প্রভাষক উৎপল হত্যার বিচার দাবিতে চবিতে মানববন্ধন



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
প্রভাষক উৎপল হত্যার বিচার দাবিতে চবিতে মানববন্ধন। বার্তা২৪.কম

প্রভাষক উৎপল হত্যার বিচার দাবিতে চবিতে মানববন্ধন। বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ৪১ তম ব্যাচের মেধাবী ছাত্র, ঢাকা আশুলিয়াস্থ হাজী ইউনুস  আলী স্কুল এন্ড কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক উৎপল কুমার সরকারের নির্মম ও বর্বরোচিত হত্যাকান্ডের দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবিতে মঙ্গলবার (২৮ জুন) দুপুরে চবি ক্যাম্পাসে মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

চবি রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ৪১ তম ব্যাচ কর্তৃক আয়োজিত মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা প্রভাষক উৎপল হত্যার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, "নিষ্ঠার সঙ্গে কর্তব্য পালনের কারণে আর যেন কোনও শিক্ষক নির্যাতন ও মৃত্যুর মুখোমুখি না হন। এজন্য আমরা এহেন ঘৃণ্য অপরাধের দৃষ্টান্তমূলক শান্তি দাবি করছি।"

প্রভাষক উৎপলের সহপাঠী ও চবি রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ৪১ তম ব্যাচের পক্ষে মো. সুমন মামুন বার্তা২৪.কম'কে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করে দোষীদের উপযুক্ত শান্তির দাবিতে প্রতিবাদ আন্দোলন অব্যাহত রাখার কথা জানান।

এদিকে প্রভাষক উৎপল কুমার সরকার হত্যার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে চবি রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের পক্ষে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করা হয়েছে। বিভাগের পক্ষ থেকে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানোর পাশাপাশি প্রতীকী প্রতিবাদস্বরূপ মঙ্গলবার দুপুরের পর বিভাগের সকল ক্লাস স্থগিত করা হয়।

ঢাবির একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্টে বানান ভুল!



ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ঢাবির একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্টে বানান ভুল

ঢাবির একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্টে বানান ভুল

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এমএস (হোম ইকোনমিক্স) রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড এ্যান্ট্রোপ্রনারশিপ গ্রেড সার্টিফিকেট/একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্টে কয়েক জায়গাতে ভুল রয়েছে। ভুল বানান নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মার্কশিটের ছবি দিয়ে চলছে নানান সমালোচনা।

ওই মার্কশিটটিতে দেখা যায়, Manegement of The Enviorment, যেখানে ম্যানেজমেন্ট বানানটি ভুল। আবার Role of NGOs in Development Policy and Managemen, যেখানে ম্যানেজমেন্ট বানানটি ভুল। ভুল সংশোধনে গভর্নমেন্ট কলেজ অব অ্যাপ্লায়েড হিউম্যান সায়েন্সের ছাত্রীরা পড়েছেন ভোগান্তিতে।

২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের হোম ইকোনমিক্সের ভুক্তভোগী ছাত্রীরা জানান, প্রথমে ভেবেছিলেন হয়তো একজনের সার্টিফিকেটে এমন ভুল হয়েছে। কিন্তু সবার সার্টিফিকেটে ভুল হয়েছে। কিন্তু সার্টিফিকেটের ভুলে সব মাটি হয়ে গেছে, বলে ভুক্তভোগীদের দাবি।

এ প্রসঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্টিফিকেট শাখার সহকারী পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. আব্দুল ওয়াদুদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ৫০১ নম্বর কোর্সে এবং ৫০৬ নম্বর কোর্সের শিরোনামে ম্যানেজমেন্ট বানানটি ভুল রয়েছে। সার্টিফিকেট তৈরিতে অনেকগুলো বডি কাজ করে। কোন জায়গা থেকে ভুলটি হলো, তা খুঁজে বের করা হবে। শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগাযোগ করে শুদ্ধ সার্টিফিকেট নিতে পারবে, বলে জানান তিনি।

;

জাবির উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনে জয়ী আমির-নূরুল-অজিত



জাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনে ৪৮ ভোট পেয়ে প্রথম হয়েছেন অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক আমির হোসেন, ৪৬ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় হয়েছেন পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক নূরুল আলম এবং ৩২ ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক অজিত কুমার মজুমদার।

শুক্রবার (১২ আগস্ট) বিকাল ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট হলে নির্বাচন শুরু হয়। ভোট গণনা শেষে একাধিক সিনেট সদস্য এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ভোট কার্যক্রমের সব কাজ শেষ হলে নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চুক্তিভিত্তিক রেজিস্ট্রার আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা করবেন।

এবারের নির্বাচনে মোট তিনটি প্যানেল থেকে আটজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী অন্য প্রার্থীদের মধ্যে অধ্যাপক সুফি মোস্তাফিজুর রহমান ২৩ ভোট, অধ্যাপক আব্দুল্লাহ হেল কাফী ২০ ভোট, অধ্যাপক লায়েক সাজ্জাদ এন্দেল্লাহ ১৯ ভোট, অধ্যাপক পৃথ্বিলা নাজনীন নিলীমা ১৫ ভোট ও অধ্যাপক তপন কুমার সাহা ৭ ভোট পেয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৯৭৩-এর অধ্যাদেশের ১১(১) ধারা অনুযায়ী, নির্বাচিত এই তিন জনের মধ্যে একজনকে উপাচার্য হিসেবে নিয়োগের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ও রাষ্ট্রপতির কাছে সুপারিশ করবে সিনেট। এরপর রাষ্ট্রপতি একজনকে চার বছরের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দেবেন।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ আট বছর পর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্যানেল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এবারের নির্বাচনে ৮১ জন সিনেট সদস্যের মধ্যে ৭৬ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। বাকি ৬ জন অসুস্থ্যতার জনিত কারণে উপস্থিত থাকতে পারেননি।

;

ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজের ‘বিজ্ঞান’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত



ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজের ‘বিজ্ঞান’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজের ‘বিজ্ঞান’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষের ‘বিজ্ঞান ইউনিটের’ ১ম বর্ষ স্নতক (সম্মান) শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষা শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (১২ আগস্ট) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান ঢাকা কলেজের ভর্তি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শনকালে অধ্যাপক আখতারুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, সুন্দর ও সুষ্ঠু পরিবেশে সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা প্রশ্নপত্রের মান এবং পরীক্ষার ব্যবস্থাপনা নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে। একইসঙ্গে পরীক্ষায় উপস্থিতির হারও সন্তোষজনক।

তিনি আরো বলেন, আমি দুটো কক্ষ পরিদর্শন করে পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছি। বিশেষ করে প্রশ্নপত্রের মান কেমন হয়েছে এবং কোনো ভুল-ভ্রান্তি আছে কি না, তা পরীক্ষার্থীদের কাছে জানতে চেয়েছি। প্রশ্নের মান ও সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছেলে-মেয়েরা সন্তোষ প্রকাশ করেছে, তাদের পরীক্ষা ভালো হচ্ছে। ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির কোনো সুযোগ নেই।

এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদের ডিন এবং ঢাবি অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের বিজ্ঞান ইউনিট ভর্তি পরীক্ষার সমন্বয়কারী অধ্যাপক ড. মো. আব্দুস ছামাদ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল এবং কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ পৃথকভাবে পরীক্ষাকেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

উল্লেখ্য, সরকারি সাত কলেজে ‘বিজ্ঞান ইউনিটের’ মোট ৬,৫০০টি আসনের বিপরীতে ৩৯,৫২১ জন ভর্তিচ্ছু ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। ভর্তি পরীক্ষা ঢাকার ১৪টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়।

;

‘তারেক রহমান লন্ডনে বসে হারিকেন ব্যবসা নিয়ে ব্যস্ত’



ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়

ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়

  • Font increase
  • Font Decrease

ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেছেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান লন্ডনে বসে হারিকেন ব্যবসা নিয়ে ব্যস্ত ৷ হঠাৎ করে তারা হারিকেন নিয়ে খুব উদগ্রীব। টাকা পয়সা এত ইনকাম করেছে যে, তারা হারিকেন ব্যবসা ছাড়ছে না।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার দা’ সূর্য হল ছাত্রলীগের আয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবসহ পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টের সকল শহিদ স্মরণে ‘তোমার স্বপ্নে পথচলি আজো চেতনায় মহীয়ান’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এমন মন্তব্য করেন তিনি।

আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, তারা আজ হারিকেন নিয়ে মিথ্যা নাটক করছে। ফ্যানের বাতাস খেয়ে সভা-সেমিনারে বলছে, ‘লোডশেডিং’। আন্তর্জাতিক অঙ্গণে তেলের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। এটার সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমাদের কিছুটা ছাড় দিতে হচ্ছে। এটা সাময়িক সমস্যা। এটি উত্তরণ হবে। তাদের সময়ে তো বিদ্যুৎ ১৩/১৪ ঘণ্টা লোডশেডিং থাকত।

ছাত্রলীগের সভাপতি বলেন, খালেদা জিয়া, তারেক রহমানও জিয়াউর রহমানের পথে হেঁটেছিল। যার দৃষ্টান্ত ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ২১ বার হত্যা করার চেষ্টা করা হয়েছিল। নেত্রী চাইলে তার প্রতিশোধ নিতে পারতেন না? পারতেন। তিনি (শেখ হাসিনা) মনে করেন যারা খারাপ কাজ করে, অন্যায় করে তাদের শাস্তি প্রাকৃতিকভাবেই হবে। তা হচ্ছেও। ১৫ আগস্ট যারা মিথ্যা জন্মদিন পালন করবে, তাদের দাঁত ভাঙা জবাব দেওয়া হবে এবং শক্ত হাতে তাদের দমন করা হবে, বলে জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ও মাদারীপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, বিশেষ অতিথি হিসেবে আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ও আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলে ফাহিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার দা’ সূর্য সেন হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মকবুল হোসেন ভূঁইয়া, আওয়ামী লীগের সদস্য শাহাবুদ্দিন ফরাজী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, মাস্টার দা’ সূর্য হল ছাত্রলীগের সভাপতি মারিয়াম জামান সোহান, সাবেক মাস্টার দা’ সূর্য হল সাধারণ সম্পাদক নাহিদ হাসান শাহীন বক্তব্য রাখেন।

;