৬০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যার কবলে অস্ট্রেলিয়া



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

একটানা ভারি বৃষ্টির কারণে অস্ট্রেলিয়ায় ভয়াবহ বন্যা দেখা দিয়েছে। বন্যা আক্রান্ত সিডনির পশ্চিম শহরতলি এলাকা থেকে কয়েক হাজার মানুষকে সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

সোমবার (২২ মার্চ) বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে গত ৬০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বড় বন্যার মুখোমুখি অস্ট্রেলিয়া।

ইতিমধ্যে নিচু এলাকা থেকে অন্তত দুই হাজার মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

গত তিনদিন ধরে অবিরাম বৃষ্টিতে অস্ট্রেলিয়ার সর্বাধিক জনবহুল রাজ্য নিউ সাউথ ওয়েলসের নদীগুলো ফেঁপে উঠেছে। ফলে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এবং জনগণকে সরিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

স্থানীয় জরুরি সেবা বিভাগ এক টুইটে বলেছে, ১৯৬১ সালের পর এটিই অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে বড় বন্যা হতে চলেছে।

নিউ সাউথ ওয়েলসের মুখ্যমন্ত্রী গ্ল্যাডিস বেরেজিক্লিয়ান সাংবাদিকদের বলেছেন, আমাদের এক সঙ্গে থাকা দরকার, কারণ এই সপ্তাহটি খুব কঠিন হবে।

প্রবল বৃষ্টিপাতে নিউ সাউথ ওয়েলসের বিশাল একটি অংশ নিমজ্জিত হয়েছে। এক বছর আগেও এই অঞ্চলে আবহাওয়ার পরিস্থিতি থেকে একেবারে বিপরীত, যখন কর্তৃপক্ষ খরার বিরুদ্ধে লড়াই করেছে।

বেরেজিক্লিয়ান বলেন, আমি এমন কোনও রাষ্ট্র সম্পর্কে জানি না যেখানে মহামারি মধ্যে এমন আবহাওয়া পরিস্থিতি আছে।

রোববার (২১ মার্চ) সিডনিতে প্রায় ১১১ মিমি (৪.৪ ইঞ্চি) বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। যেখানে নিউ সাউথ ওয়েলসের উত্তর উপকূলের কয়েকটি অঞ্চলে গত ছয় দিনে প্রায় ৯০০ মিমি বৃষ্টিপাত হয়েছে, যা মার্চের গড়ের চেয়ে তিনগুণ বেশি।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, রাজ্যের নিম্নাঞ্চল থেকে প্রায় ১৮ হাজার লোককে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

   

ইসরায়েলি ড্রোন হামলায় হিজবুল্লাহর তিন সদস্য নিহত



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইসরায়েলি ড্রোন হামলায় দক্ষিণ লেবাননের নাকোরা শহরে ইরান-সমর্থিত সশস্ত্র গোষ্ঠীর তিন হিজবুল্লাহ সদস্য নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে লেবাননের নিরাপত্তা সূত্র। তবে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী এমন ঘটনা যাচাই-বাছাই করছে বলে জানায়।

শনিবার (২ মার্চ) স্থানীয় সময় সকাল ৮টা ৩০ মিনিটের দিকে এ হামলা চালানো হয় বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। 

লেবাননের নিরাপত্তা সূত্রের বরাত দিয়ে গণমাধ্যমটির প্রতিবেদনে জানানো হয়, গাজা-ইসরায়েল যুদ্ধে আন্তঃসীমান্ত লড়াইয়ে সর্বশেষ তিন হিজবুল্লাহ সদস্য নিহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তিরা নাকোরা শহরের কাছে একটি উপকূলীয় সড়কে চলন্ত অবস্থায় গাড়িতে ছিল। ওই গাড়ি লক্ষ্য করে ইসরায়েলি বাহিনী ড্রোন হামলা চালায়। এতে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়।

ওই ব্যক্তিদের মধ্যে একজন অস্ত্র প্রযুক্তিবিদ ছিলেন বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। 

উল্লেখ্য, গত অক্টোবর থেকে ইসরায়েলি হামলায় দুইশ'র বেশি হিজবুল্লাহ সদস্য নিহত হয়েছে। এছাড়াও প্রায় ৫০ জন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন। আর হিজবুল্লাহর হামলায় ইসরায়েলের ১২ জন সেনাবাহিনী ও পাঁচজন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন।

ইসরায়েল-হিজবুল্লাহর উত্তেজনায় দু'দেশের সীমান্তে অবস্থিত গ্রাম থেকে হাজার হাজার নাগরিক অন্যত্র চলে গিয়েছেন।

;

এশিয়া দেখতে ভারতে গিয়ে স্প্যানিশ নারী ধর্ষণের শিকার



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ভ্রমণ প্রিয় এক স্প্যানিশ দম্পতি মোটরসাইকেলে সমগ্র এশিয়া ঘুরতে বের হন। পাকিস্তান ও বাংলাদেশ ঘুরে ভারতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ওই স্প্যানিশ নারী।

শনিবার (২ মার্চ) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার (১ মার্চ) রাতে ঝাড়খণ্ড রাজ্যে এঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির পুলিশ। বাকি চার আসামিকে ধরার চেষ্টা চলছে।

দুমকার পুলিশ সুপার পিতাম্বর সিং খয়েরওয়ার ইন্ডিয়া টুডেকে বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গ থেকে ঝাড়খণ্ড দিয়ে পর্যটক দম্পতি বাইকে নেপালের দিকে যাচ্ছিলেন। পথে সন্ধ্যা নামলে দম্পতি বিশ্রাম নিতে থামেন এবং দুমকার কুঞ্জি গ্রামে একটি অস্থায়ী তাঁবু টানান। এসময় ৮–১০ জন যুবক এসে তাদের ওপর হামলা করে। পরে রাতে টহলরত পুলিশ ওই নারী ও তার স্বামীকে প্রধান সড়কে বেপরোয়া অবস্থায় দেখতে পায়।

তিনি বলেন, ওই স্প্যানিশ নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্তের জন্য একটি বিশেষ তদন্ত দল দল গঠন করা হয়েছে এবং ফরেনসিক বিশেষজ্ঞদেরও নিয়োগ করা হয়েছে।

ওই নারী ও তার স্বামী ট্যুরিস্ট ভিসায় ভারতে এসেছিলেন। তারা মূলত বাইকে করে এশিয়া ভ্রমণে বের হয়েছেন। প্রথমে পাকিস্তানে, এরপর বাংলাদেশ হয়ে দুমকায় পৌঁছান এই দম্পতি। বিহার হয়ে তাদের নেপালে যাওয়ার কথা।

স্পেনের ওই নারী বর্তমানে সরিয়াহাট কমিউনিটি হেলথ সেন্টারের (সিএইচসি) একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

;

হজযাত্রীর জন্য ১৮৬০ আবাসিক ভবনকে লাইসেন্স প্রদান করেছে সৌদি



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

এবার থেকে হজযাত্রীরা আবাসিক ভবনে থাকতে পারবেন বলে জানিয়েছে সৌদি আরব। হজযাত্রীদের থাকার জন্য এরই মধ্যে মক্কায় ১ হাজার ৮৬০টি আবাসিক ভবনকে লাইসেন্স দিয়েছে সৌদি আরব। আসন্ন হজ মৌসুমে এসব ভবনে প্রায় ১২ লাখ হজযাত্রী থাকতে পারবেন। 

গালফ নিউজের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদন অনুসারে, এতে মক্কায় হজযাত্রীদের থাকার জন্য অনুমোদিত আবাসিক ভবনের সংখ্যা পাঁচ হাজার ছাড়িয়ে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কারণ, আগামী ৮ মে পর্যন্ত ভবনের মালিকদের কাছ থেকে লাইসেন্সের জন্য আবেদন নেওয়া হবে।

গত বছর সারা বিশ্ব থেকে প্রায় ২০ লাখ মুসলিম মক্কায় হজ পালন করতে আসেন। করোনা মহামারির পর গত বছরই সর্বোচ্চসংখ্যক হজযাত্রী মক্কায় এসেছে।

এরই মধ্যে আগামী জুনে হজ মৌসুমকে ঘিরে নতুন নিয়ম ঘোষণা করেছে সৌদি আরব। এবার সৌদি আরবের পবিত্র স্থানগুলোতে দেশভিত্তিক নির্দিষ্ট স্থান বরাদ্দ দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন সৌদি আরবের হজবিষয়ক মন্ত্রী তৌফিক আল রাবিয়াহ।  

গতকাল শুক্রবার (১ মার্চ) থেকে এ বছরের হজযাত্রীদের জন্য ভিসা ইস্যু শুরু করেছে সৌদি আরব। ২৯ এপ্রিল ভিসা প্রদান শেষ হবে। আগামী ৯ মে থেকে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হজযাত্রীরা হজের উদ্দেশে সৌদি আরবে যাওয়া শুরু করবেন।

;

দক্ষিণ কোরিয়ায় বাঞ্জি জাম্পিং দিতে গিয়ে একজনের মৃত্যু



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

দক্ষিণ কোরিয়ায় বাঞ্জি জাম্পিং করার সময়ে একজন নারী হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরবর্তীতে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শনিবার (২ মার্চ) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

দ্য ইন্ডিপেনডেন্টের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, ঘটনাটি ঘটেছে ২৬ ফেব্রুয়ারি। গেয়ংগি প্রদেশের স্টারফিল্ড আনসেং মলে একটি ক্রীড়া প্রতিষ্ঠানে তিনি 

বাঞ্জি জাম্প করার চেষ্টা করেছিলেন। তখন এই ঘটনা ঘটে। কিন্তু সাথে সাথেই তার নাম প্রকাশ করা হয়নি। ৬০ বছর বয়সী সেই নারীর মৃত্যুর বিষয়টি শনিবার গণমাধ্যমে জানানো হয়। তিনি আট মিটার উচ্চতা থেকে বাঞ্জি প্ল্যাটফর্মের কংক্রিটের মেঝেতে পড়ে গিয়েছিলেন।

গেয়ংগি প্রদেশের পুলিশ বলে, একটি ত্রুটিপূর্ণ ক্যারাবিনার তারের কারণে বাঞ্জি কর্ডটি বিচ্ছিন্ন হয়েছে। এটিই মূলত দড়িটিকে একটি মরীচি বা বেতের সাথে সংযুক্ত করে। পুলিশ এখনও মামলাটি তদন্ত করছে এবং শীঘ্রই আরও বিস্তারিত তথ্য বেরিয়ে আসবে বলে আশা করা হচ্ছে।



;