Barta24

সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

ঢাকা ওয়াসাকে দুই ভাগ করার প্রস্তাব

ঢাকা ওয়াসাকে দুই ভাগ করার প্রস্তাব
ছবি: সংগৃহীত
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

সিটি করপোরেশনের মতো এবার ঢাকা ওয়াসাকে দুই ভাগ করার প্রস্তাব দিয়েছে সংসদীয় কমিটি। ঢাকাবাসীকে সুপেয় পানির সরবরাহ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে উত্তর-দক্ষিণ ভাগ করে সেবা বৃদ্ধির প্রস্তাব করেছে সংসদের অনুমিত হিসাব কমিটি।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) সংসদ ভবনে অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত কমিটির বৈঠকে এই প্রস্তাব করা হয়। তবে বৈঠকে ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালককে ডেকেও হাজির করতে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন কমিটির সদস্যরা।

স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতাধীন বেশ কিছু প্রকল্পের অগ্রগতি নিয়ে কমিটিতে অসন্তোষ প্রকাশ করা হয়। আসছে ৩০ জুনের মধ্যে ওইসব প্রকল্পের বাস্তবতা নিয়ে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

স্থানীয় সরকার বিভাগ জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর এবং ঢাকা ওয়াসা কর্তৃক গৃহীত প্রকল্পগুলোর কাজের অগ্রগতি সন্তোষজনক না হওয়া এবং ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক বৈঠকে উপস্থিত না হওয়ায় কমিটি ক্ষোভ প্রকাশ করে।

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতরের আওতাধীন গৃহীত প্রকল্পের বিষয় আগামী দুই মাসের মধ্যে মূল্যায়ন রিপোর্ট প্রদানের জন্য কমিটি সুপারিশ করে।

বৈঠকে জনবহুল ঢাকাবাসীকে সুপেয় পানি সরবরাহ করার জন্য ঢাকা সিটি করপোরেশনের ন্যায় ঢাকা উত্তর ওয়াসা এবং ঢাকা দক্ষিণ ওয়াসা করার ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রণালয়কে কমিটি সুপারিশ করে।

অন্যদিকে ঢাকার বাইরের সিটি করপোরেশনের কোন কর্মকর্তা বৈঠকে উপস্থিত না হওয়ায় কমিটির সদস্যরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তারা কেন উপস্থিত হতে পারেনি তার ব্যাখ্যাসহ আগামী বৈঠকে উপস্থিত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য মন্ত্রণালয়কে কমিটি সুপারিশ করে।

কমিটির সভাপতি মো. আব্দুস শহীদের সভাপতিত্বে কমিটির সদস্য নুর-ই-আলম চৌধুরী, শেখ ফজলে নূর তাপস, আহসান আদেলুর রহমান এবং ওয়াসিকা আয়শা খান বৈঠকে অংশ গ্রহণ করেন।

এছাড়া স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী, বিভিন্ন প্রকল্পের প্রধানগণসহ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :

সংসদে ঈদ জামাত সকাল সাড়ে ৭টায়

সংসদে ঈদ জামাত সকাল সাড়ে ৭টায়
সংসদ ভবন

প্রতি ঈদের মতো এবারও সংসদে ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ১২ আগস্ট ঈদুল আজহার দিন সকাল সাড়ে ৭টায় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় ঈদ জামাত অনুষ্টিত হবে।

যদি বৈরী আবহাওয়া থাকে তাহলে সংসদের টানেলের নিচে জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

সংসদ ভবনের ঈদ জামাত পরিচালনা করবেন জাতীয় সংসদ জামে মসজিদের পেশ ইমাম।

ঈদ জামাতে জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ, অন্যান্য হুইপ, মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, সংসদ-সদস্য ও সংসদ সচিবালয়ের কর্মচারীরা অংশ নেবেন। এছাড়াও সংসদের ঈদের নামাজের জামাত সবার জন্য উন্মুক্ত। জামাতে আগ্রহী মুসল্লিদের অংশ নিতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এমপি হিসেবে শপথ নিলেন সালমা চৌধুরী

এমপি হিসেবে শপথ নিলেন সালমা চৌধুরী
সালমা চৌধুরীকে শপথ বাক্য পাঠ করাচ্ছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চেীধুরী/ ছবি: সংগৃহীত

একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের সদস্য হিসেবে শপথ নিয়েছেন সালমা চৌধুরী রুমা। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ছিলেন। জাতীয় সংসদের আসন-৩৩৪ এবং সংরক্ষিত মহিলা আসন-৩৪ এর সদস্য হিসেবে প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিলেন রাজবাড়ী জেলার এই নারী।

বৃহস্পতিবার (৮ আগস্ট) বিকাল ৩টায় জাতীয় সংসদ ভবনে স্পিকারের কার্যালয়ের তার শপথ বাক্য পাঠ করান স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। সালমা চৌধুরী গত ৪ আগস্ট বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।

গত ৯ জুলাই রুশেমা বেগম মারা গেলে জাতীয় সংসদের ৩৩৪ নম্বর সংরক্ষিত নারী আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। এর প্রেক্ষিতে ১৮ জুলাই আসনটিতে উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় ছিল ২৫ জুলাই পর্যন্ত ও বাছাই ২৮ জুলাই। আর প্রত্যাহারের শেষ সময় ১ আগস্ট এবং ভোট ১৮ আগস্ট।

সাবেক সংসদ সদস্য ও রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি প্রয়াত ওয়াজেদ চৌধুরীর কন্যা সালমা চৌধুরী রুমা। তিনিও জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রী।

সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচন আইন অনুযায়ী, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর প্রাপ্ত আসন অনুসারে দলগুলোর মধ্যে সংরক্ষিত আসন বণ্টন করে দেয় নির্বাচন কমিশন। সে অনুযায়ী ক্ষমতাসীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৪৩টি, জাতীয় পার্টির চারটি, বিএনপির একটি, ওয়ার্কার্স পার্টির একটি এবং স্বতন্ত্ররা একটি আসন পায়।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র