Barta24

বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬

English

সত্য ঘটনা নিয়ে ‘মানি হানি’

সত্য ঘটনা নিয়ে ‘মানি হানি’
‘মানি হানি’ ওয়েব সিরিজের পোস্টার
বিনোদন ডেস্ক
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

বর্তমান প্রজন্ম বিনোদনকেও এখন হাতের মুঠোয় রাখতে পছন্দ করে। তাই স্মার্টফোনের মাধ্যমে সর্বদা নজর থাকে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে। রিয়েলিটি শো থেকে অরিজিনালস- এসবই এখন জনপ্রিয়তার শীর্ষে। আর সে কথা মাথায় রেখে এখন বিভিন্ন বিষয়বস্তু নিয়ে নির্মিত হচ্ছে ওয়েব সিরিজ।

এবার ঈদ উপলক্ষে ‘মানি হানি’ নামে একটি নতুন ওয়েব সিরিজ নিয়ে হাজির হতে যাচ্ছে ওয়েব প্লাটফর্ম ‘হইচই’। সম্প্রতি প্রকাশ পেয়েছে সিরিজটির প্রথম পোস্টার। আর তাতেই ব্যাপক সাড়া ফেলছে এটি।

তানিম নূর এবং কৃষ্ণেন্দু চট্টোপাধ্যায়ের যৌথ পরিচালনায় ঘটনাবহুল এই ওয়েব সিরিজে এক শহুরে চরিত্রকে ঘিরে ঘটে চলা বিচিত্র সব ঘটনা উঠে আসবে। ঢাকায় মাত্র পাঁচ বছর আগেই ঘটে যাওয়া এক সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে বলে জানিয়েছেন দুই নির্মাতা।

‘মানি হানি’র গল্প গড়ে উঠেছে ৩২ বছর বয়েসি ডিভোর্সি ও পেশায় শেয়ার ব্যবসায়ী শাহরিয়ার কবিরকে ঘিরে। জীবন তার জুয়া, পার্টি, নারী আর অ্যালকোহলে পূর্ণ। বাকপটুতায় যে কাউকেই নিজের প্রেমের ফাঁদে ফেলতে সক্ষম শাহরিয়ার। রঙিন জীবনের নানা উপকরণ আর শেয়ার বাজারে ব্যবসা থেকে আসা মোটা টাকা আয়, সব মিলিয়েই বেশ জৌলুসেই কাটছিলো তার জীবন। হুট করেই একদিন শেয়ার বাজারে নেমে আসে বড় ধ্স। শেয়ার বাজারে ধসের সাথে সাথে তার জীবনেও নেমে আসে বিপর্যয়।

সিরিজটিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন- শ্যামল মাওলা, মোস্তাফিজুর নূর ইমরান, লুৎফর রহমান জর্জ, সুমন আনোয়ার, নিশাত প্রিয়ম ও নাজিবা বাশার প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :

বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে জিতের ‘প্যান্থার’ ও জয়ার ‘বিনিসুতোয়’

বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে জিতের ‘প্যান্থার’ ও জয়ার ‘বিনিসুতোয়’
‘প্যান্থার’ ও ‘বিনিসুতোয়’ ছবির পোস্টার

সাফটা চুক্তির আওতায় কলকাতার আরও দুটি সিনেমা বাংলাদেশে মুক্তি পেতে যাচ্ছে।

গত ১৫ আগস্ট কলকাতায় মুক্তি পাওয়া জিতের ‘প্যান্থার’ ও মুক্তির অপেক্ষায় থাকা জয়া আহসানের ‘বিনিসুতোয়’ সিনেমা দুটি বাংলাদেশে আমদানি করতে যাচ্ছে প্রযোজনা সংস্থা তিতাস কথা চিত্র। প্রযোজনা সংস্থাটির একটি বিশ্বস্ত সূত্র বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছে।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/21/1566381220725.jpg

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শিগগিরই সিনেমা দুটি বাংলাদেশে মুক্তির জন্য সেন্সর বোর্ডে জমা দেওয়া হবে। প্রথমে মুক্তি পাবে জিতের ‘প্যান্থার’। আর কলকাতার সঙ্গে একইদিনে জয়া আহসানের ‘বিনিসুতোয়’ মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তিতাস কথা চিত্রের। যদিও এখনো সিনেমা দুইটির একটিও সেন্সর বোর্ডে জমা পড়েনি বলে বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে নিশ্চিত করেছে সেন্সর বোর্ডের এক সদস্য।

নতুন সিনেমা আমদানি করা প্রসঙ্গে তিতাস কথা চিত্রের কর্ণধার আবুল কালাম আজাদ বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি সিনেমা দুইটি নিয়ে আসার ব্যাপারে। তবে এখনো আমরা নিশ্চিত নই। রোববার নিশ্চিত করে বলতে পারবো।’

‘প্যান্থার’ জিতের ক্যারিয়ারের ৫০তম সিনেমা। এটি প্রযোজনা করেছে জিৎ ফিল্ম ওয়ার্ক। পরিচালনা করেছেন অংশুমান প্রত্যুষ। এতে জিতের বিপরীতে অভিনয় করবেন শ্রদ্ধা দাস।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/21/1566381236239.jpg

এদিকে জয়া আহসানের ‘বিনিসুতোয়’ পরিচালনা করেছেন অতনু ঘোষ। এতে জয়ার বিপরীতে প্রথমবারের মতো অভিনয় করছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। এর গল্প লিখেছেন অতনু ঘোষ নিজেই। এতে জয়া আহসানের গানও শুনতে পারবেন দর্শকরা।

বাবার নকল

বাবার নকল
জেইন ও শহিদ কাপুর

সম্প্রতি ছেলে জেইনের ছবির সঙ্গে নিজের ছোটবেলার একটি ছবি জোড়া দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন শহিদ কাপুর। যা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গেছে।

শহিদের ছোটবেলার ছবি এবং জেইনের ছবিটি দেখলে প্রথমে বোঝার উপায় নেই এটি আলাদা দু’জন মানুষ।

শেয়ার করা ছবিটির ক্যাপশনে শহিদ কাপুর লিখেছেন- ‘বাবার মতোই ছেলে।’
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/21/1566378889530.jpg

ছবিটির নীচে একজন মন্তব্য করে লিখেছেন, ‘একদম নকল।’ আরেকজন কারিনা কাপুর খান ও সাইফ আলি খানের ছেলে তৈমুর আলি খানের সঙ্গে তুলনা করে লিখেছেন- ‘প্রথম ছবিটি তৈমুর এবং দ্বিতীয়টি তুমি।’

পরিচালক সিদ্ধার্থ মালহোত্রা লিখেছেন, ‘রঙ ছাড়া আর কোন ভিন্নতা খুঁজ পাচ্ছি না আমি।’

সবশেষ ‘কবির সিং’ ছবিতে দেখা গেছে শহিদ কাপুরকে। এতে তার সহশিল্পী হিসেবে ছিলেন কিয়ারা আদভানি। বক্স অফিসে সুপার হিট হয়েছে ছবিটি।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র