আমের আড়তে অভিযান, ৪০০ মণ আম জব্দ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে পাকানো আম জব্দে র‍্যাবের অভিযান, ছবি: বার্তা২৪.কম

রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে পাকানো আম জব্দে র‍্যাবের অভিযান, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে পাকানো অপরিপক্ব ল্যাংড়া আম বিক্রয় করায় দায়ে ৪০০ মণ আম জব্দ করেছে র‍্যাব সদর দফতরের একটি ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার (২২ মে) অভিযানে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর নয়টি ফলের আড়তে অভিযান চালিয়ে ৪০০ মণ আম জব্দের পাশাপাশি ২৪ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

অভিযানের বিষয়ে সারওয়ার আলম বলেন, 'রাজশাহীর বাগান থেকে ল্যাংড়া আম পাড়ার কথা আগামী ২৮ মে। তার আগে ঢাকায় কিছু অসাধু ব্যবসায়ী রাসায়নিক পদার্থ মিশিয়ে আমগুলো পাকিয়ে বিক্রি করছে। এই অভিযোগে যাত্রাবাড়ী নয়টি আমের আড়তে সর্বমোট ২৪ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া কেমিক্যাল মেশানো ৪০০ মণ জব্দ করা হয়।'

জরিমানা করা প্রতিষ্ঠানগুলো হল- মেসার্স মা এন্টারপ্রাইজ, মেসার্স সাদ্দাম ট্রেডার্স, নাঙ্গলকোট বাণিজ্যালয়, শাহ চন্দ্রপুরী সবজি ভাণ্ডার, মেসার্স নান্নু এন্টারপ্রাইজ, মেসার্স বন্ধু বাণিজ্যালয়, মাদারীপুর বাণিজ্যালয়, সজীব ট্রেডার্স ও সাবিহা বাণিজ্যালয়।

প্রতিষ্ঠানগুলোকে সর্বোচ্চ চার লাখ ও সর্বনিম্ন এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয় বলেও জানান তিনি।

   

ঘূর্ণিঝড় রিমাল: ১০ হাজার আনসার-ভিডিপি সদস্য মোতায়েন

  ঘূর্ণিঝড় রিমাল



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে থাকা গভীর নিম্নচাপটি ঘনীভূত হয়ে ঘূর্ণিঝড় রেমালে রূপ নিয়েছে যা বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় আঘাত হানতে প্রবল বেগে ধেয়ে আসছে।

ইতোমধ্যে উপকূলীয় বিভিন্ন স্থানে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি করা হয়েছে। এর ফলে ঘূর্ণিঝড় পূর্ব ও পরবর্তী সময়ে স্থানীয় জনসাধারনের জানমালের যে নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরি হবে তা মোকাবেলায় উপকূলীয় ১২ জেলায় ১০ হাজার আনসার-ভিডিপি সদস্যকে চার দিনের জন্য মোতায়েন করেছে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী।

একই সাথে সংশ্লিষ্ট উপকূলীয় রেঞ্জ কমান্ডার, জেলা কমান্ড্যান্ট ও আনসার ব্যাটালিয়ন অধিনায়কগণকে যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকার আদেশ দেয়া হয়েছে।

শনিবার (২৫ মে) বাহিনীর সদর দপ্তর থেকে এক ফ্যাক্স বার্তার মাধ্যমে এসকল কার্যক্রম গ্রহণের নির্দেশাবলী জারি করা হয়। রবিবার (২৬ মে) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

ফ্যাক্সের মাধ্যমে ঘূর্ণিঝড় রিমাল মোকাবেলায় সকল কর্মকর্তা- কর্মচারীদের ছুটি বাতিলপূর্বক স্টেশনে অবধারিতভাবে উপস্থিত থাকতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এই উদ্দেশ্যে সার্বক্ষণিক যোগাযোগের জন্য সদর দপ্তরে অপস কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে।

এরই প্রেক্ষিতে ঘূর্ণিঝড় রিমাল মোকাবেলায় সংশ্লিষ্ট রেঞ্জ কমান্ডার ও জেলা কমান্ড্যান্টগণ স্থানীয় প্রশাসনের সাথে সমন্বয় করে এবং ক্ষেত্রবিশেষে নিজ উদ্যোগে দুর্গত মানুষদের আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা ও মাইকিং করে প্রচারণার মাধ্যমে সচেতনতা তৈরি করে নিরাপদ আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার কাজ করছেন।

এছাড়াও আনসার-ভিডিপি সদস্যগণ স্থানীয়দের গৃহপালিত প্রাণী যেমন- হাস, মুরগি, গরু, ছাগল ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সম্পত্তি নিরাপদ স্থানে সরিয়ে আনতে সহায়তা করছেন। সংশ্লিষ্ট রেঞ্জ, ব্যাটালিয়ন ও জেলা কমান্ড্যান্টের কার্যালয়ে কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড দলনেতা-দলনেত্রী, উপজেলা ও ইউনিয়ন আনসার কমান্ডার ও সহকারী আনসার কমান্ডারদের ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় সম্পৃক্ত করা হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় কবলিত এলাকায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় আনসার ব্যাাটালিয়ন সদস্য, আনসার ও ভিডিপি সদস্য/সদস্যাদের নিয়োজিত করার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়াধীন দপ্তর ও সরকারী কোনো সংস্থা ও এজেন্সি এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক প্রদেয় স্বাস্থ্য সেবা কার্যক্রমে আনসার-ভিডিপি সদস্যগণ প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করছেন। আশ্রয়কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় স্থানীয় প্রশাসনের সাথে সমন্বয় করে দায়িত্ব পালন করছেন আনসার-ভিডিপি সদস্যরা।

;

উপকূলে আঘাত হেনেছে রিমালের মূল অংশ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

উপকূলে আঘাত হেনেছে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট প্রবল ঘূর্ণিঝড় রিমালের মূল অংশ বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। আগামী ৫ থেকে ৭ ঘণ্টার মধ্যে উপকূল অতিক্রম করবে ঘূর্ণিঝড়টি। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে উপকূলীয় এলাকায় ঝড়ো বাতাসসহ বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

রোববার (২৬ মে) রাত ৮টায় রাজধানীর আগারগাঁও বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরে এক ব্রিফিংয়ে এসব কথা জানানো হয়।

;

ভবন মালিককে খুনের দায়ে কেয়ারটেকারের যাবজ্জীবন



স্টাফ কসেরপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, চট্টগ্রাম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

চট্টগ্রাম নগরীর খুলশীতে নির্মাণাধীন ভবনের মালিক নেজাম পাশাকে থুনের দায়ে ভবনের কেয়ারটেকার মোহাম্মদ হাসানকে (৪৫) যাবজ্জীবন এবং লাশ গুমের অপরাধে তাকে আরও পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার (২৬ মে) চট্টগ্রামের চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ শরীফুল আলম ভূঁঞা এ রায় দেন।

দণ্ডিত মোহাম্মদ হাসান চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার পূর্ব আজিমপুর আদর্শবাজার এলাকার মৃত আমির হোসেনের ছেলে। ঘটনার সময় নগরীর খুলশী থানার শতাব্দী হাউজিং সোসাইটির রাসেলের কলোনীতে তার বাসা ছিল। খুন হওয়া ব্যক্তির নির্মাণাধীন ভবনে তিনি কেয়ারটেকার (তত্ত্বাবধায়ক) হিসেবে কাজ করতেন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, জমির হাউজিং সোসাইটির ভিআইপি কাঁচা সড়কে মো. নেজাম পাশা (৬৫) ভবন নির্মাণের কাজ শুরু করেন। প্রতি সপ্তাহে ভবনের কাজ দেখতে এবং শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ করতে সেখানে যেতেন নেজাম। ভবনের নির্মাণকাজ শুরুর সময় সেখানে মো. হাসানকে কেয়ারটেকারের দায়িত্ব দেওয়া হয়। কিন্তু তিনি নির্মাণকাজে তার পছন্দের লোকজনকে নিয়োগ দেওয়ার জন্য নেজামকে বিভিন্ন সময় চাপ দিতেন। এ নিয়ে মনোমালিন্য হওয়ায় হাসানকে কাজে রাখবেন না বলে জানিয়ে দেন।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে হাসান ২০২১ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে সাড়ে চারটা থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ছয়টার মধ্যে যেকোন সময় মো. নেজাম পাশাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে। নগরের খুলশী থানার জালালাবাদ জমির হাউজিং সোসাইটিস্থ ভিআইপি কাঁচা রোডের শেষ মাথায় আনিসুর রহমানের প্লটের সামনে মরদেহ গুম করার উদ্দেশ্যে পরিত্যক্ত পলিথিন, কাদা বালি ও ময়লার স্তুপের ভিতরে ফেলে দেওয়া হয়। নেজাম পাশা ফটিকছড়ি পৌরসভার ধুরং এলাকার বাসিন্দা।

নেজাম পাশাকে হত্যার ঘটনায় স্ত্রী সেলিনা ইয়াসমিন বাদী হয়ে নগরের খুলশী থানায় ভবনের কেয়ারটেকার মো. হাসানকে আসামি করে মামলা করেন। এরপর একই বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর হাসানকে রিয়াজউদ্দিন বাজার তামাকুমনণ্ডি লেইনের গ্রেফতার করা হয়। সেসময় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হাসান নিজের মালিক নেজাম পাশাকে মূলত টাকার লোভেই হত্যা করে বলে স্বীকার করে। গ্রেফতার পর হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দড়ি, গামছা, টেপ, তার, চিরকুটসহ বিভিন্ন আলামত উদ্ধার করেছিল পুলিশ।

এই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তৎকালীন খুলশী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো.আনোয়ার হোসেন তদন্ত শেষে ২০২২ সালের ২৩ জানুয়ারি আদালতে হাসানের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেন। একই বছরের ১৯ জুলাই আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত।

আদালতের বেঞ্চ সহকারি ওমর ফুয়াদ বলেন, ১৬ জনের সাক্ষ্য-প্রমাণে ভবন মালিক মো.নেজাম পাশা হত্যা মামলায় আসামি মো.হাসানের বিরুদ্ধে রায়ে খুনের দায়ে দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় হাসানকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এছাড়া লাশ গুমের অপরাধে দণ্ডবিধির ২০১ ধারায় হাসানকে পাঁচ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রায়ের সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিল। সাজা পরোয়ানা মূলে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

;

শাহ আমানতে সব ফ্লাইট ওঠানামা বন্ধ ঘোষণা

  ঘূর্ণিঝড় রিমাল



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, চট্টগ্রাম
শাহ আমানত বিমানবন্দর

শাহ আমানত বিমানবন্দর

  • Font increase
  • Font Decrease

ঘূর্ণিঝড় রিমাল মোকাবিলায় চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সোমবার ভোর ৫টা পর্যন্ত সব ধরণের উড়োজাহাজ ওঠানামা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। যদিও আজ সকালে, দুপুর ১২টা থেকে পরবর্তী আট ঘণ্টা উড়োজাহাজ ওঠানামা বন্ধ ঘোষণা করেছিল বিমানবন্দরটি।

রোববার (২৬ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বিষয়টি বার্তা২৪.কমকে নিশ্চিত করেছেন শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইব্রাহিম খলিল।

তিনি বলেন, শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এয়ারফিল্ডের স্থগিতাদেশ এবং এর রান-ওয়ে বন্ধের মেয়াদ আগামীকাল সোমবার ভোর ৫টা পর্যন্ত বাড়িয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত প্রতিরোধমূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাবে কর্তৃপক্ষ।

যদিও সকালে বিমানবন্দরের এই কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আবহাওয়া সংকেত ৬ থেকে মহাবিপদ সংকেত ৯ এ উন্নিত করার পর ঘূর্ণিঝড় 'রিমাল' মোকাবিলায় শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এয়ারফিল্ড ঘোষণা করেছে। বিমানবন্দরে রোববার দুপুর ১২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সব ধরনের উড়োজাহাজ ওঠানামা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ তার সম্পদ রক্ষা এবং এর জনশক্তির নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সমস্ত প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। রাত ৮টার আগে আবহাওয়ার পরিস্থিতি বুঝে পরবর্তী সিন্ধান্তের কথা জানানো হবে।

;