Barta24

শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

জাদুকাটা নদী: নুড়ি পাথরের ইজারা নিয়ে বালু উত্তোলন

জাদুকাটা নদী: নুড়ি পাথরের ইজারা নিয়ে বালু উত্তোলন
নদী থেকে নুড়ি পাথরের সাথে তোলা বালুও স্তুপ করে রাখা হয়েছে/ ছবি: বার্তা২৪.কম
তৌফিকুল ইসলাম
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ঢাকা


  • Font increase
  • Font Decrease

সুনামগঞ্জ থেকে: সুনামগঞ্জের জাদুকাটা নদী থেকে নুড়ি পাথর তোলার জন্য খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে অনুমতি নেয় কিছু ইজারাদার প্রতিষ্ঠান। কিন্তু নুড়ি পাথরের পাশাপাশি নদী দূষণ করে রাতের আধারে বোমা মেশিন ব্যবহার করে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা হয় বলে জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) সকালে সরেজমিনে সুনামগঞ্জ জেলার যাদুকাটা নদীর লাউয়েরগড় এলাকার বালু ও নুড়ি পাথর বিক্রয়কেন্দ্রে দেখা যায়, বালু তোলার কোনো কার্যক্রম চলছে না। কিন্তু বালুর বড় বড় স্তুপ করে রাখা হয়েছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/09/1562665089798.jpg

ভারতের মেঘালয় রাজ্যর পাহাড় বেয়ে ঝরনার পানির সাথে সাধারণত বালু মিশ্রিত নুড়িপাথর এই জাদুকাটা নদীতে চলে আসে। যা বাংলাদেশের অন্যতম খনিজ সম্পদ।

স্থানীয় বাসিন্দা ও পরিবেশ নিয়ে কাজ করা সংগঠনগুলো বলছেন, নুড়ি পাথরের নাম করে অবৈধভাবে বালু তোলা হচ্ছে। যার ফলে জাদুকাটা নদীসহ সুনামগঞ্জের হাওরের পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে।

স্থানীয় বাসিন্দা বিল্লাল বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, 'আমরা এখন কোনো কাজ পাচ্ছি না, বেকার। কারণ হলো যারা সরকারের কাছ থেকে নুড়ি পাথর তোলার লিজ নিয়েছে, তারা রাতের বেলায় অবৈধভাবে বোমা মেশিনের মাধ্যমে বালু তুলছে। আমাদের কাউকে নদীতে নামতে দেয় না বালু তোলার জন্য। এই মেশিন ব্যবহার করার ফলে নদীর পরিবেশসহ নদীর পাড় ভেঙে যাচ্ছে, হাওরের মাছ কমে যাচ্ছে, ধানের ধান চাষ কমে যাচ্ছে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/09/1562665114970.jpg

নুড়ি পাথরের ইজারা নেওয়া আজাদ হোসেন গং-এর দায়িত্বে থাকা ব্যবস্থাপক ইব্রাহিম হোসেন বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, 'এক বছরের জন্য খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়ের কাছ থেকে ইজারা নিয়েছি বালু মিশ্রিত নুড়ি পাথর তোলার জন্য। আলাদাভাবে কোনো বালু তুলি না। নুড়ি পাথরের সাথে যেসব বালু আসে তার বাইরে বালু তুলি না।’

তবে বোমা মেশিন ব্যবহার করে নুড়ি পাথর তোলার বিষয়টি অস্বীকার করেন এই ব্যবস্থাপক। তাছাড়া ইজারা নেওয়ার কোনো কাগজপত্রও এই ব্যবস্থাপক দেখাতে পারেননি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/09/1562665129780.jpg

পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন পবার চেয়ারম্যান আবু নাসের খান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, ‘অবৈধভাবে নুড়ি পাথরের নামে বালু তোলার ফলে তাৎক্ষণিক কোন ক্ষতি না হলেও দীর্ঘস্থায়ী অনেক ক্ষতি হতে পারে। হাওর অঞ্চলের জীব বৈচিত্র্য সহ সকল ধরনের পরিবেশ হুমকির মুখে পড়বে।’

পরিবেশ ও মানবাধিকারকর্মী কবি শাহেদ কায়েস বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, 'নদীর ভারসাম্য রক্ষার জন্য অবশ্যই নদী থেকে নুড়ি পাথর ও বালু উত্তোলন করার প্রয়োজন আছে। কিন্তু সেটি ম্যানুয়ালি করতে হবে এর জন্য এমন কিছু ব্যবহার করা যাবে না, যা নদীকে হুমকির মুখে ফেলবে তাই অচিরেই জাদুকাটা নদীর এই অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধ করতে হবে।’

আপনার মতামত লিখুন :

রাজশাহীতে অটোরিকশার ধাক্কায় শিশু নিহত, চালক আটক

রাজশাহীতে অটোরিকশার ধাক্কায় শিশু নিহত, চালক আটক
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায় অটোরিকশার ধাক্কায় মিম খাতুন (৯) নামে তৃতীয় শ্রেণির এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। শনিবার (২০ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে উপজেলার জাগিরপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

মিম উপজেলার জাগিরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলেন। সে পুঠিয়া উপজেলার বারইপাড়া এলাকার সোহেল মিয়ার মেয়ে। দুর্ঘটনার পর অটোরিকশা চালক আব্দুল আওয়ালকে আটক করেছে পুলিশ। আওয়াল আড়ানী রেলস্টেশন এলাকার জামশেদের ছেলে।

চারঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, শনিবার দুপুরে স্কুল শেষে অন্য শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাড়ি ফিরছিল মিম। এসময় মিমকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় অটোরিকশা। অটোরিকশার ধাক্কায় রাস্তায় পড়ে যায় ওই শিশু। এতে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়।

ওসি বলেন, দুর্ঘটনায় জড়িত অটোরিকশা চালক আব্দুল আওয়াল ও তার অটোরিকশা আটক করে থানায় আনা হয়েছে। নিহতের পরিবার মামলা দায়ের করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এক শিশুকে বাঁচাতে আরেক শিশুরও মৃত্যু

এক শিশুকে বাঁচাতে আরেক শিশুরও মৃত্যু
ছবি: প্রতীকী

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে পানিতে ডুবে জিহাদ হোসেন (৪) ও তানজিন আহম্মেদ (৪) নামে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (২০ জুলাই) দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার চকের কান্দা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

হালুয়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার বিশ্বাস জানান, বাড়ির পাশেই কয়েকজন শিশু খেলছিল। এ সময় তানজিন বন্যার পানির স্রোতে পড়ে যায়। তাকে বাঁচাতে গিয়ে জিহাদও পানিতে পড়ে যায়। পরে স্থানীয়রা অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাদের লাশ উদ্ধার করে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র