আত্মশুদ্ধির চেষ্টা পূর্ণতা পায় জাকাত আদায়ের মাধ্যমে: রোজিনা



মাসিদ রণ, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর, বার্তা২৪.কম
অভিনেত্রী রেনু রোজিনা

অভিনেত্রী রেনু রোজিনা

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢালিউডের কিংবদন্তীতূল্য অভিনেত্রী রেনু রোজিনা। পেয়েছেন সেরা অভিনেত্রীর জাতীয় চলচ্চিত্রপুরস্কারসহ আজীবন সম্মাননা। এখনো চলচ্চিত্রঅঙ্গনে সরব তিনি। নিজেকে নিত্য নতুন আবেশে উপস্থাপন করে তরুণ প্রজন্মের কাছেও সমান জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তিনি। আসছে ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে বিশেষ সাক্ষাৎকার দিয়েছেন বার্তা২৪.কমকে। কথা বলেছেন সিনিয়র নিউজরুম এডিটর মাসিদ রণ-

মাসিদ রণ : এবারের ঈদের দিনটা কিভাবে কাটানোর পরিকল্পনা?
রোজিনা : ঈদ মানেই তো উৎসব, ঈদ মানেই আনন্দ। সারা বছর আমরা ঈদের জন্য অপেক্ষা করি। টানা একমাস সিয়াম সাধনার পরে ঈদের দিনটি পাই আমরা। ঈদের দিন সকালে ঘুম থেকে উঠেই নামাজ আদায় করে মিষ্টিমুখ করাটা আমাদের বাড়ির রেওয়াজ। আমার মনে হয়, ঈদের দিন যে আনন্দ হয় তার সঙ্গে অন্য কোন দিনের তুলনা হয় না। সারা বছর তো আমারা কতো ধরনের খাবার খাই, কিন্তু ঈদের দিন কোন খাবার রান্না করতে গেলে, খেতে কিংবা খাওয়াতে যে আনন্দ ও তৃপ্তি আসে তা অন্য সময় পাওয়া যায় না। ঈদে আমি কিছু না রান্না করলেও দু এক পদ রেজার্ড আইটেম করবই। আজও করেছি।

অভিনেত্রী রেনু রোজিনা

মাসিদ রণ : ঈদের সবচেয়ে বিশেষত্ব কোথায় বলে মনে করেন?

রোজিনা : দেখুন, ঈদে খাওয়া দাওয়া, নতুন পোশাক, সবার সঙ্গে দেখা করা, ঘুরতে যাওয়া, সিনেমা দেখা এসব তো আছেই। কিš‘ আমার সবচেয়ে ভালো লাগে জাকাতের বিষয়টি। পবিত্র রমযানে আমরা যে আত্মশুদ্ধির চেষ্টা করি সেটি পূর্ণতা পায় জাকাত আদায়ের মাধ্যমে। আশেপাশে দরিদ্র মানুষও যাতে ঈদের আনন্দ পরিপূর্ণভাবে উপভোগ করতে পারে এজন্য তাদেরকে কিছু অর্থ কিংবা নতুন পোশাক জাকাত হিসেবে দেওয়া যেতে পারে। জাকাত আদায়ের পর যে আত্মতৃপ্তি আসে তা আর কিছুতেই পাইনি। এবার আমার জাকাত আদায় শেষ করেছি আলহামদুলিল্লাহ। রাজবাড়ির গোয়ালন্দে আমার গ্রামের বাড়ি, সেখানকার আশেপাশের দরিদ্র মানুষ থেকে শুরু করে আমার উত্তরার বাড়ির আশেপাশের যতো ভিক্ষুক, কেয়ারটেকার, হেল্পিং হ্যান্ড সবাইকে নতুন পোশাক উপহার দিয়েছি। নিজের বাসার বাজার নিজেই করি, নিয়মিত বাজারে যেতে যেতে কিছু দোকানির সঙ্গে পরিচয় হয়েছে। তাদেরকেও উপহার দিয়েছি। নিকট আত্মীয়-স্বজনদের কথা তো আর বলার দরকার নেই। সবাইকে দিয়ে সবশেষে নিজের জন্য কিনি।

অভিনেত্রী রেনু রোজিনা

মাসিদ রণ : এবার ঈদে কী পোশাক পরবেন?

রোজিনা : আমার শাড়ী সবচেয়ে পছন্দ। ঈদের মেইন পোশাক শাড়ীই থাকবে। কোথাও বেড়াতে গেলে শাড়ীই পরব। তবে ঈদের দিন সকালে সালোয়ার কামিজ পরতে আরামবোধ করি। আজও তাই করেছি। কারণ এই সময় একটু কাজ করতে হয়, সালোয়ার-কামিজে কম্ফোর্টেবল লাগে। আমার প্রিয় রঙ কালো। কালো পোশাকতো কিনেছিই, এছাড়া গোলাপী, মাল্টিকালারসহ কয়েকটি পোশাক কিনেছি। এবার তো ঈদে গরম পড়েছে, ফলে আমি একটু কটন কিংবা কটন মিক্স কোন পোশাক বেছে নিয়েছি। গরমে হালকা রঙের পোশাক পরলে ভালো লাগে।

অভিনেত্রী রেনু রোজিনা

মাসিদ রণ : ঈদের সালামির বিষয়টা কতোটা উপভোগ করেন?

রোজিনা : আমার তো ভীষণ ভালো লাগে। শুধু আমার কেন? সালামি পেতে কার না ভালো লাগে? তবে এখন সালামি পাওয়ার চেয়ে দিতে হয় বেশি। এই সময়ে এসে সালামি দিতেই বেশি আনন্দ পাই। আর ছোটবেলায় আমাকে সবাই সালামি দিতেন। ঈদের সকাল থেকেই বাবা-মা, ভাই-বোন, চাচা-মামা সবাইকে সালাম করা শুরু করতাম (হাহাহা)। এমনকি বাড়ির পাশের রাস্তা দিয়ে কেউ গেলে তাকেও সালাম করতাম, যদি টাকা পাই! ছোট মানুষের মন বলে কথা।

অভিনেত্রী রেনু রোজিনা

মাসিদ রণ : ছোটবেলা কথা বললেন। সে সময়ের ঈদের কোন স্মৃতিগুলো বেশি মনে পড়ে?

রোজিনা : ছোটবেলার ঈদ মানেই নতুন জামা আর সালামি। রোযা আসলেই আমার নতুন জামার বায়না শুরু হতো। তার সঙ্গে ম্যাচিং জুতো, চুড়ি, কানের দুল, চুলের ফিতা, লিপস্টিক। এসবের প্রতি ছোটবেলা থেকেই আমার খুব আগ্রহ ছিল। আরেকটি মজার বিষয় ছিল, আমার জামা-জুতা ঘরের এক কোনে এমন জায়গায় লুকিয়ে রাখতাম যাতে কোন বন্ধু বান্ধব দেখতে না পারে! কী রঙের জামা কিনেছি সেটা পর্যন্ত কাউকে বলতাম না। ঈদের আগের রাতে উত্তেজনায় ঘুমই হতো না। অপেক্ষা করতাম কখন রাত পোহাবে আর নতুন ড্রেসটা পরব! ঘুম থেকে উঠেই কাঁচা হলুদ গায়ে মেখে গোসল করে একদম সেজেগুজে সালামি সংগ্রহ করে ঈদগাহে ছুটতাম!

অভিনেত্রী রেনু রোজিনা

মাসিদ রণ : একটা সময় ঈদে আপনার একাধিক সিনেমা মুক্তি পেত। তখনকার ঈদ কেমন ছিল?

রোজিনা : সে তো স্বর্ণালী অতীত। সিনেমা হল ছিল সারা দেশে প্রায় দুই হাজারের মতো। ঈদে এক ডজনের বেশি ছবি মুক্তি পেত। তারমধ্যে আমার একাধিক ছবি থাকতো। তখন আসলে সিনেমা ফ্লপ হতোই না খুব একটা। তাই ওসব নিয়ে চিন্তাও ছিল না। কারণ, সিনেমা যেমন ভালো হতো, তেমনি দর্শকও পরিবার নিয়ে হলে ছবি দেখতে যেতেন। একই ছবি একজন দর্শক ১০-১২ বারও দেখে ফেলতেন। আমি আমার সব ছবি হলে গিয়ে দেখতাম। ঈদের দিন না পারলেও দু-একদিন পরে বোরখা পরে দর্শকের মধ্যে বসেই ছবি দেখতাম। দর্শকের প্রতিক্রিয়া কাছ থেকে দেখার সেই অনুভূতি বলে বোঝানো যাবে না। এছাড়া নিজের ছবি হলে গিয়ে দেখলে অনেক ভুল ভ্রান্তি চোখে পড়ত। পরবর্তী ছবিতে সেই ভুলগুলো শুধরে নিতাম। আমি অন্য নায়িকাদের ছবিও দেখতাম। তারচেয়ে আরও ভালো করতে হবে সেই চিন্তা থেকেই দেখতাম।

 

   

হিট স্ট্রোক হয়েছে শাহরুখ খানের!



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান

বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান

  • Font increase
  • Font Decrease

আজ বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খানের একমাত্র কন্যা সুহানা খানের জন্মদিন। মেয়ের জন্মদিনে শাহরুখের অসুস্থতার খবর ছড়িয়ে পড়েছে। আর তাতেই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে কিং খানের ভক্তরা। অনেকেই সামাজিক মাধ্যমে প্রিয় অভিনেতার দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন।

কেননা, এটা যেনতেন অসুস্থতা নয়। একেবারে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে এই সুপারস্টারকে! আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচ শেষে হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তিনি।

ভারতীয় একাধিক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গতকাল (২১ মে) নিজের দলের খেলা দেখতে আহমেদাবাদে হাজির ছিলেন কিং খান। সেখানে অসুস্থবোধ করায় শহরের কেডি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। 

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, আইপিএলের ম্যাচ দেখতে আহমেদাবাদে গিয়েছিলেন শাহরুখ খান। গ্যালারিতে বসে দলের জয় উপভোগ করেন তিনি। একপর্যায়ে প্রচণ্ড গরমে হিটস্ট্রোক হয় তার! পরে তাকে আহমেদাবাদের কেডি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান

জানা গেছে, আহমেদাবাদের তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রির উপরে থাকায় গরম সহ্য হয়নি শাহরুখের। এরপরই সকাল থেকে অসুস্থ বোধ করায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে।

কেডি হাসপাতালের চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়া টুডে জানিয়েছে, ডিহাইড্রেশনের কারণে অসুস্থ হয়ে পড়েন কিং খান। আজ দুপুরে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

;

অনন্য মামুনকে ‘মি. এন্ড মিসেস মাহি’ আনতে বাধা ১৯ সংগঠনের



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
‘মিস্টার এন্ড মিসেস মাহি’ সিনেমায় রাজকুমার রাও ও জাহ্নবী কাপুর। (ডানে) অনন্য মামুন

‘মিস্টার এন্ড মিসেস মাহি’ সিনেমায় রাজকুমার রাও ও জাহ্নবী কাপুর। (ডানে) অনন্য মামুন

  • Font increase
  • Font Decrease

বিএফডিসি আবার সরগরম হয়ে উঠেছে। মিশা-ডিপজল প্যানেলের বিরুদ্ধে শিল্পী সমিতির নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনেছেন তাদের প্রতিপক্ষ চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার। এর প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট ডিপজলকে সাধারণ সম্পাদক পদের দায়িত্ব পালন থেকে বিরত থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন।

এই ঘটনার প্রতিবাদে আজ সাধারণ শিল্পীরা বিএফডিসিতে নিপুণের বিরুদ্ধে মিছিল করে। নিপুণের ছবিতে জুতার মালা দিয়ে পোস্টার বানিয়ে মিছিল করা হয়। তাকে নির্লজ্জ ও বেহায়া বলে মিছিল করে শিল্পীরা!

এরপর বিকেলে বসে এক মত বিনিময় সভা। শিল্পী সমিতির নতুন কমিটি হওয়ার পর এটিই ছিল চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট ১৯ সংগঠনের একসঙ্গে বসে কোন মত বিনিময় সভা। সভা শেষে শিল্পী সমিতির সহ সভাপতি ডি.এ তায়েব বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘আমরা নির্বাচিত হওয়ার পর এই প্রথম চলচ্চিত্র পরিবারের সব সংগঠনের সঙ্গে আলোচনা করেছি। নানা বিষয়ে মত বিনিময় হয়েছে। বিশেষভাবে গুরুত্ব পেয়েছে গুটি কয়েক শিল্পী যে চলচ্চিত্র শিল্পী ও চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিকে ছোট করার জন্য আজেবাজে মন্তব্য করছে গণমাধ্যমে সেসব যাতে বন্ধ করা যায় তা নিয়ে।’

নিপুণের বিরুদ্ধে বিএফডিসিতে মিছিল

আর সংবাদ সম্মেলনে প্রযোজক ও পরিচালক মোহাম্মদ ইকবাল বলেন, ‘নানা বিষয়ে মত বিনিময় হলেও আমরা একটা বিষয়ে সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছি। তা হলো পরিচালক অনন্য মামুন তার অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্ট থেকে ‘মিস্টার এন্ড মিসেস মাহি’ নামে একটি হিন্দি ছবি দেশে আমদানির আবেদন করেছিল। কিন্তু সার্বিক বিবেচনায় আমরা সেই ছবি আনার অনুমতি দেইনি।’

প্রসঙ্গত, ‘মিস্টার এন্ড মিসেস মাহি’ সিনেমার কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা রাজকুমার রাও। এই ছবির জন্য তার শারীরিক গড়নের পরিবর্তন এরইমধ্যে দারুণ আলোচনায় এসেছে। ছবিটিতে তার বিপরীতে দেখা যাবে শ্রীদেবী কন্যা জাহ্নবী কাপুরকে।

;

কাল আসছে তৌসিফ-তিশার ‘বরযাত্রী’!



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
‘বরযাত্রী’ নাটকে তৌসিফ মাহবুব ও তানজিন তিশা

‘বরযাত্রী’ নাটকে তৌসিফ মাহবুব ও তানজিন তিশা

  • Font increase
  • Font Decrease

আজকাল শোবিজ তারকারা কাজের চেয়ে নাকি ব্যক্তিগত কারণেই বেশি চর্চিত! তাই বলে শিরোনাম পড়ে ভাবার কিছু নেই যে, ছোটপর্দার জনপ্রিয় দুই তারকা তৌসিফ মাহবুব আর তানজিন তিশার মধ্যে আবার ব্যক্তিগত কোন সম্পর্ক তৈরী হয়েছে। 

তৌসিফ মাহবুব হ্যাপিলি ম্যারিড। আর তানজিন তিশা সিঙ্গেল লাইফ উপভোগ করছেন। এখন তিনি কাজে খুব মনোযোগী। এই দুই তারকা এবার আসছেন বর্তমান সময়ের গল্প নিয়ে। এ সময়কার সম্পর্কের গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে নাটক ‘বরযাত্রী’, যেখানে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন তৌসিফ মাহবুব ও তানজিন তিশা। এটি নির্মাণ করেছেন সুমন ধর।

জানা গেছে, মাস কয়েক আগে নারায়ণগঞ্জের মনোরম লোকেশন ও রাজধানী ঢাকার আশে পাশে নাটকটির দৃশ্যায়ন হয়। গল্পের সঙ্গে সামঞ্জস্যতা রাখতে আয়োজনে কমতি রাখেননি নির্মাতা। নাটকটির একটি দৃশ্যে তৌসিফ-তিশাকে পারফর্ম করতে দেখা যাবে বলেও জানা গেছে।

নির্মাতা বলেন, ‘বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটের গল্পেই এই নাটকটি। সম্পর্কে পাওয়া না পাওয়ার গল্প বলা যেতে পারে। প্রেমের গল্প। গল্প অনুযায়ী নিজের সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি দারুণভাবে উপস্থাপন করার। কাজটি দর্শকের পছন্দ হবে আশা করি।’

 ‘বরযাত্রী’ নাটকে তৌসিফ মাহবুব ও তানজিন তিশা

কেএস ফিল্মস এর কর্ণধার মোহাম্মদ কামরুজ্জামান জানান, আগামীকাল ২৩ মে (বৃহস্পতিবার) দুপুর ১২টায় নাটকটি কেএস এন্টারটেইনমেন্ট ইউটিউব চ্যানেলে উন্মুক্ত হবে।

সুমন ধরের গল্প, চিত্রনাট্যে নাটকটিতে তৌসিফ মাহবুব-তানজিন তিশা ছাড়া আরও অভিনয় করেছেন আজিজুল হাকিম, শিল্পি সরকার অপু, এস এন জনি, সুব্রত চক্রবর্তী ও মিলি মুন্সি প্রমুখ।

;

নিপুণের সঙ্গে এবার ডিপজলের আইনি লড়াই!



মাসিদ রণ, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর, বার্তা২৪.কম
ডিপজল ও নিপুণ আক্তার

ডিপজল ও নিপুণ আক্তার

  • Font increase
  • Font Decrease

এরইমধ্যে অনেকেই জেনে গেছেন, ঢাকাই সিনেমার খল নায়ক ডিপজলকে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদের দায়িত্ব থেকে বিরত থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

শিল্পী সমিতির নির্বাচনে ডিপজলের প্রতিযোগী চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তারের অভিযোগের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে হাইকোর্ট। একইসঙ্গে এই নির্বাচনে অনিয়ম ও কারচুপির ঘটনা তদন্তের জন্য সমাজ কল্যাণ মন্ত্রনালয়কে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

বিষয়টি নিয়ে এবার মুখ খুললেন ডিপজল। তিনি বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘আমি বরাবরই আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। ফলে, আদালতের রায় আমি কিছুতেই আগ্রাহ্য করব না। তবে এটাই তো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নয়। আমি খুব তাড়াতাড়ি আমার পুরো প্যানেলের সঙ্গে কথা বলে একটি সিদ্ধান্তে আসব।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা নির্বাচনে কোন অন্যায় বা অনিয়ম করিনি। সুষ্ঠু সুন্দর পরিবেশে নির্বাচন হয়েছে। নির্বাচনের ফলাফল নিপুণ মেনে নিয়ে আমাদের বিজয়ের মালাও পরিয়েছে। এখন তার মনে হচ্ছে নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে। সে যেহেতু আইনের আশ্রয় নিয়েছে আমরাও আইনের পথে হাটব। আইন তো সবার জন্যই সমান। আশা করি আদালত সব বিচার বিবেচনা করে সঠিক রায় দেবেন।’

ডিপজল বিষয়টি নিয়ে সোহেল রানাসহ চলচ্চিত্রের সিনিয়র শিল্পীদের সঙ্গেও কথা বলেছেন। তারা সবাই নাকি এ নিয়ে খুব বিরক্ত। সবার পরামর্শে তিনি চেম্বার জজ আদালতে যাওয়ার পরিকল্পনা করছেন। এছাড়া তিনি নিপুণ প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমার ধারণা এই ঘটনার পিছনে বড় কোন হাত আছে। নয়ত সে (নিপুণ) বিদেশে থেকে এসব কিছু করতে পারতো না। তার এই কর্মকাণ্ডে বোঝ যায় তার হাত কতো লম্বা।’

;