Barta24

বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬

English Version

চাঁদা না পেয়ে ডিম নষ্ট: ৬ পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার

চাঁদা না পেয়ে ডিম নষ্ট: ৬ পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার
ঘুষ না দেওয়ায় প্রায় তিন লাখ টাকার ডিম রাস্তায় ফেলে দিয়েছে পুলিশ, অভিযোগ ট্রাক চালকের, ছবি: সংগৃহীত
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
নাটোর
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

নাটোরের বড়াইগ্রামে হাইওয়ে পুলিশ কর্তৃক ডিম ভাঙার অভিযোগ খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৭ মে) সকালে এই কমিটি গঠন করা হয়। এদিকে, ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ৬ পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করেছে হাইওয়ে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে হাইওয়ে পুলিশ বগুড়া অঞ্চলের পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম।

বগুড়া হাইওয়ে রেঞ্জের পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম জানান, বৃহস্পতিবার সকালে বড়াইগ্রামে ঘুষ না দেয়ায় রশি কেটে পিকআপে থাকা প্রায় তিন লাখ টাকার ডিম রাস্তায় ফেলে নষ্ট করেছে বনপাড়া হাইওয়ে পুলিশ।

বিভিন্ন গণমাধ্যমে এমন সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টি সত্যতা অনুসন্ধানের জন্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ শহীদকে প্রধান করে এক সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

এদিকে তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ শহীদ শুক্রবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এসময় তিনি ঘটনাস্থল থেকে পিকআপের কেটে দেওয়া রশিসহ বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেন। এছাড়া স্থানীয় প্রত্যেক্ষদর্শী, ভুক্তভোগী এবং এলাকাবাসীর সাথে কথা বলেন। পরে বনপাড়া হাইওয়ে থানায় যান তদন্ত কমিটির প্রধান। সেখানে হাইওয়ে থানা পরিদশর্নও করেন তিনি।

তদন্ত কমিটির প্রধান মোহাম্মাদ শহীদ সাংবাদিকদের বলেন, তিনি বিভিন্ন গণমাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসেছেন। তদন্তে যারাই দোষী প্রমাণিত হবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা প্রতিবেদন দেওয়া হবে। তবে তদন্তের স্বার্থে ক্যামেরার সামনে কোন কথা বলতে রাজি হননি তিনি।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সকালে একটি পিকআপ (ঢাকা মেট্রে-ন ১৭-৩৭৮০) ৩৫ হাজার একশ’ ডিম নিয়ে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ থেকে যশোর এ যাচ্ছিল। বড়াইগ্রামের আগ্রান সূতিরপাড় এলাকায় পিকআপটির চাকা পাংচার হয়ে গেলে সেটি পাশের ফিডার রোডে নেমে যায়। খবর পেয়ে বনপাড়া হাইওয়ে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে আসে। এ সময় পুলিশ সদস্যরা পিকআপ উদ্ধারের জন্য রকার ভাড়াসহ ২০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করে। চালক এতে রাজি না হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে পুলিশ সদস্যরা পিকআপে ডিমের খাঁচি বাঁধার রশি চাকু দিয়ে কেটে দেয়। এতে প্রায় তিন লাখ টাকার মুল্যের ডিম পুলিশ নষ্ট করে ফেলে বলে অভিযোগ করেন ডিম ব্যবসায়ী।

আপনার মতামত লিখুন :

সাতক্ষীরায় পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগে ১১ লাখ টাকাসহ আটক ২

সাতক্ষীরায় পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগে ১১ লাখ টাকাসহ আটক ২
সাতক্ষীরা জেলার মানচিত্র, ছবি: সংগৃহীত

ঘুষ দিয়ে পুলিশ কনস্টেবল পদে নিয়োগ লাভের চেষ্টা করার সময় সাতক্ষীরায় দুজনকে আটক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ জুন) রাতে অর্থ লেনদেনের সময় গোয়েন্দা পুলিশের একটি বিশেষ টিম ১১ লাখ টাকাসহ তাদের আটক করে। আটককৃতরা হলেন সাতক্ষীরা বল্লী এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে আসাদুজ্জামান, (ব্যবসায়ী) নারায়নপুর এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (পরীক্ষার্থী)।

সাতক্ষীরা সদরের বকচরা এলাকার মৎস্য অফিসের সামনে থেকে তাদের আটক করেছে বলে জানায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। 

পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমান জানান, পুলিশের নিয়োগ অনিয়মে সাতক্ষীরা জেলার সকলস্থানে মাইকিংসহ বিভিন্নভাবে জনসাধারণকে অবহিত করা হয়েছে। তার ধারাবাহিকতায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে অবৈধ লেনদেনের সময় গোয়েন্দা পুলিশের একটি বিশেষ টিম বকচরা এলাকার মৎস্য অফিসের সামনে থেকে ১১ লাখ টাকাসহ পরীক্ষার্থী ও দালালসহ দুইজনকে আটক করা হয়।

বিষ দিয়ে ফিশারি পুকুরের মাছ নিধনের অভিযোগ

বিষ দিয়ে ফিশারি পুকুরের মাছ নিধনের অভিযোগ
ছবি: বার্তা২৪

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় ফিশারি পুকুরে বিষ দিয়ে মাছ নিধনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় মাথায় হাত পড়েছে ক্ষতিগ্রস্ত ফিশারি মালিক আনিছুর রহমানের।

খবর পেয়ে বুধবার (২৬ জুন) দুপুরে নেত্রকোনার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (কেন্দুয়া সার্কেল) মাহমুদুল হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এর আগে মঙ্গলবার (২৫ জুন) রাতের যেকোনো সময় উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের ওই পুকুরে বিষ দিয়ে মাছ নিধন করে দুর্বৃত্তরা।

পুকুরের মালিক আনিছুর রহমান বলেন, ৪০ শতক পুকুরে কৈ মাছের চাষ করেছিলাম। অল্প দিনের মধ্যেই মাছগুলো বিক্রি করার উপযোগী হতো। কিন্তু বুধবার (২৬ জুন) ভোরে পুকুরপাড়ে গিয়ে দেখি মাছগুলো মরে ভেসে উঠছে। রাতের আঁধারে দুর্বৃত্তরা বিষ জাতীয় কিছু দিয়ে মাছগুলো মেরে ফেলেছে। এতে আমার ৭/৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ করব।

নেত্রকোনার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (কেন্দুয়া সার্কেল) মাহমুদুল হাসান বলেন, ঘটনাটি দুঃখজনক। থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র