দেরনা শহরে বন্যায় মৃতের সংখ্যা ২০ হাজার ছুঁতে পারে: মেয়র



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

লিবিয়ায় ঘূর্ণিঝড় ড্যানিয়েলের প্রভাবে সৃষ্ট বন্যায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত শহর দেরনার বাসিন্দা মাহমুদ আব্দুল করিম। ভয়াবহ বন্যায় মা ও ভাইকে হারিয়েছেন তিনি। আব্দুল করিমের মতো হাজার হাজার বাসিন্দা তাদের নিখোঁজ আত্মীয়দের উদ্ধারে মরিয়া হয়ে আছেন এ ধ্বংস নগরীতে।

রোববার (১০ সেপ্টেম্বর) আঘাত হানা প্রাণঘাতী ঝড়ের প্রভাবে সৃষ্ট বন্যায় মৃতের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে মন্তব্য করেছেন দেরনার মেয়র আবদুলমেনাম আল-গাইথি। সৌদি মালিকানাধীন আল আরাবিয়া টেলিভিশনকে তিনি বলেন, বন্যায় ধ্বংস হওয়া এ শহরটিতে মৃতের আনুমানিক সংখ্যা ১৮ হাজার থেকে ২০ হাজারের মধ্যে পৌঁছাতে পারে।

আল-গাইথি আরও বলেন, মিশর, তিউনিসিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত, তুরস্ক এবং কাতার থেকে উদ্ধারকারী দল পৌঁছেছে। ধ্বংসস্তূপের নিচে এবং পানিতে বহু মৃতদেহ পড়ে থাকার কারণে শহরটি মহামারিতে আক্রান্ত হতে পাড়ে বলে আমি আশঙ্কা করছি।

ঘূর্ণিঝড় ড্যানিয়েল আঘাত হানার পর দেরনায় লিবিয়ার বিপর্যয়কর পরিস্থিতি সম্পর্কে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট তারেক আল-খারজ বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, ভূমধ্যসাগরীয় শহরে এ পর্যন্ত ৩,৮৪০ জন মারা গেছে, যার মধ্যে ৩,১৯০ জনকে ইতিমধ্যে সমাহিত করা হয়েছে। তাদের মধ্যে কমপক্ষে ৪০০ জন ছিলেন সুদান ও মিশরের নাগরিক।

এদিকে, লিবিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় প্রশাসনের বেসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রী হিচেম আবু চকিউয়াত রয়টার্স বার্তা সংস্থাকে বলেন, এখন পর্যন্ত ৫৩০০ জনেরও বেশি মৃতের সংখ্যা উদ্ধার করা হয়েছে। মৃতের সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে বাড়তে পারে এবং দ্বিগুণ হতে পারে বলে জানান তিনি।

দেরনা শহরে অবস্থানরত সাংবাদিক মাব্রুকা এলমসমারি মঙ্গলবার দেরনা ত্যাগ করতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি আল জাজিরাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানান, দেরনা শহরের বিপর্যয় ভয়াবহ। এখানে খাবার পানীয়, বিদ্যুৎ, পেট্রোল কিছুই নেই। শহরটি সমতল হয়ে গেছে এবং এখনকার বাসিন্দরা বন্যার পানিতে ভেসে গেছে। বন্যার পানিতে রাস্তা ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় অনেকেই আটকে গেছে। এ মুহূর্তে কিছু পরিবার স্কুলে আশ্রয় নিচ্ছে বলেও জানান তিনি।

জাতিসংঘের মানবিক ত্রাণ সহায়তা সমন্বয়ক দফতর ওসিএইচএ জানিয়েছে, দেরনায় বন্যার পানিতে ভেসে যাওয়া মানুষের সংখ্যা অন্তত ৫ হাজার। আবাসিক ভবনগুলো থেকে ভেসে আসা তাদের পোশাক, খেলনা, আসবাবপত্র, জুতা পরে আছে সাগরপাড়ে। ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে দেরনা।

ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলেছেন বাইডেন



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

চলতি বছরের নভেম্বরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর অংশ হিসেবে পেনসিলভানিয়ায় এক নির্বাচনী প্রচারে হামলার শিকার হন আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থী ট্রাম্প।

ট্রাম্প জানান, এতে তার ডান কানের ওপরের অংশ ফুটো হয়ে গেছে। চিকিৎসা নেওয়ার পর হাসপাতাল ছেড়েছেন।

এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। কথা বলেছেন গুলিবিদ্ধ ট্রাম্পের সাথে।

রোববার (১৪ জুলাই) হোয়াইট হাউজের বরাত দিয়ে বিবিসি এ তথ্য জানায়।

হোয়াইট হাউসের একজন কর্মকর্তা বলেছেন, এ ঘটনা শোনার পরই প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাথে কথা বলেছেন।

তবে তাদের মধ্যে কি নিয়ে কথা হয়েছে তা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি ওই কর্মকর্তা।

এছাড়াও তিনি পেনসিলভানিয়ার গভর্নর জোশ শাপিরো এবং বাটলারের মেয়র বব ড্যান্ডয়ের সাথেও কথা বলেছেন। 

;

হাসপাতাল ছেড়েছেন ট্রাম্প



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও আগামী নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। পেনিসেলভেনিয়ার বাটলার শহরে হওয়া এই হামলায় অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন তিনি। ঘটনার পরই স্থানীয় একটি হাসপাতালে তাকে ভর্তি করানো হয়।

চিকিৎসা শেষে ট্রাম্প হাসপাতাল ছেড়েছেন বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

রোববার (১৪ জুলাই) বিবিসি জানায়, চিকিৎসা শেষে ট্রাম্প হাসপাতাল ছেড়েছেন। তবে তিনি এখন কোথায় যাচ্ছেন তা স্পষ্ট নয়। পেনিসেলভেনিয়ার বাটলার শহরের সমাবেশ শেষে আজ নিউ জার্সির বেডমিনস্টারে তার যোগ দেওয়ার কথা ছিল। 

এই সমাবেশের পর উইসকনসিনের মিলওয়াকিতে নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর কথা রয়েছে।

;

২০০ ফুট দূর থেকে ট্রাম্পকে হামলা করা হয়



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
২০০ ফুট দূর থেকে ট্রাম্পকে হামলা করা হয়/ ছবিঃ সংগৃহীত

২০০ ফুট দূর থেকে ট্রাম্পকে হামলা করা হয়/ ছবিঃ সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনী প্রচারণায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এ ঘটনার পরপরই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গুলিতে হামলাকারী নিহত হয়েছেন।

২০০ থেকে ৩০০ ফুট দূরত্বে এ হামলা চালানো হয়েছে বলে জানান দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

আইনশৃঙ্খলা প্রয়োগকারী একাধিক কর্মকর্তা সিবিএস নিউজকে জানান, ট্রাম্পকে একটি এআর-স্টাইলের রাইফেল দিয়ে গুলি করা হয়েছে। প্রায় ২০০ থেকে ৩০০ ফুট দূরত্বের অবস্থান থেকে এ হামলা চালানো হয়।

এ ঘটনার পরপরই হামলাকারী আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে নিহত হয়েছেন বলেও জানান ওই কর্মকর্তারা। 

;

গুলিতে ডান কানের ওপরের অংশ ফুটো হয়ে গেছে: ট্রাম্প



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
গুলিতে ডান কানের ওপরের অংশে ফুটো হয়ে গেছে: ট্রাম্প/ ছবি: সংগৃহীত

গুলিতে ডান কানের ওপরের অংশে ফুটো হয়ে গেছে: ট্রাম্প/ ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যে নির্বচনী প্রচার সমাবেশে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে লক্ষ্য করে গুলি করা হয়েছে। এতে তার ডান কানের উপরের অংশ ফুটো হয়ে গেছে বলে সামাজিক মাধ্যম ট্রুথ সোশ্যালে দেওয়া এক পোস্টে জানান তিনি।

ওই পোস্টে ট্রাম্প জানান, "গুলির শব্দ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমি মঞ্চে বসে পড়ি এবং বুঝতে পারি কোন অঘটন ঘটেছে। বুলেটটি আমার ডান কানের চামড়া ফুটো করে দিয়েছে। অনেক রক্তক্ষরণ হয়েছিল, তখন আমি বুঝতে পেরেছিলাম কি ঘটছে।"

‘এটা অবিশ্বাস্য যে আমাদের দেশে এ রকম একটি ঘটনা ঘটেছে। হামলাকারী সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি। হামলাকারী নিহত হয়েছেন।’ পোস্টের শেষে ট্রাম্প বলেন, ‘ঈশ্বর আমেরিকার মঙ্গল করুন!’

ট্রাম্প বলেন, ‘নির্বাচনী প্রচারে গুলিতে যিনি নিহত হয়েছেন, তাঁর পরিবারকে আমি সমবেদনা জানাই। গুরুতর আহত আরেকজনের পরিবারের প্রতিও আমি সমবেদনা জানাই।’

এদিকে হামলার ঘটনার পর বিবৃতি দিয়েছেন ট্রাম্পের মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্প। সামাজিক মাধ্যম এক্সে দেওয়া এক পোস্টে ইভাঙ্কা তাঁর বাবা ও হামলায় হতাহত ব্যক্তিদের প্রতি ভালোবাসা ও প্রার্থনা করার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় শনিবার (১৩ জুলাই) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

;