আলু চাষীদের নিয়ে সরকারি বিজ্ঞাপনে নিথর



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
মূকাকু খ্যাত শিল্পী নিথর মাহবুব ও আফ্রিদি রুসা

মূকাকু খ্যাত শিল্পী নিথর মাহবুব ও আফ্রিদি রুসা

  • Font increase
  • Font Decrease

অতিরিক্ত দাম বৃদ্ধির কারণে গত বছর সবজির মধ্যে সবচেয়ে আলোচিত ছিল আলু। তাই এবার বসত বাড়িতে কৃষি বিপণন অধিদপ্তর কর্তৃক নির্মাণকৃত অহিমায়িত মডেল ঘরে আলু সংরক্ষণে কৃষকদের উৎসাহী করছে সরকার। কৃষি বিপণন অধিদপ্তর বলছে, অহিমায়িত মডেল ঘরে ২৫-৩০ মেট্রিক টন আলু সংরক্ষণে কৃষকের সাশ্রয় হবে বছরে প্রায় দেড় লাখ টাকা। তাই আশার আলো দেখছে চাষীরাও।

এসব ঘর নির্মাণের বিষয়ে কোথায় পরামর্শ পাবে, কেন এসব ঘরে আলু সংরক্ষণ করবে এবং কীভাবে সংরক্ষণ করবে যায়; এসবের উপরে নির্মিত একটি ফিলারে মডেল হয়েছেন মূকাকু খ্যাত শিল্পী নিথর মাহবুব ও নতুন প্রজন্মের অভিনেত্রী আফ্রিদি রুসা।

এখানে আরও অভিনয় করেছেন মিলন আকন্দ ও মাটির মামিন। আনোয়ারুল হকের রচনায় এবং ওয়েস্টার্ন মিলনের সার্বিক সহযোগিতায় এটি পরিচালনা করেছেন সঙ্গীত শিল্পী শাইলু শাহ্। কৃষি বিপণন অধিদপ্তরে ফেসবুক পেজে বর্তমানে দেখা যাচ্ছে কাজটি। খুব শীঘ্রই এটি টিভি চ্যানেলে প্রচারে আসবে বলে জানিয়েছেন এর নির্মাতা শাইলু শাহ্। ওয়েস্টার্ন মিলনের সার্বিক সহযোগিতায় এর দৃশ্যধারণ হয়েছে মুন্সিগঞ্জে।

নিথর মাহবুব বলেন, ‘এ দেশে আলু সহজলভ্য এবং অল্প মূল্যের একটি সবজি। দেশের প্রায় প্রতিটি পরিবার সারা বছর এই সবজির উপর নির্ভরশীল। সেই আলু গত বছর আকাশচুম্বী দামে বিক্রি হয়েছে। এটা ছিল গরিবের পেটে লাথি মারার সমান। তাই সচেতনতামূলক এ কাজটি করে খুব ভালো লেগেছে।’

রুশা বলেন, ‘কৃষকদের জন্য কাজটি করতে পেরে আমার খুব ভালো লাগছে। আর কাজটিকে প্রাণবন্ত করতে সহশিল্পী হিসেবে নিথর ভাই আমাকে অনেক সহযোগিতা করেছেন। তবে কাজটি করতে আমাদের অনেক পরিশ্রম গেছে। কখনও মাঠে কখনও রাস্তায় কখনও ঘরের ভিতরে কাজ করেছি।’

   

জ্যাকের হাত ধরে সংসারজীবনে পা রাখলেন মিলি ববি ব্রাউন



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
মিলি ববি ব্রাউন এবং জ্যাক বোঙ্গিওভি

মিলি ববি ব্রাউন এবং জ্যাক বোঙ্গিওভি

  • Font increase
  • Font Decrease

স্ট্রেঞ্জার থিংস খ্যাত জনপ্রিয় অভিনেত্রী মিলি ববি ব্রাইন বিয়ে করেছেন। দীর্ঘ প্রেমিক জ্যাক বোঙ্গিওভির সঙ্গেই গাঁটছড়া বাঁধলেন বিশ বছরের মিলি। ২০২১ সালের জুন মাসে তাদের সম্পর্কের গুঞ্জন ছড়াতে থাকে।  দুই পরিবারের উপস্থিতিতেই শুভ কাজ সম্পন্ন করেছেন নব দম্পতি।   

গণমাধ্যমের সূত্রমতে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে তারা একে অপরের সঙ্গে যুক্ত হন। সেখান থেকেই একে অপরের সঙ্গে পরিচিত হন। এরপর বেশ কিছুদিন ভালো বন্ধু হিসেবে ছিলেন তারা। অবশেষে একে অপরের প্রতি বিশেষ অনুভূতির আঁচ পান এবং সম্পর্কে জড়ান।

নব দম্পতি মিলি-জ্যাক

২০২২ সালে প্রেমের কথা স্বীকার করেন মিলি। তারপর থেকেই বিভিন্ন অনুষ্ঠানে একত্রে হাজির হতেন তারা। ‘স্ট্রেঞ্জার থিংস’ এর ৪র্থ কিস্তির প্রচারণাতেও জ্যাকের হাত ধরে লালগালিচায় উপস্থিত হন তিনি। এমনকি নিউ ইয়র্কের রাস্তায়ও হাত ধরে এই প্রেমিক যুগলকে ঘুরতে দেখা যায়।    

চলতি বছরই আংটিবদল করেন এই দম্পতি। ১১ এপ্রিল একটি সাদা-কালো ছবি ইন্সটাগ্রামে পোস্ট করেন বাগদানের ঘোষণা দিয়েছিলেন ‍মিলি। এক মাস পরেই জীবনের নতুন এক অধ্যায়ে পা বাড়ালেন অভিনেত্রী। খুব কম বয়সেই তার অভিনয় প্রতিভার মাধ্যমে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেন মিলি। ভক্ত মহল থেকে তাকে শুভকামনা জানাচ্ছেন নেটিজেন।    

তথ্যসূত্র: পিপল

;

বাবার ‘পিট’ নাম বাদ দিলেন ব্র্যাড-জোলি কন্যা ভিভিয়েন



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
অ্যাঞ্জেলিনা জোলি, ব্র‌্যাড পিট এবং তাদের সন্তান ভিভিয়ান

অ্যাঞ্জেলিনা জোলি, ব্র‌্যাড পিট এবং তাদের সন্তান ভিভিয়ান

  • Font increase
  • Font Decrease

অ্যাঞ্জেলিনা জোলি এবং ব্র‌্যাড পিটের বিচ্ছেদ হয়েছে বহু আগেই। ১২ বছরের সম্পর্ক এবং সংসারে ৬ টি সন্তানের অভিভাবক হয়েছিলেন একসময়ের জনপ্রিয় এই তারকা দম্পতি। বিচ্ছেদের পর ৫ সন্তানের দায়িত্ব ছিল ব্র‌্যাডের কাছে। তবে জোলির সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হওয়ার পর, বোধ হয় এখন সন্তানদের সাথেও সম্পর্ক আরও খারাপ হচ্ছে হলিউডের এই জনপ্রিয় নায়কের।

ব্র‌্যাড-জোলি দম্পতির কনিষ্ঠ সন্তান ভিভিয়েন ছিলেন বাবার কাছেই। ব্র্যাডের ১৫ বছর বয়সের কন্যাও অবশেষে তার নামের শেষ অংশ থেকে ‘পিট’ বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এখন তার অফিশিয়াল নাম ভিভিয়ান জোলি। এর আগে এই দম্পতির আরও ২ সন্তান নাম থেকে পিটের অস্তিস্ব মুছে ফেলেছিলেন, ভিভিয়েন এই তালিকায় ৩য়। এর আগে জাহারা এবং শিলো তাদের নামের শেষ অংশে বাবার নামের অংশ সরিয়ে মায়ের নামের অংশ বসিয়েছিলেন। 

ব্র‌্যাড-জোলি দম্পতির ৬ সন্তানের মধ্যে ৩ জন সন্তান অ্যাঞ্জেলিনা দত্তক নিয়েছিলেন এবং বাকি ৩ জন সন্তান তিনি নিজে জন্ম দিয়েছিলেন। ২০২১ সালে আদালত থেকে ৬ সন্তানের মধ্যে ৫ সন্তানেই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল ব্র‌্যাডের কাছে। বিচ্ছেদের পরও যে তাদের পারিবারিক কলহ মেটেনি এবং আরও বড় মাপের ফাটল দেখা দিচ্ছে, তাই স্পষ্ট হচ্ছে। এমনকি সন্তানরা এখন সরাসরি মিডিয়ার সামনের মায়ের পক্ষপাতিত্ব করতে শুরু করেছে।

২০০৩ সালে ব্র্যাড-জোলির দেখা হয় এক সিনেমার সেটে। সেই থেকেই সম্পর্কে জড়িয়ে যায় তারা, বিয়ে করেন ২০১৪ সালে। ইতোমধ্যে একাধিক হিট ছবিতে একসঙ্গে কাজও করেছেন।

ব্র্যাডের সঙ্গে সম্পর্ক শুরুর আগের থেকেই অ্যাঞ্জেলিনার দত্তক নেওয়া এক সন্তান ছিল। এরপর ২০০৬ সালে তাদের প্রথম সন্তান দুনিয়াতে আসে। বিয়ের ২ বছর পরেই ২০১৬ সালে তারা আলাদা হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। ভক্তদের বেশ পছন্দের জুটি ছিলেন এই দম্পতি। ব্র্যাডের পরকিয়ার সম্পর্কের রেশ ধরেই বিচ্ছেদের কথা ওঠে। অবশেষে ২০১৯ সালে পুরোপুরিভাবে আলাদা হয়ে যান তারা।

;

হাসপাতাল থেকে ঘরে ফিরলেন শাহরুখ



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান

বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান

  • Font increase
  • Font Decrease

একমাত্র কন্যা সুহানা খানের জন্মদিনে বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খানের অসুস্থতার খবর ছড়িয়ে পড়ে। আর তাতেই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে কিং খানের ভক্তরা। অনেকেই সামাজিক মাধ্যমে প্রিয় অভিনেতার দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।

যেনতেন অসুস্থতা ছিল না। একেবারে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল এই সুপারস্টারকে! আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচ শেষে হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।

ভক্তদের জন্য সুখবর। হাতপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন তাদের প্রিয় তারকা। একটু সুস্থ হতেই মুম্বাই নিজের ঘরে ফিরলেন শাহরুখ। গতকাল (২৩ মে) হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন শাহরুখ।  সেদিনই আহমেদাবাদ থেকে মুম্বাইয়ের উদ্দেশে রওনা হন তিনি। ঠিক তখনই পাপারাজ্জিদের ক্যামেরায় লেন্সবন্দি হন তিনি।

তবে ভক্তরা তাকে এক ঝলক দেখার জন্য যতই অপেক্ষা করে বসে থাকুক না কেন, বাদশার দেখা পেতে এখন যে বেশ ধৈর্য ধরতে হবে সেটা তিনি বুঝিয়ে দিলেন। এদিন ছাতা দিয়ে মুখ ঢেকে তবেই হাসপাতাল থেকে বের হন শাহরুখ। তবে সেটি কি রোদ না লাগানোর জন্য নাকি ভক্তদের নজর এড়াতে সেটি স্পষ্ট নয়।

ভারতীয় একাধিক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত (২১ মে) নিজের দলের খেলা দেখতে আহমেদাবাদে গিয়েছিলেন কিং খান। সেখানে অসুস্থবোধ করায় শহরের কেডি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। গ্যালারিতে বসে দলের জয় উপভোগ করেন তিনি। একপর্যায়ে প্রচণ্ড গরমে হিটস্ট্রোক হয় তার! পরে তাকে আহমেদাবাদের কেডি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

;

সারাদেশে ফারিণ অভিনীত প্রথম ছবি



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
তাসনিয়া ফারিণ /  ছবি : ফেসবুক

তাসনিয়া ফারিণ / ছবি : ফেসবুক

  • Font increase
  • Font Decrease

আজ বড়পর্দায় নাম লেখালেন সময়ের আলোচিত অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণ। দেশজুড়ে আজ মুক্তি পেয়েছে তার সিনেমা ‘ফাতিমা’। এরইমধ্যে চলচ্চিত্রে অভিনয় করে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পর্যন্ত নিজের ঝুলিতে পুরেছেন ফারিণ (তার প্রথম মুক্তি পাওয়া ছবি কলকাতার নির্মাতা অতনু ঘোষের ‘আরো এক পৃথিবী’র জন্য)।

তবে এই ‘ফাতিমা’ই হলো ফারিণের প্রথম সিনেমা। এই ছবির কাজ যখন তিনি শুরু করেন তখন তিনি আজকের অবস্থানে ছিলেন না। নাটকে অভিনয় করে নিজের একটা পরিচিতি গড়েছেন সবেমাত্র। তখন তাকে খুব একটা চ্যালেঞ্জিং চরিত্রেও দেখা যায়নি সেভাবে। এমনকি ওটিটিতে ফারিণ যে চমৎকার কিছু কাজ করেছেন, সেসবও দেখেনি দর্শক। তার গানের প্রতিভাও তখন বিকশিত হয়নি লোকের কাছে।

‘ফাতিমা’ সিনেমার পোস্টারে ইয়াশ রোহান ও তাসনিয়া ফারিণ

এমন অবস্থাতেই ফারিণকে প্রধাণ চরিত্রে সুযোগ করে দেন নির্মাতা ধ্রুব হাসান। সেটি ২০১৭ সালের কথা। এরপর কেটে গেছে প্রায় ৮ বছর! অবশেষে সেই সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছে দেশের ১০টি প্রেক্ষাগৃহে। সিনেমায় কেন্দ্রীয় চরিত্রে দেখা যাবে ফারিণকে, সঙ্গে আছেন ইয়াশ রোহান এবং সুমিত সেনগুপ্ত। চলতি বছর ইরানের ৪২তম ফজর আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে পুরস্কার পায় ছবিটি।

গত মঙ্গলবার ছিল ছবিটির প্রিমিয়ার শো। যেখানে শোবিজ অঙ্গনের তারকাসহ গণমাধ্যমকর্মীরাও উপস্থিত ছিলেন। সিনেমাটি দেখে প্রশংসা করেছেন সবাই।

অনেকটা সময় পর সিনেমাটি মুক্তি দিতে পেরে আনন্দিত পরিচালক ধ্রুব হাসান। তিনি বার্তা২৪.কমকে জানান, ঢাকার ছয়টি সিনেপ্লেক্সসহ দেশের মোট ১০টি সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। তালিকায় আছে স্টার সিনেপ্লেক্সের বসুন্ধরা সিটি, মিরপুর সনি স্কয়ার, মহাখালীর এসকে টাওয়ার শাখা, কেরানীগঞ্জের লায়ন সিনেমাস, শ্যামলীর শ্যামলী সিনেমা ও যমুনার ব্লকবাস্টার। ঢাকার বাইরে ছবিটি দেখা যাবে নারায়ণগঞ্জের সিনেস্কোপ, চট্টগ্রামের বালি আর্কেড, সিলেটের গ্র্যান্ড সিলেট মুভি থিয়েটার, সিরাজগঞ্জের রুটস সিনে ক্লাব।

‘ফাতিমা’ সিনেমার পোস্টার

‘ফাতিমা’ সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন পান্থ কানাই, তারিক আনাম খান, শাহেদ আলী সুজন। সহযোগী প্রযোজক এবং প্রধান সহকারী পরিচালক হিসেবে আছেন কবির আহমেদ।

;