Barta24

মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

বৃদ্ধা মাকে মারধর করেন সাবেক ব্যাংকার ছেলে

বৃদ্ধা মাকে মারধর করেন সাবেক ব্যাংকার ছেলে
শেফালী রায়। । ছবি: বার্তা২৪.কম
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
নড়াইল


  • Font increase
  • Font Decrease

নড়াইলের লোহাগড়া পৌর এলাকার পোদ্দারপাড়া গ্রামের মৃত চিত্ত রঞ্জন রায়ের স্ত্রী শেফালী রায়। এই বৃদ্ধা তার স্বামীর রেখে যাওয়া ভিটাতেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করতে চান। কিন্তু তার সন্তানরা চায় না বৃদ্ধ মা তাদের সঙ্গে থাকুক।

শেফালী রায়ের ২ ছেলে ও ৪ মেয়ে রয়েছে। বড় ছেলে শংকর রায় কৃষি ব্যাংকের ব্যবস্থাপক ছিলেন। অপর ছেলে বিশ্বনাথ রায় যশোরের ঢাকা রোডে মোটর পার্টস ব্যবসায়ী। তিনি স্ত্রী কৃষ্ণা রায় ও সন্তানদের নিয়ে যশোরে বাসা ভাড়া করে বসবাস করেন। মায়ের তেমন একটা দেখভাল করেন না তিনি।

আর শংকর রায় বাবার রেখে যাওয়া প্রায় অর্ধকোটি টাকার ভিটা জমির ওপর দ্বিতল ভবনে স্ত্রী সন্তান নিয়ে বসবাস করে আসছেন। মেয়ে মিনতী সাহা, কনিকা সাহা, মনিকা সাহা ও ছবি রাণী সাহার ভালো ঘরে বিয়ে হয়েছে।

সকলেই স্বামী-সন্তানদের নিয়ে ভালো থাকলেও বৃদ্ধা মায়ের দায়িত্ব নিতে চান না কেউই। গতকাল মঙ্গলবার (২৮ মে) বড় ছেলে শংকর রায় মাকে বাড়ি থেকে বের করে দেন। নিরুপায় হয়ে ওই বৃদ্ধা মা স্থানীয় একটি মন্দিরে আশ্রয় নেন। রাত ১১টা বেজে গেলেও সন্তানরা তার খোঁজ নিতে আসে না। পরে মধ্যরাতে সাংবাদিকদের উপস্থিতির খবর পেয়ে মাকে ফিরিয়ে নিতে আসে শংকর রায়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/29/1559109115463.jpg

বৃদ্ধা শেফালী রায় অভিযোগ করে বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘ছেলে ও ছেলের বৌ আমাকে সব সময় মারধর করে। ঠিকমতো খেতে দেয় না। ইচ্ছা ছিল স্বামীর ভিটায় বাকি জীবন কাটাব। কিন্তু তারা আমাকে সোমবার (২৭ মে) রাতে বাড়ি থেকে বের হয়ে যেতে বলে। তা না হলে মেরে ফেলবে। তাই মঙ্গলবার (২৮ মে) প্রাণ ভয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে এসেছি। সকাল থেকে কেউ আমাকে দেখতে আসেনি। আমি আমার স্বামীর ভিটায় ফিরে যেতে চাই।’

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয়রা অভিযোগ করে জানায়, বৃদ্ধা শেফালী রায় প্রতিদিন তার ছেলে ও ছেলের বউয়ের করা নির্যাতন সহ্য করেন।

সাংবাদিকদের উপস্থিতির খবর পেয়ে মাকে নিতে এসে ছেলে শংকর রায় বলেন, ‘মা রাগ করে বাড়ি থেকে বের হয়ে এসেছে। আমি মাকে বাড়িতে ফিরিয়ে নিতে এসেছি।’

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোকাররম হোসেন বলেন, ‘ঘটনাটি আমি জানি না।’

আপনার মতামত লিখুন :

শপথ নিলেন নাজিম উদ্দিন

শপথ নিলেন নাজিম উদ্দিন
শপথ গ্রহণ করেন নাজিম উদ্দিন, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

ময়মনসিংহের গৌরীপুর পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে উপনির্বাচনে জয়ী নাজিম উদ্দিন শপথ গ্রহণ করেছেন।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) দুপুরে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে স্থানীয় পাবলিক হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি শপথ গ্রহণ করেন। শপথ বাক্য পাঠ করান ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার মাহমুদ হাসান।

শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন খান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারহানা করিম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিয়াদ হাসান গৌরব, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল রানা, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডা. হেলাল উদ্দিন, গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুল ইসলাম মিয়া প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গৌরীপুর পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ছিলেন মোফাজ্জল হোসেন খান। চলতি বছরের ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিত গৌরীপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে অংশগ্রহণ করতে কাউন্সিলর পদ থেকে পদত্যাগ করেন তিনি। এতে ৭ নাম্বার ওয়ার্ডটি শূন্য হয়। ওই উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে নাজিম উদ্দিন আহমেদ পাঞ্জাবি প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হন।

দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত
ছবি: সংগৃহীত

দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হয়েছেন চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলার দারিন্দা রসুলপুর গ্রামের জিয়াউর রহমান।

সোমবার (২২ জুলাই) রাতে বেশ কয়েকজন সন্ত্রাসী তাকে তিনটি গুলি করে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ ১২ বছর যাবত জিয়াউর রহমান দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্যবসা করে আসছেন। দেশে আসার পর গত ১ মাস পূর্বে তিনি আবারও দক্ষিণ আফ্রিকায় যান। ঘটনার দিন রাত ১০টায় স্ত্রী তানজিনার সঙ্গে মোবাইলে কথাও হয়।

স্ত্রী তানজিনা বলেন, ‘আমার স্বামীর কোনো শত্রু নাই। সে পার্টনারে ওই দেশে ব্যবসা করে। সন্ত্রাসীরা কোনো কিছু না বলে দোকানে এসে তাকে গুলি করে। আমার স্বামীর মরদেহ বাংলাদেশে আনার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করছি। আমি ও আমার মেয়ে তার মুখখানা শেষবারের মতো দেখতে চাই।’

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র