Barta24

বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬

English Version

শান্তি-উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে কাজ করে যেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

শান্তি-উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে কাজ করে যেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
গণভবনে পেশাজীবীদের সম্মানে আয়োজিত ইফতার মাহফিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ছবি: সংগৃহীত
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
ঢাকা


  • Font increase
  • Font Decrease

আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, 'দেশের শান্তি ও উন্নয়নের ধারা যেন অব্যাহত থাকে সেজন্য সকল শ্রেণি পেশার মানুষকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করে যেতে হবে।'

মঙ্গলবার (২১ মে) বিকেলে গণভবনে পেশাজীবীদের সম্মানে আয়োজিত ইফতার মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।

এদিকে প্রতিবছর ইফতারে প্রধানমন্ত্রী ঘুরে ঘুরে আমন্ত্রিত অতিথিদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করলেও এবার সেটি না করতে না পারায় দুঃখ প্রকাশ করেন সরকারপ্রধান।

শেখ হাসিনা বলেন, 'সাধারণত আমি প্রতিবার ঘুরে ঘুরে সকলকে সাক্ষাৎ দেই। কিন্তু এবার পারলাম না। এখন বয়স হয়েছে, বৃদ্ধ হয়েছি, চোখেও ছানি পড়েছে। এই ১৫/১৬ দিন আগে চোখের ছানির অপারেশন করেছি। ডাক্তারদের বিধি নিষেধ আছে। সবার কাছে তাই দুঃখ প্রকাশ করছি।'

শান্তি-উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে কাজ করে যেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রচণ্ড গরমের মধ্যে গণভবনে আসার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

দেশের উন্নয়নে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদানের কথা স্মরণ করে শেখ হাসিনা বলেন, 'জাতির পিতা সাড়ে তিন বছরে অসাধ্য সাধন করেছিলেন। কিন্তু আমাদের দুর্ভাগ্য স্বাধীনতার মাত্র সাড়ে তিন বছরের মধ্যে জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। সেদিন আমরা আমাদের ভাই বোন হারিয়েছিলাম। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ তাদের উন্নয়নের সম্ভাবনা হারিয়েছিল।'

এ সময় দেশের হারিয়ে যাওয়া সম্মান ও গৌরব ফিরিয়ে আনতে ক্ষমতাসীন সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

পেশাজীবী ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘মাহে রমজান মাসে কোনো দোয়া করলে সেই দোয়া কবুল হয়। আমরা আপনাদের এইটুকু বলব, বাংলাদেশে সবসময় শান্তি- শৃঙ্খলা বজায় থাকে, বাংলাদেশের যে উন্নয়নের ধারা সূচিত হয়েছে তা যেন আমরা অব্যাহত রাখতে পারি। বাংলাদেশের একেবারে গ্রামের মানুষও যেন সুন্দর ও উন্নত-সুস্থ জীবন পায়, সেটিই কামনা করি। সে প্রচেষ্টা আমরা করে যাচ্ছি।’

শান্তি-উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে কাজ করে যেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশের মানুষের সেবা করার সুযোগ পেয়েছি। সেই আস্থা বিশ্বাস রয়েছে। সাধারণ মানুষ আমাদের ওপর যে, আস্থা বিশ্বাস রেখেছে সেটা যেন সবসময় অব্যাহত থাকে। একই সঙ্গে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে জারি পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে পারি।’

জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস, দুর্নীতি আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থা পুলিশ, র‌্যাব এদেশের মানুষের নিরাপত্তা দেয়ার জন্য দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তারা সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে আজ আমরা জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ দমন করতে সফল হয়েছি। আমাদের এই প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।’

শান্তি-উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে কাজ করে যেতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

শেখ হাসিনা বলেন, ‘শান্তি ছাড়া উন্নতি সম্ভব নয়। এখন দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশ একটি উন্নত সমৃদ্ধ ও শান্তিপ্রিয় দেশ হিসেবে গড়ে উঠুক সেটিই আমাদের লক্ষ্য। এ জন্য সব চেষ্টা আমি চালিয়ে যাচ্ছি। যেন বাংলাদেশে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় থেকে উন্নয়নের ধারাটা অব্যাহত থাকে।’

তিনি আরও বলেন, ‘দোয়া করবেন যেন উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ হিসেবে দেশকে গড়ে তুলতে পারি। এরইমধ্যে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। দেশের মানুষ সেবা করার সুযোগ দিয়েছে বলেই এই অপ্রতিরোধ্য অগ্রগতি যেন অব্যাহত থাকে, সেই কামনা করি।’

ইফতার মাহফিলে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল আলম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান, অ্যাটর্নী জেনারেল মাহবুবে আলম, এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিমসহ আরও অনেকে।

আপনার মতামত লিখুন :

যে কারণে খুন হলেন রিফাত

যে কারণে খুন হলেন রিফাত
বাঁয়ে রিফাত শরীফ, ডানে ঘাতক নয়ন, ছবি: সংগৃহীত

বরগুনায় দিনদুপুরে স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কুপিয়ে হত্যার বিষয়টি বুধবার (২৬ জুন) দেশব্যাপী আলোচিত ঘটনায় পরিণত হয়েছে।

এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ভাইরাল হয়েছে নৃশংস এই হত্যাকাণ্ডের ভিডিও চিত্র। ভিডিওতে দেখা যায় যায়, সাব্বির আহমেদ নয়ন ওরফে নয়ন বন্ড ও রিফাত ফরাজি নামে দুই যুবক ধারালো দা দিয়ে শাহ নেওয়াজ রিফাত শরীফ (২৫) নামে এক যুবককে এলোপাতাড়ি কোপাচ্ছেন। আর রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি স্বামীকে বাঁচানোর আপ্রাণ চেষ্টা করছেন। বার বার চেষ্টা করেও সন্ত্রাসীদের ঠেকাতে পারেননি মিন্নি।

আরও পড়ুন: ঘাতক নয়নকে আটকাতে বরগুনার মোড়ে মোড়ে চেকপোস্ট

নিহত রিফাত বরগুনার সদর উপজেলার ৬ নম্বর বুড়িরচর ইউনিয়নের দুলাল শরীফের ছেলে।

নিহতের স্বজনরা জানান, দুই মাস আগে রিফাত শরীফের সঙ্গে মিন্নির বিয়ে হয়। পরে মিন্নিকে নিজের স্ত্রী বলে দাবি করেন বরগুনা পৌরসভার ধানসিঁড়ি এলাকার আবুবকর সিদ্দিকের ছেলে নয়ন। এ নিয়ে রিফাত ও নয়নের মধ্যে একাধিকবার ঝগড়া হয়। পরে মিন্নির ফেসবুক আইডি হ্যাক করে বেশ কিছু ছবি দিয়ে অপত্তিকর পোস্ট দেন নয়ন। এনিয়ে রিফাতের সঙ্গে তুমুল ঝগড়া হয় নয়নের। বুধবার দুপুরে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে মিন্নি ও রিফাতকে পেয়ে নয়ন ও তার সহযোগীরা প্রকাশ্যে কুপিয়ে ফেলে রেখে চলে যায়। এরপর স্থানীয়রা রিফাতকে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় রিফাত।

আরও পড়ুন: আপ্রাণ চেষ্টা করেও স্বামীকে বাঁচাতে পারলেন না স্ত্রী

এ বিষয়ে বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবির মোহাম্মাদ হোসেন জানান, নয়ন ও তার সহযোগীদের ধরতে সদর থানা পুলিশ, গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) পুলিশ এবং জেলা পুলিশের সদস্যরা মাঠে রয়েছে।

ঘাতক নয়নকে আটকাতে বরগুনার মোড়ে মোড়ে চেকপোস্ট

ঘাতক নয়নকে আটকাতে বরগুনার মোড়ে মোড়ে চেকপোস্ট
স্ত্রীর সামনে কুপিয়ে হত্যা করা হয় শরীফকে, ছবি: বার্তা২৪.কম

বরগুনায় স্ত্রীর সামনে স্বামী শাহ নেওয়াজ রিফাত শরীফকে (২৫) কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় পর থেকে ঘাতক নয়ন ও তার সহযোগীদের হন্যে হয়ে খুঁজছে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশের সদস্যরা।

পুলিশ বলছে, নয়ন যেন বরগুনা জেলার সীমানা থেকে বের হয়ে যেতে না পারে, সেজন্য রাস্তার মোড়ে মোড়ে পুলিশি চেকপোস্ট বসানো হয়েছে।

বুধবার (২৬ জুন) দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে বার্তা২৪.কমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন বরগুনা জেলার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন।

আরও পড়ুন: আপ্রাণ চেষ্টা করেও স্বামীকে বাঁচাতে পারলেন না স্ত্রী

এদিকে বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবির মোহাম্মদ হোসেন বার্তা২৪.কমকে জানান,দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে হত্যাকারীদের আটক করতে অভিযানে নেমেছে সদর থানা পুলিশ। পাশাপাশি জেলা পুলিশ ও গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) পুলিশ সদস্যরাও অভিযান চালাচ্ছে।  তবে মধ্যরাত পর্যন্ত কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

এর আগে, বুধবার (২৬ জুন) সকালে রিফাত শরীফ তার স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে নিয়ে বরগুনা সরকারি কলেজে যান। কলেজ থেকে ফেরার পথে নয়ন, রিফাত ফরাজীসহ চার যুবক রিফাত শরীফের ওপর হামলা চালান। এ সময় তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে রিফাত শরীফকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন। এতে বাধা দেওয়ার আপ্রাণ চেষ্টা করেন রিফাত শরীফের স্ত্রী আয়েশা। কিন্তু কিছুতেই হামলাকারীদের থামাতে পারেননি তিনি। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় রিফাত শরীফকে প্রথমে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে ভর্তির এক ঘণ্টা পর বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র