Barta24

সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯, ৬ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

ঈদের জামা কিনতে ইলিশ ধরার চেষ্টায় শিশুরা

ঈদের জামা কিনতে ইলিশ ধরার চেষ্টায় শিশুরা
ইলিশ ধরে সেগুলো বিক্রি করে ঈদের জামা কিনতে জাল নিয়ে উপকূলে নেমেছে এ শিশুরা/ ছবি: বার্তা২৪.কম
হাসান মাহমুদ শাকিল
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
লক্ষ্মীপুর


  • Font increase
  • Font Decrease

সারাদেশে ঈদের জামা-কাপড় কেনায় ব্যস্ত সময় পার করছে বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ। কিন্তু মেঘনা নদীর পাড়ের জেলেরা নতুন জামা কাপড় কেনার কথা চিন্তাও করতে পারছেন না। এ ভাবনা তাদের জন্য দুঃস্বপ্নের মতো মনে হচ্ছে। কারণ নদীতে কাঙিক্ষত ইলিশ না পাওয়ায় তাদের উপার্জনও নেই।

এদিকে বাবা-মা নতুন জামা কিনে দিতে না পারায় জাল হাতে বের হয়ে পড়েছে জেলে পল্লীর শিশুরাও। তাদের লক্ষ্য হচ্ছে ইলিশ ধরে হাটে বিক্রি করবে। পরে সেই টাকা দিয়ে ঈদের জন্য নতুন জামা কিনবে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/02/1559476747233.jpg

প্রায় ২০ ফুটের একটি জাল নিয়ে নদীর তীরে দেখা যায় জেলে পল্লীর শিশু মাহবুব (১১), সুমন (৮) ও সালাউদ্দিনকে (৮)। জানতে চাইলে তারা বার্তা২৪.কম-কে তাদের মনের অভিব্যক্তিটি জানায়। লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার মেঘনার তীরের চরকালকিনি গ্রামে তাদের বাড়ি।

সরেজমিনে দেখা যায়, নদীর পাড়ে জালে রশি লাগিয়ে ইলিশ শিকারের প্রস্তুতি নিচ্ছে শিশুরা। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই তারা জাল নিয়ে নেমে পড়ে নদীতে। ইলিশ ধরার জন্য নদীতে পেতে দেয় ঐ জাল। এ সময় তপ্ত রোধে নদীর ঠাণ্ডা পানিতে দুষ্টুমি আর আনন্দে মেতে উঠে তারা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/02/1559476771050.jpg

অন্যদিকে নদীর কিনারায় ইলিশ খুব কমই আসে। ইলিশ পাবে কিনা তা নিয়েও তারা দুঃশ্চিন্তায় রয়েছে। তবে তাদের আশা, তাদের জালে ধরা পড়বে ইলিশ। আর সেই ইলিশ বিক্রি করে তারা নতুন জামা কিনবে।

জানা গেছে, মেঘনায় মাছ শিকার করে লক্ষ্মীপুরের প্রায় ৬২ হাজার জেলের সংসার চলে। কিন্তু গত এক মাস নদীতে ইলিশ না পাওয়ায় উপার্জন নেই অধিকাংশ জেলের। এই কারণে ঈদ আসলেও নতুন জামা কিনে দিতে পারেননি ছেলেমেয়েদের। এখন বাধ্য হয়েই নদীর কিনারায় জাল ফেলে ইলিশ ধরার চেষ্টায় ব্যস্ত জেলে পল্লীর শিশুরা। নদীতে কাঙিক্ষত ইলিশ ধরা না পড়ায় ঘাটেও এর দাম বেশি। একেক কেজি ইলিশ ৮০০ থেকে ৯০০ টাকায় কিনতে হচ্ছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/02/1559476798224.jpg

জেলে শিশু মাহবুব বলে, ‘আব্বা এক মাস হয়ছে মাছ ধরে না। বাড়িতে মাছও আনে না। ধার-দেনা করে আমাদের সংসার চলে। নতুন জামা কিনে দিতে বললে আব্বা বলছে, টাকা নাই এখন দিতে পারবে না। নদীতে গেলে পরে কিনে দেবে। কিন্তু ঈদের দিন আমার নতুন জামা লাগবে। তাই নদীতে মাছ ধরতে এসেছি।’

আপনার মতামত লিখুন :

আমিনবাজারে ব্রিজ থেকে পড়ে গেছে যাত্রীবাহী ট্যাক্সি

আমিনবাজারে ব্রিজ থেকে পড়ে গেছে যাত্রীবাহী ট্যাক্সি
ঘটনাস্থল

রাজধানীর সাভারের আমিনবাজার এলাকায় ব্রিজ থেকে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি ট্যাক্সি ক্যাব নদীতে পড়ে গেছে বলে জানা গেছে।

রোববার (২১ জুলাই) রাত ৮টার দিকে আমিনবাজারের সালেহপুর ব্রিজে ট্যাক্সি ক্যাবটি পড়ে যায় বলে স্থানীয়দের উদ্ধৃতি দিয়ে সাভার থানা পুলিশ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

এ বিষয়ে সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এএফএম সায়েদ জানান, ট্যাক্সি ক্যাবটি উদ্ধার করতে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট কাজ করছে।

তিনি বলেন, 'স্থানীয়দের মুখে এ বিষয়ে শুনেছি, কিন্তু বিষয়টি নিয়ে আমরা এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি। ট্যাক্সি ক্যাবে চালক ছাড়া যাত্রী ছিল কি না তাও জানা যায়নি।'

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বুধল বাজারে ভিগো'র বৃহত্তম শাখার উদ্বোধন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বুধল বাজারে ভিগো'র বৃহত্তম শাখার উদ্বোধন
ছবি: সংগৃহীত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সদর থানার বুধল বাজারে উদ্বোধন হলো ইলেকট্রনিক্স হোম অ্যাপ্লায়েন্সের ব্র্যান্ড ভিগো'র এক্সক্লুসিভ শাখা, শো রুম মেসার্স মাহদী এন্টারপ্রাইজ।

রোববার (২১ জুলাই) বিকেল ৫টায় উৎসবমুখর পরিবেশে শান্তির প্রতীক পায়রা, বেলুন উড়িয়ে ও লাল ফিতা কেটে শো রুমটির উদ্বোধন করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া এই শাখাটি ভিগো ইলেকট্রনিক্স এক্সক্লুসিভের ৫৬তম শাখা। শাখাটি ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার ভিগো'র দ্বিতীয় বৃহত্তর শাখা। এ শাখা থেকে জেলার বিভিন্ন স্থানে পণ্য সরবরাহ করা হবে। নতুন শাখার উদ্বোধন উপলক্ষে মাহদী এন্টারপ্রাইজ দিচ্ছে বিশেষ অফার- ফ্রিজ, এসি, টিভি সহ সকল পণ্যে ১০% ছাড়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অপস্থিত ছিলেন- আরএফএল এক্সক্লুসিভ শো রুমের সহকারী জেনারেল ম্যানেজার কে এম সামসুজ্জামান, মেসার্স মাহদী এন্টারপ্রাইজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মনিরুল ইসলাম মনির, ভিগো এক্সক্লুসিভ শো রুম আরএফএলের সেলস এক্সকিউটিভ মো. মনজুর হোসেন মজুমদার, বীরমুক্তিযুদ্ধা মো. জিল্লুর রহমান, শফিক মাষ্টার এবং আলমগীর মাষ্টার প্রমুখ।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র