Alexa

প্রধানমন্ত্রীর ইফতারে গণভবনে পেশাজীবীদের মিলনমেলা

প্রধানমন্ত্রীর ইফতারে গণভবনে পেশাজীবীদের মিলনমেলা

গণভবনে ইফতারে পেশাজীবীরা/ ছবি: বার্তা২৪.কম

শিক্ষক, প্রকৌশলী, চিকিৎসক, কৃষিবিদ, আইনজীবী, ব্যবসায়ী, কবি, সাহিত্যিক, বিশিষ্ট নাগরিক, সাংবাদিক, ক্রীড়া ও বিবিধ শ্রেণি-পেশার মানুষের পদচারণায় মঙ্গলবার (২১ মে) বিকাল থেকেই মুখর হয়ে উঠে গণভবন প্রাঙ্গণ।

এদিন পেশাজীবীদের সম্মানে আয়োজিত ইফতারে অংশ নিতে তারা গণভবনে আসেন। বিকাল ৪টা থেকে অতিথিরা গণভবনে প্রবেশ করতে থাকেন। গণভবনের সবুজ লনে বিশাল প্যান্ডেলে অতিথিদের বসার ব্যবস্থা করা হয়।

ইফতার শুরু হওয়ার আগেই একে একে অতিথিরা প্যন্ডেলে আসন গ্রহণ করেন। একে অন্যের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। কেউ কেউ ব্যস্ত থাকেন মোবাইল ফোন সেটে সেলফি তুলতে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/21/1558445597859.jpg

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মকর্তা ও প্রেস উইংয়ের সদস্যরা আগত অতিথিদের অভ্যর্থনা জানান।

সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইফতার ভেন্যুতে আসেন সন্ধ্যা ৬টা ২৪ মিনিটে।

মঞ্চে আসন গ্রহণ করে আমন্ত্রিত অতিথিদের পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রচণ্ড গরমের মধ্যে গণভবনে আসার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, সাধারণত আমি প্রতি বার ঘুরে ঘুরে সকলকে সাক্ষাৎ দিই। কিন্তু এবার পারলাম না। এখন বয়স হয়েছে, বৃদ্ধ হয়েছি, চোখেও ছানি পড়েছে। এই ১৫ থেকে ১৬ দিন আগে চোখে ছানির অপরারেশন করেছি। ডাক্তারদের বিধি-নিষেধ আছে। সবার কাছে তাই দুঃখ প্রকাশ করছি।'

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/21/1558446593755.jpg
ইফতারে পেশাজীবীদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা/ ছবি: বার্তা২৪.কম

শান্তি ও উন্নয়নের ধারা যেন অব্যহত থাকে সেজন্য সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘জাতির পিতা সাড়ে তিন বছরে অসাধ্য সাধন করেছিলেন। কিন্তু আমাদের দুর্ভাগ্য স্বাধীনতার মাত্র সাড়ে তিন বছরের মধ্যে জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। সেদিন আমরা আমাদের ভাই বোন হারিয়েছিলাম। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ তাদের উন্নয়নের সম্ভাবনা হারিয়েছিল।’

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য শেষে দেশে ইফতারের আগে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :