প্রযোজক জেনিফারের অনুদানের টাকায় শপিং করেছেন!



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
সংবাদ সম্মেলনে মাহি ও রোশন

সংবাদ সম্মেলনে মাহি ও রোশন

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রযোজক জেনিফার ফেরদৌসের সঙ্গে অভিনেত্রী মাহিয়া মাহির ঝামেলা থামবার নাম নিচ্ছে না। প্রযোজকের বিরুদ্ধে এবার একরাশ বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী।

শুধু মাহিই নন, প্রযোজকের আচরণে বিরক্ত চিত্র নায়ক রোশানও। জেনিফার ফেরদৌসের প্রযোজনায় ‘আশীবার্দ’ ছবিতে অভিনয় করেছেন মাহি ও রোশান। গত সপ্তাহেই মাহির বিরুদ্ধে সংবাদমাধ্যমে ক্ষোভ প্রকাশ করেন এ প্রযোজক।

নবীন এই প্রযোজক গণমাধ্যমে কটু মন্তব্য করেন। এতে করে ভীষণ চটেছেন এই দুই তারকা।

বৃহস্পতিবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে জেনিফারের বিরুদ্ধে সরকারি অনুদান হিসাবে প্রাপ্ত টাকা ‘নয় ছয়’-এর অভিযোগ আনলেন মাহি। ৬০ লাখ টাকা সরকারি অনুদান নিয়ে তৈরি হয়েছে ‘আর্শীবাদ’ ছবিটি।

মাহি জানান, জেনিফার ফেরদৌস কোনো পেশাদার প্রযোজক নন। যেহেতু এটা সরকার ও জনগণের টাকার সিনেমা তাই জেনিফার ফেরদৌস এখানে লাইন প্রডিউসার। তাঁকে যে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল উনি বরং সেখান থেকে টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

তিনি বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক ছবি এবং সরকারি অনুদানের ছবি বলেই ‘আশীর্বাদ’ করতে রাজি হয়েছিলাম। আরেকটি কারণ হচ্ছে এই ছবির পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। তার সঙ্গে আমার এতো ভালো বোঝাপড়া যে ১০ লাখের জায়গায় ৫ লাখ টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছি। আমি কিন্তু শুরু থেকে বলে আসছি জেনিফারকে দেখে আমি সিনেমাটি করিনি। কিন্তু জেনিফার শ্যুটিং এমন অপেশাদার আচরণ করবেন ভুলেও ভাবিনি। ছবি করতে গিয়ে যে তিক্ত অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছি গত ১০ বছরের কেরিয়ারে কোনও প্রযোজকের সঙ্গে এমন বাজে অভিজ্ঞতা হয়নি।’

মাহিয়া মাহি জানান, তিনি কাউকে ছোট করে কথা বলছেন না। বাধ্য হয়েই আজ সত্যিটা সামনে আনছেন। খুব স্বপ্ন নিয়ে অনুদানের সিনেমাটি করতে চেয়েছিলাম। ভেবেছিলাম কোনোভাবে যদি প্রধানমন্ত্রী কাজটি দেখেন! ৬০ লাখ টাকায় অনেক ভালো সিনেমা বানানো সম্ভব। কিন্তু আমার অভিজ্ঞতার আলোকে বলছি, সর্বোচ্চ ২৫ লাখ টাকার মতো খরচ করেছেন প্রযোজক। বাকি টাকা প্রযোজক কোথায় খরচ করেছে সরকারের খতিয়ে দেখা উচিত। তার জবাবদিহি করা উচিত। এই টাকা ওনার নয়। সরকারি অনুদান দেওয়া হয় জনগণের ট্যাক্স থেকে।

মাহির অভিযোগ সরকারি অনুদানের টাকায় প্রযোজক জেনিফার ফেরদৌস শপিং করেছেন কিনা খতিয়ে দেখা দরকার।

মাহি আরও বলেন, ‘আমি নাকি ২৫ লিটার পানি দিয়ে গোসল করেছি। ওনার শুটিংয়ে আউটডোরেই তো যাইনি, উনি পানি কি বাসায় পাঠিয়েছিলেন?

সংবাদ সম্মেলনে রোশান বলেন, আমি মাত্র একলাখ টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছি। বলেছি আমার বাকি টাকা সিনেমাটির ভালোর জন্য খরচ করতে। কিন্তু জেনিফার তা করেনি। বরং নিজের মন মতো যা ইচ্ছে তাই করছেন। আমাদের না জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করছেন যাতে তার ব্যক্তিগত প্রচার বাড়ে। আমাকে মিথ্যে অভিযোগ দিয়ে নিজের কাটতি বাড়াচ্ছেন। যা আমি কোনোভাবে আশা করিনি। বাধ্য হয়েই আজ সবাইকে কথাগুলো জানাতে হলো।

রোশান-মাহি ছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে ছিলেন ছবির পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত এই পরিচালক বলেন, প্রযোজক জেনিফার যেসব অভিযোগ তুলেছেন সবটাই অবান্তর। রোশান-মাহি যা বলেছেন একেবারেই ঠিক। তারা দুজনেই ভীষণ পেশাদারিত্বের পরিচয় দিয়েছেন।

শাকিব-বুবলির সন্তান নিয়ে যা বললেন অপু বিশ্বাস!



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বেশ কয়েকদিন ধরেই আলোচনায় রয়েছেন ঢালিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা শাকিব খান ও অভিনেত্রী শবনম বুবলি। শাকিব-বুবলির সন্তান নিয়ে তোলপাড় দেশ। এ প্রসঙ্গে এখনও পর্যন্ত মুখ খোলেননি শাকিব খানের সাবেক স্ত্রী অপু বিশ্বাস।

শাকিব-অপু বিশ্বাসের একমাত্র ছেলে আব্রাম খান জয়ের জন্মদিন বেশ ধুমধাম সহকারে পালন হয়েছে কয়েক দিন আগেই। আর তার পরই এই খবর।

এই মুহূর্তে দুর্গাপূজা উপলক্ষে কলকাতায় রয়েছেন অপু বিশ্বাস। এ বিষয়ে ভারতের আনন্দবাজার অনলাইন তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, অনেকেই তার সঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু কারওই ফোন তুলছেন না তিনি। কারণ, নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কোনও কথাই বলতে চান না।

এর আগে, শাকিবের সঙ্গে বিয়ে নিয়ে মুখ খুলেছিলেন তিনি। বলেছিলেন, শাকিব খানের সঙ্গে এত তাড়াতাড়ি বিয়েটা না হলে ভালো হত। এত দ্রুত বিয়ে, দ্রুত বাচ্চা— সবটাই তাড়াতাড়ি করে ফেলেছি। এটা যদি সময় নিয়ে করতাম, বুঝে করতাম তা হলে ভাল হত। আপাতত ছেলে এবং কাজ নিয়ে চূড়ান্ত ব্যস্ত অভিনেত্রী। খুব শিগগিরি নিজের প্রযোজনা সংস্থার নতুন ছবির কাজ শুরু করবেন অভিনেত্রী।

এদিকে ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে চিত্রনায়িকা রাত্রি বলেছেন, আমার ছেলেটাও শাকিবের মতো হয়েছে। একই রকম, হুবহু একই রকম। হিরোর (শাকিব) যেমন চলাফেরা, কথাবার্তা একদম হুবহু আমার ছেলেটাও ওরকম। আমি ওরে (শাকিব) অনেক ভালোবাসি। মাঝে মধ্যে তার কথা মনে পড়লে রাতে ঘুমাতে পারি না।

তিনি কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেছেন, ভালোবাসা কি জিনিস, একটা পুরুষ সঙ্গী নেই। একা একা একটা সন্তান লালনপালন করছি অনেক কষ্টে। তিনি বলেন, অপুর (অপু বিশ্বাস) কাছে যাওয়ার পরই আমার সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে। আমার মোবাইল নম্বর ব্লক করে দিয়েছে। আমি সত্যিই ওকে ভালোবাসি।

;

প্রকাশ্যে এলো প্রভাসের 'আদিপুরুষের’ ফার্স্ট লুক



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
প্রকাশ্যে এলো প্রভাসের 'আদিপুরুষের’ ফার্স্ট লুক

প্রকাশ্যে এলো প্রভাসের 'আদিপুরুষের’ ফার্স্ট লুক

  • Font increase
  • Font Decrease

অপেক্ষার অবসান। প্রকাশ্যে এল 'আদিপুরুষ' ছবির ফার্স্ট লুক। ফের চমক রাখতে আসছেন ‘বাহুবলী’ খ্যাত প্রভাস। তাঁর আসন্ন বিগ বাজেটের ছবি ‘আদিপুরুষ’। পরিচালনায় ওম রাউত। ছবিতে প্রভাস ছাড়াও অভিনয় করেছেন সইফ আলি খান, কৃতি শ্যানন প্রমুখ।

শুক্রবার নেটমাধ্যমের ‘আদিপুরুষ’-এর ফার্স্ট লুক শেয়ার করেন প্রভাস। ইংরেজি, তামিল, তেলুগু, মালায়লম এবং কানাড়া ভাষায় পোস্টার লুক শেয়ার করেন তিনি। পোস্টারে তীর ধনুক হাতে আকাশের দিকে তাকিয়ে, হাটু গেড়ে মাটিতে বসে থাকতে দেখা গিয়েছে অভিনেতাকে। অনেকেরই ধারণা এই ছবিটি নাকি প্রভাসের কেরিয়ারের সবথেকে বড় ছবি হতে চলেছে।


ছবির ফার্স্ট লুক পোস্টার প্রকাশ করে প্রভাস ক্যাপশনে লিখেছেন, আগামী ২ অক্টোবর সন্ধ্যায় ‘আদিপুরুষ’ ছবির নতুন পোস্টার ও টিজার প্রকাশ করা হবে। ছবিটি তিন ভাগে নির্মিত হচ্ছে। ২০২৩ সালের ১২ জানুয়ারি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে এই ছবি।

এই ছবিতে প্রভাসকে দেখা যাবে রামচন্দ্রের রূপে। সইফকে দেখা যাবে রাবণের চরিত্রে এবং কৃতিকে সীতার চরিত্রে। ছবির শ্যুটিং হয়েছে মুম্বই এবং হায়দরাবাদে। বর্তমানে ছবির পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ চলছে। ভিএফএক্স-এর বড়সড় ভূমিকা রয়েছে ছবিতে। ভূষণ কুমার এবং কৃষাণ কুমারের 'আদিপুরুষ' হল ভারতীয় মহাকাব্যের একটি রূপান্তর।

ছবির জন্য বিশেষ দৈহিক গঠনের দরকার। সেজন্য প্রভাস ও সইফ প্রচণ্ড পরিশ্রম করছেন বলে জানিয়েছিলেন পরিচালক ওম রাউত। হিন্দি, তেলুগু, তামিল, মালায়লম ও কানাড়া ভাষায় মুক্তি পাবে ছবিটি।

;

ছেড়ে যাওয়ার হুমকি গৌরীর, যেভাবে মানাবেন শাহরুখ!



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
শাহরুখকে ছেড়ে যাওয়ার হুমকি গৌরীর, যেভাবে মানাবেন শাহরুখ!

শাহরুখকে ছেড়ে যাওয়ার হুমকি গৌরীর, যেভাবে মানাবেন শাহরুখ!

  • Font increase
  • Font Decrease

শাহরুখ-গৌরী, ১৯৯১ সালে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন। তখন শাহরুখ বলিউডে নিজের পায়ের তলার মাটি শক্ত করছিলেন।

তাঁর মতো পত্নীনিষ্ঠ মানুষ খুঁজলেও পাওয়া যাবে না। নিজেকে এমনটা দাবি করেন শাহরুখ খান স্বয়ং। স্ত্রী গৌরী খানকে ছেড়ে থাকতে পারেন না এক মুহূর্তও। ভালোবাসার মানুষটিকে কেন্দ্র করেই আবর্তিত তাঁর জীবন।

এক সাক্ষাৎতকারে বর্ষীয়ান অভিনেত্রী ফরিদা জালাল একটি প্রশ্ন রেখেছিলেন শাহরুখের কাছে। জানতে চেয়েছিলেন, গৌরী যদি কখনও শাহরুখের প্রতি বিরক্ত হয়ে তাঁকে ছেড়ে চলে যান, অভিনেতা কী করবেন? 'বাদশা' জানিয়েছিলেন, নির্দিষ্ট কোনও এক দিন নয়, গৌরী প্রায় প্রত্যেক সকালেই এমন 'হুমকি' দেন তাঁকে।

শাহরুখের উত্তরে যদিও সন্তুষ্ট ছিলেন না ফরিদা। শাহরুখ তখন বলেছিলেন, 'ওর (গৌরীর) এ রকম কিছু করার কথা ভাবা উচিত নয়। আমি তো পত্নীনিষ্ঠ। কিন্তু তা-ও যদি ও এ রকম করে আমি জামাকাপড় ছিঁড়ে রাস্তায় দাঁড়িয়ে পড়ব। 'ও গোরি গোরি, ও বানকি ছোড়ি' গানটা গাইব। ও ফিরে আসবে।'


১৯৯১ সালে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন শাহরুখ-গৌরী। তখন শাহরুখ বলিউডে নিজের পায়ের তলার মাটি শক্ত করছিলেন। তখন তাঁর নামের পাশে জুড়ে যায়নি 'তারকা' তকমা। স্বামীর জীবনের ওঠাপড়ায় তাঁর পাশে বন্ধু হয়েছিলেন গৌরী। আপাতত তিন সন্তানকে নিয়ে তাঁদের রূপকথার পরিবার।

হাতে গোনা কয়েক মিনিটের জন্য 'ব্রহ্মাস্ত্র'-এ দেখা গিয়েছিল শাহরুখকে। আর তাতেই বাজিমাত 'বাদশা'র। তাঁর চরিত্রটি নিয়ে একটি পূর্ণ দৈর্ঘ্যের ছবি করার অনুরোধ অনুরাগীদের একটি বড় অংশের। পরিচালক অয়ন মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই শাহরুখকে নিয়ে ছবি করার পরিকল্পনা করছেন তিনি।

আগামী বছর মুক্তি পাবে শাহরুখের 'পাঠান'। এ ছাড়াও তাঁর ঝুলিতে আছে 'পাঠান', 'ডানকি'র মতো ছবি।

;

শেহজাদ খান বীর আমার এবং বুবলির সন্তান: শাকিব



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
শেহজাদ খান বীর আমার এবং বুবলীর সন্তান: শাকিব

শেহজাদ খান বীর আমার এবং বুবলীর সন্তান: শাকিব

  • Font increase
  • Font Decrease

শেহজাদ খান বীর তার ও বুবলির সন্তান বলে জানিয়েছেন চিত্রনায়ক শাকিব খান।

শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টায় শাকিব খান তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে ছেলের সঙ্গে ছবি পোস্ট করেছেন তিনি।


তিনি লিখেছেন, আমরা চেয়েছিলাম একটি শুভ দিনক্ষণ দেখে আমাদের সন্তানকে সবার সম্মুখে আনতে। তবে আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন। সেই সুখবরটি জানানোর জন্য আর বেশিদিন অপেক্ষা করতে হয়নি।

তিনি আরও লেখেন, শেহজাদ খান বীর আমার এবং বুবলীর সন্তান, আমাদের ছোট্ট রাজপুত্র। আমার সন্তান আমার গর্ব, আমার শক্তি। আপনাদের সবার কাছে আমাদের সন্তানের জন্য দোয়া কামনা করছি।

প্রথমে বুবলি তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে কয়েকটি ছবি প্রকাশ করে (৩০ সেপ্টেম্বর) একটি স্ট্যাটাসের মাধ্যমে স্বামী শাকিব খান ও ছেলে শেহজাদ খান বীরকে সবার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন।

;