Alexa

রিভিউ দেখে পণ্য কিনছেন তো?

রিভিউ দেখে পণ্য কিনছেন তো?

ছবি: সংগৃহীত

বর্তমানে ই-কমার্স বা অনলাইনভিত্তিক প্লাটফর্ম থেকে কেনাকাটা করা একটি জনপ্রিয় সেবা মাধ্যম। আর আমরা প্রায়ই কোনো পণ্য কিনতে গেলে অন্যদের রিভিউ (মতামত) দেখে সিদ্ধান্ত নেই যে, এই পণ্যটি আমি অনলাইন থেকে কিনব কি-না। কিন্তু সেই রিভিউ যদি ভুয়া হয় তাহলে?

হ্যাঁ, এবার এরকমই এক অভিযোগ উঠেছে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় অনলাইনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ‘আমাজন’ -এর বিরুদ্ধে। বিবিসি’র প্রতিবেদনা বলা হয়েছে, ফেইক রিভিউতে ভরে গেছে আমাজনের ওয়েবসাইট।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গ্যাজেটে যেসব ফাইভ স্টার রিভিউগুলো দেওয়া হয়েছে সেখানে রিউভিউ দাতাদের কোনো পরিচয় নেই। মূলত আমাজনের ওয়েব সাইটে এসব পণ্যের অজ্ঞাতভাবে ফাইভ স্টার রিভিউ দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে আমাজন বলছে, অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে এই ফেইক রিভিউগুলো দেওয়া হয়েছে, যা ক্রেতাদের মাঝে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। যেসব সিস্টেম থেকে এই কার্যক্রম চলছে তা ইতোমধ্যে শনাক্ত করা হয়েছে। রিভিউ সেকশনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরো জোরদার করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আমাজনের সাইটে ১২ হাজার রিভিউর মধ্যে ৮৭% রিভিউ হচ্ছে ফেইক রিভিউ। যেখানে তাদের কোনো পরিচয় নেই, যেসব কোম্পানির কথা বলা হচ্ছে, তাদের কোনো প্রাতিষ্ঠানিক পরিচয় নেই।

তাই এখন থেকে এই ফেইক রিভিউয়ের হাত থেকে বাঁচতে কিছু বিষয় আমাদের মাথায় রাখতে হবে। চলুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে ফেইক রিভিউ শনাক্ত করা যাবে-

· শুধু রেটিং দেখেই বিশ্বাস না করা, পুরো রিভিউটি পড়তে হবে।

· রিভিউটি কখন (তারিখ) দেওয়া হয়েছে তা দেখতে হবে। যদি একটি সংক্ষিপ্ত সময়ের মধ্যে অনেক বেশি রিভিউ দেখা যায়, তাহলে বুঝতে হবে অটোমেটেড প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে।

· ফেইক রিভিউ এড়াতে শুধু ‘ভেরিভাইড মার্ক’ করা রিভিউগুলো পড়তে হবে।

· যেকোনো রিভিউ পড়ার সময় তাদের সোর্স কী, তা জানতে হবে।

সূত্র: বিবিসি

আপনার মতামত লিখুন :