Barta24

বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬

English Version

পাকা ধান নিয়ে চিন্তার ভাঁজ কৃষকের কপালে

পাকা ধান নিয়ে চিন্তার ভাঁজ কৃষকের কপালে
ধানের আটিঁ নিয়ে বাড়ি ফিরছে কৃষক। ছবি: বার্তা২৪.কম
মাসুদুর রহমান
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
গোপালগঞ্জ


  • Font increase
  • Font Decrease

গোপালগঞ্জে বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। তবে দাম কম হওয়ায় হাসি নেই কৃষকের মুখে। তাছাড়া ধান কাটার জন্য এ বছর রয়েছে শ্রমিক সংকট। ফলে সোনার ফসল নিয়ে বিপাকে পড়েছে কৃষকরা।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরে গোপালগঞ্জে ৭৭ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো ধানের আবাদ করা হয়েছে। জেলার অধিকাংশ জমির ধান পেকে গেলেও শ্রমিক সংকট এবং তাপদাহের কারণে ধান কাটা সম্ভব হচ্ছে না। তবে ফলন ভালো হলেও কম দামে বিক্রি হচ্ছে কৃষকদের কষ্টার্জিত ধান।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/23/1558595940569.jpg

জেলার বিভিন্ন অঞ্চলের কৃষকরা জানান, এ বছর প্রতি বিঘা জমিতে ৪০-৫০ মণ ধান হয়েছে। কিন্তু বাজারে এখন ধানের দাম উৎপাদন খরচের থেকেও কম। তাছাড়া আগে গোপালগঞ্জে ধান কাটার মৌসুমে বাগেরহাট, ফরিদপুর, যশোর, সাতক্ষীরাসহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে শ্রমিকরা আসতেন এবং ধানের বিনিময়ে কাজ করতেন। কিন্তু ধানের স্বল্পমূল্যের কারণে অন্য জেলার শ্রমিকরা এ বছর আসেননি। সব মিলিয়ে পাকা ধান নিয়ে কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে কৃষকদের।

গোপালগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) হরলাল মধু বলেন, ‘আমাদের পরামর্শ নিয়ে অধিকাংশ কৃষকরা এ বছর ব্রি-২৮ জাতের ধান চাষ করেছেন। এবার ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে।’

ধান কাটা প্রসঙ্গে তিনি জানান, বর্তমানে মিনি কম্বাইন্ড হারভেস্টার মেশিন বাজারে এসেছে। যা কৃষকরা সমিতির মাধ্যমে কিনতে পারেন। এতে শ্রমিক সংকটের যে সমস্যা, তা দূর হবে।

আপনার মতামত লিখুন :

বগুড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুইজন নিহত

বগুড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুইজন নিহত
নিহত দুই ব্যক্তি, ছবি: সংগৃহীত

বগুড়ার দুপচাঁচিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুইজন ইলেক্ট্রিশিয়ান নিহত হয়েছেন।

বুধবার (২৬ জুন) সন্ধ্যা ৭টার দিকে দুপচাঁচিয়া উপজেলার মোস্তফাপুর বাজার এলাকায় এঘটনা ঘটে।

নিহতরা হচ্ছেন মোস্তফাপুর গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে আমিনুর রহমান (৩৮) ও একই এলাকার আব্দুল মান্নানের ছেলে ইয়াছিন আলী (২৮)।

জানাগেছে, দুপচাঁচিয়া উপজেলার বড়কোল গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে এনামুলের বাসায় বৈদ্যুতিক মিটার স্থানান্তর করতে গিয়ে পল্লী বিদ্যুতের তারের সঙ্গে জড়িয়ে দুইজন গুরুতর আহত হয়। স্থানীরা তাদের উদ্ধার করে দুপচাঁচিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

দুপচাঁচিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। যার বাড়িতে কাজ করতে গিয়ে দুর্ঘটনা ঘটেছে তিনি পলাতক রয়েছেন।’

বগুড়া পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি  উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) মনোয়ারুল  ইসলাম বার্তা ২৪.কমকে বলেন, ‘নিহত দুইজন পল্লীবিদ্যুতের কর্মী না। তারা কী কাজ করতে গিয়ে মারা গেছেন সে বিষয়ে তার জানা নেই।’

সাতক্ষীরায় পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগে ১১ লাখ টাকাসহ আটক ২

সাতক্ষীরায় পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগে ১১ লাখ টাকাসহ আটক ২
সাতক্ষীরা জেলার মানচিত্র, ছবি: সংগৃহীত

ঘুষ দিয়ে পুলিশ কনস্টেবল পদে নিয়োগ লাভের চেষ্টা করার সময় সাতক্ষীরায় দুজনকে আটক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ জুন) রাতে অর্থ লেনদেনের সময় গোয়েন্দা পুলিশের একটি বিশেষ টিম ১১ লাখ টাকাসহ তাদের আটক করে। আটককৃতরা হলেন সাতক্ষীরা বল্লী এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে আসাদুজ্জামান, (ব্যবসায়ী) নারায়নপুর এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (পরীক্ষার্থী)।

সাতক্ষীরা সদরের বকচরা এলাকার মৎস্য অফিসের সামনে থেকে তাদের আটক করেছে বলে জানায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। 

পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমান জানান, পুলিশের নিয়োগ অনিয়মে সাতক্ষীরা জেলার সকলস্থানে মাইকিংসহ বিভিন্নভাবে জনসাধারণকে অবহিত করা হয়েছে। তার ধারাবাহিকতায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে অবৈধ লেনদেনের সময় গোয়েন্দা পুলিশের একটি বিশেষ টিম বকচরা এলাকার মৎস্য অফিসের সামনে থেকে ১১ লাখ টাকাসহ পরীক্ষার্থী ও দালালসহ দুইজনকে আটক করা হয়।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র