Barta24

বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬

English

সেই রিকশা চালক রফিকুলের পদযাত্রা শুরু

সেই রিকশা চালক রফিকুলের পদযাত্রা শুরু
সেই রিকশা চালক রফিকুলের পদযাত্রা শুরু / ছবি: বার্তা২৪
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
রংপুর


  • Font increase
  • Font Decrease

জনপ্রিয় মাল্টিমিডিয়া অনলাইন নিউজ পোর্টাল বার্তা২৪.কম-এ সংবাদ প্রকাশের পর দেশের বিভিন্নস্থানে বঙ্গবন্ধুর ছবি অঙ্কন করতে পদযাত্রা শুরু করেছেন রিকশা চালক রফিকুল ইসলাম। তিনি পায়ে হেঁটে দেশের ১১ জেলার ২৬টি স্থানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি অঙ্কন করবেন। পাশাপাশি ফুলে ফুলে দেশ সাজানোর স্লোগান ছড়িয়ে দিতে তিনি পরিবেশ বান্ধব কৃষ্ণচূড়ার চারা রোপণ করবেন।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সকাল সাড়ে ৮টায় ঊনষাট বছর বয়সী এই রিকশা চালক তার নিজ এলাকা তাজহাট বাবুপাড়া বটতলা থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে পদযাত্রা শুরু করেন। পায়ে হেঁটে তিনি কাচারী বাজার চত্বরে এসে জেলা প্রশাসক এনামুল হাবীবের সঙ্গে সাক্ষাত করেন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/13/1560413781886.jpg

এর আগে সকালে রফিকুলের বাবা মোহাম্মদ আলীসহ পরিবারের সদস্যরা এবং স্থানীয় এলাকাবাসী ব্যতিক্রমী এ পদযাত্রার জন্য তাকে অভিভাদন জানান।

গত ৬ এপ্রিল বার্তা২৪.কম-এ ‘রিকশা চালক রফিকুলের নতুন যুদ্ধ’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সংবাদটি জেলা প্রশাসক এনামুল হাবীবের নজর কাড়ে। তিনি রিকশা চালক রফিকুল ইসলামকে ডেকে নিয়ে পদযাত্রার অনুমতি দেন। আনুষ্ঠানিকভাবে বুহস্পতিবার সকালে রফিকুল ইসলাম এ পদযাত্রা শুরু করলেন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/13/1560413804891.jpg

বঙ্গবন্ধুপ্রেমী রিকশা চালক রফিকুল ইসলাম বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘আমার দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল পায়ে হেঁটে গিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাজার জিয়ারত করব। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করব। আপনারা আমাকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করার পর জেলা প্রশাসক আমাকে সেই সুযোগ করে দিয়েছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি পদযাত্রার সময় গাইবান্ধা, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, রাজবাড়ী, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, মুন্সিগঞ্জ ও ঢাকা জেলার ২৬টি স্থানে বঙ্গবন্ধুর ছবি অঙ্কন করার পাশাপাশি কৃষ্ণচূড়া গাছের চারা রোপণ করব। এ বছরের ৪ আগস্ট আমার পদযাত্রার কর্মসূচি সম্পন্ন হবে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/13/1560413824520.jpg

এদিকে এই রিকশা চালকের পদযাত্রার ব্যাপারে জেলা প্রশাসক এনামুল হাবীব বার্তা২৪কমকে বলেন, ‘আমার বিশ্বাস রফিকুলের এ ধরনের পদযাত্রা নতুন প্রজন্মের মাঝে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ছড়িয়ে দিতে উদ্বুদ্ধ করবে। তিনি বঙ্গবন্ধুর যে ছবি অঙ্কন করবেন তা এ প্রজন্মকে দেশপ্রেমে অনুপ্রাণিত করবে। আমি তার পদযাত্রার সফলতা কামনা করছি।’

আপনার মতামত লিখুন :

রাজধানীতে বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

রাজধানীতে বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর

 

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী ইরামত আলী (৪৮) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তার ছেলে ঢাকা পলিটিক্যালে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের শিক্ষার্থী আব্দুল হাদি ইমন (২২) গুরুতর আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) বিকেলে যাত্রাবাড়ী হানিফ ফ্লাইওভারের পাশে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ইরামত আলী নারায়ণগঞ্জ ইপিজেড ইয়েজস্টার বাটন কোম্পানীর স্টোর ম্যানেজার ছিলেন। 

ঢামেক হাসপাতালের ইনচার্জ মো.বাচ্চু মিয়া বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, ‘আমরা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি, বাবা-ছেলে মোটরসাইকেল নিয়ে গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছিল। পরে বিকেলের দিকে হানিফ ফ্লাইওভারের ওপর একটি বাসের ধাক্কায় বাবা ছেলে দুই জনই আহত হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে ঢামেকে আনা হলে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ইরামত আলীকে কর্তব্যরত চিকিৎসক নিহত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও বলেন, ‘আহত হাদি ইমন জরুরি বিভাগে চিকিৎসাধীন। এছাড়া নিহত ইরামত আলীর মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে।’

অচিরেই ঢাকা-নিউইয়র্ক রুটে বাংলাদেশের বিমান চলবে: প্রধানমন্ত্রী

অচিরেই ঢাকা-নিউইয়র্ক রুটে বাংলাদেশের বিমান চলবে: প্রধানমন্ত্রী
গাঙচিলের উদ্বোধনীয় অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ছবি: সংগৃহীত

অচিরেই বাংলাদেশের বিমানগুলো ঢাকা-নিউইয়র্ক রুটে চলাচল করবে এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, 'আমেরিকায় এখনো আমরা যেতে পারছি না, তবে আশা করছি শিগগিরই এই সমস্যার সমাধান হবে। আমাদের ড্রিমলাইনার সরাসরি ঢাকা থেকে জেএফকে (জনএফ কেনেডি এয়ারপোর্ট, নিউইয়র্ক) যাওয়ার মতো সক্ষমতা রাখে। কাজেই আমরা প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছি।'

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) দুপুরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের তৃতীয় বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার 'গাঙচিল'র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেওয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ভিভিআইপি টার্মিনালে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অচিরেই ঢাকা-নিউইয়র্ক রুটে বাংলাদেশের বিমান চলবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'আমরা আশাকরি, বিমানের সুনাম অক্ষুণ্ণ রাখা এবং উত্তরোত্তর যাত্রী সেবার মান বৃদ্ধি করা, এবং যে বিমানগুলো আমরা এনে দিচ্ছি সেগুলো যথাযথভাবে সংরক্ষণ করা, এর সঙ্গে সম্পৃক্ত সকলের দায়িত্ব। কাজেই এটা নিজস্ব সম্পদ, সে কথা মনে রেখে আপনাদের কাজ করতে হবে।'

শেখ হাসিনা বলেন, 'বিমান পরিচালনার ক্ষেত্রেও আমি সকলকেই বলব- আপনারা আপনাদের আন্তরিকতা নিয়ে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে এই কাজটি সম্পাদন করবেন। আজকে দেশ যদি উন্নত হয়, অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হয়, দেশের অগ্রযাত্রা যদি অব্যাহত থাকে তাহলে সকলেই সুন্দর জীবন পাবে, সুখী হয়ে চলতে পারবে। আর সেটাই আমাদের লক্ষ্য।'

দেশের বিমান বহরে আওয়ামী লীগ সরকার সংযোজিত অত্যাধুনিক বিমানগুলোর প্রতি সকলকে যত্নবান হওয়ার পরামর্শ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, 'আমি অনুরোধ করব আমার "গাঙচিল" যেন ডানা মেলে উড়তে পারে ভালোভাবে, সবাই যত্ন নেবেন। আজকের উদ্বোধন করা গাঙচিলকে নিয়ে বোয়িংয়ের সঙ্গে চুক্তিকৃত ১০টি বিমান ক্রয়ের মধ্যে ৯ নম্বর বিমানটি বহরে যুক্ত হলো। আর একটি আসলেই ১০টি পূর্ণ হবে।'

অচিরেই ঢাকা-নিউইয়র্ক রুটে বাংলাদেশের বিমান চলবে: প্রধানমন্ত্রী

সেই সঙ্গে লন্ডনে বিমানের জন্য স্লট যেন আরও বৃদ্ধি পায় এবং অন্যান্য কয়েকটি দেশে বিমান তার যাত্রীসেবা যেন বৃদ্ধি করতে পারে এবং যেতে পারে সরকার সেই চেষ্টাই চালিয়ে যাচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন সরকার প্রধান।

এয়ারক্রাফটের সংখ্যা বৃদ্ধিতে তাঁর সরকারের উদ্যোগ সম্পর্কে তিনি আরও বলেন, 'পরবর্তীতে আমাদের প্রয়োজন অনুসারে আমরা আরও বিমান ক্রয় করব। তবে, এর মাঝে আমি আরও চাচ্ছি, দুটো কার্গো বিমান নেওয়ার জন্য। যাতে আমাদের আমদানি-রফতানি বৃদ্ধি পায়। ইতোমধ্যেই দুটি কার্গো বিমান কেনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে, এটাও ঠিক আমাদের দেখতে হবে কোথা থেকে ভাল পাওয়া যায়, ভাল দামে পাওয়া যায়-সেটাও আমাদের বিবেচনা করতে হবে।'

উদ্বোধনের পর প্রধানমন্ত্রী উড়োজাহাজটিতে আরোহণ করেন ও ককপিটসহ বিভিন্ন অংশ ঘুরে দেখেন এবং পাইলট ও ক্রুদের সঙ্গে কথা বলেন।

অচিরেই ঢাকা-নিউইয়র্ক রুটে বাংলাদেশের বিমান চলবে: প্রধানমন্ত্রী

এ সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল আর মিলার, মন্ত্রিপরিষদ সদস্যবৃন্দ, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাবৃন্দ, সংসদ সদস্যবৃন্দ, তিনবাহিনী প্রধানগণ, পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ এবং আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ২০০৮ সালে মার্কিন বিমান নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িং কোম্পানির ১০টি নতুন বিমান ক্রয়ের জন্য ২ দশমিক ১ বিলিয়ন ইউএস ডলারের একটি চুক্তি করে।

ইতোমধ্যে বহরে যুক্ত হয়েছে ৪টি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ইআর, ২টি ৭৩৭-৮০০ এবং ৩টি বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার। ‘রাজহংস’ নামের চতুর্থ ড্রিমলাইনারটি আগামী মাসে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সঙ্গে যুক্ত হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাই সবক’টি ড্রিমলাইনারের নামকরণ করেছেন।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র