Alexa

ভালোবাসার ৪৫ বছর

ভালোবাসার ৪৫ বছর

অনিল কাপুর-সুনিতা কাপুর দম্পতি

৩৫ বছর আগে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তারা। তার আগে ১০ বছর চুটিয়ে প্রেম করেছেন এই দম্পতি। দেখতে দেখতে তারা একসঙ্গে কাটিয়ে দিয়েছেন ৪৫টি বসন্ত। কথা হচ্ছে- বলিউড অভিনেতা অনিল কাপুর ও তার স্ত্রী সুনিতা কাপুরকে নিয়ে।

১৯৮৪ সালের আজকের এই দিনে বিয়ে করেন অনিল-সুনিতা। কিন্তু এই দম্পতির প্রেম, বিয়ে এবং কঠিন সময়ের গল্পটি কী কারও জানা আছে? ৪৫তম বিবাহ বার্ষিকী উপলক্ষে ভক্তদের সঙ্গে পুরাতন দিনের কিছু ভাগাভাগি করে নিলেন অনিল।

কীভাবে সুনিতার প্রেমে পড়েছেন এমন প্রশ্নের জবাবে অনিল বলেন- ‘আমি সুনীতার কণ্ঠের প্রেমে পড়েছি প্রথম। শুরুতে ভাবতাম ঈশ্বর তাকে কতো সুন্দর কণ্ঠই না দিয়েছেন। এছাড়া ও খুব ভালো ইংরেজিও বলতে পারে। রাজ কাপুরের বাসায় তার সঙ্গে আমার প্রথম দেখা হয়। ও দেখতে খুব আকর্ষনীয় ছিলো, আমার ভাষায় যদি বলি তাহলে সেক্সি... এরপর ফোনে আমাদের কথাবার্তা শুরু হয়। এক পর‌্যায়ে আমরা ভালো বন্ধু হয়ে যাই। আর সেই বন্ধুত্ব থেকেই শুরু হয় আমাদের প্রেমের। সে যখন আমার পাশে থাকতো না তখন তাকে ভীষণ মিস করতে শুরু করি। তার সঙ্গে কথা বলার জন্য পাগল হয়ে থাকতাম প্রায়। এমনকী তার সঙ্গে দেখা করার জন্য বাসে অনেক ভ্রমণ করেছি।’

সুনিতাকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়ার আগে কোন বিষয়টি নিয়ে আপনি বেশি ভাবতেন? এর উত্তরে অনিল আরও বলেন- ‘একটা সময় মনে হলো আমি সুনিতাকে এবার আর্থিকভাবে সহযোগিতা করতে পারবো। কিন্তু একদিন ও আমাকে এসে বললো, ‘আমি রান্না ঘরে যেতে পারবো না। তোমার জন্য কোনো রান্না করতে পারবো না।’ সেসময় ভাবতাম আমার বাড়িতে অনেক সার্ভেন্ট থাকবে, একজন শেফ থাকবেন। কেননা আমি পাঞ্জাবী এবং খেতে ভালোবাসি। পাশাপাশি একটি বাড়ির স্বপ্নও দেখতাম। যেখানে আমরা সুখে থাকবো। কারণ আমি যখন ছোট ছিলাম একটি ভাড়া বাড়িতে ছিলাম। এক ঘরের মধ্যে বাবা-মা, ভাই-বোন সবাই মিলে থাকতাম। এসব নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করতাম। কেননা যতো জলদি সম্ভব আমার সবকিছু গুছিয়ে সুনিতাকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে হবে।’

এদিকে, ৪৫তম বিবাহ বার্ষিকীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে ছবি শেয়ার করে একে অপরকে শুভকামনা জানিয়েছেন অনিল-সুনিতা। যেখানে বেশ দারুণ দেখাচ্ছে এই দম্পতি।

আপনার মতামত লিখুন :