Barta24

মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬

English

বগুড়ায় কোরবানির বর্জ্য অপসারণে ধীরগতি

বগুড়ায় কোরবানির বর্জ্য অপসারণে ধীরগতি
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম।
গনেশ দাস
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
বগুড়া


  • Font increase
  • Font Decrease

বগুড়া শহরে কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ করা হচ্ছে ধীরগতিতে। শহরের অলিগতিতে যত্রতত্র পশুর বর্জ ঘণ্টার পর ঘণ্টা পরে থাকলেও পৌরসভার পরিচ্ছন্ন কর্মীরা তা অপসারণ করছেন না।

পৌর কর্তৃপক্ষ ঈদের দিন তাদের নিজস্ব আড়াইশ পরিচ্ছন্ন কর্মীকে মাঠে নামাতে পারেনি। মহল্লা ভিত্তিক সংগঠন সিবিও কর্মীরা ঈদের দিন সকাল থেকে বাড়ি বাড়ি গিয়ে বর্জ্য সংগ্রহ করে নির্দিষ্ট স্থানে রাখেন। এরপর ২৪ ঘণ্টা পার হলেও বর্জ্য সেখানেই পরে থাকতে দেখা গেছে।

অবশ্য পৌর মেয়রের দাবি ঈদের দিন থেকেই তাদের পরিছন্ন কর্মীরা কাজ করছেন এবং মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) সন্ধ্যার আগেই শহরের সকল বর্জ্য অপসারণ সম্ভব হবে। কিন্তু বাস্তব চিত্র ভিন্ন।

মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত শহরের ৪০ ভাগ বর্জ্য অপসারণ করতে পারেননি পরিচ্ছন্ন কর্মীরা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/13/1565697609818.jpg

শহরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, সড়কের পাশে কোরবানির পশুর বর্জ্য ছড়িয়ে ছিটিয়ে রাখা হয়েছে। অনেকে আবার পৌরসভার ড্রেনের মধ্যে গরুর বর্জ্য ফেলে রাখায় পানি চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। শহরের অভিজাত এলাকা জলেশ্বরীতলার অবস্থা আরও খারাপ। সড়কের যেখানে সেখানে গরুর হাড়, ছাগলের চামড়া ফেলে রাখা হয়েছে। কাক এবং কুকুর সেগুলো ছিটিয়ে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে।

এছাড়াও শহরের স্টেশন রোড, শেরপুর রোড, চেলোপাড়া, নাটাই পাড়া, কাটনারপাড়া, ঠনঠনিয়াসহ প্রতিটি ওয়ার্ডে কোরবানির পশুর বর্জ্যের দুর্গন্ধে পরিবেশ দূষিত হয়ে উঠেছে। তাই লোকজন নাকে রুমাল দিয়ে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছেন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/13/1565697629478.jpg

শহরের জলেশ্বরীতলা এলাকার মহল্লা ভিত্তিক সংগঠন সিবিও কর্মী বাহার উদ্দিন বলেন, ‘আমরা ঈদের দিন থেকেই বাড়ি বাড়ি গিয়ে বর্জ্য সংগ্রহ করছি। কিন্তু পৌরসভার পরিচ্ছন্ন কর্মীরা ঈদের দিন কেউ কাজে আসেননি।’

তবে বগুড়া পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান জানান, পৌরসভার নিজস্ব আড়াইশ পরিচ্ছন্ন কর্মী বর্জ্য অপসারণে কাজ করছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যার আগেই সকল বর্জ্য অপসারণ সম্ভব হবে।

তিনি আরও জানান, ২১টি ওয়ার্ডের জন্য যে পরিমাণ জনবল প্রয়োজন তা নেই। এছাড়াও ট্রাক প্রয়োজন ২১টি, সেখানে রয়েছে ৩টি। আরও ১৪টি ট্রাক ভাড়া নিয়ে বর্জ্য অপসারণের কাজ চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ৮৮জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ৮৮জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত
চুয়াডাঙ্গা মানচিত্র, ছবি: সংগৃহীত

চুয়াডাঙ্গায় ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। ঈদের ছুটিতে ডেঙ্গু রোগীর চাপ কমলেও আবারও হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীর চাপ বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত ৩২ ঘণ্টায় হাসপাতালে নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন ১১ জন। চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের জন্য খোলা হয়েছে আলাদা ৩টি ডেঙ্গু কর্নার।

সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার শামীম কবীর জানান রোগীরা রাজধানী ঢাকা থেকে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে। সদর হাসপাতালে গত মাসের ২৭ জুলাই থেকে চলতি সপ্তাহের মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) পর্যন্ত ৮৮ জন ডেঙ্গু রোগীকে শনাক্ত করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। অনেক ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী এরই মাঝে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

আক্রান্ত রোগীদের জন্য হাসপাতালে পর্যাপ্ত চিকিৎসার ব্যবস্থা রয়েছে বলেও জানান হাসপাতালের সিভিল সার্জন এ এস এম মারুফ হাসান।

সিরাজগঞ্জে বাসচাপায় নিহত ১, আহত ৬

সিরাজগঞ্জে বাসচাপায় নিহত ১, আহত ৬
সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেওয়া হতাহতদের

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিমপাড় মহাসড়কের সিরাজগঞ্জের নলকায় বাসচাপায় ওয়াজেদ আলী (৪৫) নামে এক ভ্যানযাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও ৬ জন আহত হন।

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতদের সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিস্ট বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ সহিদ আলম জানান, ঢাকা থেকে রংপুরগ্রামী একটি বাস ইটবাহী একটি ট্রাককে ধাক্কা দিলে ট্রাকটি একটি ভ্যানকে চাপা দেয়।

এতে ভ্যানের চালকসহ ৭ জন আহত হন। হাসপাতালে নেওয়ার পর ওয়াজেদ আলী নামে এক ব্যক্তি মারা যান।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র