Barta24

মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

বাংলাদেশের রফতানিমুখী খাতে জাপানিদের বিনিয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

বাংলাদেশের রফতানিমুখী খাতে জাপানিদের বিনিয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা / ছবি: সংগৃহীত
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য বাড়াতে রফতানিমুখী খাতগুলোতে বিনিয়োগের জন্য নতুন নতুন ক্ষেত্র অনুসন্ধান করতে জাপানি ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটিতে সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, ‘আমরা আমাদের রফতানি বাণিজ্যে বৈচিত্র দেখতে চাই। এ ক্ষেত্রে জাপানি ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে রফতানি কেন্দ্রিক খাতগুলোতে বিনিয়োগের জন্য নতুন নতুন ক্ষেত্র অনুসন্ধানের আহ্বান জানাই।’

বুধবার (২৯ মে) জাপানের স্থানীয় সময় সকালে টোকিও-তে জাপান-বাংলাদেশ বিজনেস ফোরাম আয়োজিত গোলটেবিল বৈঠকে জাপানের প্রতিষ্ঠানগুলোর শীর্ষ কর্মকর্তাদের তিনি এ আহ্বান জানান।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/29/1559121251492.jpg

প্রধানমন্ত্রী দু‘দেশের মধ্যে ব্যবসা বাণিজ্যিক সম্পর্ককে কাজে লাগিয়ে জনগণের সঙ্গে জনগণের যোগাযোগকে আরও উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

বাংলাদেশকে ব্যয়, মানব সম্পদ, বিশাল অভ্যন্তরীণ বাজার, আন্তর্জাতিক বাজারে প্রবেশ সুবিধা, বাণিজ্য সুবিধা, বিনিয়োগ সুরক্ষা ইত্যাদির বিচারে একটি দ্রুত উদীয়মান আকর্ষণীয় বিনিয়োগ স্থল হিসেবে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে আরও বেশি জাপানি বিনিয়োগ প্রত্যাশা করেন।

গেল বছর জাপান টোবাকো’র বাংলাদেশে ১ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগকে স্বাগত জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, `আমরা জাপানি বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে এ রকম আরও বিনিয়োগ দেখতে চাই।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/29/1559121275028.jpg

বেসরকারি খাতকে বাংলাদেশের অর্থনীতির প্রধান চালিকা শক্তি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি উদ্যোক্তা তৈরিতে এবং বেসরকারি বিনিয়োগে, এটা দেশি বা বিদেশি হতে পারে।’

এশিয়ায় জাপানকে বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান রফতানি গন্তব্য হিসেবে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জাপানের কোম্পানিগুলো এখন বাংলাদেশে ব্যবসার আগ্রহ দেখাচ্ছে। এই কোম্পানিগুলো ব্যবসার পাশাপাশি বিভিন্ন অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পে সম্পৃক্ত রয়েছে।’

এ প্রসঙ্গে সারাদেশে ১০০ বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলার জন্য সরকারের উদ্যোগ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এর মধ্যে আড়াইহাজারে জাপানের বিনিয়োগকারীদের জন্যই একটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘জি টু জি এবং পিপিপি মডেলে অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার জন্য চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরীতে প্রচুর জায়গা নেওয়া হয়েছে।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/29/1559121294558.jpg

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এছাড়া আমরা মহেশখালী- মাতারবাড়ি সমন্বিত অবকাঠামো উন্নয়ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছি, যার মাধ্যমে এটিকে একটি ব্যবস্থাপনা কেন্দ্র, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি কেন্দ্র এবং শিল্পাঞ্চল হিসেবে গড়ে তুলতে পারি। এই উদ্যোগগুলোতে চাইলে জাপান সহযোগিতা করতে পারে।’

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের প্রতিনিধিদের মধ্যে বক্তব্য দেন- অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম, বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক, সামিট গ্রুপের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আজিজ খান, বাণিজ্যিক ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা বিষয়ক জাপান-বাংলাদেশ যৌথ কমিটির (জেবিসিসিইসি) তেরুয়া আসাদা, জাইকার জ্যেষ্ঠ নির্বাহী ভাইস-প্রেসিডেন্ট কাজুহিকো কোশিকাওয়া, জিত্রো প্রেসিডেন্ট ইসুশি আকাহোশি, সুমিতমো করপোরেশনের প্রেসিডেন্ট ও সিইও মাসায়ুকি হাইদো, মিৎসুই অ্যান্ড কো লিমিটেডের নির্বাহী ভাইস প্রেসিডেন্ট শিনসুকি ফুজি, সজিতজ করপোরেশনের সিনিয়র ব্যবস্থাপনা নির্বাহী কর্মকর্তা রায়তারো হিরাই, মিৎসুবিশি মটরসের ভাইস প্রেসিডেন্ট রায়ুজিরো কোবাশি, হোন্ডা মটরসের ব্যববস্থাপনা কর্মকর্তা নোরিয়াকি আবে, মারোহিসা কো লিমিটেডের প্রেসিডেন্ট কিমিনবু হিরাইসি প্রমুখ।

জাপানের ব্যবসায়ীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের দ্রুত এগিয়ে যাওয়ার ভূয়সী প্রশংসা করেন। ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসারে বাংলাদেশ সরকারের নীতির প্রশংসা করেন জাপানের শীর্ষ ব্যবসায়ীরা।

তথ্যসূত্র: বাসস

আপনার মতামত লিখুন :

ঢাবিতে পাল্টাপাল্টি অবস্থানে ছাত্রলীগ-আন্দোলনকারীরা

ঢাবিতে পাল্টাপাল্টি অবস্থানে ছাত্রলীগ-আন্দোলনকারীরা
পাল্টাপাল্টি অবস্থানে ছাত্রলীগ-আন্দোলনকারীরা

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের আন্দোলনে পাল্টাপাল্টি অবস্থানে নিয়েছে ছাত্রলীগ-আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। ছাত্রলীগের দাবি আগস্টের প্রথম সপ্তাহে এ সমস্যার স্থায়ী সমাধান হবে। সে পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত রাখতে হবে। শিক্ষার পরিবেশ বিনষ্ঠ হলে দাঁতভাঙা জবাব দেওয়ার কথা বলেছেন তারা।

অপরদিকে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা প্রজ্ঞাপন না দেওয়া পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ অসহযোগ আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন।

এ অবস্থায় ক্যাস্পাসে বিরাজ করছে উত্তেজনা। যেকোনো মুহূর্তে দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতে পারে।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে সাত কলেজ সংকটের স্থায়ী সমাধান এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ সচল রাখার দাবিতে সমাবেশ ও উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচি পালন করে ছাত্রলীগ নেতারা।

সমাবেশে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, যেখানে ডাকসু আছে, সেখানে শিক্ষার্থীদের দাবি-দাওয়া ডাকসু নেতৃবৃন্দ দেখবেন। আন্দোলনের নামে যারা আমাদের মাতৃসম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ বিঘ্নিত করছে, ক্যাম্পাসকে অস্থিতিশীল করছে, তাদের ভিন্ন কোনো উদ্দেশ্য রয়েছে। ছাত্রলীগ এ ধরনের কোনো চক্রান্ত মেনে নিবে না।

সমাবেশে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, সাত কলেজের নিয়ে যে সংকট সৃষ্টি হয়েছে, তা সমাধান করতে আমরা শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলছি। প্রধানমন্ত্রী ও আমাদের ভিসি স্যার দেশের বাইরে আছেন। তাঁরা দেশে ফিরলে আগামী আগস্টের প্রথম সপ্তাহে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা হবে।

এ দিকে ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেনের উপর হামলার প্রতিক্রিয়ায় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন। আন্দোলনে ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরও সমর্থন দেন।

গাজীপুরে অপহৃত শিশু উদ্ধার, আটক ১

গাজীপুরে অপহৃত শিশু উদ্ধার, আটক ১
র‌্যাবের অভিযানে উদ্ধার অপহৃত রাব্বি

গাজীপুরের সাইন বোর্ড এলাকা থেকে অপহৃত মো. রাব্বি (১১) নামে এক শিশুকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১। এ ঘটনায় মোসা. ছবি আক্তার (২৫) নামে এক অপহরণকারীকে আটক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) র‌্যাব-১ এর স্পেশালাইজড কোম্পানির কমান্ডার লে. কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন অপহৃত শিশু মো. রাব্বির উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, গত সোমবার (২২ জুলাই) সকাল ৯টায় চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী রাব্বিকে গাজীপুরের সাইন বোর্ড এলাকা থেকে অপহরণ করা হয়। অপহরণের পর তার পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখুঁজি করে তাকে না পেয়ে গাজীপুরের র‌্যাব ক্যাম্পে একটি লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে র্যা বের একটি দল বিষয়টি নিয়ে তদন্তে নামে।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/23/1563887866011.jpg
তিনি বলেন, এক পর্যায়ে র‌্যাবের দলটির কাছে গোপন সংবাদ আসে যে, গাজীপুরের পোড়াবাড়ী বাজার সংলগ্ন এলাকায় অপহরণকারীরা ভিকটিমসহ মুক্তিপণের টাকা নেওয়ার জন্য অবস্থান নিয়েছে। এ সংবাদের ওপর ভিত্তি করে র‌্যাবের দলটি ঘটনাস্থলে গেলে অপহরণকারীরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন।

এ সময় অপহরণকারীরা মাইক্রোবাসে করে ময়মনসিংহের দিকে পলায়নের উদ্দেশ্যে রওনা হলে র‌্যাবও তাদের পিছু নেয়। এক পর্যায়ে ভিকটিমকে পোড়াবাড়ী এলাকায় ফেলে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে র‌্যাব সদস্যরা ভিকটিম রাব্বিকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় মোসা. ছবি আক্তার (২৫) নামে এক অপহরণকারীকে আটক করা হয়েছে এবং বাকি অপহরণকারীদের আটকের চেষ্টা হচ্ছে বলে জানান।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র