Barta24

সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

English

খাবার খেয়েই মাসে যার আয় কোটি টাকা

খাবার খেয়েই মাসে যার আয় কোটি টাকা
বেথানি গাসকিন খাবার খেয়ে আয় করেন কোটি টাকা, ছবি: সংগৃহীত
টেক ডেস্ক
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

বেঁচে থাকার জন্য খাবার অপরিহার্য আর খাবার জন্যই পৃথিবীতে এতকিছু। মানুষের মৌলিক চাহিদার প্রথম উপাদানটি খাদ্য। কিন্তু খাবারের পেছনে প্রতিদিন, প্রতিমাসে খরচ করতে হয় হাজারো টাকা। তবে কোরিয়ার একজন নারী খাবার খেয়েই মাসে কোটি টাকা আয় করছেন।

ভাবতে অবাক লাগলেও বিষয়টি সত্যি। বেথানি গাসকিন নামের এই নারী ইউটিউবে তার খাবার খাওয়ার ভিডিও ধারণ করে প্রকাশ করেন। তখন তার ভিডিওগুলোতে লাখ লাখ ভিউ হতে থাকে। যা থেকে তিনি মাসে ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেন। যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় কোটি টাকার সমান।

বেথানি গাসকিনের ইউটিউব চ্যানেলটির নাম হচ্ছে ‘বিলাভলাইফ’। বর্তমানে তার চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা ২০ লাখ।

তার চ্যানেলের মূল কনটেন্টই হচ্ছে খাবার খাওয়ার ভিডিও। এজন্য তিনি আলাদা একটি জনরার নাম দিয়েছেন। যাকে তিনি বলছেন ‘মিওব্যাঙ’।

এখানে দুটি কোরিয়ান ভাষার শব্দ মিলে একটি শব্দ সৃষ্টি করা হয়েছে। শব্দটি ভাঙলে দেখা যায় মেওকিনান (খাওয়া) এবং ব্যাঙসং (ব্রডকাস্ট)। অতএব ‘মিওব্যাঙ’ এর অর্থ দাঁড়ায় ‘খাওয়ার ব্রডকাস্ট’ বা ‘ইটকাস্ট’।

ভিডিও গুলোতে দেখা যায় তিনি বিপুল পরিমাণে ভারি খাবার খাচ্ছেন এমন ভিডিও প্রকাশ করেন। এরমধ্যে তার নিজস্ব রেসিপির খাবারও খান তিনি।

বিবিসির প্রতিনিধিকে জানান, ইউটিউব তাকে একজন কোটিপতি বানিয়ে দিয়েছে। এটা এমন না কোনো ব্র্যান্ডের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন থেকে আয় করছেন। তিনি শুধুমাত্র ইউটিউব থেকেই লাখ টাকা আয় করছেন।

বিবিসির সাংবাদিক গাসিকিনকে প্রশ্ন করেছিলেন তিনি মাসে কত টাকা আয় করেন? তার হাস্যোজ্জ্বল উত্তর ছিল এই ধরেন মিলিয়ন ডলার।

গাসকিন বলেন, ‘আমি মনে করে এটা একটা মজার বিষয় এবং যা অন্যদেরকে আনন্দ দেয়। যারা উদ্বিগ্নতার মধ্যে থাকেন, যারা একা একা বসে সময় কাটান তাদের মধ্য থেকে অনেক সাড়া পেয়েছি। এর মধ্যে ক্যান্সার আক্রান্ত এমন অসংখ্য রোগীদের মেইলও পেয়েছি। আমি আমার ভিডিওর মাধ্যমে তাদের খাবারে চাহিদা ক্ষুধা বাড়াতে সাহায্য করি।’

বর্তমানে ইউটিউবে ভিডিও বানানো এখন তাদেরে একটি পারিবারিক ব্যবসা হয়ে গেছে। এক্ষেত্রে তার স্বামী এখন তাদের ব্যবসার ফুল টাইম ম্যানেজার। আর তার ছেলেদেরও নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল আছে।

সূত্র: বিবিসি

আপনার মতামত লিখুন :

বাংলাদেশের পপআপ ক্যামেরার জগতে পা রাখল হুয়াওয়ে

বাংলাদেশের পপআপ ক্যামেরার জগতে পা রাখল হুয়াওয়ে
হুয়াওয়ের হ্যান্ডসেট ওয়াই৯ প্রাইম, ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের প্রথম অটো পপআপ ক্যামেরার মোবাইল ফোন ওয়াই৯ প্রাইম এখন বাংলাদেশের বাজারে।

রোববার (২৫ আগস্ট) থেকে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি। এতে থাকছে হাই-পারফরমেন্সের চিপসেট, ইএমইউআই ৯.০ অপারেটিং সিস্টেম, ট্রিপল এআই ক্যামেরা ফিচার, দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি।

মধ্যম বাজেটের এই মোবাইল ফোনটিতে আরও থাকছে ৬.৫৯ ইঞ্চি বিশিষ্ট ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। নো হোল, নো নচ, নন-ডিউড্রপ ডিজাইনের ফোনটির ফুল স্ক্রিন ডিসপ্লের উপরে ব্যবহার করা হয়েছে ছোট ব্যাজেল। এতে কিরিন ৭১০এফ প্রসেসরের সঙ্গে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ ব্যবহার করা হয়েছে, যা মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ফলে ফোনের স্টোরেজ নিয়ে বাড়তি চিন্তা থাকবে না গ্রাহকদের।

হুয়াওয়ের ওয়াই৯ প্রাইম হ্যান্ডসেটটির পেছনে থাকছে তিনটি ক্যামেরা। ১৬, ৮ ও ২ মেগাপিক্সেলের তিনটি ক্যামেরার জন্য ফোনটিতে ছবি পাওয়া যাবে নিখুঁত ও স্পষ্ট। ১৬ মেগাপিক্সেলের পপআপ ক্যামেরাটি ব্যবহারকারীদের ফুল ডিসপ্লে সুবিধা যেখানে কোনো নচ বা হোল থাকবে না।

পপআপ সেলফি ক্যামেরাটি ১৫ কিলোগ্রাম পর্যন্ত বাহ্যিক চাপ সহ্য করতে পারবে। এক লাখবারের চেয়ে বেশি ওঠানামা করবে এর পপআপ ক্যামেরা। ৪ হাজার মিলি অ্যাম্পায়ার ব্যাটারি থাকায় ব্যবহারকারীরা একবার চার্জে দীর্ঘসময় ব্যবহার করতে পারবেন।

অল্পসময়ে চার্জের জন্য ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে টাইপ-সি চার্জার। স্যাফায়ার ব্লু, অ্যামেরালড গ্রীন ও মিডনাইট ব্ল্যাক আকর্ষণীয় এই তিনটি কালারে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি।

প্রিমিয়াম ফিচারের এই ফোনটি পাওয়া যাবে ২৩ হাজার ৯৯৯ টাকায়।

বাংলাদেশের পপআপ ক্যামেরার জগতে পা রাখলো হুয়াওয়ে

বাংলাদেশের পপআপ ক্যামেরার জগতে পা রাখলো হুয়াওয়ে
হুয়াওয়ে পপআপ ক্যামেরার ফোন ওয়াই নাইন প্রাইম

হুয়াওয়ের প্রথম অটো পপআপ ক্যামেরা ফোন এখন বাংলাদেশে বাজারে। প্রথমবারের মতো সর্বশেষ প্রযুক্তির এই অটো পপআপ ক্যামেরার ফোন ওয়াই নাইন প্রাইম ২০১৯ নিয়ে এসেছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে।

রোববার (২৫ আগস্ট) থেকে বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি।ফোনটিতে থাকছে হাই-পারফরমেন্সের চিপসেট, ইএমইউআই ৯.০ অপারেটিং সিস্টেম, ট্রিপল এআই ক্যামেরা ফিচার, দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি।

মধ্যম বাজেটের এই ফোনটিতে আরও থাকছে  ৬.৫৯ ইঞ্চি বিশিষ্ট ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। নো হোল, নো নচ, নন-ডিউড্রপ ডিজাইনের ফোনটির ফুল স্ক্রিন ডিসপ্লের উপরে ব্যবহার করা হয়েছে ছোট ব্যাজেল। এতে কিরিন ৭১০এফ প্রসেসরের সাথে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ ব্যবহার করা হয়েছে। যা মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ফলে ফোনের স্টোরেজ নিয়ে বাড়তি চিন্তা থাকবে না গ্রাহকদের। হুয়াওয়ের ওয়াই নাইন প্রাইম ২০১৯ হ্যান্ডসেটটির পিছনে থাকছে তিনটি ক্যামেরা। ১৬, ৮ ও ২ মেগাপিক্সেলের তিনটি ক্যামেরার জন্য ফোনটিতে ছবি পাওয়া যাবে নিখুঁত ও স্পষ্ট। ১৬ মেগাপিক্সেলের পপ আপ ক্যামেরাটি ব্যবহারকারীদের ফুল ডিসপ্লে সুবিধা যেখানে কোন নচ বা হোল থাকবে না।

পপ আপ সেলফি ক্যামেরাটি ১৫ কিলোগ্রাম পর্যন্ত বাহ্যিক চাপ সহ্য করতে পারবে। এক লাখ বারের চেয়ে বেশি উঠা নামা করবে এর পপ আপ ক্যামেরা। ৪ হাজার মিলিঅ্যাম্পায়ার ব্যাটারি থাকায় ব্যবহারকারীরা একবার চার্জে দীর্ঘসময় ব্যবহার করতে পারবেন।

অল্পসময়ে চার্জের জন্য ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে টাইপ-সি চার্জার। স্যাফায়ার ব্লু, অ্যামেরালড গ্রীন ও মিডনাইট ব্ল্যাক আকর্ষণীয় এই তিনটি কালারে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি।

প্রিমিয়াম ফিচারের এই ফোনটি পাওয়া যাবে ২৩ হাজার ৯৯৯ টাকায়।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র