Barta24

বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬

English

মা ও দাদুর ইচ্ছেপূরণ করতেই চলচ্চিত্রে আসা: আঁচল

মা ও দাদুর ইচ্ছেপূরণ করতেই চলচ্চিত্রে আসা: আঁচল
আঁচল আঁখি/ ছবি: বার্তা২৪
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

প্রায় এক বছর রূপালি পর্দার আড়ালে থাকার পর মিজানুর রহমান মিজান পরিচালিত ‘রাগী’ সিনেমার মধ্য দিয়ে আবার অভিনয়ে ফিরছেন ঢাকাই সিনেমার নায়িকা আঁচল আঁখি। সম্প্রতি এফডিসিতে ছবিটির শুটিং শুরু করেছেন আঁচল।

২০১১ সালে ‘ভুল’ সিনেমার মধ্যে দিয়ে ঢাকাই চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে আঁচলের। এরপর থেকে এক এক করে মোট ১৯টি সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। পাশাপাশি ‘ইন্দুবালা’ নামেও একটি ওয়েবসিরিজে কাজ করেছেন তিনি। সবকিছু নিয়ে বার্তা২৪.কমের সঙ্গে কথা বলেছেন সময়ের আলোচিত এই অভিনেত্রী।

এক বছর রূপালি পর্দার আড়ালে থাকা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ভালো গল্প, পরিচালক, প্রোডাকশন ও চিত্রনাট্যের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। ভালো কিছু না পাওয়ার জন্যই আড়ালে থাকা।

অভিনয় ছাড়া পছন্দের পেশা কী? এমন প্রশ্নের জবাবে আঁচল বলেন- ডিফেন্স থাকলেও মা আর দাদুর ইচ্ছেপূরণ করতে চলচ্চিত্রে আসা। কেননা তারা শুরু থেকেই আমাকে নানাভাবে সহযোগিতা করে আসছেন। ভবিষ্যতে সুযোগ পেলে কেমন চরিত্রে অভিনয় করতে চান আঁচল? দেবদাস,পার্বতী ক্যাটাগরির কিছু চরিত্রে অভিনয় করতে চাই।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/27/1548587243550.jpg

আঁচলের জন্ম খুলনায়। ছোটবেলা থেকেই নাচ করতেন। অষ্টম শ্রেণিতে থাকাকালীন অংশ নেন এসিআই গ্রুপের একটি বিজ্ঞাপনে। এরপর ২০১১ সালে ‘ভুল’ এবং ‘বেইলি রোড; দুটি সিনেমায় একসঙ্গে কাজ করেন।

এছাড়াও বেশ কয়েকটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন, ‘ভালবাসার রংধনু’, ‘প্রেম প্রেম পাগলামি’, ‘কি প্রেম দেখাইলা’, ‘স্বপ্ন যে তুই’, ‘বোঝেনা সে বোঝেনা’, ‘আড়াল’, ‘এপার-ওপার’সহ আরও অনেক চলচ্চিত্রে।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/27/1548587326108.jpg

আপনার মতামত লিখুন :

বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে জিতের ‘প্যান্থার’ ও জয়ার ‘বিনিসুতোয়’

বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে জিতের ‘প্যান্থার’ ও জয়ার ‘বিনিসুতোয়’
‘প্যান্থার’ ও ‘বিনিসুতোয়’ ছবির পোস্টার

সাফটা চুক্তির আওতায় কলকাতার আরও দুটি সিনেমা বাংলাদেশে মুক্তি পেতে যাচ্ছে।

গত ১৫ আগস্ট কলকাতায় মুক্তি পাওয়া জিতের ‘প্যান্থার’ ও মুক্তির অপেক্ষায় থাকা জয়া আহসানের ‘বিনিসুতোয়’ সিনেমা দুটি বাংলাদেশে আমদানি করতে যাচ্ছে প্রযোজনা সংস্থা তিতাস কথা চিত্র। প্রযোজনা সংস্থাটির একটি বিশ্বস্ত সূত্র বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছে।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/21/1566381220725.jpg

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শিগগিরই সিনেমা দুটি বাংলাদেশে মুক্তির জন্য সেন্সর বোর্ডে জমা দেওয়া হবে। প্রথমে মুক্তি পাবে জিতের ‘প্যান্থার’। আর কলকাতার সঙ্গে একইদিনে জয়া আহসানের ‘বিনিসুতোয়’ মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তিতাস কথা চিত্রের। যদিও এখনো সিনেমা দুইটির একটিও সেন্সর বোর্ডে জমা পড়েনি বলে বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে নিশ্চিত করেছে সেন্সর বোর্ডের এক সদস্য।

নতুন সিনেমা আমদানি করা প্রসঙ্গে তিতাস কথা চিত্রের কর্ণধার আবুল কালাম আজাদ বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি সিনেমা দুইটি নিয়ে আসার ব্যাপারে। তবে এখনো আমরা নিশ্চিত নই। রোববার নিশ্চিত করে বলতে পারবো।’

‘প্যান্থার’ জিতের ক্যারিয়ারের ৫০তম সিনেমা। এটি প্রযোজনা করেছে জিৎ ফিল্ম ওয়ার্ক। পরিচালনা করেছেন অংশুমান প্রত্যুষ। এতে জিতের বিপরীতে অভিনয় করবেন শ্রদ্ধা দাস।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/21/1566381236239.jpg

এদিকে জয়া আহসানের ‘বিনিসুতোয়’ পরিচালনা করেছেন অতনু ঘোষ। এতে জয়ার বিপরীতে প্রথমবারের মতো অভিনয় করছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। এর গল্প লিখেছেন অতনু ঘোষ নিজেই। এতে জয়া আহসানের গানও শুনতে পারবেন দর্শকরা।

বাবার নকল

বাবার নকল
জেইন ও শহিদ কাপুর

সম্প্রতি ছেলে জেইনের ছবির সঙ্গে নিজের ছোটবেলার একটি ছবি জোড়া দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন শহিদ কাপুর। যা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গেছে।

শহিদের ছোটবেলার ছবি এবং জেইনের ছবিটি দেখলে প্রথমে বোঝার উপায় নেই এটি আলাদা দু’জন মানুষ।

শেয়ার করা ছবিটির ক্যাপশনে শহিদ কাপুর লিখেছেন- ‘বাবার মতোই ছেলে।’
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/21/1566378889530.jpg

ছবিটির নীচে একজন মন্তব্য করে লিখেছেন, ‘একদম নকল।’ আরেকজন কারিনা কাপুর খান ও সাইফ আলি খানের ছেলে তৈমুর আলি খানের সঙ্গে তুলনা করে লিখেছেন- ‘প্রথম ছবিটি তৈমুর এবং দ্বিতীয়টি তুমি।’

পরিচালক সিদ্ধার্থ মালহোত্রা লিখেছেন, ‘রঙ ছাড়া আর কোন ভিন্নতা খুঁজ পাচ্ছি না আমি।’

সবশেষ ‘কবির সিং’ ছবিতে দেখা গেছে শহিদ কাপুরকে। এতে তার সহশিল্পী হিসেবে ছিলেন কিয়ারা আদভানি। বক্স অফিসে সুপার হিট হয়েছে ছবিটি।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র