Barta24

বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

টিকিট আছে তবে ‘স্বৈরাচারী দামে’! 

টিকিট আছে তবে ‘স্বৈরাচারী দামে’! 
শাহরিয়ার হাসান
বার্তা২৪.কম 


  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা: ‘যখন অগ্রিম টিকিট ছাড়ল আমি অনেক চেষ্টা করেও হানিফের টিকিট পাইনি। আজকে পেয়েছি, কিন্তু ‘স্বৈরাচারী দামে’। কাউন্টারের লোকজনদের আচরণ স্বৈরাচারের মতো হয়ে গেছে। যার কাছে পাচ্ছে ইচ্ছামত ভাড়া নিচ্ছে। লোকাল পরিবহনগুলো পযর্ন্ত দেড় হাজার টাকার নিচে নামছে না।’

ক্ষোভ বিরক্তিমাখা কণ্ঠে বার্তা২৪.কমকে কথাগুলো বলছিলেন উত্তবঙ্গের যাত্রী গোলজার রহমান সবুজ। প্রিয়জনের সঙ্গে নীলফামারীতে যাচ্ছেন ঈদ করতে।

ঈদের বাকি আছে আর ২ বা ৩ দিন। কয়েকদিন থেকে বাস টার্মিনালগুলোতে ঘরমুখো মানুষের চাপ যেমন বেড়েছে, তেমনি বেড়েছে টিকিটের জন্য হাহাকার।

অগ্রিম টিকিট বিক্রির শুরু থেকে টিকিটের সংকট দেখায় পরিবহন সংশ্লিষ্টরা।  এ সংকট সবচেয়ে বেশি থাকে জনপ্রিয় পরিবহনগুলোতে। তবে নামিদামি পরিবহনগুলোর দুস্প্রাপ্য সেই টিকিট আজও পাওয়া যাচ্ছে। এক্ষেত্রে এই টিকিট পেতে গেলে স্বাভাবিকের তুলনায় গুণতে হচ্ছে তিনগুণেরও বেশি ভাড়া। 

বুধবার (১৩ জুন) সরজমিনে কল্যাণপুর ও গাবতলী বাস টার্মিনাল ঘুরে কাউন্টারগুলোরতে চড়া দামে টিকিট বিক্রির চিত্র দেখা যায়।

কল্যাণপুর টার্মিনাল। গিজগিজ করছে ঘরমুখোর মানুষের পদচারণায়। যারা অগ্রিম টিকিট পেয়েছেন অধির হয়ে বসে আসেন বাসের অপেক্ষায়। আর যারা টিকিট পাননি তারা ছুটছেন কাউন্টারে কাউন্টারে টিকিটের আশায়। কেউ কেউ সোনার হরিণ এই টিকিট কিনছেন অতিরিক্ত মূল্য দিয়ে। এর মধ্যে ন্ম্নি আয়ের মানুষ কাউন্টারের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন একটু কম দামের আশায়।তবে কোনো ভাবেই টিকিটের দাম ছাড়ছেন না কাউন্টার সংশ্লিষ্টরা।

/uploads/files/3IrHD82Rblvu67cPoLOwSeL9GKkiNyoU3Rjw2t1W.jpegবিকেল তিনটায় কল্যাণপুর হানিফ কাউন্টারে প্রবেশ করতেই, গেঞ্জি পরিহিত এক লোক ঈশারা করলেন। টিকিট নিতে এসেছি জানার পর হানিফ পরিবহেনর কর্মকর্তা হাসান নামে ওই লোক জানান, আজ, আগামীকাল-পরশু প্রত্যেক দিনের টিকিট আছে। কয়টা লাগবে বলেন। তবে ভাড়া বেশি পরবে। ঈদের বাজার বুঝতেই পারছেন!

বগুড়ার ননএসি’র ভাড়া জানতে চাইলে হাসান বলেন, বগুড়ার কোন বাস নেই। বাস সব নওগাঁর, আমার কাছে থেকে নিলে একদাম ১৩০০ টাকা পরবে। কাউন্টারে বেশি পারবে। বি, সি, ডি যে কোন সিরিয়ালে সিট দিতে পারবো। লাগলে জানাবেন বলে মোবাইল নাম্বার হাতে ধরিয়ে দেন হাসান।

তার সুত্র ধরে কাউন্টারে বসা অন্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাদা, আলাদা ভাবে জানতে চাইলে প্রায় সবার কাছেই টিকিট আছে এমনটা জানান তারা।

বগুড়ার স্বাভাবিক সময়ে ৩৫০ টাকা ভাড়া হলেও ঈদের এই সময়ে যাত্রীর চাহিদার সুযোগ নিয়ে ১২০০- ১৫০০ টাকা নিচ্ছে হানিফ পরিবহনেরসহ অন্য পরিবহনের কর্মকর্তারা।

অন্যদিকে উত্তরবঙ্গগামী পরিবহন  এসআর, টিআই, ডিপজল, শ্যামলী কাউন্টারে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, তাদের কাছেও কিছু টিকিট রয়েছে। তবে কিনতে হলে গুণতে হবে দাম হাজারের বেশি টাকা।

যাত্রীদের অভিযোগ, কাউন্টারের লোকজন সব টিকিট অগ্রিম বিক্রি না করে নিজেদের কাছে রেখে দেয়। পরে ঈদের আগে আগে এগুলো ছাড়ে। এ সময় যাত্রীদের মধ্যে টিকিট না পাওয়ার হতাশা থাকায়; এ সুযোগটা তারা কাজে লাগায়।

তবে কাউন্টার কর্মকর্তারা এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলছেন, অনেক যাত্রী টিকিট ফেরত দেয়, সেগুলো আমরা বিক্রি করি।টুকটাক বেশি তো নিতে হয়।

এদিকে ঈদের টিকিট ফেরত নেওয়া হয় না বলে জানান আরেক পরিবহনের সুপারভাইজার। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক টিআর পরিবহনের এই কর্মকর্তা জানান, এই সব মিথ্যা কথা। কাউন্টারের লোকেরা নিজেরাই ৫/১০ করে টিকিট কিনে রেখে দেয়। পরে বিপদে পরা যাত্রীদের কাছ থেকে দুই তিন গুণ দামে টিকিট বিক্রি করে।

আপনার মতামত লিখুন :

এইচএসসি’র ফলাফলে রাজশাহী মহিলা কলেজের চমক

এইচএসসি’র ফলাফলে রাজশাহী মহিলা কলেজের চমক
রাজশাহী সরকারি কলেজ/ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

রাজশাহী সরকারি মহিলা কলেজে এইচএসসির ফলাফলে চলতি বছর জিপিএ-৫ পাওয়ার হারে শিক্ষার্থীরা চমক দেখিয়েছে। এ বছর কলেজটির বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১৮২ জন। অথচ গত বছর কলেজটি থেকে মাত্র ১০ জন পরীক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছিল।

শিক্ষাবোর্ড সূত্র জানায়, সরকারি মহিলা কলেজ থেকে এবার ১ হাজার ৩৮৫ জন পরীক্ষার্থী এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে পাস করেছে ১ হাজার ৩১৭ জন। পাসের হার ৯৫ দশমিক ০৯ শতাংশ।

এর মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে পাস করেছে ৬১৪ জন। ফেল করেছে ২৭ জন। মানবিকে পাস ও ফেলের সংখ্যা যথাক্রমে ৪৩০ ও ৩৯। আর ব্যবসা শিক্ষা বিভাগে পাস-ফেল যথাক্রমে ২৭৩ ও ২১ জন। এ বছর জিপিএ-৫ পাওয়া ১৮২ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ১৫৯ জন বিজ্ঞান, ২১ জন মানবিক ও দুইজন ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের শিক্ষার্থী।

গত বছর শুধু বিজ্ঞান ও মানবিক বিভাগ থেকে পাঁচজন করে মোট ১০ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছিল। সে বছর ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের কেউ জিপিএ-৫ অর্জন করতে পারেনি।

এর আগে ২০১৭ সালে কলেজটি থেকে ৭০ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পায়। ২০১৬ সালে জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৭৭ জন। আর ২০১৫ সালে পেয়েছিল ৫৫ জন। এ বছর জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি।

কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সৈয়দা নীলুফার ফেরদৌস এই ফলাফলে ভীষণ খুশি। তিনি বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, ‘আমাদের এবারের পাসের হার ৯৫ দশমিক ০৯ শতাংশ। এটা খারাপ না। জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যাও এবার অনেক বেড়েছে। তাই আমরা খুশি।’ অধ্যক্ষ আরও বলেন, ‘শিক্ষক-শিক্ষার্থীর সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই ফলাফল অর্জন করা সম্ভব হয়েছে। ভবিষ্যতে যেন আরও ভাল করা যায় সেই চেষ্টাই থাকবে।‘

 

পঙ্গু হাসপাতালে দুদকের অভিযান

পঙ্গু হাসপাতালে দুদকের অভিযান
জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠান

রাজধানীর শেরবাংলা নগরে জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে (পঙ্গু হাসপাতাল) রোগীদের হয়রানি ও অনিয়মের অভিযোগে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

হাসপাতালে দালালদের দৌরাত্ম্য ও সেবাপ্রাপ্তির জন্য রোগীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার অভিযোগের ভিত্তিতে বুধবার (১৭ জুলাই) দুদকের প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক জাহিদ কালামের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

অভিযানের বিষয়টি বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে নিশ্চিত করেছেন দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য।

দুদক সূত্রে জানা যায়, দুদক টিম পরিচয় গোপন করে হাসপাতালের বিভিন্ন ইউনিট ঘুরে বেশ কিছু অনিয়ম দেখতে পায়। এ সময় বিভিন্ন সেবা দেওয়ার জন্য রোগীদের হয়রানি ও অধিক টাকা আদায়ের অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পায় দুদক টিম।

হাসপাতালে বহিরাগত এক ব্যক্তিকে কর্মরত অবস্থায় শনাক্ত করে তাকে হাসপাতাল পরিচালকের কাছে হস্তান্তর করে দুদক টিম। এ সময় হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক আব্দুল গনি মোল্লাকে হাসপাতালে সিসি টিভি ক্যামেরা স্থাপন, সার্ভিস কাউন্টার বাড়ানো, নিজস্ব ডিসপেনসারি চালু, হাসপাতালের সীমানা দৃঢ়করণসহ বেশ কিছু সুপারিশ করেছেন দুদক টিমের সদস্যরা।

বুধাবার নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে একজন প্রাক্তন রেলওয়ে কর্মচারী অবৈধভাবে রেলওয়ের জায়গা দখল করে রাখার অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক।

অভিযানে এলাকাবাসী ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, বাচ্চু মিয়া ওরফে রেন্ট বাচ্চু নামে এক সাবেক রেল কর্মচারী নানাভাবে প্রভাব খাটিয়ে লিজ না নি‌য়ে বা নবায়ন না করে নরসিংদী স্টেশনের চারপাশের অনেক জায়গা দখল করেছেন। দুদক টিম এ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য সংগ্রহ করে।

এছাড়া দুদকের অভিযোগ কেন্দ্রে (হটলাইন ১০৬) বি‌ভিন্ন অভিযোগের বিষ‌য়ে পদক্ষেপ নি‌য়ে কমিশনকে জানা‌তে ১১ উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে চি‌ঠি পা‌ঠি‌য়ে‌ছে দুদক এনফোর্সমেন্ট ইউনিট।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র