Alexa

ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে প্রস্তুত দৌলতদিয়া ঘাট

ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে প্রস্তুত দৌলতদিয়া ঘাট

দৌলতদিয়া ঘাট। ছবি: বার্তা২৪.কম

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতরে ঘরমুখো মানুষের যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে প্রস্তুত রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ঘাট। এ ঘাট দিয়ে দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ যাতায়াত করে।

নাড়ির টানে ঘরে ফেরা এসব মানুষ ঘাটে যাতে কোনো ধরনের ভোগান্তিতে না পড়ে সেজন্য এরই মধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে ঘাট এলাকার সড়কগুলোতে অতিরিক্ত বৈদ্যুতিক লাইট স্থাপন করা হয়েছে।

জানা গেছে, অতিরিক্ত যাত্রীদের চাপ সামলাতে এই নৌরুটের বহরে থাকবে ২০টি ফেরি ও ৩৪টি লঞ্চ। ফেরি বা লঞ্চগুলো চলাকালীন যদি কোনো ধরনের যান্ত্রিক সমস্যায় পড়ে তাহলে তাৎক্ষণিকভাবে সেটিকে মেরামত করার জন্য থাকছে নিজস্ব ব্যবস্থা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/23/1558594111730.jpg

এছাড়াও যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা ভেবে আইনশৃঙ্খলার পাশাপাশি ঘাট এলাকায় থাকবে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক মো. শফিকুল ইসলাম বার্তা২৪.কমকে জানান, এবারের ঈদে যাত্রীদের যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে সার্বক্ষণিক ২০টি ফেরি চলাচল করবে। যদি কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হয় তাহলে ভোগান্তি ছাড়াই তারা ঘরে ফিরতে পারবে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) সহকারী ব্যবস্থাপক ফরিদুল ইসলাম বার্তা২৪.কমকে জানান, এবার ঈদ উপলক্ষে যাত্রীদের নদী পার করার জন্য মোট ৩৪টি লঞ্চ রয়েছে। এর মধ্যে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে থাকবে ২২টি এবং আরিচা-কাজীরহাট নৌরুটে থাকবে ১২টি লঞ্চ।

রাজবাড়ী পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘আমরা আশা করছি এবারের ঈদযাত্রা সুন্দর ও নির্বিঘ্ন হবে। যাত্রীদের যাতে কোনো ধরনের ভোগান্তি না হয় সে বিষয়টি বিবেচনায় রেখে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে ঈদের আগে ও পরে ঘাট এলাকায় তিন স্তরের নিরাপত্তা থাকবে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/23/1558594138005.jpg

তিনি আরও বলেন, ‘ঘাট এলাকায় যাত্রীদের হয়রানি ও চাঁদাবাজি বন্ধে সাদা পোশাকের পুলিশও দায়িত্ব পালন করবে। তাছাড়া যাত্রীদেরকে জিম্মি করে যাতে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করতে না পারে সেজন্য ঘাট এলাকায় ভাড়ার তালিকা টানানোর জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

রাজবাড়ীর ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মো. আলমগীর হোসেন বার্তা২৪.কমকে জানান, ঈদ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঘাট এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন করা হবে। যেন কোনো ধরনের প্রতারণার শিকার না হয় যাত্রীরা।

আপনার মতামত লিখুন :