পুতিন গ্রেফতার হলে যুদ্ধ লেগে যাবে : মেদভেদেভ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে গ্রেফতার করা হলে যুদ্ধ বেঁধে যাবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন রুশ নিরাপত্তা পরিষদের ডেপুটি চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ। বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) টেলিগ্রামে এক ভিডিওবার্তায় এ হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

ইউক্রেনে রাশিয়ার সেনারা যুদ্ধাপরাধ করেছে বলে অভিযোগ জানিয়ে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা হয়েছিল। সম্প্রতি আদালত সেই মামলার রায় ঘোষণা করেছে। যুদ্ধের জন্য এবং যুদ্ধাপরাধ ঘটানোর দায়ে পুতিনের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতেই এই হুঁশিয়ারি বার্তা দেন মেদভেদেভ।

দিমিত্রি মেদভেদেভ বলেন, ‘পৃথিবীর কোনো দেশে রুশ প্রেসিডেন্ট গেলে তাকে যদি গ্রেফতার করা হয়, তাহলে রাশিয়া পুরোদস্তুর যুদ্ধ ঘোষণা করবে। বস্তুত, উদাহরণ হিসেবে তিনি বলেছেন—ধরা যাক পুতিন জার্মানি গেলেন এবং সেখানে তাকে গ্রেফতার করা হলো। সেক্ষেত্রে রাশিয়ার সব মিসাইল বার্লিনের পার্লামেন্ট লক্ষ্য করে ছোঁড়া হবে। বার্লিন ধ্বংস করে দেওয়া হবে।’

হেগে আন্তর্জাতিক আদালতে এই রায় ঘোষণার পরে এই প্রথম রাশিয়ার কোনো উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা এ বিষয়ে মুখ খুললেন। মেদভেদেভ জানান, আন্তর্জাতিক আদালতের প্রসিকিউটর করিম খানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার পরিকল্পনা করছে রাশিয়া। যেভাবে পুতিনের শাস্তি ঘোষণা করা হয়েছে, তা ভুল। কোনো দেশের রাষ্ট্রপ্রধানকে এভাবে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো যায় না। এভাবে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা যায় না।

করিম খান উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এই কাজ করেছেন বলে রাশিয়ার দাবি। এই কারণেই তার বিরুদ্ধে রাশিয়ার কোর্টে মামলা শুরু হয়েছে।

এদিকে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৬টি দেশ পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হওয়াকে সমর্থন দিয়েছে। কিন্তু হাঙ্গেরি জানিয়ে দিয়েছে, তারা এই রায় মানছে না। পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হওয়া তারা পছন্দ করছে না। পুতিন হাঙ্গেরি গেলে তাকে গ্রেফতার করা হবে না বলেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

তবে, জার্মানি আন্তর্জাতিক আদালতের রায়ে খুশি বলে জানিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক।

পিটিআই-কে নিষিদ্ধের পথ খুঁজছে সরকার: পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত, পিটিআই দলের প্রধান ও পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

ছবি: সংগৃহীত, পিটিআই দলের প্রধান ও পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

  • Font increase
  • Font Decrease

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)-কে নিষিদ্ধ করার পথ খুঁজছে সরকার বলে মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী আতাউল্লাহ তারার।

সোমবার (১৫ জুলাই) মন্ত্রীর বরাত দিয়ে টিআরটি ইন্টারন্যাশনাল এ বিষয়ে একটি খবর প্রকাশ করে।

তিনটি মামলার মধ্যে দুটি মামলার রায়ে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান কারাগারে সাজা ভোগ করছেন। আরেকটি মামলার রায় স্থগিত রয়েছে।

তথ্যমন্ত্রী আতাউল্লাহ তারার বলেন, পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী জেলে সাজাভোগকারী ইমরান খানের দল পিটিআইকে নিষিদ্ধের পথ খোঁজা হচ্ছে। তবে তা নির্ভর করছে, রাজনৈতিক অবস্থা কী দাঁড়ায়, তার ওপর।

পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে তথ্যমন্ত্রী আতাউল্লাহ তারার বলেন, সংসদে অনুমোদন হলেই সরকার সুপ্রিমকোর্টের দারস্থ হবে আইনগতভাবে।

রাজনৈতিক দলকে নিষিদ্ধ করতে হলে এই আইনি বাধ্যবাধকতা আছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

তারার বলেন, পাকিস্তান ও পিটিআই একসঙ্গে উন্নতি করতে পারে না। সাম্প্রতিক প্রমাণাদি সেটিই প্রমাণ করেছে। এ কারণে সরকার পিটিআইকে নিষিদ্ধ করতে চায়। এ বিষয়ে শিগগিরই উদ্যোগ নেওয়া হবে।

তিনি আরো উল্লেখ করে বলেন, ২০২৩ সালের মে মাসে পিটিআই পাকিস্তানের সেনাবাহিনীকে হস্তক্ষেপের আহ্বান জানিয়েছিল। ইমরান খান দুর্নীতির মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন।

;

সোমালিয়ায় গাড়িবোমা হামলায় নিহত ৯



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত,  সোমালিয়ায় রোববার রাতে গাড়িবোমা হামলার ঘটনা ঘটে

ছবি: সংগৃহীত, সোমালিয়ায় রোববার রাতে গাড়িবোমা হামলার ঘটনা ঘটে

  • Font increase
  • Font Decrease

আফ্রিকার দেশ সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসুতে এক গাড়িবোমা হামলায় ৯ জন নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ২০ জন।

হতাহতরা এ সময় টেলিভিশনের পর্দায় ইউরো-২০২৪ ফুটবল দেখছিলেন।

স্থানীয় সময় রোববার (১৪ জুলাই) রাতে ইউরো-২০২৪ ফুটবল খেলার সময় একটি ক্যাফেটরিয়ার সামনে এ গাড়িবোমা হামলার ঘটনা ঘটে। আল-কায়েদার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত আল-শাবাব এ হামলার দায় স্বীকার করেছে।

সোমবার (১৬ জুলাই) কাতারভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল আলজাজিরা এ খবর জানায়। খবরে বলা হয়, আল-শাবাবের সঙ্গে যুক্ত একটি রেডিওর খবরে এ হামলার দায় স্বীকার করে গোষ্ঠীটি।

ঘটনার সময় এ ক্যাফেটোরিয়ায় নিরাপত্তা বাহিনী ও সরকারি কর্মচারীরা টেলিভিশনের পর্দায় ফুটবেলা খেলা দেখছিলেন।

সোমালিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর এক কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইউনুস জানিয়েছেন, গাড়িবোমা হামলার ঘটনায় মোট ৯ জন নিহত হয়েছেন। যদিও এর আগে রোববার রাতের শেষদিকে কর্তৃপক্ষ ৫ জনের নিহতের কথা জানিয়েছিল।

মোহাম্মদ ইউনুস আরো জানান, হামলার পর অনেকেই মই বেয়ে এবং কেউ কেউ ক্যাফেটোরিয়ার পেছন থেকে লাফিয়ে পড়ে পালিয়ে যান। ফলে আরো প্রাণহানির হাত থেকে রক্ষা পায়।

হামলার পর পরই গাড়ি থেকে ব্যাপক আগুনের স্ফূলিঙ্গ ছুটতে দেখা যায়।

;

হামলার পরও রিপাবলিকান সম্মেলনে যাচ্ছেন ট্রাম্প



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নির্বাচনি প্রচারণা সভায় গুলিতে আহত হওয়া সত্ত্বেও দলের জাতীয় সম্মেলনে অংশ নেবেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। দলটির এবারের জাতীয় কনভেনশন আয়োজন করা হয়েছে দেশটির মধ্য-পশ্চিম অঞ্চলের অঙ্গরাজ্য উইসকনসিনের সবচেয়ে বড় শহর মিলওয়াওকিতে।

সোমবার (১৫ জুলাই) বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশিত হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, শনিবার পেনসিলভানিয়ায় নির্বাচনি সভায় বক্তব্য দেওয়ার সময় গুলিবিদ্ধ হন ট্রাম্প। এ সময় তাকে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনের মিলওয়াকিতে ১৫ থেকে ১৮ জুলাই রিপাবলিকান জাতীয় সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। গুরুতর আহত হলেও এ সম্মেলনে যোগ দেবেন ট্রাম্প। ইতিমধ্যেই উইসকনসিনে পৌঁছেছেন তিনি। ধারণা করা হচ্ছে, এ সময় ট্রাম্পকে আনুষ্ঠানিকভাবে ৫ নভেম্বরের নির্বাচনের জন্য দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসাবে ঘোষণা করা হবে। 

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে এখন রোববার মধ্যরাত। আগামীকাল সোমবার স্থানীয় সময় বেলা ১১টায় (বাংলাদেশ সময় রাত ১০টা) তিন দিনব্যাপী এই কনভেনশন শুরু হবে। শেষ হবে আগামী ১৮ জুলাই সন্ধ্যায়। কনভেনশনটি মূলত ফিসার ফোরামে অনুষ্ঠিত হবে, যা উইসকনসিন সেন্টার ডিস্ট্রিক্টে অনুষ্ঠিত অতিরিক্ত ইভেন্টের সাথে চলবে। এরমধ্যে রয়েছে- বেয়ার্ড সেন্টার, মিলার হাই লাইফ থিয়েটার এবং ইউনিভার্সিটি অব উইসকনসিন-মিলওয়াকির (ইউডব্লিউএম) প্যান্থার এলাকা।

এরই মধ্যে স্থানীয় বাসিন্দাদের বাইরে রিপাবলিকান ডেলিগেট, গণমাধ্যমকর্মী, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য এবং দর্শক-ভ্রমণকারী মিলে অন্তত ৫০ হাজার মানুষের সমাগম ঘটেছে শহরটিতে।

লেক মিশিগানের নীল জলরাশি আর অসংখ্য ছোট-বড় পাহাড়-টিলার এই নান্দনিক শহর ইতিমধ্যেই অতিথিদের বরণ করতে সর্বাত্মক প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন শহরের ডেমোক্র্যাট মেয়র ক্যাভালিয়ার জনসন।

কনভেনশন সামনে রেখে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে মিলওয়াকি।

;

ডোনাল্ডের ওপর হামলার পর খোলা চিঠিতে যা বললেন স্ত্রী মেলানিয়া



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আমেরিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট তথা প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রচার সভায় হামলার শিকার হওয়ার বেশ কয়েক ঘণ্টা পর নিজের প্রতিক্রিয়া জানালেন তার স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প। এক খোলা চিঠিতে আমেরিকারবাসীর উদ্দেশে তিনি লিখেছেন, 'রাজনৈতিক মতাদর্শের মেরামত করা প্রয়োজন। ভালবাসার প্রতি আরও জোর দিতে হবে আমাদের।'

সোমবার (১৫ জুলাই) বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশিত হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি আমেরিকার প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের ওপর ঘটে যাওয়া হামলা নিয়ে মুখ খুলেছেন তার স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প। নিজের এক্স হ্যান্ডলে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছেন মেলানিয়া। সেখানে তিনি লিখেছেন, আমাদের মনে রাখা উচিৎ মতামতের ভিন্নতা, নীতি, রাজনৈতিক খেলা কোনওটিই ভালবাসার ঊর্ধ্বে নয়।

তিনি লিখেছেন, ডোনাল্ডকে যখন গুলির আঘাতে পড়ে যেতে দেখছি তখন অনুভূতি হলো, আমার এবং ব্যারনের জীবনে বড়সড় পরিবর্তন আসতে চলেছে।

বন্দুকধারীর গুলিতে ট্রাম্প আহত হলেও মারা গেছেন সভায় উপস্থিত এক ব্যক্তি। আরও একজন আহত হয়েছেন। তাদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে মেলানিয়া লিখেছেন, যে সকল পরিবার এই জঘন্য কর্মকাণ্ডের জন্য ভুগছেন তাদের প্রতি আমার আন্তরিক সমবেদনা।

নিজের বিবৃতিতে হামলাকারী টমাস ক্রুককে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি মেলানিয়া। টমাসকে ‘অমানুষ’ বলেছেন তিনি। সব শেষে মেলানিয়া লিখেছেন, আমরা সকলেই এমন একটি পৃথিবী চাই যেখানে সম্মান সর্বাগ্রে, পরিবার সবার প্রথমে থাকবে এবং ভালবাসায় ভরা। পরিবর্তনের হাওয়া বইতে শুরু করছে। যারা এই খারাপ সময়ে আমাদের সমর্থন জানিয়েছেন, রাজনৈতিক গণ্ডি পেরিয়ে যারা আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন তাদের ধন্যবাদ।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৩ সালে ট্রাম্পের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল মেলানিয়ার। দুজনের এক মেয়েও আছে, টিফানি। ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত টিকেছিল ট্রাম্পের এই বিয়ে। ২০ লক্ষ ডলারের বিনিময়ে ট্রাম্পকে বিবাহ বিচ্ছেদ দিয়েছিলেন তিনি।

;