Barta24

বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯, ৯ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

শিবগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

শিবগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ
হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা, ছবি: বার্তা২৪.কম
ডিস্ট্রিক করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
চাঁপাইনবাবগঞ্জ


  • Font increase
  • Font Decrease

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে সরকারি মডেল হাই স্কুলের শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (১৮ জুন) দুপুরে হাসপাতালের মূল ফটকে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ করে তারা।

বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা জানান, সোমবার (১৭ জুন) সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হন একই স্কুলের সাবেক শিক্ষার্থী সান ও আল আমিন। তাদেরকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। কিন্তু চিকিৎসা না দিয়েই তাদেরকে রাজশাহী মেডিকেলে স্থানান্তর করেন। পরে রাজশাহী যাওয়ার পথেই সানের মৃত্যু হয়।

শিবগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

শিক্ষার্থীদের দাবি, হাসপাতালের অব্যবস্থাপনার খবরে তারা এক সপ্তাহ ধরে তথ্য সংগ্রহ করছেন। সেখানে চিকিৎসকদের অবহেলা, ঔষধ সঙ্কট, অ্যাম্বুলেন্সের অতিরিক্ত ভাড়া আদায়, টয়লেট নোংরা, জেনারেটর নষ্টসহ বিভিন্ন অনিয়মের চিত্র দেখতে পান।

অনিয়ম দূর করতে ও সেবার মান বাড়াতে তারা বিক্ষোভ করেন। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আক্তার হোসেনের কাছে হাসপাতালের বিভিন্ন অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনার চিত্র তুলে ধরে শিক্ষার্থীরা। তিনি শিক্ষার্থীদের অভিযোগগুলো আমলে নিয়ে এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন।

আপনার মতামত লিখুন :

বগুড়ায় ছেলে ধরা গুজব ছড়ানোর অভিযোগে আটক ৩

বগুড়ায় ছেলে ধরা গুজব ছড়ানোর অভিযোগে আটক ৩
ছবি: সংগৃহীত

স্ত্রী-সন্তানকে ভরণপোষণ না দিয়ে শ্বশুর বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছে ভ্যান চালক স্বামী রিবুল হোসেন। শ্বশুর সিফার ফকির অন্ধ মানুষ। ভিক্ষা করে নিজের সংসার চালান।

এরমধ্যে মেয়ে শিরিন ও তার দুই বছরের সন্তান চেপেছে তার ঘাড়ে। রিবুল স্ত্রী-সন্তানের ভরণ পোষণ না দিলেও মাঝে মধ্যে সন্তানকে দেখতে আসেন শ্বশুর বাড়িতে।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) সন্ধ্যার আগে রিবুল হোসেন অটো ভ্যান নিয়ে যাত্রীর জন্য অপেক্ষা করছিলেন সারিয়াকান্দি থানার পার্শ্বে কাঁঠাল তলা এলাকায়। এ সময় পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন তার শ্বশুর শাশুড়ি, স্ত্রী ও সন্তান। রিবুল তাদেরকে থামিয়ে সন্তানকে কোলে নেন। এক পর্যায় সন্তানকে নিজের বাড়িতে নিয়ে যেতে চাইলে তারা আপত্তি করেন।

এ নিয়ে বাকবিতণ্ডা শুরু হলে ছেলে ধরা বলে চিৎকার দেয় রিবুলের স্ত্রী শিরিন। মুহূর্তের মধ্যে স্থানীয় লোকজন ঘেরাও করে রিবুলকে। গণপিটুনি শুরুর আগেই রিবুল দৌড়ে আশ্রয় নেন সারিয়াকান্দি থানায়। পরে পুলিশ রিবুলের কাছে বিস্তারিত জানার পর আটক করে তিনজনকে।

আটককৃতরা হলেন- রিবুলের শ্বশুর সিফার ফকির (৫০), শাশুড়ি বিউটি বেগম (৪০) এবং স্ত্রী শিরিন আকতার (২০)।

সারিয়াকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, 'পারিবারিক ঝামেলা নিয়ে ছেলে ধরা গুজব ছড়ানোর অভিযোগে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।'

ঘরে ঢুকে শিক্ষিকাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

ঘরে ঢুকে শিক্ষিকাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা
ছবি: সংগৃহীত

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নে মুঞ্জুয়ারা বেগম (৪৫) নামের এক স্কুল শিক্ষিকাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) রাত সাড়ে ১১টার দিকে নাজিরপুর ইউনিয়নের গোপিনাথপুরে নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মঞ্জুয়ারা বৃ-কাশো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ছিলেন।

গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাহারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে তিনি জানান, মঙ্গলবার রাতে শিক্ষিকা মুঞ্জুয়ারা নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। এ সময় দুর্বৃত্তরা তার ঘরে প্রবেশ করে তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তার চিৎকার শুনে এগিয়ে এলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

ওসি আরও জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনার মোটিভ ও হত্যাকারী শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র