মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন আনোয়ার ইব্রাহিম



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

মালয়েশিয়ার পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন বিরোধী দলীয় নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম।

বৃহস্পতিবার নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন তিনি। তিনি হবেন দেশটির ১০তম প্রধানমন্ত্রী। খবর রয়টার্স।

রাজপ্রাসাদের এক বিবৃতির বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, মালয় শাসকদের মতামত বিবেচনা করার পর রাজা আনোয়ার ইব্রাহিমকে মালয়েশিয়ার ১০তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগের জন্য সম্মতি দিয়েছেন।

রয়টার্স বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মালয়েশিয়ায় সংসদ নির্বাচনে কোনো জোট একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারেনি। ফলে শনিবার (১৯ নভেম্বর) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার পাঁচদিন পার হয়ে গেলেও এখনো দেশটিতে নতুন সরকার গঠিত হয়নি। এর ফলে আজ দেশটির দুই বৃহত্তর জোট সংস্কারবাদী আনোয়ার ইব্রাহিমের হারাপান কোয়ালিশন এবং সাবেক সরকার দলীয় জোট ইসমাইল ইয়াকোবের বারিসান ন্যাশনাল কোয়ালিশন একটি রাজনৈতিক সমঝোতায় পৌঁছায়। এতে করে আনোয়ার প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন। আনোয়ার ইব্রাহিম দেশটিতে ইসলাম পন্থী নেতা হিসাবে পরিচিত।

এবারের সংসদ নির্বাচনে আনোয়ার ইব্রাহিমের পাকাতান হারাপান কোয়ালিশন সর্বোচ্চ ৮২টি এবং ইসমাইল ইয়াকোবের বারিসান ন্যাশনাল কোয়ালিশন ৩০টি আসনে জয়ী হয়। অন্যদিকে রক্ষণশীল মুহিদ্দিন ইয়াসিনের পেরিকাতান ন্যাশনাল ব্লক ৭৩টি আসনে জয় পায়। সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে হলে সংসদের ২২২টি আসনের মধ্যে অন্তত ১১২টি আসনে জয় পেতে হবে। যা কোনো দলই পায়নি।

সেই চীনা বেলুন ভূপাতিত করল যুক্তরাষ্ট্র



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

চীনের কথিত গুপ্তচর বেলুন ভূপাতিত করেছে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী। দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছে, আটলান্টিক মহাসাগহরের ওপরে থাকা এই বেলুন ভূপাতিত করে তারা।

শনিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সামরিক বাহিনী অভিযান পরিচালনা করায় উত্তর ও দক্ষিণ ক্যারোলিনার উপকূলে তিনটি বিমানবন্দর এবং আকাশসীমা বন্ধ করে দেওয়া হয়।

বার্তা সংস্থা এপি’র ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, একটি ছোট বিস্ফোরণের পর বেলুনটি সমুদ্রে পড়ে গেছে।

গত সপ্তাহে দেশটির আকাশসীমায় বেলুনটির উপস্থিত লক্ষ্য হওয়ার পর থেকেই তা নামানোর জন্য চাপের মধ্যে ছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের আকাশে দেখা যাওয়া চীনা বেলুনটি একটি ওয়েদার ডিভাইস বলে দাবি চীনের। নিজেদের কক্ষপথ থেকে বিচ্যুত হওয়ার কারণেই এটি যুক্তরাষ্ট্রের আকাশসীমায় ঢুকে পড়েছে বলে শুক্রবার এক বিবৃতিতে জানায় চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের আকাশসীমায় প্রবেশ সম্পর্কিত অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার জন্য ও দুঃখও প্রকাশ করে মন্ত্রণালয়।

তবে মার্কিন সামরিক বাহিনীর কর্মকর্তারা মনে করেন, এটি বেশি উঁচুতে বেড়াতে সক্ষম একটি গোয়েন্দা উপকরণ।

;

বেলুন বিতর্কে ব্লিঙ্কেনের চীন সফর স্থগিত



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আকাশে নজরদারি বেলুনের জেরে চীন সফত স্থগিত করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন। খবর বিবিসির।

ব্লিঙ্কেনের সফরটি ছিল গুরুত্বপূর্ণ। ওই সফরে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠকের কথা ছিল ব্লিঙ্কেনের ।

চীন সফরের মাত্র এক সপ্তাহ আগে আমেরিকার আকাশে নজরদারি বেলুনটি শনাক্ত হয়। এতে কড়া প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছে বাইডেন প্রশাসন।

তবে, চীন দুঃখ প্রকাশ করে বলেছে, বেসামরিক এই বেলুনটি আবহাওয়া পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছিল। প্রবল বাতাস এবং স্টিয়ারিং ক্ষমতার অভাবের কারণে বেলুনটি পরিকল্পিত গতিপথ থেকে অনেক দূরে সরে গেছে।

বেলুনটি আমেরিকার আকাশে চলে যাওয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেছে বেইজিং। চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের আকাশসীমায় বেলুনের অনিচ্ছাকৃত প্রবেশের জন্য অনুতপ্ত চীন। এটি অনাকাঙ্ক্ষিত বাতাসের প্রভাবে উড়ে আমেরিকার আকাশে পৌঁছেছে বলেও দাবি বেইজিংয়ের।

যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের উত্তেজনার মধ্যেই এই ঘটনা ঘটল।

অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন এক বিবৃতিতে বলেছেন, আমাদের ভূখণ্ডে চীনা বেলুন উড়ানো সার্বভৌমত্বের লঙ্ঘন। এটি অগ্রহণযোগ্য ও দায়িত্বজ্ঞানহীন পদক্ষেপ, তিনি বলেন। দীর্ঘ-পরিকল্পিত সফরের প্রাক্কালে এটি আরও দায়িত্বজ্ঞানহীন বলে জানান তিনি।

নিরাপত্তা, তাইওয়ান এবং কোভিড -১৯ সহ বিস্তৃত বিষয়ে আলোচনার জন্য আমেরিকার শীর্ষ কূটনীতিক ৫ থেকে ৬ ফেব্রুয়ারি বেইজিং সফর করার কথা ছিল।

;

যুক্তরাষ্ট্রের আকাশে কথিত গুপ্তচর বেলুনটি আবহাওয়া যন্ত্র: চীন



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

যুক্তরাষ্ট্রের আকাশে কথিত গুপ্তচর বেলুনটি আসলে আবহাওয়া গবেষণার জন্য ব্যবহৃত একটি ‘বেসামরিক এয়ারশিপ’ বলে জানিয়েছে চীন।

শুক্রবার (৩ ফেব্রুয়ারি) বেইজিংয়ের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে একথা জানিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মার্কিন আকাশে এয়ারশিপটি অনিচ্ছাকৃত প্রবেশের জন্য তারা অনুতপ্ত। আরও বলা হয়, অপ্রত্যাশিতভাবে প্রবেশ করা বেলুনটি চীন সঠিকভাবে পরিচালনার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রাখবে।

চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, প্রবল বাতাস এবং স্টিয়ারিং ক্ষমতার অভাবের কারণে বেলুনটি পরিকল্পিত গতিপথ থেকে অনেক দূরে সরে গেছে। চীন থেকে প্রায় ৬ হাজার মাইল দূরে যুক্তরাষ্ট্রের মন্টানার বিলিংস শহরে বেলুনটি দেখা গেছে।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্র সন্দেহ প্রকাশ করে বলেছে, এটি চীনা নজরদারি বেলুন এবং এর গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। সম্প্রতি এই বেলুন স্পর্শকাতর স্থাপনার ওপর দিয়ে উড়তে দেখা গেছে।

মার্কিন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা বলেছেন , তারা নিশ্চিত অনেক বেশি ওপর দিয়ে উড়ে যাওয়া এই নজরদারি বেলুনটি চীনের। এটি সম্প্রতি পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য মন্টানার আকাশে দেখা গেছে।

কিন্তু সামরিক নেতারা একে গুলি করে ভূপাতিত করার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন এটির ধ্বংসাবশেষ পড়ার ঝুঁকি নিয়ে উদ্বেগ থাকার কারণে।

মার্কিন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বুধবার মন্টানার বিলিংস শহরের আকাশে দেখা যাওয়ার আগে এটি আলাস্কার অ্যালেউটিয়ান দ্বীপপুঞ্জ এবং কানাডার মধ্য দিয়ে উড়ে এসেছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন ঊর্ধ্বতন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা বলেছেন,সরকার এফ-২২ এর মতো ফাইটার জেট তৈরি রেখেছে এই ভেবে যে যদি হোয়াইট হাউস এটিকে গুলি করে ভূপাতিত করার নির্দেশ দেয়।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন এবং মার্কিন জয়েন্ট চিফস অফ স্টাফের চেয়ারম্যান জেনারেল মার্ক মিলিসহ শীর্ষ সামরিক নেতারা বুধবার হুমকি মূল্যায়ন করতে বৈঠক করেছেন।

;

৮০ বছর পর আবার জার্মান ট্যাংকের মুখোমুখি হচ্ছি আমরা: পুতিন



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, ৮০ বছর পর রাশিয়া আমরা আবারও জার্মানির ট্যাংকের মুখোমুখি হচ্ছি।

বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) স্তালিনগ্রাদ যুদ্ধ শেষের ৮০তম বার্ষিকী উপলক্ষে দেওয়া ভাষণে এমন কথা বলেন তিনি। খবর বিবিসির।

এখন থেকে ৮০ বছর আগে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের স্তালিনগ্রাদ শহরে জার্মান নাৎসি সেনাদের বিরুদ্ধে লড়েছিলেন সোভিয়েত সেনারা। এটি স্তালিনগ্রাদ যুদ্ধ নামে পরিচিত। ওই যুদ্ধে প্রায় ৯১ হাজার জার্মান সেনাকে আটক করেছিল সোভিয়েত বাহিনী।

ইউক্রেনে লেপার্ড ট্যাংক পাঠানোর জার্মানির সিদ্ধান্তের কথা উল্লেখ করে তিনি দাবি করেন ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি ঘটছে।

তিনি বলেন, এটা অবিশ্বাস্য হলেও সত্য। আমাদের আবার জার্মান লেপার্ড ট্যাংকের দ্বারা হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

যুদ্ধে শুরু থেকেই ইউক্রেনকে তার ভূখণ্ড রক্ষায় সমরাস্ত্র দিয়ে সহায়তা করে আসছে পশ্চিমা মিত্র দেশগুলো। এরই মধ্যে সম্প্রতি বেশ কয়েকটি দেশ ইউক্রেনকে অত্যাধুনিক ট্যাংক দিতে রাজি হয়েছে। তার মধ্যে জার্মানি অন্যতম। ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীকে নিজেদের তৈরি লেপার্ড ট্যাংক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বার্লিন।

ভাষণের একপর্যায়ে আবারও পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের ইঙ্গিত দিয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, যারা যুদ্ধের ময়দানে রাশিয়াকে হারানোর আশা করছে, তারা হয়তো জানে না, রাশিয়ার সঙ্গে আধুনিক যুগের যুদ্ধ তাদের জন্য অনেক ভিন্ন হবে।

৭০ বছর বয়সী এই রুশ নেতা বলেন, আমরা আমাদের ট্যাংকগুলো তাদের সীমান্তে পাঠাচ্ছি না। তবে জবাব দেওয়ার জন্য আমাদের হাতে আরও উপায় আছে। আমরা শুধু সাঁজোয়া যুদ্ধাস্ত্রগুলো ব্যবহারের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকব না। এটা সবার বোঝা উচিত।

পুতিনের এই বক্তব্য সম্পর্কে সাংবাদিকেরা জানতে চেয়েছিলেন ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বিস্তারিত কিছু বলেননি। তবে তিনি বলেছেন, পশ্চিমা দেশগুলো যেহেতু একত্রিত হয়ে ইউক্রেনকে নতুন নতুন অস্ত্র দিচ্ছে, তাই এর জবাবে রাশিয়া নিজেদের শক্তিশালী অস্ত্রগুলোর সর্বোচ্চ কাজে করবে।

;