Alexa

ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে গরম চা পানে

ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে গরম চা পানে

ছবি: সংগৃহীত

গরম চায়ের কাপে চুমুক দিয়েই দিনের শুরু হয় অনেকের।

চা মানে ধোঁয়া ওঠা গরম এককাপ পছন্দের গন্ধে ও রঙের সুস্বাদু চা। কিন্তু একেবারেই সাম্প্রতিক সময়ের একটি দীর্ঘ গবেষণার ফলাফল জানাচ্ছে, অতিরিক্ত গরম চা পানে খাদ্যনালীর ক্যান্সারের ঝুঁকি বেড়ে যেতে পারে।

গবেষকেরা তাদের পরীক্ষার ফল থেকে দেখেছেন- যারা ৬০ ডিগ্রী সেলসিয়াস (১৪০ ডিগ্রী ফারেনহাইট) তাপমাত্রার চাইতে বেশি গরম এবং ৭০০ মিলিলিটার (বড় দুই কাপ) এর চাইতে বেশি চা পান করে থাকেন,  তাদের ইসোফাজিল (Esophageal) ক্যান্সার তথা খাদ্যনালীর ক্যান্সার দেখা দেওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায় ৯০ শতাংশ পর্যন্ত, তাদের তুলনায় যারা অপেক্ষাকৃত কম গরম চা পান করেন।

উত্তরপূর্ব ইরানের গোলেস্তান নামক প্রদেশে প্রায় ৫০,০০০ মানুষের উপর এই গবেষণাটি করা হয়।

গবেষক টিমের গবেষকেরা ৫০,০৪৫ জন ৪০-৭৫ বছর বয়সী মানুষের উপর ২০০৪ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত পর্যবেক্ষণ করে দেখেছেন, ৩১৭টি নতুন ইসোফাজিল ক্যান্সারের কেস দেখা দিয়েছে এই সময়ের মাঝে।

ইসোফাজিল হলো লম্বা নালিকা, যা খাদ্য ও তরলকে মুখ থেকে সরাসরি পাকস্থলী পর্যন্ত পৌঁছাতে কাজ করে।

‘অনেকেই চা, কফি অথবা অন্যান্য গরম পানীয় পান করতে ভালোবাসেন। তবে আমাদের রিপোর্টের তথ্য মতে, অতিরিক্ত গরম চা পানের ফলে খাদ্যনালীর ক্যান্সার দেখা দেওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়। যে কারণে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে, চায়ের তাপমাত্রা সহনীয় মাত্রায় আসার পরেই তা পান করা’, এমনটা বলেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যান্সার সোসাইটির মূল গবেষক ডাঃ ফারহাদ ইসলাম।

বর্তমান সময়ে বিশ্বে ইসোফাজিল ক্যান্সার হলো অষ্টম কমন ও প্রচলিত ক্যান্সার। ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি ফর রিসার্চ অন ক্যান্সারের তথ্যানুসারে প্রতি বছর খাদ্যনালীর ক্যান্সারে মৃত্যুবরণ করে প্রায় ৪০০,০০০ জন মানুষ।

মার্কিন যুক্তরাজ্যের হাইজিন এন্ড ট্রপিক্যাল মেডিসিন এর ফার্মাকোএপিডেমিলজি (Pharmacoepidemiology) বিভাগের প্রফেসর স্টিফেন ইভানস এ বিষয়ে জানিয়েছেন, পানীয়ের ধরণের সঙ্গে ক্যান্সারের কোন সম্পর্ক নেই, এখানে পানীয়ের তাপমাত্রাটাই মূল সমস্যা তৈরি করে।

আরও পড়ুন: আঠারোতে নয়, মানুষ প্রাপ্তবয়স্ক হয় তিরিশে!

আরও পড়ুন: পোষা প্রাণির সঙ্গে কথা বলা হয়?

আপনার মতামত লিখুন :