Barta24

শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

হায়রে প্রেম!

হায়রে প্রেম!
আহত রিতা খাতুন। ছবি: বার্তা২৪.কম
ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
নড়াইল


  • Font increase
  • Font Decrease

‘বয়স ১৮ বছর। লেখাপড়া করছি অনার্স প্রথম বর্ষে। এরই মধ্যে আমার জীবনে প্রেম আসে। আর সুখে সংসার করার আশায় পরিবারের অজান্তে বিয়ে করে ফেলি। কিন্তু বিধিবাম, সুখ তো দূরের কথা এখন জীবন বাঁচানো দায়।’

মঙ্গলবার (১৪ মে) দুপুরে বার্তা২৪.কমের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে কথাগুলো বলছিলেন রিতা খাতুন। তার বিয়ে হয়েছে মাত্র আড়াই মাস হলো। তবে শরীরে স্বামী-শ্বশুর-শাশুড়ির করা নির্যাতনের ক্ষত নিয়ে ভর্তি হয়েছেন নড়াইল সদর হাসপাতালে। সোমবার রাতে হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।

রিতা খাতুনের স্বামীর নাম অলিদ মোল্যা। তিনি নড়াইল পৌরসভার ভওয়াখালী গ্রামের ফরিদ মোল্যার ছেলে।

জানা গেছে, গত ৩ মার্চ নড়াইল সদর উপজেলার বাকশাডাঙ্গা গ্রামের নজরুল চৌধুরীর মেয়ে রিতা খাতুন পরিবারের অজান্তে অলিদ মোল্যাকে বিয়ে করেন। বিয়ের পরে রিতাকে তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে দেয়া হতো না। স্বামী অলিদ মোল্যা গত ১২ মে রাতে নামাজ পড়তে গেলে রিতা তার খালা ও বোনের সঙ্গে মোবাইলে কথা বলেন।

বিষয়টি জানতে পেরে স্বামী অলিদ মোল্যা ও তার পরিবারের সদস্যরা রিতাকে মারধর করে গুরুতর জখম অবস্থায় ঘরের মধ্যে ফেলে রাখে। পরে রিতা কৌশলে তার বোনের বাড়িতে পালিয়ে যায়। গত সোমবার রাতে রিতাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রিতার চোখসহ সারা শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

আহত রিতা খাতুন বলেন, ‘পরিবারকে না জানিয়ে প্রেম করে বিয়ে করেছিলাম। কপালে সুখ জুটল না। আমরা গরিব মানুষ। তাই স্বামীর পরিবারের লোকজন আমাকে মেনে নিতে পারেনি।’

রিতা অভিযোগ করে বলেন, ‘অলিদের আগে একটা বিয়ে থাকলেও আমি জানতাম না। হায়রে প্রেম আমার। এমন পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হবে কখনো ধারণা করতে পারিনি।’

রিতার মা জোসনা বেগম বলেন, ‘আমার মেয়ে নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজে ম্যানেজমেন্ট বিভাগে অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। অলিদ তাকে ভালোবেসে বিয়ে করে এখন নির্যাতন করছে। আমরা গরিব মানুষ এর বিচার কী পাব না?’

নড়াইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইলিয়াস হোসেন জানান, স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগে স্বামী অলিদ মোল্যাকে আটক করা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আপনার মতামত লিখুন :

বেনাপোলে ৫ লাখ রুপিসহ যাত্রী আটক

বেনাপোলে ৫ লাখ রুপিসহ যাত্রী আটক
আটক নিরঞ্জন। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম।

বেনাপোল সীমান্ত থেকে ৫ লাখ ২৪ হাজার ভারতীয় রুপি ও ৪টি মোবাইলসহ নিরঞ্জন (৩৪) নামে এক বাংলাদেশি পাসপোর্ট যাত্রীকে আটক করেছে বিজিবি।

শনিবার (২০ জুলাই) সকাল ১০টার দিকে বেনাপোল সীমান্তের সাদিপুর মোড় থেকে চেকপোস্ট আইসিপি ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা তাকে আটক করে।

আটক যাত্রী নরসিংদী জেলার গোরাদিয়া গ্রামের ঝন্টু দাসের ছেলে।

বিজিবি জানায়, তাদের নিজস্ব গোয়েন্দার মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে ওই পাসপোর্ট যাত্রীকে ক্যাম্পে ডেকে আনা হয়। পরে তার লাগেজ ও শরীর তল্লাশি করে ভারতীয় ৫ লাখ ২৪ হাজার রুপি ও ৪টি উন্নত মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

৪৯ ব্যাটালিয়ন বিজিবির বেনাপোল আইসিপি ক্যাম্পের সুবেদার বাকি বিল্লাহ জানান, আটকের বিরুদ্ধে মুদ্রা পাচার মামলা দিয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

নিম্নমা‌নের ডাইভারশন কেটে বন্যাকবলিতদের বিক্ষোভ

নিম্নমা‌নের ডাইভারশন কেটে বন্যাকবলিতদের বিক্ষোভ
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর

ভুঞাপুর-টাঙ্গাইল সড়‌কের শ্যামপুর ব্রি‌জের নিম্নমা‌নের ডাইভারশন কে‌টে দি‌য়ে বিক্ষোভ করেছেন পানিবন্দী মানুষ। বেইলি ব্রিজ নির্মা‌ণের দাবি জানান বন্যাকবলিত গ্রামবাসী।

শ‌নিবার (২০ জুলাই) দুপু‌রে ওই সড়‌কের ফুলতলা ও শ্যামপুর ডাইভারশ‌ন কে‌টে অব‌রোধ ক‌রে রা‌খেন বিক্ষুব্ধ বানভাসিরা। এতে ওই সড়ক দি‌য়ে সব ধর‌নের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। নতুন করে ১০ গ্রা‌ম প্লাবিত হয়।

tangail

আন্দোলনকারীরা জানান, কা‌লিহাতী উপ‌জেলার ফুলতলা, রৌহা, ভাঙ্গাবা‌ড়ি, চর ভাবলা, হা‌কিমপুর, ভাবলা, মিরপুর, শেরপুর, দেওলাবা‌ড়ি ও রাজাবা‌ড়ির একাংশ এলাকায় বন্যার পা‌নি প্রবেশ ক‌রে। এতে পা‌নি বৃ‌দ্ধি পে‌য়ে ঘরবা‌ড়ি ও রাস্তা ঘাট ত‌লি‌য়ে গে‌ছে। ভুঞাপুর-টাঙ্গাইল সড়‌কের বেশ ক‌য়েক‌টি এলাকায় নতুন সেতু নির্মাণের কাজ চল‌ছে। অথচ সেতুর সাই‌টের নিন্মমা‌নের ডাইভারশন তৈ‌রি করা হয়ে‌ছে। কিন্তু ডাইভারশন নির্মাণ হ‌লেও পা‌নি যাওয়ার কোনো ব্যবস্থা রাখা হয়‌নি। এতে বন্যার পা‌নি আট‌কে দশ‌টি গ্রাম প্লা‌বিত হ‌য়ে‌ছে। ডাইভারশনের পাশাপা‌শি পা‌নি যাতায়া‌তের জন্য বেইলি ব্রিজ নির্মাণ করতে হ‌বে।

tangail

কা‌লিহাতী উপ‌জেলা সহকা‌রী ক‌মিশনার (ভূমি) শাহ‌রিয়ার রহমান জানান, স্থানীয়রা শ্যামপুর ব্রিজের ডাইভারশন অন্যায়ভা‌বে কে‌টে দি‌য়ে‌ছে। পা‌নি চলাচ‌লের জন্য বিকল্প ব্রিজ নির্মাণ করার প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেওয়া হ‌য়ে‌ছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র