসরায়েলে কোনো হামলা নয়’ ইরানকে সতর্কবার্তা বাইডেনের



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
‘ইসরায়েলে কোনো হামলা নয়’ ইরানকে সতর্কবার্তা বাইডেনের

‘ইসরায়েলে কোনো হামলা নয়’ ইরানকে সতর্কবার্তা বাইডেনের

  • Font increase
  • Font Decrease

ইসরায়েল ইস্যুতে ইরানকে সতর্কবার্তা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ইরানকে সতর্ক করে বাইডেন বলেছেন, ‘শিগগিরই হামলা করবেন না।’ 

সেই সঙ্গে বাইডেন ইসরায়েলের ওপর যে কোনো প্রকার হামলা ঘটলে ইহুদি রাষ্ট্রটির পাশে থাকার প্রতিশ্রুতিও ব্যক্ত করেন।

শুক্রবার (১২ এপ্রিল) হোয়াইট হাউসে ইসরাইলে ইরানের হামলার হুমকি প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বাইডেন এসব কথা বলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বলেন, আমরা ইসরায়েলকে রক্ষা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমরা সব সময় ইসরায়েলকে সমর্থন করবো। তাদের রক্ষায় যুক্তরাষ্ট্র যে কোনো ধরনের সহায়তার জন্য প্রস্তুত। ইরান সফল হবে না। ইসরায়েলে কোনো হামলা নয়— ইরানের উদ্দেশে আমার বার্তা এটুকুই।

গত ১ এপ্রিল সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে ইরানের কনস্যুলেটে এক বোমা হামলায় ১৩ জন নিহত হয়েছিলেন। এরপর থেকেই ইরানের সম্ভাব্য প্রতিশোধমূলক হামলা নিয়ে উদ্বেগ চলছে। যদিও দাপ্তরিকভাবে ইসরায়েল এখনও এ হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন বলেছে, ইসরায়েল ওই হামলা চালিয়েছে।

এদিকে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি বলেছেন, এই কর্মকাণ্ডের জন্য ইসরায়েলকে অবশ্যই শাস্তি পেতে হবে। 

ইরানের হুমকির বিষয়ে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, ‘ইসরায়েল রাষ্ট্রের’ নিরাপত্তা নিশ্চিতে তাঁর সরকার প্রস্তুত রয়েছে।

;

ইরানের হামলার আশঙ্কা: শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন নেতানিয়াহু



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ইসরায়েলে ইরানের সম্ভাব্য হামলা মোকাবিলার প্রস্তুতির জন্য শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাতে বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে শুক্রবার (১২ এপ্রিল) এই বৈঠক হতে পারে।

খবরে আরও বলা হয়েছে, নেতানিয়াহু ইসরায়েলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভার সঙ্গে বৈঠকে করতে যাচ্ছেন। বৈঠকে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্ট ও প্রধান বিরোধী নেতা বেনি গান্তজও উপস্থিত থাকতে পারেন।

বিবিসির মার্কিন পার্টনার সিবিএস নিউজকে এক মার্কিন কর্মকর্তা বলেছেন, শুক্রবার ইরানি হামলা হতে পারে।

এক অজ্ঞাত কর্মকর্তা বলেছেন, এই হামলায় শতাধিক ড্রোন, কয়েক ডজন ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ও হয়ত ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে ইসরায়েলে সামরিক স্থাপনাকে নিশানা করা হতে পারে।

এক মার্কিন কর্মকর্তা ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে বলেছেন, মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদনে এখন ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে যে কয়েক দিনের মধ্যে ইসরায়েলি ভূখণ্ডে প্রতিশোধমূলক হামলা চালাতে পারে ইরান। তবে ইসরায়েলি ভূখণ্ডের বাইরে দেশটির স্বার্থসংশ্লিষ্ট অবস্থানেও হামলা করতে পারে তেহরান।

তিনি বলেছেন, পরবর্তী ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে এই হামলা হতে পারে। দেশের দক্ষিণ বা উত্তরে সম্ভাব্য হামলা মোকাবিলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসরায়েল।

উল্লেখ্য, ১ এপ্রিল সিরিয়ায় ইরানি কনস্যুলেটে হামলা চালায় ইসরায়েল। ওই হামলায় ১৩ জন নিহত হন। কনস্যুলেটে হামলায় বেশ কয়েকজন সামরিক কর্মকর্তা প্রাণ হারান। তাদের মধ্যে কুদস্ ফোর্সের একজন সিনিয়র কমান্ডার ছিলেন। সিরিয়া ও লেবাননে বাহিনীর কার্যক্রম দেখভাল করতেন তিনি। ইরান এর প্রতিশোধ নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

;

যুক্তরাষ্ট্রের কর্মীদের ইসরায়েল ভ্রমণে বিধিনিষেধ জারি



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইরান প্রতিশোধমূলক হামলা চালাতে পারে, এমন আশঙ্কার মধ্যে ইসরায়েলে নিজেদের কর্মীদের ভ্রমণে বিধিনিষেধ জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস জানিয়েছে, তারা তাদের কর্মীদের বৃহত্তর জেরুজালেম, তেল আবিব ও বীর শেবার বাইরে কোথাও না যাওয়ার জন্য বলেছে।

যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস জানায়, ‘অধিকতর সতর্কতার অংশ হিসেবে’ দূতাবাস কর্মীদের জেরুজালেমের বাইরে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।

এদিকে ইসরায়েলে ইরানের সম্ভাব্য হামলা নিয়ে উত্তেজনার মধ্যে জার্মান এয়ারলাইন লুফথানসা শনিবার পর্যন্ত ইরানের রাজধানী তেহরানে তাদের ফ্লাইট চলাচল স্থগিত করেছে।

ইরান সরাসরি ইসরায়েলে হামলা চালাবে না তাদের কোনো ছায়া বাহিনী তাদের হয়ে কাজটি করবে, তা শেষ খবর পর্যন্ত পরিষ্কার হয়নি। আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই এ ধরনের একটি হামলা হতে পারে বলে ব্যাপকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, এগারো দিন আগে সিরিয়ায় ইরানি কনস্যুলেটে হামলা চালায় ইসরায়েল। ওই হামলায় ১৩ জন নিহত হন। কনস্যুলেটে হামলায় বেশ কয়েকজন সামরিক কর্মকর্তা প্রাণ হারান। তাদের মধ্যে কুদস্ ফোর্সের একজন সিনিয়র কমান্ডার ছিলেন। সিরিয়া ও লেবাননে বাহিনীর কার্যক্রম দেখভাল করতেন তিনি। ইরান এর প্রতিশোধ নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

;