Barta24

বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯, ৯ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

ময়মনসিংহে ইয়াবা-হেরোইনসহ গ্রেফতার ৭

ময়মনসিংহে ইয়াবা-হেরোইনসহ গ্রেফতার ৭
গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীরা, ছবি: সংগৃহীত
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
ময়মনসিংহ


  • Font increase
  • Font Decrease

ময়মনসিংহে পৃথক অভিযান চালিয়ে ইয়াবা-হেরোইনসহ সাত মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- বাবুল ওরফে কসাই বাবুল (৩৬), সেন্টু মিয়া (৩৫), শাহজাহান (২৬), রুমা বেগম (২৮), আতিকুল ইসলাম আতিক (৪২), তৌহিদুল ইসলাম ওরফে মুন্না ওরফে ওমর ফারুক (৩০) ও হালিম মিয়া (২৮)।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) বিকেলে ডিবি কার্যালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল আকন্দ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে শহরের দিঘারকান্দা, খাগডহর ও ভালুকার সিডস্টোর এলাকা থেকে ওই সাত মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এসময় তাদের কাছ থেকে ২ হাজার ২৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও ২৩ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :

বিদ্যুৎ থাকবে না এটা স্রেফ গুজব

বিদ্যুৎ থাকবে না এটা স্রেফ গুজব
বিদ্যুৎ থাকবে না এটা শুধুই গুজব, ছবি: সংগৃহীত

বিদ্যুৎ বিভাগের সিনিয়র সচিব ড. আহমেদ কায়কাউস বলেছেন, 'গুজব রটেছে দেশে নাকি বিদ্যুৎ থাকবে না, আর সেই সময়ে মাথা কাটা হবে। আমি বলতে চাই এটা পুরোপুরি গুজব, এতে কান দেবেন না।' 

বুধবার (২৪ জুলাই) দুপুরে বিদ্যুৎ ভবনে এক চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন। 

ড. কায়কাউস বলেন, ‘এক শ্রেণির লোক রয়েছে যারা গুজব ছড়াতে পছন্দ করেন। বিদ্যুৎ বন্ধ থাকার কোনো সুযোগ নেই। আমরা ভয়াবহ বন্যা মোকাবেলা করেও বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে সক্ষম হয়েছি। জনগণকে অনুরোধ করব বিভ্রান্ত না হতে।’

নিষেধাজ্ঞা শেষে মাছ শিকারে সাগরে ছুটছে জেলেরা

নিষেধাজ্ঞা শেষে মাছ শিকারে সাগরে ছুটছে জেলেরা
নিষেধাজ্ঞা শেষে মাছ শিকারে সাগরে ছুটছে জেলেরা

মাছ শিকারে ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ায় মধ্যরাত থেকেই সাগরে যেতে শুরু করেছেন উপকূলীয় জেলেরা। মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে মৎস্য বন্দরগুলো এখন জেলেদের পদচারণায় মুখর। জেলেদের প্রত্যাশা আবহাওয়া ভালো থাকলে এবং ভাগ্য ভালো হলে এবার বেশি মাছ আহরণ করে ফিরতে পারবেন। এতে করে কিছুটা হলেও অলস ৬৫ দিনের যে ধার-দেনা তা পরিশোধ করতে পারবেন।

২৩ জুলাই নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ায় মধ্য রাতেই অধিকাংশ ট্রলার মাছ শিকারের উদ্দেশে গভীর সাগরে রওনা করেছেন। সাত থেকে দশদিন  মাছ শিকারের প্রস্তুতি নিয়ে এসব ট্রলার সাগরে পাড়ি জমিয়েছে। তবে নিষেধাজ্ঞার মধ্যেও সাগরে যারা আগে মাছ শিকারে গেছেন তাদের অনেকই ভালো সাইজের এবং পর্যাপ্ত মাছ নিয়ে ফিরেছেন। এ কারণে এখন সাগরে মাছ শিকারের উপযুক্ত সময় মনে করছেন জেলেরা। তবে এরপরও সৃষ্টি কর্তার রহমত ও ভাগ্যের উপর নির্ভর করেই এসব জেলেদের ছুটে চলা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/24/1563957305935.jpg

এ দিকে নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন সময়ে অনেক জেলে সাগরে মাছ শিকারে যান।  নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ায় সেসব ট্রলার এখন ফিরতে শুরু করেছে। প্রতিটি ট্রলারেই ইলিশ থেকে শুরু করে বিভিন্ন জাতের সামুদ্রিক মাছ রয়েছে। এ কারণে পটুয়াখালীর মহিপুর আলিপুর মৎস্য বন্দরে এখন নানামুখী ব্যস্ততা। কেউ মাছ বিকিকিনি করছেন কেউবা আবার প্যাকেট করে দেশের বিভিন্ন এলাকায় পাঠাচ্ছেন।

মৎস্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এখন সাগরে পর্যাপ্ত মাছ রয়েছে। আর আগামী দুই মাস মাছের এই উৎপাদন অব্যাহত থাকবে বলে মনে করেন তারা। নিয়মনীতি মেনে জেলেরা মাছ শিকার করলে দেশে মাছের উৎপাদন দিনকে দিন বৃদ্ধি পাবে বলেও জানান পটুয়াখালী জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোল্লা এমদাদুল্যাহ।

মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি এবং মৎস্য সম্পদের মজুত বৃদ্ধির লক্ষ্যে এবারই প্রথম ২২ মে থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত বঙ্গোপসাগরে ৬৫ দিন সকল ধরনের মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে সরকার। নিষেধাজ্ঞার এই সময়ে জেলেদের সহায়তার জন্য ৪০ কেজি করে চালও বিতরণ করা হয়।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র