Alexa

ইতিহাস ঐতিহ্যের সন্ধানে এলিজা

ইতিহাস ঐতিহ্যের সন্ধানে এলিজা

নীলফামারীতে এলিজা, ছবি: বার্তা২৪

এলিজা বিনতে এলাহি ঢাকা ইউনিভার্সিটি অব সাউথ এশিয়ার ইংরেজি সাহিত্যের সহকারী অধ্যাপক। শখের বশে তিনি ভ্রমণ করেছেন বিশ্বের অনেক দেশ। তবে ভ্রমণের মধ্য দিয়ে একটি দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্যকে অনুসন্ধান করেন তিনি। এ নিয়ে কাজও করছেন। প্রচুর লেখালেখি করেন তিনি। ইতোমধ্যেই তার ভ্রমণ সম্পর্কে ২টি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। বইগুলোর নাম 'এলিজাস ট্রাভেল ডায়েরি' ও 'এলিজার্স ট্রাভেল ডে'।

বিশ্বের ৪৬টি দেশ ভ্রমণের পর এখন নিজ দেশের ইতিহাস প্রত্নতত্ত্ব অনুসন্ধানের মাঠে নেমেছেন এলিজা। দেশের ৬৪টি জেলা ঘুরে দেখার লক্ষ্য নিয়ে কদিন আগে তিনি নেদারল্যান্ড থেকে দেশে ফিরেছেন। ২০১৬ সালেও ঘুরেছেন দেশের আনাচে কানাচে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Dec/17/1545026858749.gif

বিশ্ব পর্যটক এলিজার পৈত্রিক নিবাস জামালপুর জেলায়। এলিজা ১৯৯৯ সালে প্রথম দেশের বাইরে যান। কিন্তু প্রকৃত অর্থে তার দেশ ভ্রমণ শুরু হয়েছে ২০০৯ সাল থেকে। এরপর থেকে অব্যাহত থাকে তার দেশ দেখা।

নীলফামারী জেলার দর্শনীয় স্থানগুলো ঘুরে দেখছেন তিনি। রবিবার (১৬ ডিসেম্বর) বিজয় দিবসে সৈয়দপুর কেন্দ্রীয় স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান তিনি। এরপর পথচলা শুরু দেশের ঐতিহ্যের খোঁজে। সৈয়দপুর শহরের প্রাচীনতম চিনি মসজিদ, রেলওয়ে কারখানা হয়ে নীলফামারী নীলসাগর, নীলকুঠি, নীলসাগর, তিস্তা ব্যারেজ ঘুরে দেখেছেন তিনি।

এ সময় তার শখ সম্পর্কে জানতে চাইলে এলিজা বার্তা২৪.কমকে বলেন, 'ভ্রমণ মানে হচ্ছে বিশ্বের একেক নগরকে খতিয়ে দেখা। যা প্রতিবার নতুন প্রেমের মতো। প্রেমের আবেগ আকৃষ্টতা একেকভাবে খুঁজে পাচ্ছি নানা দেশের নগর ও গ্রামের জনপদে। বিদেশ ভ্রমণের সময় বাংলাদেশের পতাকাকে বহন করি।'

দেশের মুক্তিযুদ্ধ ও ঐতিহ্য সম্পর্কে তিনি বলেন, 'আমি মুক্তিযুদ্ধকে ধারণ করি, বাংলাদেশের ইতিহাস, ঐতিহ্যকে ধারণ করি। ভবিষ্যতে দেশের যুব সমাজের আর্থসামাজিক বিকাশে কাজ করতে চাই। বিদেশের পাশাপাশি আমার দেশটাকেও জানতে চাই। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে যেতে চাই। এরই ধারাবাহিকতায় নীলফামারী আসা।'

আপনার মতামত লিখুন :