Barta24

রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

হেলথ অ্যাপসগুলো থেকে তথ্য চুরির আশঙ্কা

হেলথ অ্যাপসগুলো থেকে তথ্য চুরির আশঙ্কা
ছবি: সংগৃহীত
হাসিবুল হাসান শান্ত


  • Font increase
  • Font Decrease

প্রযুক্তির উন্নয়নের নিত্যপ্রয়োজনীয় ব্যবহারের জিনিসগুলোতে যুক্ত হচ্ছে প্রযুক্তি। ঘড়ি, চশমা কিংবা যুতা সবখানেই থাকছে প্রযুক্তির ছোঁয়া। আর স্মার্টফোনসহ এই স্মার্ট ডিভাইসগুলো তে যুক্ত হচ্ছে হেলথ সার্ভিস। কিন্তু যা থেকে তথ্য চলে যেতে পারে তৃতীয় পক্ষের কাছে। তা কি আমরা ভেবেছি? 

ব্রিটিশ মেডিক্যাল জার্নাল (বিএমজে) এর এক গবেষণায় দেখা যায়, ২৪ টি হেলথ অ্যাপসের এই সকল তথ্য ১৯টি কোম্পানির কাছে চলে যাচ্ছে। যার মধ্যে ফেসবুক, গুগল এবং আমাজান উল্লেখযোগ্য।

গুগল ফিট, স্যামসাং হেলথ এবং অ্যাপেলের স্মার্ট ইসিজি ঘড়ি ইত্যাদিতে একজন ব্যবহারকারীর যাবতীয় স্বাস্থ্য তথ্য সংরক্ষিত হতে থাকে। যা চুরি হয়ে যাওয়া, কিংবা তৃতীয় পক্ষের কাছে চলের যাওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।

এতে বলা হয়, ব্যবহারকারীদেরকে সহজেই তাদের অ্যান্ড্রয়েড ফোনের তথ্যগুলো একত্রিত করে সনাক্ত করা যাবে। এই সকল তথ্য সংগ্রহ করে প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের টার্গেট অ্যাডভার্টাইজিং কার্যক্রমের জন্য ব্যবহার করতে পারে।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়য়ের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক বলেন, এই পর্যন্ত এইরক কোন কাজ দেখা যায় নি কিন্তু গবেষণায় তা দেখানো হয়েছে কিভাবে এইসব তথ্য কোম্পানিদের স্বার্থে ব্যবহার হতে পারে।

তবে এইসকল কোম্পানিগুলো দাবি করছে যে তারা কারো ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করছে না।

আপনার মতামত লিখুন :

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে ফেসবুকের গ্রুপ চ্যাট সেবা

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে ফেসবুকের গ্রুপ চ্যাট সেবা
ছবি: সংগৃহীত

বন্ধুদের সাথে ঘুরতে যাবার পরিকল্পনা বা আড্ডা, কিংবা অফিসে সহকর্মীদের মাঝে যোগাযোগ সহজ করতে গ্রুপ চ্যাটের জনপ্রিয়তা ছিল তুঙ্গে। এখন সেই সেবাকে ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তার খাতিরে বন্ধ করতে যাচ্ছে ফেসবুক।

শনিবার (১৭ আগস্ট) কমিউনিটি লিডারশিপ সার্কেল ফ্রম ফেসবুক-এ প্রকাশিত এক পোস্টে উল্লেখ করা হয়, আগামী ২২ আগস্ট থেকে বন্ধ করে দেয়া হবে গ্রুপ ফিচার। এর ফলে তখন থেকে শুধু গ্রুপের পূর্বের চ্যাটগুলো পড়া যাবে।

পোস্টে আরও জানানো হয়, বর্তমানে ফেসবুকের যে কাঠামো তৈরি করা হয়েছে, তার সাথে গ্রুপ চ্যাট ফিচারটি যায় না বলে ফেসবুক এই সুবিধাটি বন্ধ করে দিতে যাচ্ছে। এছাড়াও ফেসবুক তার ব্যবহারকারীদের তথ্যের সুরক্ষা দিতেও বদ্ধ পরিকর।

তবে ফ্রেন্ডলিস্টে না থাকা বন্ধুদের সাথে গ্রুপ চ্যাট করা না গেলেও, ফ্রেন্ডলিস্টে থাকা বন্ধুদের সাথে গ্রুপ চ্যাট করা যাবে। তবে সেবার ধরণটি কী হতে পারে তা নিয়ে এখনই মুখ খুলছে না ফেসবুক।

কৃষক ইউটিউবারের আয় ৪ হাজার মার্কিন ডলার!

কৃষক ইউটিউবারের আয় ৪ হাজার মার্কিন ডলার!
দার্শান সিং, ছবি: সংগৃহীত

ভারতের দার্শান সিং নামের একজন ইউটিউবার তার চ্যানেলে কৃষি কাজের প্রয়োজনীয় তথ্য এবং বিভিন্ন টিপস দিয়ে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।

তার ভিডিওর মূল বিষয় হচ্ছে কৃষি সংক্রান্ত ভিডিও তৈরি করা। যদিও তিনি আদতে নন তবে অনেকেই তাকে এখন কৃষক ইউটিউবার বলেন। তার ভিডিওতে কৃষি কাজে কৃষকদের জন্য প্রয়োজনীয় বিষয়গুলোকে কেন্দ্র করে ভিডিও বানান।

দার্শান সিং বলেন, ‘ইউটিউব থেকে ব্যাপক অনেক সাড়া পেয়েছি। এখন যেখানেই যাই সবাই আমাকে কিভাবে যেন চিনে ফেলে। প্রায় সব জায়গাতেই মানুষের সঙ্গে দেখা হয় পরিচিত হই। নতুন নতুন মানুষের সঙ্গে পরিচিত হতে ভালোই লাগে।'

তিনি জানান, তার মূল লক্ষ্যই হচ্ছে এমন সব প্রয়োজনীয় তথ্য খুঁজে বের করতে যা কৃষকরা আগে জানতেন না। সেসব তথ্যকে কৃষকদের জন্য সহজভাবে তাদের কাছে তুলে ধরা।

তার ভিডিওর মধ্যে রয়েছে- কিভাবে একটি দুগ্ধ খামারের কার্যক্রম শুরু করবেন, কিভাবে জমিতে বীজ বপন করবেন, কিভাবে গবাদি পশুদের পরিচর্যা করেবন ইত্যাদি।
এছাড়া তিনি কৃষি কাজে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি নিয়েও রিভিউ করেন। কোন যন্ত্রটি কিভাবে ব্যবহৃত হবে, কি কি সুবিধা-অসুবিধা আছে সেগুলো কৃষকদের জানার স্বার্থে ভিডিওর মাধ্যমে তুলে ধরেন।

দার্শান জানান, শুরুর দিকে কোনো কোম্পানি তাকে পণ্য রিভিউর জন্য সুযোগ দিত না। কিন্তু যখন তার ভিডিওতে লাখ লাখ ভিউ হতে শুরু করে তখন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে তাদের পণ্য রিভিউ করার জন্য।

গুরতান সিং নামের একজন কৃষক জানান, তিনি ইউটিউবে দার্শানের গবাদি পশু পালন বিষয়ের ভিডিও গুলো দেখে উপকৃত হয়েছেন। যা তাকে ছোট গবাদি পশু লালন-পালন সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য সম্পর্কে জানতে সাহায্য করেছে।

কনটেন্ট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘মানুষ যখন আমাকে জিজ্ঞেস করে কিভাবে ভিডিওতে বেশি ভিউ পাওয়া যাবে, কিভাবে সাবস্ক্রাইবার বাড়াবো ইত্যাদি। কিন্তু আমি তাদের উদ্দেশে বলব, যদি আপনার কনটেন্ট ভাল হয় তাহলে মানুষ অবশ্যই দেখবে।’

দার্শানের ইউটিউবের চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা ২০ লাখ। আর ইউটিউব চ্যানেল থেকে মাসে তিনি ৪০০০ মার্কিন ডলার আয় করেন। এখন তিনি একজন ফুল টাইম ইউটিউবার।

আরও পড়ুন: খাবার খেয়েই মাসে যার আয় কোটি টাকা

সূত্র: বিবিসি

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র