৭২ ঘণ্টা পরও বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন প্রায় ২২ লাখ গ্রাহক



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের (আরইবি) ৯৩ শতাংশ গ্রাহকের বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয়েছে। অন্যদিকে খুলনা ও বরিশাল বিভাগের শহরাঞ্চলে বিতরণের দায়িত্বে থাকা ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির (ওজোপাডিকো) ৮৭ শতাংশ গ্রাহকের বিদ্যুৎ সরবরাহ সচল করা হয়েছে।

বিদ্যুৎ বিভাগ থেকে দেওয়া বার্তায় এমন তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

বুধবার (২৯ মে) সন্ধ্যা পর্যন্ত এই অগ্রগতি হয়েছে বলে জানা গেছে। অর্থাৎ ৭২ ঘণ্টা পরও অনেক গ্রাহকের বিদ্যুৎ বিহীন অবস্থায় দিনাতিপাত করছেন। আরইবির ২১ লাখ ৯ হাজার এবং ওজোপাডিকোর ৫৭ হাজার ৫৫০ গ্রাহক এখনও অন্ধকারে রয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে আরইবি ৩ কোটি ৩ লাখ ৯ হাজার এবং ওজোপাডিকোর ৪ লাখ ৫৩ হাজার গ্রাহক বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছিলেন। বুধবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ২ কোটি ৮২ লাখ গ্রাহককে পূনঃসংযোগ প্রদান করেছে এবং ওজোপাডিকো ৩ লাখ ৯৫ হাজার গ্রাহকের বিদ্যুৎ সরবাহ নিশ্চিত হয়েছে।

৩৩/১১ কেভি উপকেন্দ্র ক্ষতি ১১০৫ রিকভারি- ১০৯৫ রিকভারি অবশিষ্ট- ১০টি, ১১ কেভি ফিডার- ক্ষতি ৬২৩৫ রিকভারি- ৬০৬৪ রিকভারি অবশিষ্ট- ১৭১, বৈদ্যুতিক খুঁটি ক্ষতি ৩৮৩৩ রিকভারি- ৩৫৬৩ রিকভারি অবশিষ্ট- ২৭০টি, বিতরণ ট্রান্সফরমার ক্ষতি- ২৮১৮ রিকভারি- ২৪৫৩ রিকভারি অবশিষ্ট- ৩৬৫, তার ছেড়া স্প্যান (কি.মি.)- ৩০৫৬ রিকভারি- ২৫৬৩ রিকভারি অবশিষ্ট- ৪৯৩ কি.মি., ইন্সুলেটর ক্ষতি -২৪২৫৮ রিকভারি- ২৩৮১৫ রিকভারি অবশিষ্ট- ৪৪৩, মিটার ক্ষতি ৫৯৩৯৯ রিকভারি- ৫২০৯৯ রিকভারি অবশিষ্ট- ৭৩০০টি। একশত তিন কোটি তেত্রিশ লাখ টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে।

রাত ১১টা নাগাদ ৯৫ শতাংশ গ্রাহকদের বিদ্যুৎ সরবরাহ করা সম্ভব হবে। বর্তমানে প্রায় ২৫ হাজার জনবল মাঠ পর্যায়ে কর্মরত আছেন। অবশিষ্ট গ্রাহকদের সার্ভিস ড্রপ ও মিটার বাড়ি বাড়ি গিয়ে কাজ করতে হবে বিধায় পরবর্তীতে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রাথমিক তথ্যানুযায়ী ১০৩ কোটি ৩৩ লাখ আর্থিক ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে আরইবি।

   

২১ দিনে রেমিট্যান্স এলো ১৯১ কোটি ৪৩ লাখ ডলার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আবারও দেশে রেমিট্যান্সের সুবাতাস বইতে শুরু করেছে। বাড়তে শুরু করেছে রেমিট্যান্স প্রবাহ। চলতি মাসের প্রথম ২১ দিনে দেশে রেমিট্যান্স এসেছে ১৯১ কোটি ৪৩ লাখ মার্কিন ডলার।

রোববার (২৩ জুন) বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

এতে বলা হয়, চলতি জুন মাসের প্রথম ২১ দিনে দেশে এসেছে ১৯১ কোটি ৪৩ লাখ ৭০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স। প্রতিদিন গড়ে দেশে এসেছে ৯ কোটি ১২ লাখ ডলার রেমিট্যান্স।

এদিকে গত মে মাসের প্রথম ২১ দিনে রেমিট্যান্স এসেছে ১৫৬ কোটি ৬৬ লাখ মার্কিন ডলার, এপ্রিল মাসে রেমিট্যান্স এসেছে ১৩৫ কোটি ৮৭ লাখ ডলার, মার্চ মাসে রেমিট্যান্স এসেছে ১৩৫ কোটি ৩ লাখ, ফেব্রুয়ারি মাসে রেমিট্যান্স এসেছে ১৫০ কোটি ৩৬ লাখ, ও জানুয়ারির দেশে রেমিট্যান্স এসেছিল ১৪২ কোটি ৫৯ লাখ মার্কিন ডলার। সে হিসাবে চলতি মাসে রেমিট্যান্স প্রবাহ অনেক বেড়েছে।

ধর্মীয় উৎসবগুলোকে সামনে রেখে দেশের অভিবাসী কর্মীরা সাধারণত বেশি অর্থ পাঠান। তাই কোরবানির ঈদকে কেন্দ্র করে রেমিট্যান্স প্রবাহ বেড়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। এ ধারা অব্যাহত থাকলে চলতি মাসে রেকর্ড পরিমাণ রেমিট্যান্স আসতে পারে।

এদিকে জুনের ২১ দিনে রাষ্ট্র মালিকানাধীন ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৪৪ কোটি ১৭ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার। এছাড়া বিশেষায়িত ব্যাংকের মাধ্যমে ৫ কোটি ২৪ লাখ ডলার, বেসরকারি ব্যাংকের মাধ্যমে ১৪১ কোটি ৫৩ লাখ ৫০ হাজার ডলার ও বিদেশি খাতের ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৪৮ লাখ ৭০ ডলার রেমিট্যান্স।

এর আগে গত মে মাসে দেশে এসেছে চলতি অর্থবছরের সর্বোচ্চ ২২৫ কোটি ৩৮ লাখ ৮০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স। আর এপ্রিল, মার্চ, ফেব্রুয়ারি ও জানুয়ারিতে দেশে যথাক্রমে রেমিট্যান্স এসেছিল ২০৪ কোটি ৩০ লাখ ৬০ হাজার, ১৯৯ কোটি ৬৮ লাখ ৫০ হাজার, ২১৬ কোটি ৬০ লাখ ও ২১০ কোটি ৯ লাখ ৫০ হাজার ডলার রেমিট্যান্স।

;

নারী উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে রোডম্যাপ নেই বাজেটে: ওয়েব



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

উইমেন এন্ট্রেপ্রেনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ওয়েব) প্রেসিডেন্ট নাসরিন ফাতেমা আউয়াল বলেছেন, দেশের মোট জনসংখ্যার অর্ধেক নারী এবং নারী উদ্যোক্তাদের ৭০ শতাংশ হোমবেজড উদ্যোক্তা অথচ এসব উদ্যোক্তাদের উন্নয়নের কোনো রোডম্যাপ নেই বাজেটে।

রোববার (২৩ জুন) দুপুরে রাজধানীর অ্যাংকর টাওয়ারে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেট নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে নাসরিন ফাতেমা আউয়াল এসব কথা বলেন।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন- ওয়েবের ভাইস প্রেসিডেন্ট তাজিমা মজুমদার, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এস এম আঞ্জুমান উল ফেরদৌসী প্রমুখ।

লিখিত বক্তব্যে নাসরিন ফাতেমা আউয়াল বলেন, সরকার ব্যাংকখাত থেকে বিপুল পরিমাণ ঋণ নেওয়ার কথা বলেছে, এই বার্তা প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মধ্যে ছড়িয়ে পড়ায় সাধারণ মানুষ ক্রমাগত ব্যাংক বিমুখ হচ্ছেন। অন্যদিকে, মাথা চাড়া দিয়ে উঠছে মহাজন প্রথা।

তিনি বলেন, আমাদের দেশের ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প অর্থনীতির একটি বড় অংশ জুড়ে আছে। এটি দেশের আয়ের একটি বড় অংশ বহন করে। পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বাজার ধরতে সক্ষম হলেও এই উদ্যোক্তাদের পণ্য বাজারজাতকরণে সহায়তা করার কথা উল্লেখ নেই বাজেটে বা এখাতে কোনো বরাদ্দও রাখা হয়নি।

সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে নাসরিন ফাতেমা আউয়াল বলেন, আমরা আশা করি, বাজেট পাস করার আগে বিষয়গুলোর দিকে নজর দেবে সরকার।

তিনি আরো বলেন, আমরা লক্ষ করছি, স্বাধীনতার পর কয়েক দশক ধরে নারী উদ্যোক্তাদের ঋণে সুদের হার সিঙ্গেল ডিজিটে আনার যে আন্দোলন, তার সুফল নারী উদ্যোক্তারা গ্রহণ করতে সক্ষম হয়েছিলেন। কিন্তু দুর্ভাগ্য, ২০২৪ সালে এসে ব্যাংক ঋণে (নারীসহ) সুদের হার শুধুমাত্র ডবল ডিজিট নয়, আগের থেকে প্রায় তিনগুণ করা হয়েছে। এতে করে ৩-৪ শতাংশ থেকে এখন ১৩.৭৪ শতাংশ সুদে ঋণ নিতে বাধ্য হচ্ছেন নারীরা।

;

বাফেডা’র উদ্যোগে দিনব্যাপী সেমিনার



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
বাফেডা’র উদ্যোগে দিনব্যাপী সেমিনার

বাফেডা’র উদ্যোগে দিনব্যাপী সেমিনার

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বাফেডা) উদ্যোগে রিসেন্ট ফরেক্স পলিসি ডেভেলপমেন্ট ইন বাংলাদেশ শীর্ষক দিনব্যাপী সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (২২ জুন) রাজধানীর একটি হোটেলে এই সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

বাফেডা’র এক্সিকিউটিভ সেক্রেটারি মো. আবুল হাসেমের সঞ্চালনায় পরিচালিত উক্ত সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ পিএলসির ম্যানেজিং ডাইরেক্টর এবং বাফেডা’র ট্রেজারার মুহাম্মদ মুনিরুল মওলা।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সোনালী ব্যাংক পিএলসির ডেপুটি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর এবং বাফেডা’র টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান সুভাস চন্দ্র দাস এফসিএমএ, এফসিএ।

সেমিনারে বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের এফইপিডি’র পরিচালক মো. সরোয়ার হোসেন এবং অতিরিক্ত পরিচালক রোকসানা আক্তার।

উক্ত সেমিনারে এডি ব্যাংকসমূহের ট্রেজারি বিভাগ এবং অফসোর ব্যাংকিং ইউনিটের প্রধানগণ অংশগ্রহণ করেন।

;

ইসলামী ব্যাংকের প্রবেশনারি অফিসারদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম সম্পন্ন



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইসলামী ব্যাংক ট্রেনিং অ্যান্ড রিসার্চ একাডেমি (আইবিটিআরএ)’র উদ্যোগে নতুন যোগদানকৃত প্রবেশনারি অফিসারদের দিনব্যাপী ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম সম্পন্ন হয়েছে।

রোববার (২৩ জুন) ইসলামী ব্যাংক টাওয়ারে এ প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হয়।

ব্যাংকের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মুহাম্মদ মুনিরুল মওলা প্রধান অতিথি হিসেবে এ প্রোগ্রাম উদ্বোধন করেন। আইবিটিআরএ-এর প্রিন্সিপাল মো. নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন অ্যাডিশনাল ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মুহাম্মদ কায়সার আলী ও জে কিউ এম হাবিবুল্লাহ, এফসিএস এবং ডেপুটি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মিফতাহ উদ্দীন।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট খোন্দকার মোঃ মুনীরুল আলম আল-মামুন ও এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নেয়ামত উল্লাহ। ২০০ জন প্রবেশনারি অফিসার দিনব্যাপী এ প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করেন।

;