Alexa

স্যামসাং ফোল্ডেবল স্মার্টফোনে ত্রুটি

স্যামসাং ফোল্ডেবল স্মার্টফোনে ত্রুটি

ছবি: সংগৃহীত

মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রসে ২০১৯ -এ সবচেয়ে বড় আকর্ষণ ছিল ভাঁজযোগ্য বা ফোল্ডেবল স্মার্টফোনকে ঘিরে। স্যামসাং এবং হুয়াওয়ের ফোল্ডেবল স্মার্টফোনের প্রদর্শনী প্রযুক্তির দুনিয়ায় ঝড় তুলেছে। কিন্তু অভিনব সব ফিচার ছাপিয়েও প্রশ্ন উঠেছিল ফোনের ভাঁজ, ডিসপ্লে এবং এর স্থায়িত্ব নিয়ে।

আর সেই পরীক্ষায় স্যামসাং মনে হয় এবার ফেল করল। কেননা প্রযুক্তি বিষয়ে যারা রিভিউ দেন তারা সেই ফোনের বিভিন্ন ত্রুটিগত দিক নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন পোস্ট এবং ভিডিও প্রকাশ করেছেন। স্যামসাং বলছে, তারা ইতোমধ্যে ডিসপ্লে সমস্যা নিয়ে বেশকিছু রিপোর্ট পেয়েছে গ্রাহকদের কাছ থেকে।

স্যামসাং এই সমস্যাকে ব্যাখ্যা করতে বলছে, মোবাইল রিভিউদাতারা ফোনের স্ক্রিনের একটি আবরণ (ফিল্ম) ছিল যা তারা সাধারণ প্রোটেকটিভ পেপার মনে করে খুলে ফেলাতে এই সমস্যায় পড়েছেন। এর মধ্যে ব্লুমবার্গের মার্ক গুরমান, মার্কুয়েস ব্রাউনলি নামের প্রযুক্তি বিষয়ের এই দুজন প্রতিবেদক স্যামসাং ফোল্ডেবল স্মার্টফোনের বিভিন্ন ত্রুটিগত দিক নিয়ে ব্লগে লিখেছেন।

তবে স্টীভ কোভাচ নামের একজন বলছেন, তিনি এরকম কোনো প্রোটেক্টর স্ক্রিন সরাননি। কিন্তু তারপরেও তার ফোনে ডিসপ্লে সমস্যা দেখা দিচ্ছে।

বিবিসি বলছে, তাদের প্রতিবেদক ক্রিস ফক্স যখন ফোনটির রিভিউ করতে গিয়ে দেখেন স্যামসাং ফোল্ডেবল ফোনটি ভাজ করা হলে এর মাঝখানে একটি গ্যাপ বা ফাকা জায়গা রয়ে যায়।

তিনি বলেন, এই ফাকা জায়গায় যেকোনো ছোট বস্তু ভেতরে ঢুকে গেলে ফোনটির ডিসপ্লেতে যেকোন ধরণের ক্ষতিসাধন হতে পারে। কারণ দিন শেষে আপনি নিশ্চয়ই চাইবেন না ২ হাজার ডলারের স্মার্টফনটিকে নিয়ে খুব অল্পতেই বিপাকে পড়তে না হয়।

এর আগে স্যামসাং থেকে ফোনটির স্থায়িত্ব নিয়ে ক্রেতাদেরকে আশ্বস্ত করতে ফোল্ডেবল ফোনের ২ লাখ বার ভাঁজ খুলে এবং বন্ধ করে পরীক্ষা করা হয়েছে।

সূত্র: বিবিসি

 

আপনার মতামত লিখুন :