জামানতবিহীন ঋণ ঠেকাতে কঠোর বাংলাদেশ ব্যাংক



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

বিভিন্নভাবে ব্যাংক থেকে ঋণ হাতিয়ে নিয়ে তা পরিশোধ না করেই ছাড় পেয়ে যাচ্ছে অনেক প্রভাবশালী। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ব্যাংকগুলোও পর্যাপ্ত জামানত ছাড়াই ঋণ দিচ্ছে। পরে ঋণের টাকা আদায় করতে ব্যর্থ হয় অধিকাংশ ব্যাংক। তাই জামানত মূল্যায়নের জন্য যোগ্য মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ব্যাংকে তালিকাভুক্ত হতে হবে।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করেছে। নির্দেশনাটি দেশের সব তফসিলি ব্যাংক ও জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানে পাঠানো হয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনায় বলা হয়, ঋণের ঝুঁকি কমাতে ব্যাংক ঋণগ্রহীতার কাছ থেকে সাধারণত স্থাবর সম্পত্তি (জমি ও ইমারত এবং অস্থাবর সম্পত্তি (মেশিনারিজ, সহজে বিপণনযোগ্য দ্রব্যাদি) জামানত হিসেবে গ্রহণ করে। ব্যাংকিং খাতে ঋণের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা, ঋণ শৃঙ্খলা বজায় রাখা, খেলাপি ঋণ আদায়, অবলোপন, নন-ব্যাংকিং সম্পদ অন্তর্ভুক্তিকরণ, ঋণ পুনঃতফসিলিকরণসহ শ্রেণিকৃত ঋণের বিপরীতে রাখা প্রভিশন সঠিকভাবে হিসাবায়নের প্রয়োজনে ঋণের বিপরীতে রাখা জামানতের যথাযথ ও নির্ভরযোগ্য মূল্যায়ন খুবই জরুরি।

এতে বলা হয়, যথাযথ ও নির্ভরযোগ্য মূল্যায়ন নিশ্চিত করার জন্য যোগ্য জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর ন্যূনতম যোগ্যতা ও উপযুক্ততা নির্ধারণ সাপেক্ষে তালিকাভুক্তি এবং তালিকা প্রকাশ অত্যাবশ্যক। কোনো ব্যাংকের ঋণ গ্রহীতার মাধ্যমে ঋণের বিপরীতে প্রদত্ত জামানত মূল্যায়নের জন্য যোগ্য জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে একটি সুনির্দিষ্ট, স্বচ্ছ ও গ্রহণযোগ্য প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকে তালিকাভুক্তি করতে এ নীতিমালা প্রণয়ন করা হলো।

জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানের ন্যূনতম যোগ্যতা নির্ধারণ করে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। তালিকাভুক্তির জন্য জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানের নির্দিষ্ট কিছু সংগঠনের মধ্যে ন্যূনতম একটির সদস্যপদ থাকতে হবে।

সংগঠনগুলো হচ্ছে- বাংলাদেশ সার্ভে অ্যান্ড ভ্যালুয়েশন কোম্পানিজ, ফার্মস অ্যান্ড ইন্ডিভিজুয়াল কন্সার্নস অ্যাসোসিয়েশন (বিএসভিসিএফআইসিএ)।

>> বাংলাদেশ ইন্স্যুরেন্স সার্ভেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন।

>> বাংলাদেশ ব্যাংকের বিবেচনায় সমজাতীয় স্বীকৃত কোনো পেশাজীবী সংগঠন।

এসব সংগঠনের সদস্য ছাড়াও ইন্সটিটিউট অব চার্টার্ড একাউন্টেন্টস অব বাংলাদেশ এবং ইন্সটিটিউট অব কস্ট এন্ড ম্যানেজমেন্ট একাউন্টেন্টস অব বাংলাদেশের সদস্য এ সার্কুলারে করা শর্তগুলো পূরণ করে তালিকাভুক্তির জন্য আবেদন করতে পারবে।

এছাড়া ব্যাংকসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে (আর্থিক প্রতিষ্ঠান, সরকারি প্রতিষ্ঠান, ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি, মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি) জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানের সার্ভে বা ভ্যালুয়েশন কাজে ন্যূনতম ৩ বছরের বাস্তব অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। এছাড়া এসব প্রতিষ্ঠানের নিবন্ধন থাকতে হবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনায় বলা হয়, জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানে দক্ষ ও অভিজ্ঞ জনবল (হিসাবরক্ষক, পুরপ্রকৌশলী, যন্ত্রপ্রকৌশলী, ডিপ্লোমা প্রকৌশলী) এবং প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সার্ভেয়ার থাকতে হবে। এছাড়া মূল্যায়ন কাজে প্রতিষ্ঠানের আধুনিক যন্ত্রপাতিসহ প্রয়োজনীয় লজিস্টিক সুবিধা থাকতে হবে।

নির্দেশনায় আরও বলা হয়, জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর আবেদন পাওয়ার পর বাংলাদেশ ব্যাংক তালিকাভুক্তির কার্যক্রম শুরু করবে। এসব প্রতিষ্ঠানের আবেদন মূল্যায়ন প্রক্রিয়া অনুসরণ করে প্রতি বছরে দুইবার যোগ্য জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানের হালনাগাদ তালিকা প্রকাশ করবে।

জামানত মূল্যায়নকারী প্রতিষ্ঠানের তালিকাভুক্তির মেয়াদ হবে সর্বোচ্চ ৩ বছর। আর এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংকে তালিকাভুক্তির তারিখ থেকে প্রতি ৩ বছর পর পর (মেয়াদপূর্তির ৬ মাস পূর্বে) পুনরায় তালিকাভুক্তির জন্য আবেদন করতে হবে।

   

সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের ভুট্টা চাষে বিনিয়োগ বিতরণ অনুষ্ঠান



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের ভুট্টা চাষে বিনিয়োগ বিতরণ অনুষ্ঠান

সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের ভুট্টা চাষে বিনিয়োগ বিতরণ অনুষ্ঠান

  • Font increase
  • Font Decrease

 

দিনাজপুরের খানসামায় সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের ক্ষুদ্র বিনিয়োগ বিতরণ সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের উদ্যোগে দিনাজপুরের খানসামায় স্বল্প মুনাফায় ক্ষুদ্র বিনিয়োগ ও ভুট্টাচাষীদের মধ্যে ৪ শতাংশ মুনাফায় বিনিয়োগ বিতরণ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) এসআইবিএল এর রানীরবন্দর শাখার আয়োজনে গোয়ালডিহি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিনিয়োগ বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়ত। এতে  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ হাবীবুর রহমান এবং প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খানসামা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ তাজ উদ্দিন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ব্যাংকের রাজশাহী অঞ্চলের আঞ্চলিক প্রধান মোঃ শাহরিয়ার খান।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি পিএলসি, রাজশাহী এর নির্বাহী পরিচালক জনাব মোহাম্মদ শহীদ হোসেন, ব্যাংকের এসএমই বিভাগের প্রধান জনাব মোঃ সাদাত আহমদ খান ও রানীরবন্দর শাখার ব্যবস্থাপক জনাব মোঃ আওলাদ হোসেন সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, তিন শতাধিক ভুট্টাচাষীসহ অন্যান্য কৃষক ও ব্যাংকের কর্মকর্তাগণ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোহাম্মদ হাবীবুর রহমান বলেন, কৃষিখাতে বিনিয়োগ বিতরণ বাংলাদেশ সরকারের একটি অগ্রাধিকার প্রাপ্ত খাত। এই খাতে বিনিয়োগের বিপরীতে আদায়ও খুব ভালো। বিগত বছরের ক্রমবর্ধমান বিনিয়োগ এবং শতভাগ আদায়ের সফলতার ধারাবাহিকতায় এবার তৃতীয়বারের মত বেশ বড় পরিসরে ১৫২ জন কৃষককে ১১৬ দশমিক ৭০ লাখ টাকা বিনিয়োগ বিতরণ করা হচ্ছে। ভবিষ্যতে এই খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধি করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।ক

প্রধান আলোচক মোঃ তাজ উদ্দিন সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের এই উদ্যোগের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, দিনাজপুর জেলার এই অঞ্চল ভূট্টা চাষে অত্যন্ত জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

তিনি আশা প্রকাশ করেন, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের রানীরবন্দর শাখা হতে নেয়া কৃষি ও ক্ষুদ্র বিনিয়োগ বিতরণ ও আদায়ের এই কার্যক্রম বিগত বছরের ন্যায় চলতি বছরেও সফলতার সাথে পরিচালিত হবে ও পর্যায়ক্রমে সম্প্রসারিত হবে।

;

ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশন ও আইসিএমএবির মধ্যে কর্পোরেট চুক্তি স্বাক্ষর



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশন ও আইসিএমএবির মধ্যে কর্পোরেট চুক্তি স্বাক্ষর

ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশন ও আইসিএমএবির মধ্যে কর্পোরেট চুক্তি স্বাক্ষর

  • Font increase
  • Font Decrease

ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালসমূহে ছাড়কৃত মূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশন (আইবিএফ) ও ইনস্টিটিউট অব কস্ট এন্ড ম্যানেজমেন্ট একাউন্টিং অব বাংলাদেশ (আইসিএমএবি)-এর মধ্যে একটি কর্পোরেট চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। গত মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ আলী ও আইসিএমএবি এর নির্বাহী পরিচালক ড. মোহাম্মদ জাকারিয়া মাসুদ এ সংক্রান্ত চুক্তি স্বাক্ষর করেন।

এ চুক্তির ফলে আইবিএমএবি-এর সকল ফেলো মেম্বার ও তাদের পরিবারবর্গ এবং রেজিস্ট্রার্ড শিক্ষার্থীগণ ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালসমূহে বিশেষ ডিসকাউন্ট মূল্যে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ 

ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ পিএলসি-এর পরিচালক প্রফেসর ডা. কাজী শহীদুল আলম প্রধান অতিথি হিসেবে এ সময় উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইবিএফ-এর ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মোহাম্মদ সালেহ জহুর, আইবিএফ-এর ইসি চেয়ারম্যান ও ইসলামী ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান ডা. তানভীর আহমদ, ইসলামী ব্যাংকের পরিচালক ও আইবিএফ সদস্য মো. কামরুল হাসান, সৈয়দ আবু আসাদ, আবু সাঈদ মুহাম্মদ কাশেম এবং আইসিএমএবি-এর প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম উদ্দিন, এফসিএ, এফসিএমএ ও ভাইস প্রেসিডেন্ট মাহতাব উদ্দিন আহমেদ, এফসিএমএ। এসময় আইবিএফ ও আইসিএমএবি-এর ঊর্ধ্বতন নির্বাহী ও কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া আইসিএমএবি কর্তৃক আয়োজিত ‘Use Heart, Know Heart’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। আইবিএফ নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান ডাঃ তানভীর আহমদ সেমিনারে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন। আইবিএফ-এর উদ্যোগে আইসিএমবিএ ভবন প্রাঙ্গনে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়।

;

সঠিক সংবাদ অপপ্রচার রুখে দিতে সহায়ক হয়: নসরুল হামিদ



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

সাংবাদিকরা সঠিক সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে অপপ্রচার রুখে দিতে সহায়ক হয়। ভুলত্রুটির ঊর্ধ্বে কেউই নয়, তাই সাংবাদিকদের অনেক প্রতিবেদন সঠিক সিদ্ধান্ত নিতেও বড় ভূমিকা রাখে বলে মন্তব্য করেছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে ফোরাম ফর এনার্জি রিপোর্টার্স বাংলাদেশ (এফইআরবি)-এর নবনির্বাচিত কমিটির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে এমন মন্তব্য করেন তিনি। এ সময় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে খোলামেলা আলোচনা হয়।

প্রতিমন্ত্রী, এফইআরবির নবনির্বাচিত কমিটির সকল সদস্যদের স্বাগত জানিয়ে বলেন, বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা দেশের প্রকৃত উন্নয়নে বড় ভূমিকা রাখে। মানুষের কাছে প্রকৃত তথ্য তুলে ধরতে পারলেই দেশের জনগণ উপকৃত হবে। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের মত টেকনিক্যাল একটি সেক্টরে সাংবাদিকতা করার ক্ষেত্রে সাংবাদিকদের উন্নতি বৃদ্ধির উপর জোর দিতে হবে। 

এসময় প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণের জন্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানান।

সাক্ষাৎকালে ফোরাম ফর এনার্জি রিপোর্টার্স বাংলাদেশের (এফইআরবি) চেয়ারম্যান মো.শামীম জাহাঙ্গীর, নির্বাহী পরিচালক সেরাজুল ইসলাম সিরাজ, ভাইস চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান কাকন, পরিচালক (উন্নয়ন ও অর্থ) হাসনাইন ইমতিয়াজ, পরিচালক (গবেষণা ও প্রশিক্ষণ) নাজমুল হক লিখন, পরিচালক (ডাটা ব্যাংক) মোঃ ইয়ামিন এবং পরিচালনা সদস্য হাসান আজাদ, শাহেদ সিদ্দিকী ও ফয়েজ আহমেদ খান তুষার উপস্থিত ছিলেন।

;

চিনির দাম কেজিতে বাড়ল ২০ টাকা



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
চিনির নতুন দাম নির্ধারণ, কেজিতে বাড়ল ২০ টাকা

চিনির নতুন দাম নির্ধারণ, কেজিতে বাড়ল ২০ টাকা

  • Font increase
  • Font Decrease

কেজিতে ২০ টাকা বাড়িয়ে সরকারি মিলের চিনির সর্বোচ্চ খুচরা দাম ১৬০ টাকা নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশন (বিএসএফআইসি)। এছাড়া এখন থেকে করপোরেশনের ৫০ কেজি বস্তাজাত চিনির মিলগেট বিক্রয়মূল্য ১৫০ টাকা (এক কেজি) ও ডিলার পর্যায়ে বিক্রয়মূল্য ১৫৭ টাকা (এক কেজি) নির্ধারণ করা হয়েছে।

বৃহম্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে বিএসএফআইসি। 

এতে বলা হয়, আন্তর্জাতিক ও দেশিয় চিনির বাজার মূল্যের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বিএসএফআইসি কর্তৃক উৎপাদিত চিনির বিক্রয়মূল্য পুননির্ধারণ করা হয়েছে। বাজারে রোজা উপলক্ষে চিনির বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকারের সহযোগিতা প্রয়োজন।

এছাড়া করপোরেশনের ১ কেজি প্যাকেটজাত চিনির মিলগেট বা করপোরেট সুপারশপ বিক্রয়মূল্য ১৫৫ টাকা ও বিভিন্ন সুপারশপ, চিনি শিল্প ভবনের বেজমেন্টে ও বাজারে সর্বোচ্চ খুচরা বিক্রয়মূল্য ১৬০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। 

উল্লেখ্য, বাজারে সরকারি চিনির নামে মোড়কে চড়া দামে বিক্রি করছে কিছু প্রতিষ্ঠান। সবশেষ ১৪০ টাকা কেজি প্যাকেট চিনির কেজি নির্ধারণ করে সংস্থাটি।

;