Alexa

আন্তর্জাতিক মুক্তির দিনেই নতুন ‘হেলবয়’ স্টার সিনেপ্লেক্সে

আন্তর্জাতিক মুক্তির দিনেই নতুন ‘হেলবয়’ স্টার সিনেপ্লেক্সে

‘হেলবয়’ ছবির দৃশ্য

ডার্ক হর্স কমিকস চরিত্র হেলবয়কে নিয়ে ২০০৪ ও ২০০৭ সালে দুটি ছবি তৈরি করে সাড়া ফেলেন মেক্সিকান নির্মাতা গুইয়ার্মো দেল তোরো। একযুগ পর আসছে এই সিরিজের তৃতীয় কিস্তি। এবারের ছবির নামও ‘হেলবয়’। আগামী ১২ এপ্রিল বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্সেও মুক্তি পেতে যাচ্ছে এটি।

 

‘হেলবয়’ ও ‘হেলবয়: দ্য গোল্ডেন আর্মি’তে নাম ভূমিকায় ছিলেন রন পার্লম্যান। তবে এবার অভিনয় করেছেন ডেভিড হারবার। বদলেছে পরিচালকও, এই দায়িত্ব এবার সামলেছেন নেইল মার্শাল। মাইক মিগনোলার লেখা ‘ডার্কনেস কলস’, ‘দ্য ওয়াইল্ড হান্ট’ ও ‘দ্য স্ট্রম অ্যান্ড দ্য ফারি’ অবলম্বনে এর চিত্রনাট্য তৈরি হয়েছে।

আন্ডারওয়ার্ল্ডের রানী নিমু চরিত্রে দেখা যাবে হলিউডের বিখ্যাত অভিনেত্রী, মডেল ও গায়িকা মিলা জভোভিচকে। এছাড়াও আছেন ইয়ান ম্যাকশেন, শাশা লেন, থমাস হেডেন চার্চ, ড্যানিয়েল ডেই কিম।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/10/1554902963579.jpg

এবারের ছবিতে স্কটল্যান্ডের বাসিন্দা হিসেবে আবির্ভূত হবে হেলবয়। সেখানে নিমুইয়ের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। এই তরুণী পুরনো অতীতের প্রতারণার প্রতিশোধ নেওয়ার নেশায় মত্ত। তার হাত ধরেই অলৌকিক শক্তির কবল থেকে মানুষকে বাঁচানোর লড়াইয়ে নামে হেলবয়।

নতুন ‘হেলবয়’কে আগের ছবিগুলোর চেয়ে অনেকখানি এগিয়ে রাখছেন বিশ্লেষকরা। চোখধাঁধানো দৃশ্য, গতিময়তা, চরিত্র ও গল্প নির্মাণে নতুনত্ব মিলিয়ে ছবিটিকে বেশ পরিপক্ক হিসেবে দেখছেন তারা।

আপনার মতামত লিখুন :