সারাদিনের আবহাওয়া যেমন থাকবে



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকলেও রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

শুক্রবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, শ্রীলঙ্কা এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত নিম্নচাপটি দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে প্রথমে সুস্পষ্ট লঘুচাপ এবং পরবর্তিতে লঘুচাপে পরিণত হয়ে গুরুত্বহীন হয়ে পড়েছে। উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাংশ পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

এ অবস্থায় আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং দেশের অন্যত্র কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।

এ ছাড়া কুড়িগ্রাম ও মৌলভীবাজার জেলার ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। পরবর্তী ৭২ ঘণ্টায় তাপমাত্রা ‍বৃদ্ধি পেতে পারে।

   

ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশের সময় আটক ১



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঠাকুরগাঁও
ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশের সময় আটক ১

ভারত থেকে বাংলাদেশে প্রবেশের সময় আটক ১

  • Font increase
  • Font Decrease

ভারত থেকে বাংলাদেশে অবৈধভাবে প্রবেশের সময় ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী সীমান্তের রত্নাই বিওপির সীমানায় নীতীশ পাল (২৫) নামে এক যুবককে আটক করেছে বিজিবি।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন রত্নাই বিজিবি ক্যাম্পের কমান্ডার নায়েব সুবেদার মো. নুরুল ইসলাম।

আটক ওই যুবক বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বেলতলা গ্রামের ধীরেন পালের ছেলে।

রত্নাই বিজিবি ক্যাম্পের কমান্ডার নায়েব সুবেদার মো. নুরুল ইসলাম জানান, ২২ মে (বুধবার) রাতে আমজানখোর ইউনিয়নের রত্নাই বিওপির ঠকবস্তি বটতলা সীমানায় ডিউটি করার সময় রাত ৮ টায় সিমানা পিলার ৩৮২-এস এর ২০০ গজ ভিতরে ভারত থেকে অবৈধভাবে প্রবেশ করার সময় নীতীশ পালকে আটক করা হয়। তিনি দীর্ঘ আট বছর ধরে দিল্লিতে রাস্তার কাজ করতেন।

পরে তাকে বালিয়াডাঙ্গী থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয় এবং এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

;

কয়েক মাসের পরিকল্পনায় এমপি আজীম হত্যা: ডিবি



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: বার্তা২৪

ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেছেন, রাজধানীর গুলশানসহ বিভিন্ন এলাকায় বসে ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারকে হত্যার পরিকল্পনা করেন তার বাল্যবন্ধু ও ব্যবসায়িক পার্টনার আক্তারুজ্জামান শাহীন।

শাহীনের পরিকল্পনায় হত্যার কাজটি করেন পূর্ব বাংলার কমিউনিস্ট পার্টির নেতা আমান উল্লাহ আমান ওরফে শিমুল।

তিনি বলেন, শাহীন দুই থেকে তিন মাস ধরে আনারকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। তবে গোয়েন্দা পুলিশের শক্তিশালী তদন্ত ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতার কারণে তারা পরিকল্পনা বাস্তবায়নে কলকাতাকে বেছে নেয়।

বৃহস্পতিবার (২৩) দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিবি কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমে এক সংবাদ সস্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

ডিএমপির গোয়েন্দা প্রধান বলেন, কলকাতায় গত ১৩ মে বাংলাদেশের সংসদ সদস্য আনারকে অত্যন্ত নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে। তার লাশ গুম করার জন্য পৈশাচিকভাবে মরদেহ টুকরো টুকরো করে বিভিন্ন স্থানে ফেলে দেওয়া হয়েছে।

এই বিষয়টি নিয়ে আমাদের কাছে ঘটনায় জড়িত মূলহত্যাকারীসহ গ্রেফতারকারীদের জিজ্ঞাসাবাদে আমরা জানতে পারি, সংসদ সদস্য আনারকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয় দুই থেকে তিন মাস আগে।

তিনি বলেন, ঢাকার গুলশান ও বসুন্ধরায় বসে একাধিকবার আলোচনা করেছে তারা।

আনারকে হত্যা করতে প্রথমে তারা বাংলাদেশের মাটি ব্যবহার করতে চেয়েছিল। কিন্তু পরবর্তীতে ডিএমপির ডিবি তদন্ত সক্ষমতার কথা চিন্তা করে তারা দেশের বাইরের মাটিতে পরিকল্পনা করেন।

পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এপ্রিল মাসের ২৫ তারিখ কলকাতায় তারা বাসা ভাড়া করেন। সে বাসায় নিহত সংসদ সদস্যের বন্ধু আক্তারুজ্জামান শাহীন, তার বান্ধবী এবং পূর্ব বাংলার কমিউনিস্ট পার্টির নেতা আমান উল্লাহ আমান ওরফে শিমুল ওঠেন।

;

কিশোরীদের জোর করে অবৈধ কাজে বাধ্য, চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা ২৪.কম, সাভার (ঢাকা)
কিশোরীদের জোর করে অবৈধ কাজে বাধ্য, চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার

কিশোরীদের জোর করে অবৈধ কাজে বাধ্য, চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার

  • Font increase
  • Font Decrease

চাকরি দেয়ার কথা বলে নারীদের ডেকে নিয়ে আটকে রেখে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করা হয় এমনকি পাচার করে দেয়া হয় পতিতালয়েও। সাভারে এমন এক চক্রের সন্ধান পেয়েছে পুলিশ। এই চক্রটি প্রায় ১০০ থেকে ১৫০ নারীকে দেশের বিভিন্ন এলাকায় পাচার করেছে। শুধু নারী নয় শিশু-কিশোরীও বাদ যায়না এই চক্রের হাত থেকে। এমনই এক চক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করে তাদের কাছ থেকে ৩ ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) সকালে গ্রেফতারকৃতদের সাভার মডেল থানা থেকে ঢাকার আদালতে পাঠানো হয়। এর আগে গতকাল বুধবার (২২ মে) রাতে সাভারের ভরারী নতুন পাড়া এলাকার পোড়া বাবুলের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। পরে পুলিশ বাদি হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মাদারীপুর থানার শিবচর থানার গুয়াতলা এলাকার খলিল ব্যাপারী (৪২), তার স্ত্রী লাইলী বেগম (৩৫), টাঙ্গাইলের কালিহাতী থানার নজরুল ইসলাম (৩৯), তার স্ত্রী মিথিলা (২০) ও তাদের আরেক সহযোগী বরিশাল জেলার উজিরপুর থানার তানজিলা আক্তার ফাতেমা (২৫)।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খলিল, তার স্ত্রী লাইলী ও তাদের সহযোগী ফাতেমাকে ভরারী এলাকার পোড়া বাবুলের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে ঝিনাইদহ এলাকার ১৪ বছরের এক কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়। পরে তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পার্শ্ববর্তী জোরপুল বটতলা এলাকায় জনৈক জাহাঙ্গীরের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে নজরুল ইসলাম ও তার স্ত্রী মিথিলাকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের হেফাজত থেকে ঝিনাইদহ ও ফরিদপুর এলাকার দুই নারীকে উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, চাকরির কথা বলে ও বিভিন্ন কৌশলে শিশু-কিশোরীসহ নারীদের ডেকে নিয়ে আটকে রেখে তাদের দিয়ে জোর করে পতিতাবৃত্তি করায় এই চক্রের সদস্যরা। পরে দৌলতদিয়া পতিতাপল্লী, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহের পতিতালয়ে বিক্রি করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশের কাছে তারা স্বীকার করেছেন যে, আনুমানিক ১০০ থেকে ১৫০ জন নারীকে এই উপায়ে বিভিন্ন পতিতাপল্লীতে বিক্রি করেছে তারা। নারীপ্রতি দেড় থেকে আড়াই লাখ টাকা আদায় করেছে চক্রটি।

সাভার মডেল থানার আমিনবাজার ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারুন অর রশিদ বলেন, ভুক্তভোগীদের আদালতের মাধ্যেম তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। গ্রেফতারকৃতদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। পতিতাপল্লী, সীমান্তবর্তী এলাকা সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ভুক্তভোগীদের বিক্রি করে দিত চক্রটি। চক্রের আরও কয়েকজন সদস্য পলাতক আছে তাদের গ্রেফতার করতে অভিযান চলছে।

;

ভোলায় ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ভোলা
ভোলায় ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

ভোলায় ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

  • Font increase
  • Font Decrease

ভোলায় পারিবারিক বিরোধকে কেন্দ্র করে দু’ভাইর মধ্যে সংঘর্ষে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) সকালে সদর উপজেলার দক্ষিণ রতনপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ২ জনকে আটক করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ভোলা সদর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ রতনপুর গ্রামের আবদুল মালেক ও তার ভাই তাজল ইসলামের মধ্যে জমি-জমা নিয়ে দীর্ঘদিন বিরোধ চলছিলো।

সকালে দুই ভাইয়ের পরিবারের মধ্যে জমি-জমা সংক্রান্ত বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় তাজলের পরিবারের লোকজনের হামলায় ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধ আবদুল মালেক ঘটনাস্থলেই মারা যান। মাথায় আঘাত পেয়ে গুরুতর আহত হন মালেক ও তাজলের ছোট ভাই মজনু। তাকে ভোলা ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রিপন চন্দ্র সরকার জানান, ঘটনাস্থলে থানা পুলিশ এবং ডিবি পুলিশ কাজ করছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুজনকে আটক করা হয়েছে। তদন্ত করে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

;