Alexa

এবার বাজেট ৫ লাখ কোটি টাকার উপরে: প্রধানমন্ত্রী

এবার বাজেট ৫ লাখ কোটি টাকার উপরে: প্রধানমন্ত্রী

গণভবনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের সাথে ইফতার অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা/ ছবি: সংগৃহীত

সমগ্র দেশব্যাপী উন্নয়ন করার জন্যই বছর বছর বাজেট বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘এবারের বাজেট হবে পাঁচ লাখ কোটি টাকার উপরে। আগামী ১৩ জুন জাতীয় সংসদে এই বাজেট প্রস্তাব তুলে ধরা হবে।’

শনিবার (২৫ মে) বিকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে ইফতারের আগে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে আসন্ন অর্থবছরে বাজেট সর্ম্পকে বলতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দের সন্মানে এই ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

ইফতার মাহফিলে যারা যোগ দিয়েছেন তাদের সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যেসব দলের সঙ্গে নির্বাচনের আগে সংলাপ করেছিলাম, তাদের সকলকে দাওয়াত দিয়েছি ইফতারে। অনেকের প্রতিনিধিরা এখানে এসেছেন। সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আপনারা এসে এই গণভবনের এই মাটি ধন্য করেছেন।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘১৯৯৬ সালে বাংলাদেশের বাজেট ছিল মাত্র ৬১ হাজার কোটি টাকা। কিন্তু এবার যে নতুন বাজেট দিতে যচ্ছি, পাঁচ লাখ কোটি টাকার উপরে আমাদের এই বাজেট হবে, দুই লাখ কোটি টাকার উপর হবে উন্নয়ন বাজেট।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/25/1558796706418.jpg

জাতির পিতার লক্ষ্য পূরণে কাজ করার কথা জানিয়ে শেখ হাসিনা লেন, ‘এই বাংলাদেশে এক সময় অনেকেই খাবার যোগাড় করতে পারতো না। মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণ, মানুষ যেন সুন্দরমতো বাঁচতে পারে, মানুষের জীবন যেন অর্থবহ হয়, সেদিকে লক্ষ্য রেখেই জাতির পিতা এদেশের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। এদেশের একটি মানুষও গৃহহারা থাকবে না, কেউ বিনা চিকিৎসায় মারা যাবে না। প্রত্যেকটা মানুষ তার মৌলিক অধিকার পাবে।’

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘ক্ষমতা আমার কাছে ভোগের বস্তু নয়, মানুষের সেবা করার সুযোগ। আমাদের লক্ষ্য স্বাধীনতার সুফল প্রতিটি মানুষের ঘরে ঘরে যাবে পৌঁছে দেওয়া। এই বাংলাদেশে হতদরিদ্র বলে কেউ থাকবে না।’

তিনি এ সময় সকলের কাছে দোয়া চেয়ে বলেন, ‘বাংলাদেশ যেন সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ, মাদক-দুর্নীতিমুক্ত একটি দেশ হিসেবে গড়ে উঠতে পারে, সেজন্য আপনারা সবাই দোয়া করবেন।‘

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে আয়োজিত আজকের ইফতারে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতারা উপস্থিতি ছিলেন। তবে এই ইফতার অনুষ্ঠানে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের নেতারা উপস্থিত ছিলেন না।

আপনার মতামত লিখুন :