Barta24

সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চাইলেন ফেরদৌস

ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চাইলেন ফেরদৌস
ফেরদৌস আহমেদ
বিনোদন ডেস্ক


  • Font increase
  • Font Decrease

অভিনয়ের কাজে ওয়ার্কিং ভিসা নিয়ে ভারতে গিয়ে দেশটির চলমান লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রচারণায় অংশগ্রহণের অভিযোগে বাংলাদেশি অভিনেতা ফেরদৌস আহমেদের ভিসা বাতিল করা হয়। বাংলাদেশ হাইকমিশনের নির্দেশের পর মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দেশে ফিরেছেন ফেরদৌস। এই ঘটনায় দুই বাংলায় তুমুল সমলোচনার মুখে পড়েছেন এই জনপ্রিয় অভিনেতা। বিষয়টি নিয়ে ক’দিন চুপ থাকলেও এবার মুখ খুললেন তিনি। চাইলেন ক্ষমাও।

ক্ষমা চেয়ে ফেরদৌস বলেন- আমি চিত্রনায়ক ফেরদৌস। অভিনয় শিল্প আমার একমাত্র নেশা ও পেশা। অভিনয় শিল্পের মাধ্যমে বাংলা ভাষাভাষী সকলের মধ্যে মেলবন্ধন তৈরিতে সর্বদা কাজ করার চেষ্টা করেছি। আমার ভাবতে ভাল লাগে আমি দুই বাংলায় সমানভাবে জনপ্রিয়। দুই বঙ্গের মানুষের সংস্কৃতি ও জীবনাচারে অনেক সাদৃশ্য রয়েছে। আবার ভারত বহু কৃষ্টি-কালচারের সমন্বয়ে সমৃদ্ধ একটি দেশ। ১৯৭১ সালে আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে প্রতিবেশী দেশ হিসাবে ভারতের অবদান আমরা কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করি। পাশাপাশি ভারতের জনগণের ত্যাগ-তিতিক্ষা আমাদের চিরঋণী করে রেখেছে। পশ্চিমবঙ্গের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের সাথে আমার সম্পর্ক বহুদিনের। এখানের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের অনেক শিল্পী, সাহিত্যিক আমার বন্ধু। যাদের সাথে আমি সবসময়ে হৃদ্যতা অনুভব করি। এজন্য বিভিন্ন সময় কারণে অকারণে আমি এখানে চলে আসি।

ভারতে জাতীয় নির্বাচন হচ্ছে। বিশ্বের সর্ববৃহৎ গণতান্ত্রিক দেশের এই নির্বাচন পূর্বের মতো সারা বিশ্বে সাড়া ফেলেছে। এই সময়ে আমি ভারতে অবস্থান করছিলাম। সকলের মতো আমারও আগ্রহের জায়াগায় ছিল এই নির্বাচন। ফলে ভাবাবাগে তাড়িত হয়ে পশ্চিমবঙ্গের একটি নির্বাচনী প্রচারণায় আমি আমার সহকর্মীদের সাথে অংশগ্রহণ করি। এটা পূর্বপরিকল্পনার কোন অংশ ছিল না। শুধুমাত্র আবেগের বশবর্তী হয়ে আমি অংশগ্রহণ করেছি। কারো প্রতি বিশেষ আনুগত্য প্রদর্শন বা কোন বিশেষ দলের প্রচারণার লক্ষ্যে নয়, আবার কারো প্রতি অসম্মান প্রদর্শন করাও আমার উদ্দেশ্য নয়। ভারতের সকল রাজনৈতিক দল এবং নেতার প্রতি আমার সম্মান রয়েছে। আমি ভারতের আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।

আমি আগেও বলেছি পশ্চিমবঙ্গের মানুষের প্রতি আমার ভালোবাসা অগাধ। সেই ভালোবাসা আমাকে আবেগ তাড়িত করেছে। আমি বুঝতে পেরেছি, আবেগের বশবর্তী হয়ে সহকর্মীদের সাথে এই নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করাটা আমার ভুল ছিল। যেটা থেকে অনেক ভ্রান্তি তৈরি হয়েছে এবং অনেকে ভুলভাবে নিয়েছেন। আমি স্বাধীন বাংলাদেশের একজন নাগরিক। একটি স্বধীন দেশের নাগরিক হিসেবে অন্য একটি দেশের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ কোনভাবেই ঔচিত্য নয়। আমার অনিচ্ছাকৃত ভুলের জন্য আমি ক্ষমা প্রর্থনা করছি। আশা করি, সংশ্লিষ্ট সকলে আমার অনিচ্ছাকৃত ভুলকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।

আপনার মতামত লিখুন :

১০০ কোটির ঘরে হৃতিকের ‘সুপার থার্টি’

১০০ কোটির ঘরে হৃতিকের ‘সুপার থার্টি’
‘সুপার থার্টি’ ছবির দৃশ্য

১৯৯৪ সালে আনন্দ কুমার কেমব্রিজে পড়ার সুযোগ পেয়েছিলেন। শুধু প্লেনের টিকিটের টাকা জোগাড় করতে পারেননি। তাই কেমব্রিজে পড়ার স্বপ্ন সেখানেই ভেঙে যায় তার।

নিজের স্বপ্ন সত্যি হয়নি, তাই অন্যের স্বপ্ন পূরণে নেমে যান আনন্দ কুমার। ২০০২ সাল থেকে আনন্দ নিজের কোচিং সেন্টার চালু করেন। সেখানে প্রতি বছর বিহারের সেরা ৩০ জন গরিব মেধাবী ছাত্র একেবারে বিনা পয়সায় ‘সুপার থার্টি’ প্রজেক্টের অধীনে আইআইটিতে (ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি) ভর্তি পরীক্ষার জন্য কোচিং করার সুযোগ পায়।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/22/1563799936950.jpg

আনন্দ কুমারের জীবনের এই গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে ‘সুপার থার্টি’। গত ১১ জুলাই প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে হৃতিক রোশন অভিনীত ছবিটি। বক্স অফিসে বাজিমাত করে ছবিটি আয় করে নিয়েছে ১০০ কোটি রুপি। এজন্য ছবিটি সময় নিয়েছে মাত্র ১১ দিন।

বিকাশ বহেল পরিচালিত ছবিটিতে হৃতিকের বিপরীতে অভিনয় করেছেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ম্রুণাল ঠাকুর।

যা থাকছে ৮৩ কোটির ‘মাসুদ রানা’য়

যা থাকছে ৮৩ কোটির ‘মাসুদ রানা’য়
মাসুদ রানা

কাজী আনোয়ার হোসেন রহস্য উপন্যাস ‘মাসুদ রানা’ আসছে সিনেমার পর্দায়। এই খবর বেশ পুরাতন হলেও আজ (২২ জুলাই) সিনেমাটি কিভাবে পর্দায় আসছে তা নিয়ে বাংলাদেশি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে বিস্তারিত তথ্য।

জাজ মাল্টিমিডিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ‘মাসুদ রানা’ তৈরি হচ্ছে হলিউড ধাঁচে এবং মুক্তি পাবে বিশ্বব্যাপী। সিনেমাটি বাংলা ও ইংরেজি দুই ভাষায় নির্মিত হবে। বাংলা ভাষায় মুক্তি পাবে বাংলাদেশ ও কলকাতায়।

সারাবিশ্বে এক যোগে ইংরেজি ভাষায় মুক্তি পাবে। পাশাপাশি বাংলাদেশ ও কলকাতার মাল্টিপ্লেক্সগুলোতেও ইংরেজি ভাষায় সিনেমাটি মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটির।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/22/1563788329361.jpgসিনেমাটি প্রথম হলিউডের মুভি হিসেবে একজন মুসলমান স্পাইকে দেখা যাবে মূল চরিত্রে। শুটিং হবে মরিশাস, থাইল্যান্ড ও বাংলাদেশে। সিনেমার বাজেট প্রায় ৮৩ কোটি টাকা।

প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানা গেছে, সিনেমাটিতে মাসুদ রানা ও রূপা চরিত্র দুটিতে অভিনয় করবেন দু’জন বাংলাদেশি। এছাড়া সুলতান চরিত্রে দেখা যাবে বলিউডের প্রথম সারির একজন নায়িকাকে। রাহাত খানের ভূমিকায় অভিনয় থাকবেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একজন অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল। তবে এসব চরিত্রের জন্য এখনো কাউকে চূড়ান্ত করা হয়নি বলে জানিয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া।

এদিকে সিনেমাটিতে অভিনয়ের জন্য এরইমধ্যে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ‘আয়রনম্যান ২’-এর অভিনেতা মিকি রুর্কে। এছাড়া যুক্ত হয়েছেন হলিউডের অভিনেতা গাব্রিল্লা ভ্রম, খালির, ড্যানিয়েল বার্নহার্ড ও মাইকেল প্যারে।

অন্যদিকে সিনেমাটির স্ট্যান্ট ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করবেন হলিউডের ফিল ট্যান, চেজিং দৃশ্যগুলো ধারণের কাজ করবে ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’ সিনেমার একটি দল। এছাড়া সিনেমার চিত্রধারণ করবেন পেটার ফিল্ড। যিনি ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’, ‘জেমসবন্ড’সহ হলিউডের একাধিক সিনেমায় চিত্রগ্রাহকের কাজ করেছেন।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/22/1563788347206.jpg‘ধ্বংস পাহাড়’ গল্পের ‘মাসুদ রানা’র চিত্রনাট্য লিখেছেন নাজিম উদ দৌলা, আবদুল আজিজ ও আসিফ আকবর। তবে চিত্রনাট্যের জন্য আরও কাজ করছে হলিউডের একটি দল। এছাড়া সিআইএ’র প্রাক্তন একজন স্পাই মাসুদ রানার প্রজেক্ট উপদেষ্টা হিসাবে কাজ করেছেন। জাজ মাল্টিমিডিয়ার সাথে সহযোগী প্রযোজক হিসেবে থাকছে আরও তিনটি প্রতিষ্ঠান এবং হলিউডের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সিলভার লাইন।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র