Barta24

বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬

English Version

সময় এখন কমলালেবুর!

সময় এখন কমলালেবুর!
কমলালেবু। ছবি: সংগৃহীত
ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
লাইফস্টাইল


  • Font increase
  • Font Decrease

ফলের দোকানে এখন সবুজ-কমলা কমলালেবুর রাজত্ব।

টক-মিষ্টি মৌসুমি এই ফলটি শুধু খেতেই মজাদার নয়, নানান ধরণের স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে এতে। আবহাওয়া বদলে নিজেকে সুস্থ রাখতে ও স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভাস তৈরি করতে চাইলে কমলালেবুকে অবশ্যই খাদ্য তালিকায় রাখতে হবে।

কমলালেবুর বহু স্বাস্থ্য উপকারিতা থেকে প্রধান কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে জেনে রাখুন।

বৃদ্ধি করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

এই আবহাওয়ায় ফ্লু ও ঠাণ্ডার সমস্যা বেড়ে যায় তুলনামূলক বেশি। অসুস্থ হতে না চাইলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে, এমন খাদ্য উপাদান গ্রহণ করা প্রয়োজন। কমলালেবু সেক্ষেত্রে অনন্য। ভিটামিন-সি তে ভরপুর এই ফলটি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বাড়িয়ে দেয় এবং শরীরের অনাকাঙ্ক্ষিত ইনফেকশন দ্রুত সারাতে সাহায্য করে।

সুস্থ রাখে ত্বককে

ফ্রি-রেডিক্যাল ড্যামেজের ফলে ত্বকে নেতিবাচক প্রভাব দেখা দেওয়ার পাশাপাশি, ত্বকের ক্যান্সারও দেখা দিয়ে থাকে। অ্যান্টি-অক্সিডেন্টে পরিপূর্ণ কমলালেবু ফ্রি-রেডিক্যাল ড্যামেজ থেকে রক্ষা করে।

নিয়ন্ত্রণে রাখে রক্তচাপ

কমলালেবুতে অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের সঙ্গে পাওয়া যায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-বি৬। যা রক্তের হিমোগ্লোবিনের উৎপাদনের মাত্রা কে স্বাভাবিক রাখে। অন্যদিকে ফলটিতে থাকা ম্যাগনেসিয়াম রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Nov/17/1542432868836.jpeg

খারাপ কোলেস্টেরলকে কমায়

আপনি যদি হাই-কোলেস্টেরলের সমস্যার ভুক্তভোগী হয়ে থাকেন, এই পুরো শীতকাল জুড়ে কমলালেবু খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার গবেষক দল পরীক্ষালব্ধ ফলাফল থেকে জানিয়েছে, সাইট্রাস ঘরানার ফলে (লেবু, কমলালেবু, জাম্বুরা) Polymethoxylated Flavones (PMFs) নামক এমন একটি উপাদান থাকে, যা খুব কার্যকরভাবে রক্তের খারাপ কোলেস্টেরলকে কমিয়ে ফেলে।

চোখের জন্য উপকারী

কমলালেবু থেকে প্রচুর পরিমাণে ক্যারোটেনয়েড পাওয়া যায়। এতে থাকা ভিটামিন-এ মিউকাস মেম্ব্রেন্সের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে, যা চোখকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। এছাড়া ভিটামিন-এ বয়সজনিত চোখের সমস্যাকেও দূরে রাখে ভিটামিন-এ।

কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা কমায়

এই ফলটি থেকে দ্রবণীয় ও অদ্রবণীয়- উভয় প্রকারের খাদ্যআঁশ পাওয়া যায়। যা খাদ্য ভালভাবে পরিপাক হতে, পেটের সমস্যাকে কমাতে কাজ করে। বিশেষ করে পরিপাকতন্ত্রের সমস্যা দূর করতে কমলালেবু খুব ভালো কাজ করে।

আরও পড়ুন: আমলকির সঙ্গে হোক শীতের শুরু

আরও পড়ুন: কতটা জানেন কুইনোর স্বাস্থ্যগুণ সম্পর্কে?

আপনার মতামত লিখুন :

ঘরে তৈরি গরম ও মুচমুচে জিলাপি

ঘরে তৈরি গরম ও মুচমুচে জিলাপি
জিলাপি, ছবি: সংগৃহীত

পছন্দের ও পুরনো ঘরানার মিষ্টান্নের মাঝে প্রথমেই মাথায় আসবে জিলাপির কথা।

রসে টইটম্বুর, গরম ও মুচমুচে জিলাপির তুলনা হয় না। অনেকে মিষ্টি ঘরানার খাবার মাঝে শুধু জিলাপি খেতেই পছন্দ করেন।

কিন্তু মনমতো জিলাপি খুঁজে পাওয়াও বেশ ঝক্কির কাজ। খোঁজাখুঁজি বাদ দিয়ে ঘরেই কিন্তু তৈরি করে নেওয়া যাবে গরম গরম জিলাপি। একদম পারফেক্ট ও সুস্বাদু জিলাপি তৈরির জন্য দেখে নিন আজকের রেসিপিটি।

জিলাপি তৈরিতে যা লাগবে

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/26/1561554595535.JPG

১. এক কাপ ময়দা।

২. দেড় টেবিল চামচ কর্ন ফ্লাওয়ার।

৩. দেড় টেবিল চামচ ময়দা।

৪. দুই টেবিল চামচ ঘি।

৫. এক চিমটি লবণ।

৬. এক চা চামচ চিনি।

৭. এক চা চামচ ইস্ট।

৮. এক কাপ পরিমাণ গরম পানি।

৯. কমলা ফুড কালার (ঐচ্ছিক)

চিনির সিরা তৈরিতে যা লাগবে

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/26/1561554614844.JPG

১. দেড় কাপ চিনি।

২. এক কাপ পানি।

৩. তিনটি লবঙ্গ।

৪. দুইটি এলাচ গুঁড়া।

৫. এক চিমটি পরিমাণ জাফরান (ঐচ্ছিক)

জিলাপি যেভাবে তৈরি করতে হবে

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/26/1561554627238.JPG

১. আধা কাপ পরিমাণ গরম পানিতে চিনি ও ইস্ট মিশিয়ে ঢেকে রেখে দিতে হবে।

২. বড় একটি পাত্রে ময়দা, বেসন ও লবণ একসাথে মেশাতে হবে। এতে ঘি মিশিয়ে পুনরায় মেশাতে হবে। এতে ইস্ট মিশ্রিত পানি মিশিয়ে হুইস্ক করতে হবে। এতে গরম পানি মিশিয়ে প্যানকেকের মতো স্মুদ ব্যাটার তৈরি করতে হবে। এতে যদি ফুড কালার যোগ করতে চান তবে এক-দুই ফোঁটা ফুড কালার দিয়ে মিশিয়ে তুলনামূলক উষ্ণ স্থানে গাঁজনের জন্য ২-৩ ঘণ্টা রেখে দিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে, এই সময়টুকুর মাঝে পাত্রটি একেবারেই নাড়াচাড়া করা যাবে না।

৩. ব্যাটারে গাঁজন হয়ে গেলে চিনির সিরা তৈরি করতে হবে। একটি সসপ্যানে চিনি, পানি, লবঙ্গ, এলাচ গুঁড়া ও জাফরান একসাথে মিশিয়ে মাঝারি তাপে ৭-১০ মিনিট জ্বাল দিতে হবে। চিনির সিরা খুব বেশি ঘন ও স্টিকি হবে না।

৪. এবারে জিলাপি ভাজার পালা। সমান্তরাল ফ্রাইং প্যানে পর্যাপ্ত পরিমাণ তেল নিয়ে গরম করে তেলের তাপমাত্রা মাঝারি আঁচে রাখতে হবে। জিপলক ব্যাগে জিলাপির ব্যাটার নিয়ে ব্যাগের এক কোনার অংশ অল্প একটু কেটে নিতে হবে।

৫. তেল সঠিক মাত্রায় গরম হয়ে গেলে তেলের উপরে জিপলক ব্যাগ ধরে ধীরে ধীরে ব্যাগ চাপ দিয়ে ব্যাটার তেলে ছাড়তে হবে। ব্যাটার তেলে ছাড়ার সময় জিপালির মতো গোলাকৃতির প্যাঁচ তৈরি করতে হবে।

৬. প্রতিটি জিলাপি ভাজা হতে বড়জোর ৫-৬ মিনিট সময় লাগবে। জিপালি উজ্জ্বল বাদামী বর্ণ ধারণ করলে তেল থেকে তুলে সরাসরি চিনির সিরাতে দিয়ে দিতে হবে।

চিনির সিরায় মিনিট দুয়েক ভিজিয়ে উঠিয়ে নিয়ে গরম গরম পরিবেশন করতে হবে।

আরও পড়ুন: মিষ্টি মুখে আমের রসগোল্লা

আরও পড়ুন: দশ মিনিটে বাদামের স্বাদে কুলফি মালাই

বাস্তবেই রয়েছে কল্পনার ‘জর্স’

বাস্তবেই রয়েছে কল্পনার ‘জর্স’
জর্স, ছবি: ক্যারিনা মেইওয়াল্ড

ছোটবেলায় কল্পনার জগতে ঘোড়া ও জেব্রার মিশেলে হাইব্রিড ও কাল্পনিক এক প্রাণীর কথা ভেবে আনন্দ পেতাম আমরা অনেকেই।

ইউনিকর্নের মতোই এমন ধরণের প্রাণী শুধু কল্পনার জগতেই বন্দী থাকবে, এমন ধারণা বদ্ধমূল হয়ে যাওয়াটাই স্বাভাবিক।

কিন্তু পুরো বিশ্বকে চমকে দিয়েছে ঘোড়া ও জেব্রার হাইব্রিডে জন্ম নেওয়া, অবাক করে দেওয়ার মতো প্রাণী ‘জর্স’। জেব্রা ও হর্স এর মিশেলে রাখা হয়েছে এই প্রাণীটির নাম।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/26/1561546232830.jpg

জার্মানির ঘোড়া বিষয়ক ফটোগ্রাফার ক্যারিনা মেইওয়াল্ডের ক্যামেরায় ধরা পরে জর্সের উপস্থিতি। তার তোলা ছবিগুলো প্রকাশিত হওয়ার পর পুরো ইন্টারনেট জগত অবাক ও বিস্মিত হয়ে পড়েছে।

জেব্রা স্ট্যালিওন ও হর্স মের এর মাঝে হাইব্রিড তথা শংকরের ফলে জন্ম নেয় ছবির জর্স, যার নাম জুরি। প্রায় ছয় বছরের বেশি সময় ধরে ঘোড়াদের ছবি তোলার কাজে সময় ব্যয় করা ক্যারিনা জানান, দেড় বছর বয়সী জুরির ছবি তুলতে গিয়ে সে বুঝতে পেরেছেন- ঘোড়াদের চাইতে স্বভাবে ও আচরণে অনেকটা ভিন্ন হয়ে থাকে জর্স।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/26/1561546264018.jpg

নতুন এই প্রাণীটির মধ্যে বন্য প্রাণীর সহজাত স্বভাব প্রকট আকারে দেখা যায়। যে কারণে শক্তিশালী এই প্রাণীটির ছবি তলার জন্য ক্যারিনাকে নতুন পদ্ধতি বের করতে হয়েছিল।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/26/1561546289760.jpg

যেখানে ঘোড়া বেশ হালকা চালে থাকার মতো প্রাণী, সেখানে জর্স যেন লড়াই করার জন্য সদা প্রস্তুত। ঘোড়াদের মাঝে আগ্রহভাব কাজ করে। এদিকে জর্স ঠিক তার উল্টো। তারা খুব সহজেই বিরক্ত হয়ে যায়। মূলত এ কারণেই জর্সদের ছবি তোলার বিষয়টি বেশ চ্যালেঞ্জিং ছিল।

আফ্রিকার দুর্গম স্থানগুলোতে ট্রেকিংয়ের মাধ্যমে জিনিসপত্র আনা নেওয়ার কাজের জন্যেই জর্স ব্রিড করা হয়। শক্তিশালী, হালকা খাদ্যাভ্যাসে অভ্যস্ত ও প্রবল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্পন্ন ঘোড়া ও জেব্রার মিশেল জন্ম নেওয়া জর্স চমৎকার একটি প্রাণী।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/26/1561546301758.jpg

ক্যারিনা জানান, আফ্রিকার বাইরে খুব সীমিত কিছু অঞ্চলে জর্সের দেখা পেয়েছেন তিনি। তবে এই ব্রিড খুবই দুর্লভ হওয়ায় এদের দেখা সচরাচর পাওয়াই যায় না।

আরও পড়ুন: কল্পনা নয়, বাস্তবেই মিলবে যে সকল প্রাণীর খোঁজ!

আরও পড়ুন: যে পাখিগুলো কাগজে তৈরি!

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র